যশোরের ৩৫ শতাংশ মানুষের শরীরে প্রাকৃতিকভাবে করোনার অ্যান্টিবডি
যশোরের ৩৫ শতাংশ মানুষের শরীরে প্রাকৃতিকভাবে করোনার অ্যান্টিবডি

যশোরের ৩৫ শতাংশ মানুষের শরীরে প্রাকৃতিকভাবে করোনার অ্যান্টিবডি

Other

যশোরের ৩৫ শতাংশ মানুষের শরীরে প্রাকৃতিকভাবে তৈরি করোনার অ্যান্টিবডি পাওয়া গেছে। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জিনোম সেন্টারের গবেষক দল গবেষণা করে  এই তথ্য প্রকাশ করে।   মানুষের শরীর থেকে রক্তের নমুনা নিয়ে র‌্যাপিড অ্যান্টিবডি পরীক্ষা পদ্ধতিতে এই গবেষণা চালানো হয়। করোনার ডেলটা ধরনের ঊর্ধ্বগতির ফলে মানুষের শরীরে করোনা রোধের প্রকৃত হার জানতেই এ ধরনের গবেষণার উদ্যোগ নেয় বিশ্ববিদ্যালয়টি।

 

যশোরের তিনটি উপজেলার ৬টি অঞ্চলের প্রায় ৪০০ মানুষের ওপর পরিচালিত এক গবেষণায় প্রায় ৩৫ শতাংশ মানুষের শরীরে করোনার প্রাকৃতিকভাবে তৈরি ‘অ্যান্টিবডি’ পাওয়া গেছে। এর অর্থ হলো, ৩৫ শতাংশ মানুষ কোনো না কোনোভাবে করোনাভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত বা এ ভাইরাসের সংস্পর্শে এসেছিলেন।

 সংশ্লিস্টরা জানান, গ্রামের তুলনায় শহরে  অ্যান্টিবডি তৈরির হার কম। এ গবেষণায় টিকা গ্রহণকারীদের বাদ  দেওয়া হয়েছে। তবে করোনা থেকে বাঁচতে বা 'হার্ড-ইমিউনিটি' তৈরির জন্য মানুষের শরীরে কমপক্ষে ৬০ থেকে ৭০ শতাংশ অ্যান্টিবডি থাকা আবশ্যক।

সারাদেশেই ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। এক্ষেত্রে কি পরিমাণ 'অ্যান্টিবডি' তৈরি হয়েছে তার জন্য গবেষণা প্রযোজন বলে মনে করেন এই গবেষক।

তবে  অধিক জনসংখ্যা, মানুষের মাস্ক ব্যবহারের উদাসীনতাসহ স্বাস্থ্যবিধি না মানার জন্য করোনায় আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে বলে মনে করেন গবেষকরা।


আরও পড়ুন

আবারও পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা

সেপ্টেম্বরে ‘খুলছে’ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

পরীমনির বিরুদ্ধে মামলা করবে নাসিরের পরিবার 

আবারও আসতে পারে ‘কঠোর লকডাউন’: ওবায়দুল কাদের


news24bd.tv/এমি-জান্নাত