এক সপ্তাহে আফগানিস্তানের ১০ প্রদেশ দখল

ডেস্ক রিপোর্ট

এক সপ্তাহে আফগানিস্তানের ১০ প্রদেশ  দখল

মাত্র এক সপ্তাহে আফগানিস্থানের ১০ টি প্রদেশ এখন তালেবানের নিয়ন্ত্রণে। অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে মিলিশিয়াদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন দেশটির সরকার।  তালেবানের অগ্রযাত্রাকে সামনে রেখে আফগানিস্তানে সেনাপ্রধানকেও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। ওয়াশিংটন পাকিস্তানকে তালেবানদের ওপর তাদের প্রভাব ব্যবহার করে অধরা শান্তি চুক্তি সম্পন্নে সাহায্য করতে আহ্বান জানিয়েছে।

আফগানিস্থানের তালেবানরা গজনি শহরে অবস্থান এবং সেখানে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে তালেবানের তীব্র লড়াই চলা অবস্থায় তালেবানবিরোধী ঐতিহ্যবাহী মিলিশিয়াদের সঙ্গে বৈঠক করতে উত্তরাঞ্চলীয় শহর মাজার-ই-শরিফে সফর করেছেন আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি।

বুধবার সেনাপ্রধান ওয়ালি মোহাম্মদ আহমাদজাইরকে অপসারণ করা হয়। উজবেকিস্তান ও তাজিকিস্তানের সীমান্তে মাজার-ই-শরিফের অবস্থান। তালেবানের হাতে শহরটির পতন হলে উত্তর আফগানিস্তানের ওপর থেকে সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলবে আশরাফ ঘানি সরকার। যুদ্ধবাজ নেতাদের সবসময় দূরে সরিয়ে রাখলেও কিন্তু তালেবানের হামলার মুখে এবার তাদের দারস্থ হতে হয়েছে তাকে।

আফগানিস্তানে তালেবান যোদ্ধারা এখন পর্যন্ত ১০টি প্রাদেশিক রাজধানী ও বিভিন্ন অঞ্চল দখল করেছে। মার্কিন গোয়েন্দারা আশঙ্কা করছেন, ৩০ দিনের মধ্যে রাজধানী শহর কাবুলকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলতে পারে।  যদি সরকারি বাহিনী প্রতিরোধ গড়ে তুলতে না পারে তাহলে ৯০ দিনের মধ্যে অঞ্চলটির পুরো নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেবে তারা।

এদিকে আফগানিস্তানে সরকারি বাহিনী ও তালেবানদের মধ্যকার সহিংসতা তীব্রভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এমতাবস্থায় বিদ্রোহী গোষ্ঠীটির সঙ্গে আফগান সরকারের আলোচনা স্থগিত হয়ে আছে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বুধবার তার ইসলামাবাদের বাড়িতে বিদেশী সাংবাদিকদের বলেন, আফগানিস্থানের বর্তমান পরিস্থিতিতে একটি রাজনৈতিক সমঝোতা কঠিন মনে হচ্ছে।

শান্তি আলোচনা স্থগিত হওয়ায় আফগানিস্তানে সহিংসতা তীব্রভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে কারণ বিদ্রোহী গোষ্ঠী দ্রুত আঞ্চলিক লাভ করছে।  তালেবানকে রাজি করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তিন থেকে চার মাস আগে যখন তালেবান নেতাদের একটি দল এখানে এসেছিলেন, তাদের শর্ত হলো, যতদিন আশরাফ ঘানি থাকবেন, আফগান সরকারের সঙ্গে কথা বলব না তারা ।

আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন ও বিদেশি সৈন্য প্রত্যাহার সম্পন্ন হবে। এর মধ্য দিয়ে দেশটিতে তাদের দীর্ঘ ২০ বছরের সামরিক মিশন শেষ হচ্ছে।


