জেনারেল নলেজ অলিম্পিয়াডের প্রথম আসর অনুষ্ঠিত

অনলাইন ডেস্ক

জেনারেল নলেজ অলিম্পিয়াডের প্রথম আসর অনুষ্ঠিত

'জানতে হবে নিজেকে জানাতে হবে সবাইকে'— এই শ্লোগানে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হয়েছে জেনারেল নলেজ অলিম্পিয়াড। সাধারণ জ্ঞান ভিত্তিক ভিন্ন এক প্ল্যাটফর্ম জিকে নেটওয়ার্ক এই অলিম্পিয়াড আয়োজন করে।

'দেশসেরা সবজান্তা' খুঁজে পেতে বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) অলিম্পিয়াডের জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে অনলাইনে অলিম্পিয়াডের আঞ্চলিক পর্ব অনুষ্ঠিত হয় ২০২০ সালের ২৪ ডিসেম্বর। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী জাতীয় পর্ব অফলাইনে আয়োজন হওয়ার কথা ছিল। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে দুই দফায় পরিবর্তন হয় জাতীয় পর্বের প্রতিযোগিতার সময়।

আঞ্চলিক পর্বে সারা বাংলাদেশ থেকে অংশগ্রহণ করে দশ হাজার শিক্ষার্থী। এদের মধ্য থেকে জাতীয় পর্বের জন্য নির্বাচিত হয় এক হাজার প্রতিযোগি৷ প্রাইমারি, জুনিয়র, সেকেন্ডারি, হায়ার সেকেন্ডারি, সিনিয়র—এই পাঁচ ক্যাটাগরিতে প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক বিষয়াবলীর সঙ্গে সাম্প্রতিক বিষয়ের সংমিশ্রণে প্রশ্ন করা হয়।

সাধারণ জ্ঞানের ভয় দূর করার লক্ষ্যে এবং নতুন কিছু জানার আগ্রহ তৈরি করতেই এই আয়োজন, এমনটাই জানান জিকে নেটওয়ার্কের প্রতিষ্ঠাতা গোলাম মোর্শেদ সীমান্ত। তিনি বলেন, সাধারণ জ্ঞান বিষয়টা নি‌য়ে অ‌নে‌কেরই একটু অলসতা রয়েছে। তাছাড়া 'পড়ার বিষয়' হিসেবে খুব বে‌শি গুরুত্ব না দেয়ায় সাধা‌রণ জ্ঞা‌নে ধু‌লোর স্তরও পুরু হ‌তে থা‌কে। বিষয়টা নিয়ে ভ‌য়ের জন্ম শৈ‌শবে।‌ ছোট‌বেলায় জাতীয় মাছ, পা‌খি, ফুল, ফল দি‌য়ে শুরু হওয়া সাধারণ জ্ঞা‌নের চ‌ক্রের প্র‌য়োজনীয়তা থাকে। তবুও অনেকে এ‌কে আড়ালে রে‌খে দেয়।

আরও পড়ুনঃ

মার্কিন দূতাবাসে হামলা না চালাতে তালেবানের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান

জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইমরান খানের সমবেদনা

তরুণীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে ধরা এনজিও মালিক, ৫ লাখ টাকা কাবিনে বিয়ে


অলিম্পিয়াড আয়োজনে সহযোগিতায় ছিল হিসেবে ছিলো প্রভাতি কুরিয়ার, হুইসেল, দূরবীন, আয়োটা ইনফোটেক লিমিটেড, এবং ইত্তেফাক প্রজন্ম।

আগামী ১৯ আগস্ট জানা যাবে 'দেশসেরা সবজান্তা' কে হতে যাচ্ছে। এরপর জেনারেল নলেজ অলিম্পিয়াডের দ্বিতীয় আসরও অনুষ্ঠিত হবে অনলাইনে।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

এখনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের পরিস্থিতি হয়নি: দীপু মনি

অনলাইন ডেস্ক


এখনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের পরিস্থিতি হয়নি: দীপু মনি

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, এখনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের পরিস্থিতি হয়নি। তবে করোনা মহামারি বড় আকার ধারণ করলে আবারও বন্ধ করা হবে।

আজ রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু বাপু ডিজিটাল এক্সিবিশনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপাকালে এসব কথা বলেন তিনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, মহামারি এখনও কিন্তু চলমান। যদিও শনাক্তের হার পাঁচের নিচে নেমে এসেছে, তারপরও কিন্তু মহামারি চলমান সারা দুনিয়ায়। কাজেই আমাদের পরিস্থিতির দিকে নজর রাখতে হবে। কেউ না কেউ অসুস্থ হতেই পারে। বাড়িতে হতে পারে, যাতায়াতের পথে হতে পারে; এমনকি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও হতে পারে। সেটি যেন না ঘটে এবং কোথাও ঘটনা ঘটলে আমরা যেন ব্যবস্থা নিতে পারি এ বিষয়ে সচেতন এবং দৃষ্টি রাখছি। আমরা কোনো অভিযোগ বা খবর পেলে স্থানীয় প্রশাসন, সিভিল সার্জেন্টের অফিস ও স্বাস্থ্য বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নেব।

তিনি বলেন, আমরা অবস্থা পর্যবেক্ষণ করছি। এখনো অতিমারি শেষ হয়নি। যে কেউ যে কোনো সময় করোনায় আক্রান্ত হতে পারে। বড় ধরনের মহামারি দেখা দিলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এখন পর্যন্ত কোথাও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। যদি হয় আমরা ব্যবস্থা নেব। এ পর্যন্ত করোনা সংক্রমণের সংবাদ পাওয়া গেছে তার মধ্যে অধিকাংশ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছে, এ বিষয়ে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে।

কয়েকজন শিক্ষার্থীর করোনা আক্রান্তের বিষয়ে দীপু মনি বলেন, আমাদের মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেখানে সমস্যা হয়েছে, বিশেষ করে মানিকগঞ্জের একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী মারা গেছে। আমরা সেই কেসটি নিয়ে সেখানকার সিভিল সার্জনের সঙ্গে কথা বলেছি। স্কুল খোলার পর সেই শিক্ষার্থী মাত্র একবার ক্লাসে এসেছিল। তার ৬-৭ দিন পর আক্রান্তের খবর পাওয়া যায় এবং সে মারা যায়।

ওই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় সমবেদনা জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমি তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।

আরও পড়ুন:


ডিসেম্বরেই চালু হবে ৫জি নেটওয়ার্ক: মোস্তাফা জব্বার

দেশে বিনিয়োগ করুন: প্রধানমন্ত্রী

যানজট নিরসনের উদ্যোগ আটকে থাকে মহাপরিকল্পনার নথিতেই

মক্কা-মদিনার মসজিদে কাজ করবেন নারীরা


কেরানীগঞ্জে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর করোনা আক্রান্তের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, খবর পাওয়ার পরে আমরা ওই ক্লাসের সব শিক্ষার্থীর পরীক্ষা করেছি। অন্য কারও মধ্যে সংক্রমণ পাওয়া যায়নি।

দীপু মনি বলেন, আমাকে অনেক শিক্ষার্থী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানাচ্ছে এই স্কুলে এতোজন আক্রান্ত, ওই স্কুলে এতোজন অসুস্থ। আমি খোঁজ নিচ্ছি, অনুসন্ধান করছি, কিন্তু এমন কিছুর সত্যতা পাইনি। তবে আমরা সজাগ দৃষ্টি রাখছি। কোনো অভিযোগ পাওয়া মাত্রই সঙ্গে সঙ্গে পর্যবেক্ষণ করছি ও ব্যবস্থা নিচ্ছি।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা কবে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা কবে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর দেশে বড় ধরনের কোনো অঘটন ঘটেনি বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। সব দিক বিবেচনা করে তাই চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষা আগামী নভেম্বর মাসে ও এইচএসসি পরীক্ষা ডিসেম্বরে আয়োজন করা হবে। এসব পরীক্ষার সময় পেছানো হবে না বলেও জানান তিনি।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু বাপু ডিজিটাল এক্সিবিশন উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

ডা. দীপু মনি বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর থেকে নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। কয়েকটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ক্লাসে এসে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে শোনা গেছে। বিষয়টি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় পর্যবেক্ষণ করছে। তারা সেসব স্থানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছেন।

আরও পড়ুন


রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরাতে ইইউ’র সহায়তা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদের অভিযোগ কাদের মির্জার বিরুদ্ধে

লঘুচাপ গভীর নিম্নচাপে পরিণত, উপকূলে ঝড়-বৃষ্টির আভাস

ঠাকুরগাঁওয়ে তিন স্কুলের ১৪ ছাত্রী করোনায় আক্রান্ত


শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, প্রাক-প্রাথমিকস্তর খোলার বিষয়ে এখনো কিছু চিন্তা করা হয়নি। আপাতত তারা বাসায় থেকে পড়াশোনা করবে। তিন সপ্তাহ পরে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, যেহেতু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পরে এখনো বড় ধরনের কোনো অঘটন ঘটেনি, সে কারণে আগামী নভেম্বরের শুরুতে এসএসসি এবং ডিসেম্বরের মাঝামাঝি এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার প্রস্তুতি চলছে। নির্ধারিত সময়েই পরীক্ষা আয়োজন করা হবে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

চবিতে ৩৬০ কোটি টাকার বাজেট, গবেষণায় বরাদ্দ ১.৫২ শতাংশ

অনলাইন ডেস্ক

চবিতে ৩৬০ কোটি টাকার বাজেট, গবেষণায় বরাদ্দ ১.৫২ শতাংশ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ অর্থবছরে ৩৬০ কোটি ৭৯ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। উপাচার্য কার্যালয়ের সভাকক্ষে উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতারের সভাপতিত্বে ৩৩তম সিনেট সভায় এ বাজেট ঘোষণা করা হয়।

বরাবরের মতই বাজেটে সর্বোচ্চ বরাদ্দ রাখা হয়েছে শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতায়। এসময় বাজেট পেশ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এসএম মনিরুল হাসান। এতে মোট বাজেটের বিপরীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাপ্তি ৩৫১ কোটি ৮১ লাখ টাকা। ঘাটতি বাজেট রয়েছে ৮ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। একইসঙ্গে গত অর্থবছরের ৩৪৭ কোটি ৪৯ লাখ টাকা সংশোধিত বাজেট অনুমোদিত হয়। 

রও পড়ুন:

সব ফোনের একই চার্জার তৈরির প্রস্তাব, অ্যাপলের আপত্তি

প্রেমের স্বীকৃতি না পেয়ে প্রেট্রোল ঢেলে আগুন দিলেন নারী!

শরীর আর আগের মতো ছিলো না, বিচ্ছেদের কারণ জানিয়ে রোশান

নতুন নায়িকা কোলে নিয়ে শাহরুখকে মনে করালেন জায়েদ খান


২০২১-২২ অর্থ বছরের সর্বোচ্চ বাজেট ঘোষিত হয়েছে শিক্ষক ও কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বেতন-ভাতা খাতে। এতে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ২৩০ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। যা মোট বাজেটের প্রায় ৬৭ শতাংশ। তবে গবেষণা খাতে ৫ কোটি ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ রয়েছে। যা মোট বাজেটের ১.৫২ শতাংশ।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় খুলতে মানতে হবে দুই শর্ত

অনলাইন ডেস্ক

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় খুলতে মানতে হবে দুই শর্ত

করোনাভাইরাস অতিমারিতে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সসমূহে শিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখতে দুটি শর্ত দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সারা দেশের সকল বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে এ সংক্রান্ত একটি জরুরি নির্দেশনা পাঠিয়েছে ইউজিসি।

নির্দেশনায় বলা হয়, শর্তসাপেক্ষে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ একাডেমিক কাউন্সিল ও সিন্ডিকেট এর সিদ্ধান্তক্রমে নিজ ব্যবস্থাপনায় যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সশরীরে ক্লাস, পরীক্ষা ইত্যাদিসহ শিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখতে পারবে। সেক্ষেত্রে মানতে হবে মঞ্জুরি কমিশনের শর্ত।
এছাড়া দুটি শর্ত মেনে খুলতে পারবে বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়। শর্ত দুটি হচ্ছে-

প্রথমত, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীগণ ইতোমধ্যে কমপক্ষে এক ডোজ ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছে অথবা ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র সহযোগে জাতীয় সুরক্ষা সেবা ওয়েব পোর্টালে (https://surokkha.gov.bd/) অথবা surokkha app এর মাধ্যমে নিবন্ধন করে থাকলে।
দ্বিতীয়ত, ১৮ বছর বা তদূর্ধ্ব শিক্ষার্থী যাদের জাতীয় পরিচয় পত্র নেই, তারা জন্ম নিবন্ধন সনদের তথ্য ব্যবহার করে কমিশনের ওয়েবলিংক (https://univac.ugc.gov.bd) এ ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য প্রাথমিক নিবন্ধন করে থাকলে এবং পরবর্তীতে জাতীয় সুরক্ষা সেবা ওয়েব পোর্টালে (https://surokkha.gov.bd) অথবা surokkha app এর মাধ্যমে টিকা গ্রহণের জন্য নিবন্ধন করে থাকলে।

রও পড়ুন:

সব ফোনের একই চার্জার তৈরির প্রস্তাব, অ্যাপলের আপত্তি

প্রেমের স্বীকৃতি না পেয়ে প্রেট্রোল ঢেলে আগুন দিলেন নারী!

শরীর আর আগের মতো ছিলো না, বিচ্ছেদের কারণ জানিয়ে রোশান

নতুন নায়িকা কোলে নিয়ে শাহরুখকে মনে করালেন জায়েদ খান


গত ১৪ সেপ্টেম্বর ইউজিসি ও উপাচার্যদের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির এক বৈঠকে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ও আবাসিক হল খুলে দেওয়া যাবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। এই প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ২৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে শিক্ষার্থীদের টিকার জন্য নিবন্ধন করতেও বলেছে। এজন্য সরকার শিক্ষার্থীদের বয়স এবং জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সনদের শর্তও শিথিল করে বিশেষ ব্যবস্থা করেছে।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

ঘোষিত সময়েই খুলবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে: ঢাবি উপাচার্য

অনলাইন ডেস্ক

ঘোষিত সময়েই খুলবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে: ঢাবি উপাচার্য

ঘোষিত সময় অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে শিক্ষা কার্যক্রম যথাযথভাবে চালানো সম্ভব হবে বলেও জানান তিনি।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান বলেন, অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে স্বাস্থ্যবিধি মানতেই হবে। 

আরও পড়ুন:


স্ত্রীকে পরকীয়া থেকে ফেরাতে না পেরে স্ট্যাটাস দিয়ে যুবলীগ নেতার আত্মহত্যা

সংস্কারের অভাবে বেহাল রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট

গাজীপুরে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ভেসে আসা তিমির ওজন ৩০ হাজার কেজি, দৈর্ঘ্য ৪০ ফুট


 

অনুষ্ঠানে এসোসিয়শনের সভাপতি একে আজাদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের মানসম্মত শিক্ষার জন্য শিক্ষক ও অ্যালামনাইদের যৌথভাবে কাজ করতে হবে।

উল্লেখ্য, ১৫ সেপ্টেম্বর ভিসির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রভোস্ট কমিটির সভায় অন্তত এক ডোজ টিকা নেয়ার শর্তসাপেক্ষে পাঁচ অক্টোবর অনার্স শেষ বর্ষ ও মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের জন্য হলগুলো খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত জানায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। একই সঙ্গে এই দুই বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে লাইব্রেরী ইনস্টিটিউট ও ডিপার্টমেন্টের সেমিনার, লাইব্রেরি ও কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি খুলে দেয়ার সিদ্ধান্তও জানানো হয়।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর