আফগান নাগরিকদের দেশত্যাগে উৎসাহ দেবেন না: তালেবান
আফগান নাগরিকদের দেশত্যাগে উৎসাহ দেবেন না: তালেবান

আফগান নাগরিকদের দেশত্যাগে উৎসাহ দেবেন না: তালেবান

অনলাইন ডেস্ক

আফগান নাগরিকদের দেশত্যাগ করে পশ্চিমা দেশগুলোতে চলে যেতে উৎসাহ না দেয়ার জন্য আমেরিকাকে সতর্ক করে দিয়েছে তালেবান। এই গোষ্ঠীর মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ মঙ্গলবার রাতে তার দ্বিতীয় সংবাদ সম্মেলনে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

বিদেশি সেনাদের কাবুল বিমানবন্দর ত্যাগ করার নির্ধারিত তারিখ নবায়ন করা হবে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে মুজাহিদ বলেন, “বিদেশি পার্সপোর্টধারী সবাইকে পূর্ব নির্ধারিত ৩১ আগস্টের সময়সীমার মধ্যে কাবুল ত্যাগ করতে হবে। তবে আমরা আফগান নাগরিকদের দেশত্যাগের পক্ষে নই।

তিনি বিদেশ গমনের লক্ষ্যে কাবুল বিমানবন্দরে জড়ো হওয়া আফগান নাগরিকদেরকে তাদের ঘরবাড়িতে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানান এবং তাদেরকে দেশত্যাগে উৎসাহ না দেয়ার জন্য আমেরিকার প্রতি আহ্বান জানান।

জবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, “আমরা আমেরিকাকে বলে দিয়েছি তারা যেন আফগান নাগরিকদের দেশত্যাগ উৎসাহ না দেয়। কারণ, আমাদের নাগরিকদেরকে নিয়ে তারা নীচু মানের কাজে নিয়োগ দেবে। ”

তালেবান মুখপাত্র তার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আফগানিস্তানে বিদেশি মিশনগুলোর নিরাপত্তা রক্ষা করার দায়িত্ব আমরা নিয়েছি এবং সব বিদেশি কূটনীতিক নির্ভয়ে তাদের কাজ চালিয়ে যেতে পারেন।

মুজাহিদ বলেন, তালেবান এখনো সরকার গঠন না করলেও সব সরকারি অফিস-আদালত খুলে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকসহ সব ধরনের ব্যাংক আজ-কালের মধ্যে খুলে যাবে এবং সব ধরনের অর্থনৈতিক তৎপরতা আগের মতো স্বাভাবিকভাবে চলবে।

আরও পড়ুন


এবার পানশির উপত্যকা দখলে অগ্রসর হচ্ছে তালেবান

রামেক করোনা ওয়ার্ডে আরও ৯ জনের মৃত্যু

গাজা উপত্যকায় হামাসকে লক্ষ্য বোমা হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে চাকরির সুযোগ


সরকারি অফিস-আদালতে কর্মরত নারী চাকুরিজীবীদের ভবিষ্যত সম্পর্কে এক প্রশ্নের উত্তরে তালেবান মুখপাত্র বলেন, তাদের জন্য প্রথমে দায়মুক্তির ব্যবস্থা করা হবে এবং এরপর তারা কাজে যোগ দিতে পারবেন। জবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, শিগগিরই নারীদের লেখাপড়া ও চাকুরির ব্যাপারে আমাদের নীতি ঘোষণা করা হবে। নারীরা শিল্পকর্ম চালিয়ে যেতে পারবে কিনা- এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমাদের মানদণ্ড ইসলামি শরিয়ত। শরিয়ত একজন নারীকে যতটুকু স্বাধীনতা দিয়েছে তার ভেতরে থেকে নারীরা সব ধরনের তৎপরতা চালাতে পারবে।

তালেবান মুখপাত্র অপর এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, আমাদের দৃষ্টিতে আফগান যুদ্ধ শেষ হয়ে গেছে। কাজেই পাঞ্জশির উপত্যকার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সৃষ্ট সমস্যা আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা করা হবে।

news24bd.tv রিমু