আরও পড়ুন

সৈকত দূষণের বড় উৎস কোকা-কোলা

টিকা আসবে আরও এক কোটি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

পুলিশ সদরদপ্তর থেকে ৭১ কর্মকর্তাকে বদলি

৩ দিনের জন্য ২ কোটি নিয়েছিলেন পামেলা অ্যান্ডারসন


news24bd.tv/এমি-জান্নাত 

পরবর্তী খবর

এলব্রাসে তুষার ঝড়ে পাঁচ পর্বতারোহীর মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

এলব্রাসে তুষার ঝড়ে পাঁচ পর্বতারোহীর মৃত্যু

ইউরোপের সর্বোচ্চ পর্বত এলব্রাসে তুষার ঝড়ের কবলে পড়ে পাঁচ পর্বতারোহীর মৃত্যু হয়েছে। 

গত বৃহস্পতিবার ১৯ জন পর্বতারোহীর একটি দল পাঁচ হাজার মিটার উচ্চতায় অবস্থান করছিলেন। সে সময় এই দুর্ঘটনার শিকার হন তাঁরা। 

গতকাল শুক্রবার রাশিয়ার জরুরি ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় এ খবর জানিয়েছে।  

আরও পড়ুন


যে কারণে ২৫ বছর পর চুল কাটলেন অপরাজিতা!

আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে

যারা কিয়ামতের দিন অন্ধ হয়ে উঠবে

গৃহবন্দী থেকে মুক্তি পেলেন মেং ওয়ানঝু


তুষার ঝড়ের কবলে পড়া দলের বাকি ১৪ আরোহীকে বৈরি আবহাওয়ার মাঝেই উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উল্লেখ্য, ১৮ হাজার ৫১০ ফুট উচ্চতার মাউন্ট এলব্রাস রাশিয়ার উত্তর ককেশাসে অবস্থিত। প্রতিবছরই পর্বতটি জয় করতে গিয়ে অনেক আরোহীর মৃত্যু হয়। 

সূত্র: দ্যা টাইমস 

news24bd.tv রিমু     

পরবর্তী খবর

গৃহবন্দী থেকে মুক্তি পেলেন মেং ওয়ানঝু

অনলাইন ডেস্ক

গৃহবন্দী থেকে মুক্তি পেলেন মেং ওয়ানঝু

চীনা প্রযুক্তি কোম্পানি হুয়াওয়ের নির্বাহী কর্মকর্তাকে মুক্তি দিয়েছে কানাডা। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রতারণার অভিযোগে হুয়াওয়ে এর প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা মেং ওয়ানঝুকে কানাডায় গ্রেপ্তার করা হয়।

এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার সঙ্গে চীনের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। দীর্ঘ কূটনৈতিক উত্তেজনার পর শুক্রবার এই চীনা প্রযুক্তি নির্বাহীকে কানাডায় গৃহবন্দী অবস্থা থেকে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছে মার্কিন বিচার বিভাগ।

আরও পড়ুন


যে কারণে ২৫ বছর পর চুল কাটলেন অপরাজিতা!

আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে

যারা কিয়ামতের দিন অন্ধ হয়ে উঠবে

পরিবেশ রক্ষায় ঐক্যবদ্ধতা পৃথিবীকে বাঁচাবে : তথ্যমন্ত্রী


হুয়াওয়ের এই নির্বাহীর ওপর যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ ছিলো, সে ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে স্কাইকম নামে একটি কোম্পানির সঙ্গে হুয়াওয়ে বাণিজ্য সম্পর্ক স্থাপন করার ফলে এইএসবিসি ব্যাংককে হুমকির মুখে ফেলেছিলো। মার্কিন বিচার বিভাগের সঙ্গে করা এক চুক্তির মাধ্যমে মামলাটি মিমাংসা করা হয়। ফলে এই শীর্ষ চীনা প্রযুক্তি কর্মকর্তা কানাডা ত্যাগ করার অনুমতি পেলেন।

news24bd.tv রিমু      

পরবর্তী খবর

আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক

আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারকে টার্গেট করে বলেছেন, 'আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে। এরা করতে পারে না এমন কোনও কাজ নেই।'

শুক্রবার কোলকাতার ভবানীপুরে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখার সময়ে এ মন্তব্য করেন তৃণমূল নেত্রী।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, 'অসময়ে বাধ্য হয়ে নির্বাচন করতে হচ্ছে। আমাকে ৬ মাসের মধ্যে বিধায়ক হতে হবে, সেজন্য নির্বাচন হচ্ছে। ভবানীপুর থেকে ঝুঁকি নিয়েই নন্দীগ্রামে প্রার্থী হয়েছিলাম। প্রথমেই বিজেপির পরিকল্পনা ছিল শারীরিক আঘাত করার। কারণ, বিজেপি জানে আমি মাথানত করি না।'

আরও পড়ুন


জাতিসংঘে বাংলায় ভাষণ দিলেন শেখ হাসিনা

‘শাহীন আনাম ও মাহফুজ আনাম হিন্দুদের ঐক্যে চিড় ধরানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত’

পরিবেশ রক্ষায় ঐক্যবদ্ধতা পৃথিবীকে বাঁচাবে : তথ্যমন্ত্রী


সাম্প্রতিক বিধানসভা নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রাম আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন। কিন্তু দলের বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় এবং বিধায়ক দলের নেতা নির্বাচিত হওয়ায় তিনি মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন। নিয়ম অনুযায়ী তাঁকে ৬ মাসের মধ্যে কোনও কেন্দ্র থেকে জিতে বিধায়ক নির্বাচিত হতে হবে। সেজন্য ভবানীপুর আসনে উপনির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভোটগ্রহণ হবে ৩০ সেপ্টেম্বর। ফল ঘোষণা হবে ৩ অক্টোবর।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

চীনে নিষিদ্ধ হলো ক্রিপ্টোকারেন্সি

নিজস্ব প্রতিবেদক

চীনে নিষিদ্ধ হলো ক্রিপ্টোকারেন্সি

ক্রিপ্টোকারেন্সির ভিত্তিতে হওয়া সকল ধরনের আর্থিক লেনদেন অবৈধ বলে ঘোষণা করেছে চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক- পিপলস ব্যাংক অব চায়না (পিবিওসি)। ফলে দেশটিতে ডিজিটাল বাণিজ্যের এ মাধ্যমটির কার্যত অবসান ঘটলো। 

এর আগে চীনা কর্তৃপক্ষের নীতিমালার কারণে গেল বছর বিটকয়েনের মতো ক্রিপ্টোকারেন্সির বৈশ্বিক মূল্য ব্যাপকভাবে ওঠানামা করেছে। অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে এ বিনিময় মাধ্যমের ব্যবহার ঘিরে সন্দেহ ও মুদ্রা পাচার রোধেই নীতিমালা কঠোর করেন চীনা নিয়ন্ত্রকরা। খবর রয়টার্স’র।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকটির এক অনলাইন বিবৃতিতে জানানো হয়, "নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে অপরাধ দমন আইনের আওতায় তদন্ত করা হবে।" 

ওই নোটিশে- ক্রিপ্টোকারেন্সি বিকিকিনি, টোকেন বিক্রি এবং এর ভার্চুয়াল অন্যান্য বিকল্পের মাধ্যমে লেনদেন বা তহবিল সংগ্রহকে অবৈধ বলা হয়েছে।  

বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিপ্টো-কারেন্সির বাজারগুলোর মধ্যে চীন একটি। চীনের এ সিদ্ধান্তের কারণে বিশ্ব বাজারে ক্রিপ্টোকারেন্সির মূল্যের ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। বিটকয়েনের মূল্য ২ হাজার মার্কিন ডলারেরও বেশি হ্রাস পেয়েছে।

