মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত কিশোরগঞ্জের সেই মকবুল হোসেনকে খালাস

অনলাইন ডেস্ক

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত কিশোরগঞ্জের সেই মকবুল হোসেনকে খালাস

রাজধানীর সবুজবাগে ওলিউল্লাহ নামে এক ব্যক্তিকে খুনের অভিযোগে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি কিশোরগঞ্জের মকবুল হোসেনকে খালাস দিয়েছেন আপিল বিভাগ।

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) মকবুল হোসেনের আপিল মঞ্জুর করে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ রায় দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান ও উম্মে কুলসুম রেখা।

আসামি কিশোরগঞ্জ ইটনার মকবুল হোসেনের গ্রামের বাড়ি আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. নূরুজ্জামানের বাড়ির পাশের গ্রামে হওয়ায় এ মামলায় বিচারক নিজেকে প্রত্যাহার করে নেন। সে ঘটনা বিচার বিভাগ ও বিভিন্ন মহলে ইতিবাচক আলোচনার জন্ম দেয়।

পরে চার বিচারপতি মিলে মামলাটি শুনানি করেন।

আরও পড়ুন


টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সূচি প্রকাশ, বাংলাদেশের খেলা কখন, কোথায়

বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীর যুক্তরাষ্ট্রের বাসার সামনে বিক্ষোভ

আবারও ৪ ফিলিস্তিনিকে গুলি করে হত্যা করেছে ইসরাইলি বাহিনী

জিয়ার মাজারে ফুল দিয়ে গিয়ে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ, গুলি


আসামি মকবুল হোসেন ওরফে মকবুল হাসানের গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনা থানার ছিলনী গ্রামে। কাজের জন্য তিনি ঢাকার সবুজবাগ থানার উত্তর মুগদাপাড়া এলাকায় থাকতেন। ২০০৩ সালের ২৮ ডিসেম্বর ওলিউল্লাহ নামে একজন খুন হন। এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার আসামি মকবুল।

২০০৬ সালে ঢাকার দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনাল মকবুল হোসেনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়ে রায় ঘোষণা করেন।

এরপর মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদনের জন্য ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে আসে। পাশাপাশি মকবুল হোসেন আপিল করেন।

আপিল ও ডেথ রেফারেন্সের শুনানি শেষে ২০১২ সালে তার মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখেন হাইকোর্ট। এ রায়ের বিরুদ্ধেও আপিল করেন মকবুল।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

রাসেল-শমীমাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে

অনলাইন ডেস্ক

রাসেল-শমীমাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন এবং তার স্বামী প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মোহাম্মদ রাসেলকে র্যাব সদর দপ্তরে নেওয়া হয়েছে। সেখানে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

আগামীকাল শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) তাদের গুলশান থানায় হস্তান্তর করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বাসা থেকে এ দম্পতিকে গ্রেফতার করে র্যাব।

এর আগে বিকেল ৪টা থেকে ইভ্যালির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ রাসেলের মোহাম্মাদপুরের বাসায় অভিযান চালানো হয়।

রাতে র্যাবের লিগ্যাল আ্যন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, ইভ্যালির চেয়ারম্যান ও এমডির বিরুদ্ধে মামলার পরিপেক্ষিতে বিকেল ৪টা থেকে রাসেলের মোহাম্মাদপুরের বাসায় গ্রেফতার অভিযান চালানো হয়। বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তাদের গ্রেফতার করে র্যাব সদর দপ্তরে নিয়ে আসা হয়। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আগামীকাল শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।

আরও পড়ুন: 


রাসেলের বাসায় র‌্যাবের অভিযান চলছে

স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, স্বামী-শ্বশুর পলাতক

চীনে ১০ কি.মি. গভীরতার শক্তিশালী ভূমিকম্পের হানা

দুবলার চর থেকে খুলনা কাঁকড়া পরিবহনে বাধা নেই: হাইকোর্ট


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

‘শাহজাহান মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির’ মালিক-পরিচালক গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

‘শাহজাহান মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির’ মালিক-পরিচালক গ্রেপ্তার

প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ‌‘শাহজাহান মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড’ এর মালিক ও পরিচালক আব্দুল মোতালেবকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন: 


রাসেলের বাসায় র‌্যাবের অভিযান চলছে

স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, স্বামী-শ্বশুর পলাতক

চীনে ১০ কি.মি. গভীরতার শক্তিশালী ভূমিকম্পের হানা

দুবলার চর থেকে খুলনা কাঁকড়া পরিবহনে বাধা নেই: হাইকোর্ট

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ব্যাংক হিসাব তলব সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নিয়ন্ত্রণের অজুহাত: আ স ম রব

অনলাইন ডেস্ক

ব্যাংক হিসাব তলব সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নিয়ন্ত্রণের অজুহাত: আ স ম রব

সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের পদক্ষেপে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে তা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব। এ ব্যাপারে গণমাধ্যমে এক বিবৃতি পাঠানো হয়।

বিবৃতিতে তিনি বলেন,‌ ‌‘জাতীয় প্রেসক্লাবসহ সাংবাদিকদের গুরুত্বপূর্ণ ও প্রতিনিধিত্বশীল সংগঠনের নির্বাচিত শীর্ষ নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের ঘটনা অস্বাভাবিক, পরিকল্পিত ও উদ্দেশ্যমূলক এবং তা সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নিয়ন্ত্রণের অজুহাত। নৈতিক চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে বা ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার জন্য বা আইনের শাসনের তাড়নায় সাংবাদিক সমাজের বিরুদ্ধে সরকার এই পদক্ষেপ নিয়েছে তা বিশ্বাসযোগ্য নয়।

আরও পড়ুন: 


রাসেলের বাসায় র‌্যাবের অভিযান চলছে

স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, স্বামী-শ্বশুর পলাতক

চীনে ১০ কি.মি. গভীরতার শক্তিশালী ভূমিকম্পের হানা

দুবলার চর থেকে খুলনা কাঁকড়া পরিবহনে বাধা নেই: হাইকোর্ট


ইতোমধ্যে গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের গ্রেপ্তার ও নির্যাতন, সংবাদমাধ্যমে অঘোষিত সেন্সরশিপ এবং সর্বোপরি নিবর্তনমূলক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন দিয়ে মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে সরকার সংকুচিত করে দিয়েছে। সাংবাদিকতা এবং সংবাদপত্র এক নজিরবিহীন প্রতিকূলতার মুখে পড়েছে।

রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ ‘গণমাধ্যমে’র স্বার্থ রক্ষা ও অধিকার আদায়ে সংগ্রামরত সংগঠনগুলোকে প্রশ্নবিদ্ধ করা ও সাংবাদিকতার স্বাধীনতার উপর নতুন করে চাপ সৃষ্টি করার এই অপকৌশলকে অবশ্যই প্রতিহত করতে হবে।

কোনো সাংবাদিক বা ব্যক্তিবিশেষের ব্যক্তিগত দুর্নীতির অবশ্যই তদন্ত হতে পারে কিন্তু যখন গণমাধ্যমের স্বাধীনতা অনেকটাই রুদ্ধ হয়ে পড়েছে, যখন গণমাধ্যম প্রচণ্ড রকমভাবে সংকটগ্রস্ত হয়ে পড়েছে তখন সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলব করার পদক্ষেপ কোনোক্রমেই ন্যায় সঙ্গত নয়। এসব সিদ্ধান্ত সরকারের চরম অস্থিরতার বহিঃপ্রকাশ। 

সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নিয়ন্ত্রণের দুরভিসন্ধিমূলক পদক্ষেপ অবশ্যই প্রত্যাহার করতে হবে।

সংবাদপত্রের স্বাধীনতাবিহীন সমাজে চরম রাজনৈতিক অস্থিরতা বাড়বে, সাংস্কৃতিক বিচ্ছিন্নতাবোধ গভীর হবে এবং অর্থনৈতিক সংকট সমগ্র রাষ্ট্রব্যবস্থাকে ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলবে।

দুর্নীতি সন্ত্রাস মোকাবেলায় ও রাষ্ট্রকে গণতান্ত্রিক ও মানবিক করার প্রয়োজনে গণমাধ্যমের ভূমিকা অপরিহার্য।

যতদিন রাষ্ট্রীয় নীতি নির্ধারণে সাংবাদিকসহ পেশাজীবীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত না হবে ততদিন পর্যন্ত সাংবাদমাধ্যমের উপর নির্বতন চলতেই থাকবে। তাই আইন প্রণয়ন ও নীতি নির্ধারণী প্রক্রিয়ায় সাংবাদিকসহ পেশাজীবীদের অংশগ্রহণ সাংবিধানিকভাবে নিশ্চিত করতে হবে।

সুতরাং রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ অর্থাৎ গণমাধ্যমের স্বাধীনতা রক্ষায় সাংবাদিকসহ সকলকে সোচ্চার ভূমিকা গ্রহণ করতে হবে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

র‌্যাব হেফাজতে রাসেল-শামীমা

অনলাইন ডেস্ক

র‌্যাব হেফাজতে রাসেল-শামীমা

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা নাসরিনকে (প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর থেকে রাসেলের মোহাম্মদপুরের নিলয় কমপ্রিহেনসিভ হোল্ডিংয়ের বাসায় (হাউজ ৫/৫এ, স্যার সৈয়দ রোড) অভিযান চালিয়ে বিকেলের দিকে তাদের হেফাজতে নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: 


রাসেলের বাসায় র‌্যাবের অভিযান চলছে

স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, স্বামী-শ্বশুর পলাতক

চীনে ১০ কি.মি. গভীরতার শক্তিশালী ভূমিকম্পের হানা

দুবলার চর থেকে খুলনা কাঁকড়া পরিবহনে বাধা নেই: হাইকোর্ট


তবে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে কি না, এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানায়নি র‍্যাব। বাড়ির গেট দিয়ে কাউকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।

এর আগে রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা নাসরিনের (প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান) বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে গুলশান থানায় মামলা হয়েছে বলে জানান গুলশান থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক অনিন্দ তালুকদার।

বলেন, আরিফ বাকের নামে ইভ্যালির এক গ্রাহক মামলাটি দায়ের করেছেন। মামলার নম্বর- ১৯।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

দুই সন্তানকে একদিন বাবা আরেকদিন মা সময় দেবেন: হাইকোর্ট

অনলাইন ডেস্ক

দুই সন্তানকে একদিন বাবা আরেকদিন মা সময় দেবেন: হাইকোর্ট

জাপানি দুই কন্যা শিশু নিয়ে টানাপোড়েনের ব্যাপারে বাবা-মায়ের মধ্যে সমঝোতা করার পরামর্শ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

দুই সন্তানকে একদিন বাবা আরেকদিন মা সময় দেবেন বলেও জানিয়েছে হাইকোর্ট।

২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শুনানি মূলতবি বলে জানানো হয়েছে।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন: 


রাসেলের বাসায় র‌্যাবের অভিযান চলছে

স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, স্বামী-শ্বশুর পলাতক

চীনে ১০ কি.মি. গভীরতার শক্তিশালী ভূমিকম্পের হানা

দুবলার চর থেকে খুলনা কাঁকড়া পরিবহনে বাধা নেই: হাইকোর্ট


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর