লেবাননে তীব্র জ্বালানি সংকট, সহিংসতায় নিহত ৩
লেবাননে তীব্র জ্বালানি সংকট, সহিংসতায় নিহত ৩

লেবাননে তীব্র জ্বালানি সংকট, সহিংসতায় নিহত ৩

অনলাইন ডেস্ক

প্রায় দুই বছর আগ থেকে আর্থিক সংকটের মুখে লেবাননে তীব্র জ্বালানি সংকট দেখা দিয়েছে। পরিস্থিতি দিন দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে। এরই মধ্যে এক সহিংসতায় গতকাল সোমবার ৩ জন  মারা গেছেন।  

লেবানন সংবাদমাধ্যমের এক খবরে বলা হয়েছে, সহিংসতায় ছুরি, বন্দুক ও একটি হ্যান্ড গ্র্যানেড ব্যবহার করা হয়।

মোটরগাড়ির মালিকরা পেট্রল পাম্পে দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়েও জ্বালানি না পেয়ে সহিংসতায় জড়িয়ে পড়ে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আপাতদৃষ্টিতে এই ঘটনা তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া মনে হলেও আসলে এটি দীর্ঘদিন ধরে জমে ওঠা হতাশার বহিঃপ্রকাশ।  

লেবাননের মুদ্রার দর পড়ে গিয়ে চোরাবাজারে ১ ডলারের বিপরীতে ২০ হাজার লেবানিজ পাউন্ডে দাঁড়িয়েছে। সরকারি হিসেবে মুদ্রার বিনিময় হার ডলারে এক হাজার ৫০০ লেবানিজ পাউন্ড। গত বছর জ্বালানির দাম শতকরা ২২০ ভাগ বেড়েছে। এতে মানুষের মধ্যে আতংক সৃষ্টি হয়। সেই সঙ্গে ফুলেফেঁপে উঠে চোরাইবাজার।

মূলত, চোরাচালান, ক্ষমতাবানদের অতিরিক্ত জ্বালানি মজুদকরণ এবং বিদেশ থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণ জ্বালানি আমদানিতে সরকারের ব্যর্থতা-এই ৩টি বিষয়কে জ্বালানি সংকটের জন্য দায়ী করা হচ্ছে।  

লেবাননের জাতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, এক জায়গায় সামান্য জ্বালানি কেনাবেচা নিয়ে ঝগড়া একসময় বন্দুকযুদ্ধে গড়ায়। এতে ২ জন নিহত হন। ঘটনার পূর্ণ বিবরণ এখনও পাওয়া যায়নি। তবে জানা গেছে, বন্দুকযুদ্ধের একপর্যায়ে একটি হ্যান্ড গ্র্যানেডও ছোড়া হয়।

আরও পড়ুন


কাল থেকে গণপরিবহন চালু, আসন সংখ্যার অতিরিক্ত যাত্রী নেওয়া যাবে না

করোনার পরে চুল ঝরে যাচ্ছে? সমাধান জেনে নিন

কক্সবাজারে রিকশাচালককে নির্যাতন, গ্রেপ্তার অভিযুক্ত যাত্রী

টি-স্পোর্টসে আজকের খেলা

এই ঘটনার পর স্থানীয় হাসপাতালে মৃতদেহ দুটি নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কড়া পাহারা মোতায়েন করে। মৃতদের জানাজার সময়ও গোলাগুলি হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।
 
অন্যদিকে উত্তর দিনিয়াহ অঞ্চলে এক গ্রামের পেট্রল পাম্পে সহিংসতায় মারা গেছেন একজন। হাতাহাতি সংঘর্ষের একপর্যায়ে তিনি গুলিবিদ্ধ হন। তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানেই মৃত্যুবরণ করেন ওই ব্যক্তি।  

news24bd.tv রিমু