অসহায় কুলিদের ত্রাণ সহায়তা দিল বসুন্ধরা গ্রুপ
অসহায় কুলিদের ত্রাণ সহায়তা দিল বসুন্ধরা গ্রুপ

অসহায় কুলিদের ত্রাণ সহায়তা দিল বসুন্ধরা গ্রুপ

Other

কুলির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন ফারুক হোসেন (৪৫)। কিন্তু কয়েক ধাপে লকডাউনের কারণে তেমন কোনো কাজ পাচ্ছেন না। একদিন কাজ করলে তিনদিন বসে থাকতে হয়। পারিশ্রমিকও আগের মতো নেই।

তবে গতকাল ফারুক হোসেনের মুখে হাসি ছিল। কারণ, বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তায় তিনি পেয়েছেন ত্রাণ।

ত্রাণ পাবার পর আপ্লুত হয়ে ফারুক হোসেন বলেন, ‘এহন খুব কষ্টে আছি। কোনো সাহায্যও পাই নাই। আজকে আফনেরা চাল-ডাল-আটা দিলেন। আমগোর অনেক ভালা হইছে। আল্লাহ’র কাছে হাজার শুকুর। বসুন্ধরা
গ্রুপের মালিককে খোদা আরও ভালো রাহুক। হেরে আরো দেওক। গরীবদের দেওয়ার মতো আরো সামর্থ্য জানি আল্লাহ দেয়। ’

শুধু ফারুক হোসেনই নয়, এমন চারশত অসহায় কুলিদের ত্রাণ সহায়তা দিয়েছে বসুন্ধরা গ্রুপ। মঙ্গলবার দুপুরে ময়মনসিংহ নগরীর ছোটবাজার এলাকায় বিতরণ করা এসব ত্রাণের মধ্যে ছিল- চাল,ডাল, তেল, আটা ও মসলা।

বসুন্ধরা মাল্টি ফুড এন্ড বেভারেজ এর পক্ষ থেকে এসব ত্রাণ সামগ্রী দেন এরিয়া ম্যানেজার অরুণ কুমার। এসময় ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন মেছুয়া বাজার ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শ্রী সুভাষ চন্দ্র সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হোসেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মজিবুর রহমান, স্বদেশ চন্দ্র পাল, ময়মনসিংহ জেলা কুলি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মাজাহারুল ইসলামসহ প্রমুখ।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম শেষে ময়মনসিংহ জেলা কুলি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মাজাহারুল ইসলাম বলেন, ‘খেটে খাওয়া মানুষ আমরা। এই মহামারীতে আমরা কুলি শ্রমিক যারা আছি ত্রাণ সহায়তা এবং সহযোগিতা সেভাবে পাইনি। এমন অবস্থায় বসুন্ধরা গ্রুপ আমাদের ত্রাণ দিয়ে সহযোগিতা করেছে। এজন্য বসুন্ধরা গ্রুপকে ধন্যবাদ এবং কুলি শ্রমিকদের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা। ’

আরও পড়ুন:


মুহিতের করোনা নেগেটিভ, তবে শারীরিক দুর্বলতা আছে

ফের দুই দিনের রিমান্ডে মডেল মৌ

রাঙামাটি পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদন বৃদ্ধি


news24bd.tv তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর