আফগানিস্তানের পুনর্গঠনে তুরস্ককে প্রয়োজন: তালেবান

অনলাইন ডেস্ক

আফগানিস্তানের পুনর্গঠনে তুরস্ককে প্রয়োজন: তালেবান

তালেবান মুখপাত্র সোহাইল শাহিন বলেছেন, আফগানিস্তানের পুনর্গঠনের জন্য তাদের তুরস্ককে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। তিনি তুরস্কের সরকারপন্থি দৈনিক ‘তুর্কিয়া’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, “আমাদের সব অবকাঠামো ধ্বংস হয়ে গেছে। আমরা আফগানিস্তানের প্রতিটি অঞ্চলের পুনর্গঠন করব। এ ব্যাপারে আমাদের তুরস্কের সহযোগিতা সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন।”

তালেবানের এই মুখপাত্র আরো বলেন, “তুরস্ক আমাদের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশ। বিশ্বের একটি নির্ভরযোগ্য ও শক্তিশালী দেশ তুরস্ক। মুসলিম বিশ্বেও তুরস্কের উঁচু মানের গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। আফগানিস্তানের সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্ককে অন্য কোনো দেশের সঙ্গে তুলনা করা চলে না।”

এর আগে কাবুল দখলের একদিন পর গত ১৬ আগস্ট তুরস্কের ক্ষমতাসীন সরকারের নিউজ চ্যানেল ‘তুর্ক খবর’কে দেয়া সাক্ষাৎকারে সোহাইল শাহিন বলেছিলেন, “তুরস্ক আমাদের কাছে একটি ভ্রাতৃপ্রতীম ইসলামি দেশ হিসেবে বিবেচিত।” তিনি আরো বলেন, “তুরস্কের সঙ্গে আমরা ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক স্থাপন করতে চাই।”

এরপর তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান ১৯ আগস্ট তালেবানের সঙ্গে সংলাপে বসার আগ্রহ প্রকাশ করে বলেন, তিনি হয়তো অচিরেই তালেবান নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

আরও পড়ুন


সূরা ইয়াসিন গোনাহ মাফের মাধ্যম

আজ যাদের জন্মদিন

বাদশাহ আমানুল্লাহ, আফগানিস্তান, বাচ্চায়ে সকাও এবং সৈয়দ মুজতবা আলীর দেশে বিদেশে

টি-স্পোর্টসে আজকের খেলা


এর আগে ন্যাটোর সদস্য দেশ হিসেবে গত ২০ বছরে আফগানিস্তানে তুর্কি সেনা মোতায়েন ছিল। কিছুদিন আগে এরদোগান বলেছিলেন, তার দেশের সেনারা কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তা রক্ষা করার দায়িত্ব গ্রহণ করবে। সে সময় তালেবান কাবুল দখল না করলেও আফগানিস্তানের বিশাল অঞ্চলের ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছিল। তুরস্কের পক্ষ থেকে কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্ব গ্রহণ করার প্রস্তাব সম্পর্কে তালেবান তখন আঙ্কারাকে উদ্দেশ করে বলেছিল, আফগানিস্তানে যেকোনো বিদেশি সেনাকে ‘শত্রুসেনা’ হিসেবে বিবেচনা করা হবে।

news24bd.tv রিমু

পরবর্তী খবর

মোদি-বাইডেন বৈঠক, তৈরি হলো নতুন সম্পর্ক

অনলাইন ডেস্ক

মোদি-বাইডেন বৈঠক, তৈরি হলো নতুন সম্পর্ক

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রথম দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 

শুক্রবার এই বৈঠকে দু'দেশের বেশ কিছু আভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। যেখানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় করার আহ্বান জানান।

বৈঠকে ৪ মিলিয়ন ইন্দো-আমেরিকান বাসিন্দারা কিভাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে তা নিয়েও আলোচনা করেন বাইডেন।

আরও পড়ুন


যে কারণে ২৫ বছর পর চুল কাটলেন অপরাজিতা!

আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে

যারা কিয়ামতের দিন অন্ধ হয়ে উঠবে

গৃহবন্দী থেকে মুক্তি পেলেন মেং ওয়ানঝু


এছাড়াও আলোচনায় উঠে আসে করোনা মহামারি, বাণিজ্য, জলবায়ু পরিবর্তনসহ মহাত্মা গান্ধির রাজনৈতিক আন্দোলন ও নীতি আদর্শের প্রসঙ্গও। প্রায় এক ঘণ্টার বৈঠক করেন দুই দেশের রাষ্ট্রপ্রধান। এ বৈঠক থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ভারতের মধ্যে একটি নতুন সম্পর্ক তৈরি হলো বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।  

news24bd.tv রিমু   

পরবর্তী খবর

এলব্রাসে তুষার ঝড়ে পাঁচ পর্বতারোহীর মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

এলব্রাসে তুষার ঝড়ে পাঁচ পর্বতারোহীর মৃত্যু

ইউরোপের সর্বোচ্চ পর্বত এলব্রাসে তুষার ঝড়ের কবলে পড়ে পাঁচ পর্বতারোহীর মৃত্যু হয়েছে। 

গত বৃহস্পতিবার ১৯ জন পর্বতারোহীর একটি দল পাঁচ হাজার মিটার উচ্চতায় অবস্থান করছিলেন। সে সময় এই দুর্ঘটনার শিকার হন তাঁরা। 

গতকাল শুক্রবার রাশিয়ার জরুরি ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় এ খবর জানিয়েছে।  

আরও পড়ুন


যে কারণে ২৫ বছর পর চুল কাটলেন অপরাজিতা!

আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে

যারা কিয়ামতের দিন অন্ধ হয়ে উঠবে

গৃহবন্দী থেকে মুক্তি পেলেন মেং ওয়ানঝু


তুষার ঝড়ের কবলে পড়া দলের বাকি ১৪ আরোহীকে বৈরি আবহাওয়ার মাঝেই উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উল্লেখ্য, ১৮ হাজার ৫১০ ফুট উচ্চতার মাউন্ট এলব্রাস রাশিয়ার উত্তর ককেশাসে অবস্থিত। প্রতিবছরই পর্বতটি জয় করতে গিয়ে অনেক আরোহীর মৃত্যু হয়। 

সূত্র: দ্যা টাইমস 

news24bd.tv রিমু     

পরবর্তী খবর

গৃহবন্দী থেকে মুক্তি পেলেন মেং ওয়ানঝু

অনলাইন ডেস্ক

গৃহবন্দী থেকে মুক্তি পেলেন মেং ওয়ানঝু

চীনা প্রযুক্তি কোম্পানি হুয়াওয়ের নির্বাহী কর্মকর্তাকে মুক্তি দিয়েছে কানাডা। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রতারণার অভিযোগে হুয়াওয়ে এর প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা মেং ওয়ানঝুকে কানাডায় গ্রেপ্তার করা হয়।

এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার সঙ্গে চীনের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। দীর্ঘ কূটনৈতিক উত্তেজনার পর শুক্রবার এই চীনা প্রযুক্তি নির্বাহীকে কানাডায় গৃহবন্দী অবস্থা থেকে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছে মার্কিন বিচার বিভাগ।

আরও পড়ুন


যে কারণে ২৫ বছর পর চুল কাটলেন অপরাজিতা!

আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে

যারা কিয়ামতের দিন অন্ধ হয়ে উঠবে

পরিবেশ রক্ষায় ঐক্যবদ্ধতা পৃথিবীকে বাঁচাবে : তথ্যমন্ত্রী


হুয়াওয়ের এই নির্বাহীর ওপর যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ ছিলো, সে ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে স্কাইকম নামে একটি কোম্পানির সঙ্গে হুয়াওয়ে বাণিজ্য সম্পর্ক স্থাপন করার ফলে এইএসবিসি ব্যাংককে হুমকির মুখে ফেলেছিলো। মার্কিন বিচার বিভাগের সঙ্গে করা এক চুক্তির মাধ্যমে মামলাটি মিমাংসা করা হয়। ফলে এই শীর্ষ চীনা প্রযুক্তি কর্মকর্তা কানাডা ত্যাগ করার অনুমতি পেলেন।

news24bd.tv রিমু      

পরবর্তী খবর

আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক

আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারকে টার্গেট করে বলেছেন, 'আমাদের ফোন পেগাসাসের মাধ্যমে ট্যাপ করা হয়েছে। এরা করতে পারে না এমন কোনও কাজ নেই।'

শুক্রবার কোলকাতার ভবানীপুরে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখার সময়ে এ মন্তব্য করেন তৃণমূল নেত্রী।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, 'অসময়ে বাধ্য হয়ে নির্বাচন করতে হচ্ছে। আমাকে ৬ মাসের মধ্যে বিধায়ক হতে হবে, সেজন্য নির্বাচন হচ্ছে। ভবানীপুর থেকে ঝুঁকি নিয়েই নন্দীগ্রামে প্রার্থী হয়েছিলাম। প্রথমেই বিজেপির পরিকল্পনা ছিল শারীরিক আঘাত করার। কারণ, বিজেপি জানে আমি মাথানত করি না।'

আরও পড়ুন


জাতিসংঘে বাংলায় ভাষণ দিলেন শেখ হাসিনা

‘শাহীন আনাম ও মাহফুজ আনাম হিন্দুদের ঐক্যে চিড় ধরানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত’

পরিবেশ রক্ষায় ঐক্যবদ্ধতা পৃথিবীকে বাঁচাবে : তথ্যমন্ত্রী


সাম্প্রতিক বিধানসভা নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রাম আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন। কিন্তু দলের বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় এবং বিধায়ক দলের নেতা নির্বাচিত হওয়ায় তিনি মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন। নিয়ম অনুযায়ী তাঁকে ৬ মাসের মধ্যে কোনও কেন্দ্র থেকে জিতে বিধায়ক নির্বাচিত হতে হবে। সেজন্য ভবানীপুর আসনে উপনির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভোটগ্রহণ হবে ৩০ সেপ্টেম্বর। ফল ঘোষণা হবে ৩ অক্টোবর।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

চীনে নিষিদ্ধ হলো ক্রিপ্টোকারেন্সি

নিজস্ব প্রতিবেদক

চীনে নিষিদ্ধ হলো ক্রিপ্টোকারেন্সি

ক্রিপ্টোকারেন্সির ভিত্তিতে হওয়া সকল ধরনের আর্থিক লেনদেন অবৈধ বলে ঘোষণা করেছে চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক- পিপলস ব্যাংক অব চায়না (পিবিওসি)। ফলে দেশটিতে ডিজিটাল বাণিজ্যের এ মাধ্যমটির কার্যত অবসান ঘটলো। 

এর আগে চীনা কর্তৃপক্ষের নীতিমালার কারণে গেল বছর বিটকয়েনের মতো ক্রিপ্টোকারেন্সির বৈশ্বিক মূল্য ব্যাপকভাবে ওঠানামা করেছে। অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে এ বিনিময় মাধ্যমের ব্যবহার ঘিরে সন্দেহ ও মুদ্রা পাচার রোধেই নীতিমালা কঠোর করেন চীনা নিয়ন্ত্রকরা। খবর রয়টার্স’র।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকটির এক অনলাইন বিবৃতিতে জানানো হয়, "নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে অপরাধ দমন আইনের আওতায় তদন্ত করা হবে।" 

ওই নোটিশে- ক্রিপ্টোকারেন্সি বিকিকিনি, টোকেন বিক্রি এবং এর ভার্চুয়াল অন্যান্য বিকল্পের মাধ্যমে লেনদেন বা তহবিল সংগ্রহকে অবৈধ বলা হয়েছে।  

বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিপ্টো-কারেন্সির বাজারগুলোর মধ্যে চীন একটি। চীনের এ সিদ্ধান্তের কারণে বিশ্ব বাজারে ক্রিপ্টোকারেন্সির মূল্যের ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। বিটকয়েনের মূল্য ২ হাজার মার্কিন ডলারেরও বেশি হ্রাস পেয়েছে।

মূলত চীনে ক্রিপ্টোকারেন্সির ব্যবহার ২০১৯ সাল থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত বহির্বিশ্বে ক্রিপ্টোকারেন্সির লেনদেন চালু ছিলো। এবছর সম্পূর্ণভাবে তা বন্ধ করে দেয়া হয়।

আরও পড়ুন:


স্ত্রীকে পরকীয়া থেকে ফেরাতে না পেরে স্ট্যাটাস দিয়ে যুবলীগ নেতার আত্মহত্যা

সংস্কারের অভাবে বেহাল রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট

গাজীপুরে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ভেসে আসা তিমির ওজন ৩০ হাজার কেজি, দৈর্ঘ্য ৪০ ফুট


 

এবছরের মার্চে চীন ক্রিপ্টোকারেন্সির ব্যবহারে নিরাপত্তা প্রসঙ্গে সকলকে সতর্ক করেছে এবং জুনে ব্যাংক এবং পেমেন্ট প্লাটফর্মগুলোকে ক্রিপ্টোকারেন্সির ব্যবহার বন্ধ করার কথা বলে। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর