প্রেমিকের গোপনাঙ্গ কর্তন প্রেমিকার
প্রেমিকের গোপনাঙ্গ কর্তন প্রেমিকার

প্রেমিকের গোপনাঙ্গ কর্তন প্রেমিকার

অনলাইন ডেস্ক

মাহাবুব আলীর সাথে  সাবিনা খাতুনের বিয়ে হয় ১৫ বছর আগে। কিন্তু দুই বছর আগে জীবিকার তাগিদে গত ২ বছর আগে সৌদিতে যান মাহবুব আলী। এরপর থেকেই এলাকার এক যুবকের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন সাবিনা। বিষয়টি জানা-জানি হলে স্বামী মাহবুবের সাথে সাবিনার উত্তপ্ত বাকবিতন্ডা হয়।

এতে প্রায় ৮ মাস আগে সাবিনা তার স্বামীকে তালাক দেয়।  

এরপর পরকিয়ার টানে গত সোমবার সারাদিন সাবিনা তার প্রেমিককে নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরা-ঘুরি শেষে সন্ধায় প্রেমিকের এক দুর সম্পর্কের আত্মীয়ের বাসায় আসে। স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে একসাথে সেখানে তারা রাত্রীযাপন কালে রাত দেড়টার দিকে সাবিনা ব্লেড দিয়ে আমিনের লিঙ্গ কেটে দেয়। তখন আমিনের আর্তচিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসে। ওই সময় সাবিনা বোরখা পরে পালানোর চেষ্টাকালে তাকে আটক রেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়।

সোমবার (৯ আগস্ট)  রাত দেড়টার দিকে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার শ্রীখন্ডি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সাবিনা উপজেলার দেলুয়া গ্রামের আজিজ উদ্দিনের মেয়ে।

আহত প্রেমিককে মঙ্গলবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:

যতক্ষণ না পুলিশ আসবে, মিডিয়া আসবে লাইভ চলবে: পরীমনি

আবারও মুখোমুখি ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা

একসঙ্গে দুই ছেলে ও দুই মেয়ের জন্ম


 

পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় আমিনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে সাবিনাকে আটক করে পুলিশ। এসময় ব্যবহৃত ব্লেড এবং তাদের মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

news24bd.tv/আলী