বিমানে আফগান নারীর সন্তান প্রসব, শিশুর নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন

অনলাইন ডেস্ক

বিমানে আফগান নারীর সন্তান প্রসব, শিশুর নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন

আফগানিস্তান থেকে পালানোর পথে এক নারী যুক্তরাষ্ট্রের এক উদ্ধারকারী সামরিক বিমানে সন্তান প্রসব করেছেন। বিমানটি অবতরণের পর জার্মানির রামস্টিন বিমানবন্দরে মার্কিন সামরিক চিকিৎসা কর্মীরা ঐ নারীকে সন্তান প্রসবে সহায়তা করেন বলে এয়ার মবিলিটি কমান্ড জানাচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এয়ার মবিলিটি কমান্ড টুইটারে এক বার্তায় জানায়, ঐ আফগান প্রসূতি তার পরিবারের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের এক বিশেষ ফ্লাইটে কাবুল থেকে কাতার হয়ে জার্মানির রামস্টিন বিমান বন্দরে যাচ্ছিলেন। পথে তার প্রসব বেদনা শুরু হয়। তার পরিস্থিতি সংকটজনক হয়ে পড়লে পাইলট বিমানের "উচ্চতা কমিয়ে আনেন যাতে (উড়োজাহাজের কেবিনের ভেতরে) বাতাসের চাপ বাড়িয়ে প্রসূতির জীবনরক্ষা সম্ভব হয়।"
এরপর মা ও নবজাত কন্যা শিশুকে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়। দু'জনেই সুস্থ রয়েছে বলে মার্কিন কর্মকর্তারা জানাচ্ছেন।

তবে আকাশে জন্ম নেয়া ঐ শিশুর জাতীয়তা কী হবে তা নিয়ে সোশাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে জোর আলোচনা। কেউ কেউ বলছেন, শিশুটি যেহেতু মার্কিন পতাকাবাহী এবং যুক্তরাষ্ট্রে নিবন্ধন করা সামরিক বিমানে জন্মগ্রহণ করেছে সেজন্যে তার মার্কিন নাগরিকত্ব পাওয়া উচিত।

আরেক পক্ষ বলছেন, যেহেতু বিমানটি জার্মানিতে অবতরণের পর শিশুটি ভূমিষ্ঠ হয়েছে, তাই জার্মান নাগরিকত্বই তার প্রাপ্য।

এবিষয়ে এভিয়েশন বিষয়ক এক পত্রিকার নিবন্ধে সামনার হাল লিখেছেন, বিমানপথে জন্ম নেয়া শিশুর নাগরিকত্বের বিষয়টি একটু জটিল।

তিনি লিখেছেন, স্বাভাবিক নিয়ম অনুযায়ী, শিশুর নাগরিকত্ব নির্ধারিত হয়ে থাকে তার মা‌য়ের (এবং বাবার) নাগরিকত্ব অনুযায়ী, যাকে বলে 'জুস স্যাংগুইনিস' (রক্তের অধিকার)।

কিন্তু কোন কোন দেশ তার সীমানার মধ্যে শিশুর জন্ম হলে তাকে নাগরিকত্ব দেয়। যেমন, যুক্তরাষ্ট্রে এই নিয়ম আছে।

তবে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের ফরেন অ্যাফেয়ার্স ম্যানুয়াল অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের ভৌগলিক সীমানার বাইরে যে কোন স্থান যেমন দূতাবাস, কনসুলেট, সামরিক বিমান কিংবা ঘাঁটি ইত্যাদিতে জন্ম নিলেও কোন শিশু মার্কিন নাগরিকত্বের অধিকারী হবে না, যদি না তার পিতামাতার অন্তত একজনের মার্কিন নাগরিকত্ব থাকে।

তবে এই ম্যানুয়াল অনুযায়ী, আমেরিকার সীমান্তের ভেতরে ১২ নটিক্যাল মাইলের মধ্যে কোন শিশুর জন্ম হলে তাকে নাগরিকত্ব দেয়ার বিধান রয়েছে। একে বলে 'জুস সলি' বা ভূমির অধিকার।

কিন্তু অন্যান্য দেশে, যেমন জার্মানিতে, এই অধিকার থাকে না। সে দেশের নাগরিকত্ব পেতে হলে পিতা-মাতার অন্তত একজনের জার্মান নাগরিকত্ব থাকতে হবে এবং অন্যান্য বেশ কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে।

আর শরণার্থী শিশুর নাগরিকত্বের বিষয়টিতেও একেক দেশে একেক আইন ব্যবহার করা হয়।

সূত্রঃ বিবিসি

পরবর্তী খবর

চীনে ১০ কি.মি. গভীরতার শক্তিশালী ভূমিকম্পের হানা

অনলাইন ডেস্ক

চীনে ১০ কি.মি. গভীরতার শক্তিশালী ভূমিকম্পের হানা

চীনে আঘাত হেনেছে শক্তিশালী ভূমিকম্প। বৃহস্পতিবার দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ সিচুয়ানে ওই ভূমিকম্পে অন্তত তিনজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে ৬০ জন। রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এ তথ্য জানিয়েছে।

 

চার হাজারের বেশি উদ্ধারকর্মীদের একটি দলকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

চীনের ভূমিকম্প নেটওয়ার্ক কেন্দ্র (সিইএনসি) জানিয়েছে, সিচুয়ান প্রদেশের লুক্সিয়ান কাউন্টিতে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে।

আরও পড়ুন: 


দুবলার চর থেকে খুলনা কাঁকড়া পরিবহনে বাধা নেই: হাইকোর্ট


স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভূমিকম্পে দুই শতাধিক বাড়ি-ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৬ হাজার ৯০৪ জন বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

ভূমিকম্পটির গভীরতা ছিল ১০ কিলোমিটার (৬ মাইল)। এর কেন্দ্রস্থল ছিল ২৯ দশমিক ২ ডিগ্রি উত্তর অক্ষাংশে এবং ১০৫ দশমিক ৩৪ ডিগ্রি পূর্ব দ্রাঘিমাংশে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

বিখ্যাত টাইম ম্যাগাজিনে ১০০ প্রভাবশালীর তালিকায় মোদি-মমতা

অনলাইন ডেস্ক

বিখ্যাত টাইম ম্যাগাজিনে ১০০ প্রভাবশালীর তালিকায় মোদি-মমতা

বিখ্যাত টাইম ম্যাগাজিনে ২০২১ সালে বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের তালিকায় জায়গা পেলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  

বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) ঘোষণা করা ১০০ জন প্রভাবশালীর তালিকায় আরও রয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার সিইও আদর পুনাওয়ালা।

মমতার বিষয়ে টাইম ম্যাগাজিন জানায়, ৬৬ বছরের মমতা বন্দোপাধ্যায় একুশের বিধানসভা নির্বাচনে অভূতপূর্ব জয় পেয়েছেন। আক্ষরিক অর্থে ভারতে বিজেপি অর্থ, লোকবল এবং অপরাজেয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে উনি (মমতা) দুর্গের মতো দাঁড়িয়েছন এবং মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন।

আরও বলা হয়, ভারতীয় রাজনীতিতে অন্য নারীদের মতো মমতাকে কখনও কারও স্ত্রী, মা, মেয়ে বা সঙ্গী তকমা দিতে পারেনি বিরোধীরা। উনি অতি দরিদ্র পরিবার থেকে উঠে এসেছিলেন। নিজের পরিবারকে সাহায্যের জন্য স্টেনোগ্রাফার হিসেবে কাজ করেছেন। এমনকি দুধের বুথের ভেন্ডেরও সামলিয়েছেন।  

মমতার বিষয়ে আরও বলা হয়, উনি নিজের দল তৃণমূল কংগ্রেসকে নেতৃত্ব দেন না। তিনিই দল। পুরুষতান্ত্রিক সংস্কৃতির মধ্যে তার মনোভার অনেকটা স্ট্রিট ফাইটারের মতো।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিষয়ে টাইম ম্যাগাজিনে বলা হয়, স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে তিনজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা হলেন জওহরলাল নেহরু, ইন্দিরা গান্ধী এবং নরেন্দ্র মোদি। তিনি সেই তালিকায় তিন নম্বরে আছেন। ওই সমসাময়িক নেতৃত্ব ছাড়া মোদির মতো ভারতীয় রাজনীতিতে এভাবে আধিপত্য বিস্তার করেনি।

টাইম ম্যাগাজিনে প্রকাশিত বিশ্বের প্রভাবশালী ব্যক্তিদের তালিকায় আরও রয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, গতবারের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, ভাইস-প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং।  

ওই তালিকায় আরও জায়গা পেয়েছেন আফগানিস্তানের তালেবান নেতা মোল্লা আবদুল গনি বারাদার।  

আরও পড়ুন:


আইএস বধূ শামীমা বাংলাদেশে নয়, ফিরতে চান ব্রিটেনে

করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০ হাজারের কাছাকাছি মৃত্যু

রদ্রিগোর গোলে ইন্টার মিলানকে হারাল রিয়াল মাদ্রিদ

চট্টগ্রামের উপকূলে মিলল তিনটি মৃত ডলফিন!


NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

আইএস বধূ শামীমা বাংলাদেশে নয়, ফিরতে চান ব্রিটেনে

অনলাইন ডেস্ক

আইএস বধূ শামীমা বাংলাদেশে নয়, ফিরতে চান ব্রিটেনে

ব্রিটিশ সরকার বিভিন্ন সময় আইএস বধূ শামীমা বেগমকে বাংলাদেশের দিকে ঠেলে দিতে চাইলেও শামীমা বলেছেন, তিনি বাংলাদেশে আসতে চান না। 

গত বুধবার সিরিয়ার এক শরণার্থীশিবির থেকে ব্রিটেনের আইটিভির ‘গুড মর্নিং ব্রিটেন’ অনুষ্ঠানে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে শামীমা বেগম ব্রিটিশ জনগণ ও ব্রিটিশ সরকারের কাছে ক্ষমা চেয়ে তাঁকে ব্রিটেনে ফেরার সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানান। 

সন্ত্রাস দমনে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে সহযোগিতা করতেও তিনি তাঁর আগ্রহের কথা জানান। 

শামীমা বেগমসহ তিন কিশোরী ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে লন্ডন থেকে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দিতে সিরিয়ায় পাড়ি জমায়। তিনি তুরস্ক হয়ে সিরিয়ার রাকায় পৌঁছেন এবং সেখানে ইসলামিক স্টেটে যোগ দেওয়া নেদারল্যান্ডসের এক যোদ্ধাকে বিয়ে করেন। 

২০১৯ সালে সিরিয়ায় শরণার্থীশিবির থেকে তিনি যুক্তরাজ্যে ফিরতে চান। কিন্তু ব্রিটিশ সরকার তাঁর নাগরিকত্ব বাতিল করে। নিজ নাগরিককে ‘নাগরিকত্বহীন’ করে ব্রিটিশ সরকার তখন যুক্তি দেখিয়েছিল যে শামীমা বেগমের বাবা বাংলাদেশি। তাই শামীমা বাংলাদেশে ফিরতে পারেন। 

বাংলাদেশ সরকার তা প্রত্যাখ্যান করে বলেছিল, শামীমা বাংলাদেশের নাগরিক নন। তাঁকে বাংলাদেশে ঢুকতে দেওয়ার কোনো কারণ নেই। 

বিবিসি জানায়, শামীমা বেগমকে সাক্ষাত্কারে জিজ্ঞাসা করা হয় যে তিনি বংশগতভাবে বাংলাদেশের নাগরিক, কাজেই তিনি কেন বাংলাদেশে যাচ্ছেন না?

জবাবে শামীমা বেগম বলেন, তিনি জীবনে কখনো বাংলাদেশে আসেননি, বাংলাদেশি নাগরিকত্বের কোনো অধিকার তাঁর নেই। আর বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষ এরই মধ্যে জানিয়ে দিয়েছে, তাঁকে সেখানে যেতে দেওয়া হবে না এবং গেলে তাঁকে মৃত্যুদণ্ডের মুখোমুখি হতে হবে।

তিনি প্রশ্ন করেন, ব্রিটেনের মতো একটি গণতান্ত্রিক দেশ, যারা মৃত্যুদণ্ডে বিশ্বাস করে না, তারা কিভাবে আশা করে যে মৃত্যুদণ্ডের মুখোমুখি হওয়ার জন্য তিনি বাংলাদেশে যাবেন? 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০ হাজারের কাছাকাছি মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০ হাজারের কাছাকাছি মৃত্যু

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস বিশ্বজুড়ে আবারও দাপট দেখাচ্ছে। মাঝে সংক্রমণ ও মৃত্যু কিছুটা কমলেও আবারও স্বরূপে ফিরেছে ভাইরাসটি। 

গত ২৪ ঘণ্টায় (বুধবার) ১০ হাজারের কাছাকাছি মৃত্যু দেখল বিশ্ব। এ নিয়ে মহামারীতে মোট মৃত্যু ৪৬ লাখ ৭২ হাজার ছাড়িয়েছে। এই সময়ে নতুন সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছে সাড়ে ৫ লাখ। এতে মোট আক্রান্ত ২২ কোটি ৭২ লাখের ওপর। 

যুক্তরাষ্ট্রে আবারও ২ হাজারের ওপর দৈনিক প্রাণহানি। ১ লাখ ৫৬ হাজারের কাছাকাছি নতুন সংক্রমিতের সংখ্যা।

বুধবার মেক্সিকোয় মারা গেছে ১ হাজার ৪৬ জন। ব্রাজিল ও রাশিয়ায় প্রাণহানি ৮শ’য়ের কাছাকাছি। এদিন সাড়ে ৪শ’ মৃত্যু দেখেছে ইরান। ৫৩২ জনের মৃত্যু লিপিবদ্ধ হয়েছে ভারতে।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের রদবদল করলেন বরিস জনসন

অনলাইন ডেস্ক

মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের রদবদল করলেন বরিস জনসন

প্রথমবারের মতো মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ পদগুলোতে বড় ধরনের রদবদল করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

তিন মন্ত্রীকে বরখাস্ত করা ছাড়াও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদ থেকে ডমিনিক রাবকে সরিয়ে তার জায়গায়  নিয়োগ দিয়েছেন লিজ ট্রাসকে। ৪৬ বছর বয়সী ট্রাস গত দু’বছর বাণিজ্যমন্ত্রী সামলাচ্ছিলেন। তবে রাবকে করা হয়েছে নয়া আইনমন্ত্রী।

আফগানিস্তান থেকে বিশৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে বিদেশি সেনা ও মিত্রদের প্রত্যাহারের পর সংকট দক্ষ হাতে সামাল দিতে না পারা নিয়ে সমালোচনার মুখে রাবকে দপ্তর পরিবর্তন করলেন বরিস জনসন।

আরও পড়ুন: 


নামাজ আদায়সহ যেসব আমল আল্লাহর প্রিয়

বার্থ সার্টিফিকেটের মাধ্যমে জানা গেল নুসরাতের ছেলের পিতৃপরিচ‍য়

বান্দরবানে একই পরিবারের তিনজন নিখোঁজ


ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী অবশ্য ডমিনিক  রাবকে লর্ড চ্যান্সেলর এবং উপ-প্রধানমন্ত্রী হিসাবেও নিয়োগ দিচ্ছেন।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর