মা-বাবার বিচ্ছেদের রহস্য ফাঁস সারার
মা-বাবার বিচ্ছেদের রহস্য ফাঁস সারার

মা-বাবার বিচ্ছেদের রহস্য ফাঁস সারার

অনলাইন ডেস্ক

বলিউডের জনপ্রিয় তারকা সাইফ আলী খান।   ১৯৯১ সালে মাত্র ২০ বছরে বয়সে বিয়ে করেছিলেন ১২ বছরের বড় অভিনেত্রী অমৃতা সিংকে। তাদের সংসারে ১৯৯৫ সালে জন্ম হয় মেয়ে সারা আলি খানের। আর ২০০১ সালে জন্ম হয় ছেলে ইব্রাহিম আলী খানের।

২ সন্তানের জন্ম দিয়ে বৈবাহিক সম্পর্কের দাড়ি টানেন সাইফ-অমৃতা। অবশেষে ২০০৪ সালে বিচ্ছেদের পথ বেছে নেন তারা। এরপর কেটে গেছে দীর্ঘ ১৭ বছর।

মা-বাবার বিচ্ছেদের ১৭ বছর পর প্রথমবারের মতো এ বিষয়ে মুখ খুললেন মেয়ে সারা আলী খান।

জানান, কী কারণে ২ সন্তান থাকার পরও বিচ্ছেদের মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সাইফ-অমৃতা।  

সারা বলেছেন, তাদের সম্পর্কে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিয়েছিল, তারা সুখী ছিলেন না। তাই বিবাহ বিচ্ছেদটাই সেরা সিদ্ধান্ত ছিল।

সম্প্রতি ভুট-এর ‘অরিজিন্যাল ফিট আপ উইথ দ্য স্টার্স’-এর ৩ নাম্বার সিজনে এ মন্তব্য করেন সারা।

সারা আরও বলেন, “আসলে আমাদের হাতে দু’টো অপশন থাকে। এক হল, অসুখী হয়েও একই সঙ্গে চুপচাপ থাকা। আর দুই হল, সম্পর্ক তিক্ত হয়ে গেলে অন্য বাড়িতে দু’জনে আলাদা থেকে সুখী থাকা । তা হলে একে অপরের প্রতি সম্মান বজায় থাকে। বাবা-মা সম্পর্কে সুখী ছিলেন না। তাই বিবাহবিচ্ছেদটাই সেরা সিদ্ধান্ত ছিল। ”

আরও পড়ুন


টি-স্পোর্টসে আজকের খেলা

তালেবানদের সহিংসতায় আফগান সরকারের গণমাধ্যম বিভাগের প্রধান নিহত

আজ থেকে গণটিকা শুরু

বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৪২ লাখ ৮৯ হাজার ছাড়িয়েছে

প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালে সাইফ আলী খান ও অমৃতা সিংয়ের বিবাহ বিচ্ছেদের পর দীর্ঘ সময় একা ছিলেন সাইফ। সিঙ্গেল মাদার হিসেবে ছোট দুই সন্তানের দায়িত্ব নিয়েছিলেন অমৃতা সিং। এরপর ২০১২ সালে বিয়ে করেন নিজের চেয়ে ১০ বছরের ছোট কারিনা কাপুরকে।   

news24bd.tv রিমু