মূলত চীনে ক্রিপ্টোকারেন্সির ব্যবহার ২০১৯ সাল থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত বহির্বিশ্বে ক্রিপ্টোকারেন্সির লেনদেন চালু ছিলো। এবছর সম্পূর্ণভাবে তা বন্ধ করে দেয়া হয়।

আরও পড়ুন:


স্ত্রীকে পরকীয়া থেকে ফেরাতে না পেরে স্ট্যাটাস দিয়ে যুবলীগ নেতার আত্মহত্যা

সংস্কারের অভাবে বেহাল রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট

গাজীপুরে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ভেসে আসা তিমির ওজন ৩০ হাজার কেজি, দৈর্ঘ্য ৪০ ফুট


 

এবছরের মার্চে চীন ক্রিপ্টোকারেন্সির ব্যবহারে নিরাপত্তা প্রসঙ্গে সকলকে সতর্ক করেছে এবং জুনে ব্যাংক এবং পেমেন্ট প্লাটফর্মগুলোকে ক্রিপ্টোকারেন্সির ব্যবহার বন্ধ করার কথা বলে। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

স্ত্রী গোসল করে না তাই তালাক দিলো স্বামী!

অনলাইন ডেস্ক

স্ত্রী গোসল করে না তাই তালাক দিলো স্বামী!

অদ্ভুত এই বিশ্বের নানা প্রান্তে প্রতিদিন কতই না বিচিত্র সব ঘটনা ঘটে। এমনই এক ঘটনা ঘটলো স্বামী স্ত্রীর মধ্যে।  স্ত্রী প্রতিদিন গোসল করেন না। আর এই নিয়েই প্রতিদিন ঝগড়া স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে। কিন্তু স্বামী স্ত্রীল এই অভ্যাসে অতিষ্ট হয়ে এবার তালাকই দিয়ে দিলেন।

ভারতের উত্তরপ্রদেশের আলিগড় এই ঘটনা ঘটে।

বিবাহের সম্পর্ক বাঁচাতে নারী সুরক্ষা সেলের তরফে অনেক চেষ্টা সত্ত্বেও কিছুতেই বোঝানো সম্ভব হচ্ছে না নাছোড় স্বামীকে। 

জানা গেছে, বছর দু’য়েক আগে বিয়ে হয়েছিল ওই দম্পতির। তাদের একটি এক বছরের শিশু সন্তানও রয়েছে। স্বামী তালাক দেয়ার পর স্ত্রী-ই প্রথম অভিযোগ জানিয়েছিলেন সেলে।

ওই দম্পতির সাথে কথা বলে বিষয়টি মেটানোর সমস্ত রকম চেষ্টা করা হয়েছিল নারী সুরক্ষা সেলের পক্ষ থেকে। 

আরও পড়ুন:


স্ত্রীকে পরকীয়া থেকে ফেরাতে না পেরে স্ট্যাটাস দিয়ে যুবলীগ নেতার আত্মহত্যা

সংস্কারের অভাবে বেহাল রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট

গাজীপুরে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ভেসে আসা তিমির ওজন ৩০ হাজার কেজি, দৈর্ঘ্য ৪০ ফুট


 

সেল জানায়, স্বামীর সাথে ঘর করতে চাইছিলেন ওই নারী। কিন্তু ওই ব্যক্তিকে কোনও ভাবেই রাজি করানো যাচ্ছে না। স্ত্রী গোসল করতেন না বলে রোজ তাদের মধ্যে ঝগড়া হতো এই নিয়ে। যদিও এটা খুবই ছোট বিষয়। বিবাহবিচ্ছেদ হলে তাদের সন্তানের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে। এই বিষয়টি তাদের বোঝানোর চেষ্টা করছি আমরা।

 কিন্তু তাদের সেই চেষ্টাও বৃথা গেল স্বামীর এহন কাণ্ডে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর