যুক্তরাষ্ট্রের কারণে দক্ষিণ চীন সাগরে শান্তি হুমকির মুখে
যুক্তরাষ্ট্রের কারণে দক্ষিণ চীন সাগরে শান্তি হুমকির মুখে

যুক্তরাষ্ট্রের কারণে দক্ষিণ চীন সাগরে শান্তি হুমকির মুখে

অনলাইন ডেস্ক

সমুদ্রে জাহাজ চলাচল ইস্যুতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে গত সোমবার একটি বৈঠক হয়েছে। বৈঠকের এক পর্যায়ে চীন এবং যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বাকবিতণ্ডার ক্ষেত্রে পরিণত হয়।

বৈঠকে দক্ষিণ চীন সাগরে বলদর্পী কৌশল অনুসরণের জন্য চীনকে অভিযুক্ত করেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন। জবাবে জাতিসংঘে নিযুক্ত চীনের উপ রাষ্ট্রদূত দাই বিঙ বলেন, মার্কিন তৎপরতার কারণে দক্ষিণ চীন সাগরের শান্তি হুমকির মুখে পড়েছে।

গতকালের ভার্চুয়াল বৈঠকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দক্ষিণ চীন সাগরে সংঘাত আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা ও বাণিজ্যের ওপর মারাত্মক রকমের নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। তিনি বলেন, চীনের বলদর্পি তৎপরতার কারণে আমেরিকা বিশেষভাবে উদ্বিগ্ন। দক্ষিণ চীন সাগরের সম্পদ আহরণের ক্ষেত্রে পার্শ্ববর্তী দেশগুলোকে চীন ভীত-সন্ত্রস্ত করে তুলেছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে চীনা উপ-রাষ্ট্রদূত বলেন, দক্ষিণ চীন সাগর নিয়ে এই ধরনের দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য করার কোনো অধিকার আমেরিকার নেই। তিনি চীন সাগরের পরিস্থিতিকে স্বাভাবিক এবং স্থিতিশীল বলে উল্লেখ করেন। তিনি জোর দিয়ে বলেন, চীন সাগর সংলগ্ন সব দেশই আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে জাহাজ চলাচলের স্বাধীনতা উপভোগ করছে।

আরও পড়ুন


স্বর্ণের বার আত্মসাতে ডিবির ওসিসহ ৬ পুলিশ গ্রেফতার

সকাল থেকেই চলছে সবকিছু

বিধিনিষেধ শিথিল হলেও যা বন্ধ থাকছে

রাজশাহী মেডিকেলের করোনা ইউনিটে আরও ১০ জনের মৃত্যু


চীনা কূটনীতিক আরো বলেন আমেরিকা দক্ষিণ চীন সাগরে তাদের যুদ্ধজাহাজ এবং জঙ্গিবিমান পাঠিয়ে সেখানকার পরিস্থিতি উত্তপ্ত করে তুলেছে। কুট-কৌশলের মাধ্যমে তারা আঞ্চলিক দেশগুলোর মধ্যে যুদ্ধ বাধাতে চায়।

দাই বিঙ আরো বলেন, সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে আমেরিকা নিরাপত্তা পরিষদে এ বিষয়টি ফুলিয়ে ফাপিয়ে তুলে ধরেছে অথচ নিরাপত্তা পরিষদ এ বিষয়ে আলোচনার সঠিক জায়গা নয়। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv এসএম