বাঙালির ভাগ্যের উন্নয়নই ছিল বঙ্গবন্ধুর রাজনীতির মূল লক্ষ্য: আমু

বাঙালির ভাগ্যের উন্নয়নই ছিল বঙ্গবন্ধুর রাজনীতির মূল লক্ষ্য: আমু

Other

শোষিত নিপীড়িত বাঙালীর ভাগ্যের উন্নয়নই ছিল বঙ্গবন্ধুর রাজনীতির মূল লক্ষ্য। আর তাই জাতির পিতার ডাকে মুক্তি যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়তে এতটুকু কার্পণ্য করেনি মুক্তিপাগল সাড়ে সাত কোটি বাঙালী। সুগভির রাজনৈতিক প্রজ্ঞা আর বাংলার মানুষের প্রতি অকৃত্রিম ভালোবাসাই বঙ্গবন্ধুকে বসিয়েছিল এদেশের মানুষের হৃদয়ের মনিকোঠায়। স্মৃতিচারণে এমনটিই জানালেন বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সহচর এবং আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা আমির হোসেন আমু।

 

ভারত বিভাগের পরপরই এ অঞ্চলের ওপর পশ্চিম পাকিস্তানীদের চালানো শোষণ আর নীপিড়নের দেখে তরুণ নেতা শেখ মুজিবর রহমান বুঝে নেন বৃটিশের কাছ থেকে পাওয়া স্বাধীনতা বাঙালীর জন্য নয়। তাই এই শুধুমাত্র শোষণ মুক্তির জন্যই নয়, নিজের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডকে তিনি পরিচালণা করেছিলেন এই ভূখন্ডের স্বাধীনতা অর্জণের পথকে সুগম করতে।   

৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ৬৬ তে মুক্তির সনদ ৬ দফা প্রণয়ন, ৬৯ এর গণ অভ্যুথ্যান এ সকল আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়ার মধ্য দিয়েই তিনি ক্ষেত্র রচনা করেন বাংলাদেশের স্বাধীনতার।

৭১'এ পাকিস্তানী শাষন আর শোষণ থেুক মুক্ত হওয়ার পর দেশের মানুষের রাজনৈতিক অধিকার নিশ্চিত করতে বিশ্বের ইতিহাসের দ্রুততম সময়ের মধ্যে বঙ্গবন্ধু প্রণয়ন করেন বাংলাদেশের সংবিধান।  

আরও পড়ুন


কাল থেকে গণপরিবহন চালু, আসন সংখ্যার অতিরিক্ত যাত্রী নেওয়া যাবে না

ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক রক্ষা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ: হুথি নেতা

কক্সবাজারে রিকশাচালককে নির্যাতন, গ্রেপ্তার অভিযুক্ত যাত্রী

লেবাননে তীব্র জ্বালানি সংকট, সহিংসতায় নিহত ৩

শুরু হয় অর্থনৈতিক মুক্তির সংগ্রাম। নেতৃত্বে স্বয়ং জাতির জনক।

ঘাতকরা স্বাধীনতার মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায় পরিবারের প্রায় সকল সদস্য সহ জাতির পিতাকে হত্যা করলেও, তার আদর্শকে হত্যা করতে পারেনি। আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা আমির হোসেন আমু মনে করেন বঙ্গবন্ধু কণ্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বঞ্চিত মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠান সংগ্রাম এখনও চলমান।  

news24bd.tv রিমু