সোশ্যাল মিডিয়ায় পরীমণির মুক্তির দাবি, বিকেলে নাগরিক সমাবেশ
সোশ্যাল মিডিয়ায় পরীমণির মুক্তির দাবি, বিকেলে নাগরিক সমাবেশ

সোশ্যাল মিডিয়ায় পরীমণির মুক্তির দাবি, বিকেলে নাগরিক সমাবেশ

অনলাইন ডেস্ক

গেল বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে পরীমণির মুক্তির দাবিতে ব্যানার হাতে অবস্থান করেন অল্প কিছু মানুষ। নেতৃত্বে ছিলেন কবি জগদীশ বড়ুয়া পার্থ। সেই মানবন্ধনের ছবি ছড়িয়ে পড়েছে ফেসবুকে।  

এছাড়া আজ শনিবার বিকেল ৪টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ‘পরীমণির মুক্তি চাই’ দাবিতে বিক্ষুব্ধ নাগরিকদের সমাবেশ রয়েছে বলে জানা গেছে।

 
   
এর আগে পরীমণির পক্ষ নিয়ে আবদুল গফ্ফর চৌধুরীসহ দেশের ১৭ বিশিষ্ট নাগরিক বিবৃতি দেন। বিবৃতিতে বলা হয় চলচ্চিত্র জগতের এক অভিনেত্রীকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের নব্য-ধনিক সমাজের যে চেহারা ফুটে উঠেছে তা আমাদের গভীরভাবে চিন্তিত, উদ্বিগ্ন ও ক্ষুব্ধ করেছে।

বাংলাদেশের বিশিষ্ট জন আবদুল গফ্ফর চৌধুরী গণমাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আবেদন জানান। তিনি বলেন, পরীমণিকে হায়না চক্রের হাত থেকে রক্ষা করা হোক।  

কিছু দিন আগে পরীমণি দেশের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন প্রীতিলতা চরিত্রে। ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা সংগ্রামের শহিদ প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার। তার জীবন অবলম্বনে নির্মীয়মাণ ‘প্রীতিলতা’ ছবিতে পরীমণি অভিনয় করছেন নাম-ভূমিকায়। পরীমণি গ্রেফতার হওয়ার পরেই টিম প্রীতিলতার পক্ষে দাবি জানানো হয় ‘পরীমণির মুক্তি চাই’।  

পরীমণির মুক্তি চান মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আহ্বায়ক ও মুখপাত্র অধ্যাপক আ ক ম জামালউদ্দিন। ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘চিত্রনায়িকা পরীমণি-সহ গ্রেফতারকৃত সব শিল্পী কলা-কৌশলীকে অবিলম্বে মুক্তি দিন।

স্ট্যান্ড ফর পরীমণি। ’ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আহ্বায়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘ধরা হয়েছে নামীদামি তারকাদের। এই মানুষদের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে পুলিশ আদালতে মামলা করুক। তারা কোর্টে গিয়ে যা জবাব দেওয়ার দেবেন। কিন্তু তাদের রাত দিন এক করে এ ভাবে ধরা, এটা কোন সভ্যতার মধ্যে পড়ে?”

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি জনপ্রিয় অভিনেতা মিশা সওদাগর। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, “ও আমার দু’টি ছবিতে অভিনয় করেছে। ও অনেক মেধাবী অভিনেত্রী। ”

রবীন্দ্রনাথের গল্প অবলম্বনে ‘কাবুলিওয়ালা’ ছবির পরিচালক ও অভিনেতা কাজী হায়াৎ পরীমণির বর্তমান পরিস্থিতিকে সহানুভূতির সঙ্গে দেখেছেন। তার বক্তব্য, “পরীমণি ছিলেন অভিভাবকহীন। এই সুযোগ অনেকে নিয়েছেন। ”

সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এক কলামে কান চলচ্চিত্র উৎসব থেকে ফেরা অভিনেত্রী আজমেরি হক বাঁধন লিখেছেন, 'পরীমণির ঘটনা পুরুষতান্ত্রিক সমাজের বহিঃপ্রকাশ। ' বাঁধন লিখেন, পরীমণির ক্ষেত্রে মিডিয়া ট্রায়ালের মাধ্যমে যা করা হচ্ছে সেটা নেক্কারজনক। এটাই সমাজের আসল চেহারা। এই মিডিয়া ট্রায়ালের কোনো দরকার ছিল না। আমি যদি কোনো অপরাধ করে থাকি, তবে প্রথমে প্রমাণ, এরপর বিচার, শাস্তি।

আরও পড়ুন


কোরআন-হাদিসের আলোকে মজলিস ও বৈঠকে যেসব ক্ষতিকর

যে দোয়া পড়লে গুনাহ ও ঋণ থেকে মুক্তি পাবেন

পুলিশ সদরদপ্তর থেকে ৭১ কর্মকর্তাকে বদলি

টিকা ব্যবস্থাপনা নিয়ে নৈরাজ্য চলছে: মির্জা ফখরুল

পরীমণিকে দামি গাড়ি উপহার দেওয়ার নাম জড়িয়েছিল সিটি ব্যাঙ্কের এমডি মাশরুর আরেফিন। ফেসবুকে দীর্ঘ পোস্টে তিনি স্পষ্ট করেছেন, পরীমণির সঙ্গে তার কোনও চেনা বা জানা নেই। লিখেছেন, “পরীমণিকে নিয়ে যা চলছে তা একটা রীতিমতো সার্কাস, যা কিনা এ ভাবে চলতে থাকলে আমরা শিগগির ভাল্লুকের ডাক শিখে ফেলতে যাচ্ছি নিশ্চিত। ওই ডাকেরই ভদ্রস্থ নাম—সহিংসতা। সহিংস হবে না। মায়া রাখুন মানুষের প্রতি। ভালবাসা সবার জন্য, ব্যক্তি মানুষ পরীমণি-সহ। ন্যায়বিচারই প্রাপ্য তার, আর প্রাপ্য—বিচারের আগেই ছিন্নভিন্ন না হয়ে যাওয়া। আইনের বিচারের আগেই কেউ যেন সমাজের বিচারের হাতে টুকরো না হয়ে যায়। ”

মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে গতকাল রাতে জনপ্রিয় নায়িকা পরীমণিকে গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যা প্রায় ৭টার  দিকে তাকে কারাগারে নেওয়া হয়। সেখানে তাকে ১৪ দিনের কোয়ারিন্টিনে রাখা হয়েছে। কোয়ারিন্টিন শেষে পরীমণিকে রাখা হবে সাধারণ কয়েদিদের সাথে ।    

news24bd.tv রিমু  

 

 

 

;