খুলনা সিটি কর্পোরেশনে ২০২১-২২ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক

খুলনা সিটি কর্পোরেশনে ২০২১-২২ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষণা

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ২০২১-২২ অর্থ বছরের ৬ শত ৮ কোটি ৫৬ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করেছেন মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:


কাশ্মীর দখল করে পাকিস্তানের হাতে তুলে দেবে তালিবান!

ট্রেনের জন্য অপেক্ষায় থাকা গৃহবধূকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে যে পরামর্শ দিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

গোপনে বিয়ে করলেন মা নাটকের সেই ঝিলিক!


NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

সামাজিক দ্বন্দ্বে শৈলকুপায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর ভেঙ্গে দিল প্রতিপক্ষরা

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ

সামাজিক দ্বন্দ্বে শৈলকুপায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর ভেঙ্গে দিল প্রতিপক্ষরা

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলায় গত ২৬ জুলাই সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের দু গ্রুপের সহিংসতায় প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত হন দামুকদিয়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে রাশিদুল ইসলাম ওরফে উকিল মৃধা (৪৬)।

এ হত্যাকাণ্ডের পরপরই গ্রামটিতে ব্যাপক লুটপাট ও বাড়ি ঘর ভাঙচুর শুরু হয়। এ পর্যন্ত প্রায় শতাধিক বাড়িতে লুটপাট ও ভাঙ্গচুর করা হয়েছে।

জানা গেছে, হত্যা পরবর্তী সময়ে রাতেই সহিংসতার আশঙ্কায় এক পক্ষ বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। এলাকায় আইন শৃঙ্খলারক্ষার্থে থানা পুলিশ একটি অস্থায়ী ক্যাম্প স্থাপন করে পালাক্রমে বিভিন্ন অফিসার ও ফোর্স ডিউটি করতো। কিছুদিন আগে ওই গ্রাম থেকে পুলিশ প্রত্যাহার করা হলে প্রতিপক্ষরা শুরু করে তান্ডব। এ তান্ডবে রেহাই পায়নি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের ঘরও।

আরও পড়ুন


ভারতের ঢলে বন্যার কবলে তিস্তাপাড়ের মানুষ, আতঙ্কে ঘর ছাড়ছে সবাই

উঠতি নায়িকার সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপে যে আলাপ হতো আরিয়ানের

বিএনপি নিজেরাই রাজনৈতিকভাবে সাম্প্রদায়িক: ওবায়দুল কাদের

তিন সহোদরের মারামারি, মামলা দিল প্রতিবেশি দুই সরকারি চাকরিজীবীকে


কাসেদ আলির পুত্র আবু কালাম ও ছলিম উদ্দিন শেখের পুত্র ওহিদুল ইসলাম দুলুর ঘরের জানালা-দরজা, ভেতরের বৈদ্যুতিক ওয়্যারিংয়ের তার ও সরঞ্জামাদি এবং ঘরে থাকা কাপড়-চোপড় আসবাবপত্র ও নগদ টাকা লুট করে নেয় প্রতিপক্ষরা।

শৈলকুপা থানার বিদায়ী অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম জানান, এ ব্যাপারে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীদের আটকের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ভারতের ঢলে বন্যার কবলে তিস্তাপাড়ের মানুষ, আতঙ্কে ঘর ছাড়ছে সবাই

আব্দুর রশিদ শাহ, নীলফামারী

ভারতের ঢলে বন্যার কবলে তিস্তাপাড়ের মানুষ, আতঙ্কে ঘর ছাড়ছে সবাই

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বুধবার (২০ অক্টোবর) ভোর ৬টা থেকে তিস্তা নদীর পানি নীলফামারী ডিমলার ডালিয়া তিস্তা ব্যারেজ পয়েন্টে বিপৎসীমার ৬০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

তিস্তার পানি হঠাৎ বেড়ে যাওয়ায় আশে পাশের মানুষের মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। ভেঙ্গে গেছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ফ্লাট বাইপাস রাস্তাটিও। 

