কাবুল বিমানবন্দরে এক প্লেট ভাত সাড়ে ৮ হাজার টাকা
কাবুল বিমানবন্দরে এক প্লেট ভাত সাড়ে ৮ হাজার টাকা

কাবুল বিমানবন্দরে এক প্লেট ভাত সাড়ে ৮ হাজার টাকা

অনলাইন ডেস্ক

তালেবানের হাতে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের পতন হয়েছে ১০ দিনেরও বেশি। তবে কাবুল বিমানবন্দরে দেশ ছাড়তে চাওয়া আফগানদের অবস্থা সেই আগের মতোই আছে। এর পরিস্থিতিতে কাবুল বিমানবন্দরের করুণ ছবি উঠে এসেছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে।

পরিস্থিতি এতোটাই খারাপ হয়েছে যে, কাবুল বিমানবন্দরের আশপাশে এক বোতল পানি বিক্রি হচ্ছে ৪০ মার্কিন ডলারে।

বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ৩ হাজাপরিস্থিতির ৫০০ টাকা। এছাড়া এক প্লেট ভাতের মূল্যও চাওয়া হচ্ছে ১০০ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৮ হাজার ৫০০ টাকারও বেশি। বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট’কে এক আফগান নাগরিক জানায়, তিনি এক বোতল পানি কিনেছেন যার দাম পড়েছে ৪০ মার্কিন ডলারের মতো।

আরও পড়ুন:

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে আফগানিস্তানে, খুলছে ব্যাংক-আর্থিক প্রতিষ্ঠান

হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বরিশালে মানববন্ধন

পাবজি ও ফ্রি ফায়ারকে বন্ধ করতে নির্দেশনা দিল বিটিআরসি

ফজল-উর-রেহমান নামে এক ব্যক্তি বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে বলেন, ‘কাবুল বিমানবন্দরে এখন এক বোতল পানি ৪০ মার্কিন ডলারে এবং এক প্লেট ভাত ১০০ মার্কিন ডলারে বিক্রি হচ্ছে। সেখানে আফগানি মুদ্রার বদলে কেবল মার্কিন ডলারে বেচাকেনা চলছে। এই উচ্চ মূল্যের কারণে সেখানে খাবার ও পানীয় এখন সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে। ’

এদিকে বিবিসি জানিয়েছে, তালেবানের হাতে কাবুলের পতনের পর গত ১০ দিনে ৮২ হাজারেরও বেশি মানুষকে দেশটি থেকে বিমানে করে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। দেশ ছাড়তে ইচ্ছুক হাজার হাজার আফগান এখনও বিমানবন্দরের বাইরে ও ভেতরে অপেক্ষা করছে।