ভারি বর্ষণ, উজানের ঢল ও ভারতের গজলডোবার সব কয়টি গেট খুলে দেওয়ায় হু হু করে বাড়ছে তিস্তার পানি। ডিমলা উপজেলার ডালিয়া পয়েন্টে সকাল থেকেই তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমার ৬০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে উপজেলার টেপাখড়িবাড়ী, গয়াবাড়ী, ছোটখাতা, বাইশ পুকুর, ছাতুনামাসহ তিস্তা নদীবেষ্টিত এলাকা তলিয়ে গেছে। এ কারণে রেড অ্যালার্ট জারি করে মানুষজনকে নিরাপদে সরে যাওয়ার জন্য ঘোষণা দিয়েছে তিস্তা অববাহিকায় পানি উন্নয়ন বোর্ড।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপক নূরুল ইসলাম জানান, উজানের পাহাড়ি ঢলে মঙ্গলবার রাত থেকে তিস্তা নদীর পানি বাড়তে থাকে। বুধবার ভোর ৬টা থেকে তিস্তার পানি ৫৩ দশমিক ২০ সেন্টিমিটার অর্থাৎ বিপৎসীমার ৬০ সেন্টিমিটার (বিপৎসীমা ৫২ দশমিক ৬০ সেন্টিমিটার) ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানির গতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে তিস্তা ব্যারেজের ৪৪টি জলকপাট খুলে রাখা হয়েছে।

ডিমলা উপজেলার পূর্বছাতনাই ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ খান জানান, এলাকার জিরো পয়েন্টে তিস্তার ডান তীর ও গ্রোয়েন বাঁধ হুমকির মুখে পড়েছে। বিশেষ করে গ্রোয়েন বাঁধটির উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। ওই গ্রোয়েনটি বিধ্বস্ত হলে ডান তীর বাঁধসহ এলাকার শত শত বাড়ি তিস্তা নদীতে ভেসে যাবে।

আরও পড়ুন


উঠতি নায়িকার সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপে যে আলাপ হতো আরিয়ানের

বিএনপি নিজেরাই রাজনৈতিকভাবে সাম্প্রদায়িক: ওবায়দুল কাদের

তিন সহোদরের মারামারি, মামলা দিল প্রতিবেশি দুই সরকারি চাকরিজীবীকে

আবাসিক হোটেলে ‘অসামাজিক কাজ’, ৯ তরুণ-তরুণী গ্রেপ্তার


টেপাখড়িবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ময়নুল হক জানান, পরিস্থিতি খুব খারাপ। তিস্তা বাজার, তেলিরবাজার, দোলাপাড়া, চরখড়িবাড়ি এলাকা তলিয়ে গেছে। চরের ফসলের জমি সব পানির নিচে। ঘরবাড়ি ছেড়ে মানুষজন গবাদি পশুসহ নিরাপদে সরে গেছে।

খালিশা চাপানী ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান সরকার বলেন, কার্তিক মাসের এমন হঠাৎ বন্যা এলাকাবাসীকে পথে বসিয়ে দিচ্ছে। এলাকার ছোটখাতা, বাইশপুকুর, সুপারীপাড়া গ্রাম এখন নদীতে পরিণত হয়েছে।

এদিকে, তিস্তার পানির বৃদ্ধির কারনে ভেঙ্গে  গেছে বাঁধ। ভেঙে যাওয়ার কারণে তলিয়ে গেছে চাষাবাদকৃত বিভিন্ন ফসল ও হুমকিতে পড়েছে কয়েক গ্রামের বাড়িঘর  ও রাস্তাঘাট।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

লক্ষ্মীপুরে খোঁজ মিলছে না দুই কিশোরীর

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :

লক্ষ্মীপুরে খোঁজ মিলছে না দুই কিশোরীর

লক্ষ্মীপুরে নাজমা আক্তার ও পপি আক্তার (চাচাতো- জেঠাতো বোন) নামের সমবয়সী দুই কিশোরী বোন নিখোঁজের তিনদিন পরও এখনো খোঁজ মিলছে না। বুধবার দুপুর ১ টার দিকে কমলনগর থানার ওসি বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

রাতে নিখোঁজ কিশোরীদের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় জিডি করা হয়। এর আগে সোমবার (১৮ অক্টোবর) ভোরে কমলনগরের চরমার্টিন এলাকার নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে এখনো ফেরেনি তারা। এ নিয়ে চরম উৎকন্ঠায় রয়েছে তাদের পরিবারের সদস্যরা। পুলিশ বলছে, তাদের উদ্ধারে কাজ চলছে।

আরও পড়ুন


ক্ষীরশাপাতি আমের পর এবার আরও দুইটি পণ্য জিআই সনদ পাচ্ছে

দীপিকাকে না করতে পারিনি: তাহসান

প্রবাল দ্বীপ সেন্ট মার্টিন ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা

বুধবার রাজধানীর যেসব এলাকার মার্কেট বন্ধ থাকবে


জানা যায়, উপজেলার চর মার্টিন ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সিডু মাঝি বাড়ির শামছুল হকের মেয়ে নাজমা। সে স্থানীয় মুন্সিরহাট আলিম মাদ্রাসার নবম শ্রেণীর ছাত্রী। তার সম বয়সী চাচাতো বোন পপি আক্তার একই বাড়ির নুরুল হকের মেয়ে। সোমবার ভোরে সবার অজান্তে তারা বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। এরপর থেকে এখনো তারা বাড়ি ফেরেনি। এ নিয়ে উৎকন্ঠায় রয়েছে দুই পরিবারের সদস্যরা।

নিখোঁজ নাজমা আক্তারের ভাই সবুজ আলম ও পপির ভাই মো.ফারুক জানান, আত্মীয় স্বজনসহ বিভিন্ন সম্ভাব্য স্থানে সন্ধান করেও তাদের পাওয়া যাচ্ছে না। এই বিষয়ে থানায় জিডি করা হয়েছে। 

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মোসলেহ উদ্দিন জানান, দুই কিশোরীর পরিবারের লোকজন থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। উদ্ধারে কাজ করছে পুলিশ। তবে ধারণা করা হচ্ছে প্রেমের সম্পর্কে বাড়ি ছেড়েছেন দুই কিশোরী।  

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

তিন সহোদরের মারামারি, মামলা দিল প্রতিবেশি দুই সরকারি চাকরিজীবীকে

আব্দুল লতিফ লিটু, ঠাকুরগাঁও

তিন সহোদরের মারামারি, মামলা দিল প্রতিবেশি দুই সরকারি চাকরিজীবীকে

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ গুয়াগাঁও মহল্লায় পারিবারিক কোন্দলের ঘটনায় দুই সরকারি চাকরিজীবী-সহ একই পরিবারের ৫ জনকে ফাঁসাতে রনি নামে এক যুবক পীরগঞ্জ থানায় অভিযোগ করেছেন।

জানা গেছে ঐ মহল্লার নজরুল ইসলামের ছেলে রনি, রফিক ও আলাল মাদক, দাদন ব্যবসার সুদের টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে মত বিরোধ দেখা দেয়। এক পর্যায়ে তর্ক বির্তক ও উত্তেজিত হয়ে তাদের মধ্যে তুমুল মারামারি হয়। গত ১৯ সেপ্টেম্বর ঘটনাটি তাদের নিজ বাড়িতে সংঘটিত হয়। ঐ সময় রনি, রফিক ও আলাল একে অপরকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে।

এ ঘটনার প্রত্যক্ষদর্সী সাক্ষী হিসেবে ঐ ওয়ার্ডের পৌরসভার কাউন্সিলর আব্দুস সামাদসহ স্থানীয় লোকজন রয়েছে। প্রতিবেশী মোঃ আব্দুল আজিজ পীরগঞ্জ ভূমি অফিসের সরকারি চাকরিজীবী আজিমুন নাহার রানী, তার মা সূর্য্য বানু বেগম, তার বোন চন্দ্রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক মোছাঃ আজমেরী বেগম, তার ভাই ঔষধ কোম্পানীতে রিপ্রেজেনটেটিভ মোঃ সুলতানকে আসামী করে পীরগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন রনি।

আরও পড়ুন


আবাসিক হোটেলে ‘অসামাজিক কাজ’, ৯ তরুণ-তরুণী গ্রেপ্তার

বিয়ের আশ্বাসে প্রেমিকার সঙ্গে বারবার শারীরিক সম্পর্ক, তরুণীর অনশন

আজ থেকে সপ্তাহে ৫ দিন ঢাকা-দিল্লি বিমানের ফ্লাইট

ক্ষীরশাপাতি আমের পর এবার আরও দুইটি পণ্য জিআই সনদ পাচ্ছে


অভিযোগে হুমকি ধামকি গুরুতর আহতসহ টাকা চুরির অপরাধের অভিযোগ আনা হয়। সরেজমিন ও একাধিক বিশ্বস্থ সূত্রে জানা যায় ঘটনার দিন ও সময়ে আজিমুন নাহার ও আজমেরী বেগম তাদের নিজ নিজ সরকারি কর্মস্থলে ছিলেন। তার বাবা আব্দুল আজিজ তার  মায়ের মৃত্যুতে দিনাজপুর সদর উপজেলায় নিজ গ্রামের বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। এছাড়া মোঃ সুলতান তিনি ঔষধ কোম্পানীতে কর্মরত ছিলেন। অথচ ভাই ভাই মারামারি করে নিরপরাধ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা অভিযোগ আনায় এলাকার সচেতন মহলের মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করায় মামলার বাদী মোঃ রনি, তার পিতা নজরুল ইসলাম ও তাদের পরিবারের সদস্যদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেছেন এলাকাবাসী। এর পরেও মামলার বাদী ও তার পরিবারের সদস্যরা ঐ ৫ ব্যক্তিকে নানা রকম হুমকি ধামকি দিচ্ছে। পুনরায় মিথ্যা মামলা দিয়ে জেল হাজত খাটাইবে বলিয়া অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

হত্যা মামলায় আসামির জিজ্ঞাসাবাদের ভিডিও ফাঁস, ওসি প্রত্যাহার

বোরহান উদ্দিন, সুনামগঞ্জ

হত্যা মামলায় আসামির জিজ্ঞাসাবাদের ভিডিও ফাঁস, ওসি প্রত্যাহার

সুনামগঞ্জের ছাতক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) শেখ নাজিম উদ্দিনকে দায়িত্বে অবহেলার কারণে প্রত্যাহার করা হয়েছে। 

আজ বুধবার সকাল ১১ টায় প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান। 

তিনি বলেন, হত্যা মামলার এক আসামির জিজ্ঞাসাবাদের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করার দায়ে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ছাতক থানার ওসি শেখ নাজিম উদ্দিনকে প্রত্যাহার করে সুনামগঞ্জ পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


ইউপি নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগের ৩১ চেয়ারম্যান

এখনও যেভাবে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবার সুযোগ রয়েছে বাংলাদেশের!

প্রোগ্রামে ‘বোরকা না পরার’ নির্দেশ ঢাবি ছাত্রলীগ নেত্রীর!

রাজধানীতে ১৭ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণ


জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে সুনামগঞ্জের ছাতকে একটি হত্যা মামলার আসামিকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদের দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ‘লাইভে’ প্রচারের ঘটনা ভাইরাল হওয়ার পর বিষয়টি নিয়ে আলোচনা তৈরি হয়। পরে শুক্রবার বিকেলে এই ঘটনা খতিয়ে দেখতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (জগন্নাথপুর সার্কেলকে) সদস্য করে দুই সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেন সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান। এবং সেই তদন্ত কমিটির দেওয়া প্রতিবেদন প্রমাণিত হওয়ায় ছাতক থানার ওসিকে ওই থানা থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর