ইউটিউবের কী আলাদা ব্যাকারণ আছে?

শওগাত আলী সাগর

ইউটিউবের কী আলাদা ব্যাকারণ আছে?

শওগাত আলী সাগর

গত কয়েকদিন ধরে ইউটিউবে ঘোরাঘুরি করছিলাম। আচ্ছা, ইউটিউবের কী আলাদা কোনো ব্যাকারণ আছে? ইউটিউব মানেই কী- তাতে ‘ট্যাবলয়েড, ট্যাবলয়েড’ টেস্ট থাকতে হবে! হেডিং এ (এটাকে নাকি থাম্বনিল না কী যেনো বলে), কনটেন্ট এ!

ইউটিউবে ঘুরতে ঘুরতে মনে হচ্ছিলো- কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো যে ইউটিউবসহ সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ন্ত্রণের জন্য আইন করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন- যেটি ভোটের কারণে এখন থমকে আছে এবং তিনি সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলে প্রথমেই সেটিকে পাশ করিয়ে নেবেন, সেটি অত্যন্ত সঠিক পদক্ষেপ ছিল।

ইউটিউব বিশাল একটি মিডিয়া, শক্তিশালী মিডিয়াও। অথচ এর মেজাজটায় কেমন যেনো ‘ইবনে মিজান টাইপ’ এর নিয়ন্ত্রণ, ‘সত্যজিত রায় টাইপে’র সেখানে টিকে থাকাই কঠিন!

আরও পড়ুন:


পরীমণির জামিন আবেদন দুই দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে হাইকোর্টের রুল

বঙ্গোপসাগরে ঢেউয়ের আঘাতে তলা ফেটে ট্রলার ডুবি


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

বিলাসিতা আমার নয়, তবুও

আবুল হাসনাত মিল্লাত

বিলাসিতা আমার নয়, তবুও

বিলাসিতা আমার নয়, বরং এ ক্ষেত্রে উল্টোপথে হাঁটি। আমার জীবনাচরণ, পোশাক-আশাক সবকিছুই খুব সাধারণ। ঢাকায় গেলে আজকাল নিজেদের গাড়ির চাইতে বাস কিংবা উবারেই বেশী চড়ি। 

তবে ভালোবাসা ফেরাতে পারি না। এবার জন্মদিনে চরমভাবে চমকে দিয়েছিল নূপুরজান। জাপান থেকে তৈরী হয়ে লাল টুকটুকে সেই মাজদা সিএক্স-৮ গাড়িটা ১ নভেম্বর আমাদের পাবার কথা ছিল। সেপ্টেম্বর মাসে তৈরী হওয়া গাড়িটা জাপান থেকে সময়ের আগেই চলে এসেছে। 

আজ সকাল এগারোটায় একগাদা কাগজে সই করে নূপুরজান গাড়ির চাবিটা আমার হাতে তুলে দিল। নতুন গাড়ি পেয়ে পার্থিব-পূর্ণতা ভীষণ খুশী। গাড়ি বিক্রেতা অ্যান্ড্রু আমাকে গাড়ির ফিচারগুলো দেখিয়ে দিলেন। গাড়ির নিরাপত্তা ব্যবস্থাসহ অন্যান্য ফিচারগুলো এত আধুনিক হয়েছে, আমার ধারণাই ছিল না। 

গাড়িটা আমি নিয়েছি ঠিকই, কিন্তু আমি মনেপ্রাণে চেয়েছি গাড়িটা নূপুরজান চালাবে। কিন্তু তার কোন লক্ষণই নাই। নূপুর তার পুরোনো টয়োটা ক্লুগার জীপ নিয়ে মার্কেটে গেলো। আমি নতুন জীপে বাচ্চাদের নিয়ে মার্কেটে গেলাম। জাপানী গাড়ির সম্মানার্থে নানারকমের জাপানী সুশি দিয়ে লাঞ্চ সারলাম।

বিলাসিতা কিছুটা বুঝি সংক্রামকও। আজকাল ব্রান্ডের দোকান ছাড়া কোথাও যেতে ইচ্ছে করে না। বর্তমানে সংসার-সন্তান-নূপুরজানের পাশাপাশি আমার নিজস্ব সময়টুকু প্রধানত লেখালেখি এবং এই সংক্রান্ত পড়াশোনাতেই কাটে। 

করোনার লকডাউন কিছুটা শিথিল হয়েছে, তবে এখনো সবখানে যাবার অনুমতি নাই। বাসা থেকে দুঘন্টা দূরে নদীর পাড়ে অবস্থিত হলিডে পার্কের একটা রিসোর্ট বুক করেছি। 

নতুন গাড়ি নিয়ে সবাই মিলে ২১ অক্টোবর চারদিনের জন্য ছুটি কাটাতে যাবে। প্রায় তিনমাসের লকডাউনে একদম হাঁপিয়ে উঠেছি। চিয়ার্স!

লেখাটি আবুল হাসনাত মিল্লাত-এর ফেসবুক থেকে নেওয়া। (সোশ্যাল মিডিয়া বিভাগের লেখার আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়।)

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

পরিবার বা স্কুল-মাদ্রাসা প্রকৃত মানবতার শিক্ষা দিতে ব্যর্থ

বিশ্বজিৎ চৌধুরী

পরিবার বা স্কুল-মাদ্রাসা প্রকৃত মানবতার শিক্ষা দিতে ব্যর্থ

যে দেশের শিশু-কিশোরেরা ট্রেনের জানালায় পাথর ছুঁড়ে কাঁচ ভেঙে আনন্দ পায়, রেলযাত্রীর মাথা ফেটে গেলে আনন্দ দ্বিগুণ হয়, বুঝতে হবে সেই দেশের প্রাথমিক শিক্ষায় বড় গণ্ডগোল আছে। তারা বড় হয়ে অন্য ধর্মের উপাসনালয়ে পাথর ছুঁড়বে এটাই স্বাভাবিক।

পরিবার বা স্কুল-মাদ্রাসা প্রকৃত মানবতার শিক্ষা দিতে ব্যর্থ বা অনিচ্ছুক। যদি কিছু করতে হয়, এখানেই করতে হবে। শিশু বয়স থেকে সম্প্রীতির শিক্ষা রাখতে হবে পাঠ্যক্রমে, যেমন জাপানে আছে।

শিক্ষক বা হুজুরদেরকেও এই পাঠ্যক্রমের আওতায় আনতে হবে। নইলে ট্রেনের জানালায় নেট (লোহার জাল) লাগিয়ে ট্রেন হয়তো চালানো যাবে, কিন্তু অন্য কী পন্থায় মানুষের মাথা ফাটানো যায় সেই পথ খুঁজতে থাকবে সুযোগসন্ধারীরা। আলামত দেখতে পাচ্ছেন না?

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

কুমিল্লার ঘটনা ও একজন মুসলমানের বয়ান

কাজী শরীফ

কুমিল্লার ঘটনা ও একজন মুসলমানের বয়ান

১. আমি ঈদের নামাজে কোনদিন কাউকে প্রতীমা রাখতে দেখিনি। কারণ ঈদ উদযাপনের সাথে ঈদের নামাজে প্রতীমা রাখার সম্পর্ক নেই। প্রতীমা হিন্দুদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হলেও মুসলমানের জন্য নয়। সুতরাং সে একই যুক্তিতে হিন্দুদের দুর্গোৎসবে কোরান শরীফ রাখার নেই কোন ধর্মীয় ও বাস্তবসম্মত যুক্তি। এ কোরান রেখেছে হিন্দু মুসলিম চমৎকার সম্পর্ক বিনষ্টকারী একটা কুচক্রি মহল। রাষ্ট্রের উচিত সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে এ ঘটনার পেছনের কালপ্রিটকে খুঁজে বের করা।

২. শুধু এ ঘটনা নয় বাংলাদেশে এ ধরনের যেকোন ঘটনা হলে একশ্রেণির লোক ঘটনার পূর্বাপর না জেনে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে কিংবা ফেসবুক লাইভে এসে পরিস্থিতি উস্কে দেয়। তাদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনতে হবে। তাদের খুঁজে বের করা কঠিন নয়। আপাতত অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া, অভিনেত্রী ভাবনা, অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরীর মত কয়েকজনের বিভিন্ন স্ট্যাটাস বা ছবির কমেন্ট বক্স খুঁজলেই কয়েকজনকে পাওয়া যাবে বলে আমার বিশ্বাস।

৩. আমাদের শিক্ষার মানে গুণগত পরিবর্তন আনতে হবে। প্রতিটি ধর্মের মূল চেতনা অক্ষুন্ন রেখে মানুষ হিসেবে অন্য ধর্মের মানুষের প্রতি শ্রদ্ধার প্রতি গুরুত্বারোপ করে শিক্ষাদান করতে হবে। এক্ষেত্রে রাসুল (সা) বিদায় হজের ভাষণে কী বলেছেন, কোরান এবং হাদিসের আলোকে তাঁর জীবনের অনন্য ঘটনাগুলো মুসলমানদের জানাতে হবে।

৪. সবশেষে আন্তরিকভাবে ক্ষমা প্রার্থনা করছি এদেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের প্রতি। মাফ চাচ্ছি সে বাবার কাছে যিনি তার মেয়ের হাত ধরে মন্দিরে গিয়ে ভাঙচুরের সময় জীবন রক্ষার্থে পালিয়ে এসেছেন, সে স্বামীর কাছে যিনি স্ত্রীকে নিয়ে পূজামন্ডপে গিয়ে আনন্দ করা থেকে বঞ্চিত হলেন, সে ভাইয়ের কাছে যে তার বোনকে মন্দিরে পাঠাতে ভয় পাচ্ছেন। একজন মুসলমান হিসেবে আমি আমার অন্য ধর্মের ভাইবোনের কাছে ক্ষমা চাই। আমার ইসলাম এমন না। আমার ধর্ম শান্তির। যারা এ শান্তির ধর্মের মান রাখতে ব্যর্থ হয়েছেন আমার আল্লাহ তাদের বিচার করুক।

লেখাটি কাজী শরীফ (সহকারী জজ ,নোয়াখালী)-এর ফেসবুক থেকে নেওয়া।

কাজী শরীফ, সহকারী জজ, নোয়াখালী -এর ফেসবুক থেকে নেওয়া। (সোশ্যাল মিডিয়া বিভাগের লেখার আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়।)

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

অবশেষে দীর্ঘ গভীর প্রেমে আমার চূড়ান্ত বিচ্ছেদ

পীর হাবিবুর রহমান

অবশেষে দীর্ঘ গভীর প্রেমে আমার  চূড়ান্ত বিচ্ছেদ

তার সঙ্গে আমার গভীর প্রেম দীর্ঘদিনের। সেই প্রথম প্রেম। প্রেমে একবার তিন বছরের বিচ্ছেদ ঘটেছিলো হৃদরোগের কারণে। কিন্তু আড্ডার আসরে বসে আবার প্রেমে পড়েছিলাম। জগৎ বিখ্যাত বিজ্ঞানী ও দার্শনিক আলবার্ট আইনস্টাইন আটবার বিচ্ছেদ ঘটালেও প্রেমের ইতি টানতে পারেননি।

আমার এ প্রেমের ঘটক ছিলো বন্ধু তুহিন। আল্লাহর দান একখানা চেহারা পেয়েছিলো সে। দুধ খেয়ে বিড়ালের মতোন মুখ মুছে বসে থাকার। মা বলতেন, আমার হাবিব তুহিনের সাথে আছে আমি নিশ্চিন্ত। অথচ তুহিন আমার আগে মানে এসএসসির আগেই প্রেমে পড়েছিলো। সেই আমাকে কলেজের ফার্স্ট ইয়ারে এই প্রবল নেশার প্রেমে ফেলেছিলো। তার হাতে অনেক তালিম। আমার এ প্রেম কি বৃষ্টি, কি শীত কি বসন্ত, কি আড্ডা কি টেনশন কি আনন্দ, কি বেদনা, কি একাকিত্ব আমাকে দারুন সুখ দিয়েছে।

আহারে ক্যাপস্টান দিয়ে শুরু ফিল্টারহীন স্টারে কি তৃপ্তি! তারপর গোল্ডলিফ, ক্যাম্পাস থেকেই বেনসন এন্ড হেজেস! তারপর মালবরো লাইট! চেন্জ স্মোকার ছিলাম। আমার এ প্রেমের সঙ্গী কতজন হয়েছেন! কতজন নিয়েছেন, টেনেছেন,আমিও আনন্দ পেয়েছি! তাকে ছাড়া এক মুহুর্ত আমি থাকতে পারতামনা! অশান্ত অস্থির হয়ে যেতাম। কি টান ছিলো তার জন্য! চাপানের শেষে, খাবারের শেষে, কারণে অকারণে তাকেই চেয়েছি! অবশেষে তার সঙ্গে কিছুদিন আগে থেকে চূড়ান্ত বিচ্ছেদ। তাকে স্পর্শ করার প্রবল নেশা রক্তে!

আরও পড়ুন


মানুষকে ভালোবাসো, মানুষও ভালোবাসা ফিরিয়ে দেবে

অপু বিশ্বাসের নতুন ভিডিও, যে বার্তা দিলেন ভক্তদের (ভিডিও)

দশমীর দিনে মুক্তি পেল ‘চন্দ্রাবতী কথা’

থেমে-থেমে জ্বর আসছে খালেদা জিয়ার, খাচ্ছেনও খুবই অল্প


তবু চিকিৎসকের বারণ! আর কোনদিন নেয়া যাবে না। ডাক্তারকে মিনতি করে বলেছিলাম, আমার একমাত্র রাজকীয় বিলাসিতা ও নেশা, কমিয়ে হলেও অনুমতি দিন। ডাক্তার বললেন, এক জীবনে যে কোটা ছিলো তা শেষ, আর একটিও না। কি আর করা! চূড়ান্ত বিচ্ছেদকেই মেনে নেয়া।

ধুমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। হাসপাতালে অসুস্থ শয্যায় পড়ে থাকলে বুঝা যায় সুস্থতা আল্লাহর কত বড় নিয়ামত। আর ক্যান্সারকে জয় করে আসা, সে নতুন জীবন আল্লাহরই দান। সিগারেটকে তাই আজ বিদায়, বন্ধু বিদায়। গভীর বেদনার সাথে বিদায়।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

মানুষকে ভালোবাসো, মানুষও ভালোবাসা ফিরিয়ে দেবে

আনোয়ার সাদী

মানুষকে ভালোবাসো, মানুষও ভালোবাসা ফিরিয়ে দেবে

জয় ললিতা নাকি কঙ্গনা কে বেশি গ্ল্যামারাস বা সুন্দরী ? কে বড় অভিনেত্রী? এমন একটি প্রশ্ন থালাইভা মুভিটি দেখার পর মনের ভেতর ঘুরপাক খাচ্ছে।

জয়ার শিক্ষার্থী জীবন বড়ই উজ্জ্বল। পুরো তামিলনাড়ুতে দশমের পর মানে আমাদের এসএসসি সমমানে স্বর্ণপদক পেয়েছেন তিনি। কয়েকটি ভাষা জানেন, নাচতে পারেন, অভিনয়ের বিষয়টি সামনে আনলাম না, এটা তার জনপ্রিয়তার প্রাথমিক ভিত্তি।

ভালো ইংরেজি জানার সুফল তিনি পেয়েছেন, ইন্দিরা গান্ধির সঙ্গে জোট করার সময়। জনতাকে নিজের পক্ষে রাখা, মাথার ভেতরে গিয়ে কথা বলে হৃদয়ের ভেতরে বসে থাকার কৌশল তার জানা ছিলো। এজন্যই বুদ্ধিমানরা বলেন পড়ো, কিন্তু উইপোকা হয়ো না। মানে সারাক্ষন বই কেটে কেটে সময় নষ্ট করো না।

যা হোক, স্কুলে খাবার দেওয়া, নারীদের অধিকার রক্ষায় সোচ্চার থেকে, নাগরিক সুবিধা বাড়িয়ে জয়ললিতা  ‘আম্মা’ উপাধি পেয়েছিলেন। মানুষকে ভালোবাসলে মানুষও সেই ভালোবাসা ফিরিয়ে দেয়। এটাই ছিলো তার রাজনৈতিক জীবনের মুলমন্ত্র। 

যা হোক ভারি ভারি কথা বলছি না। আমি শুধু ভাবছি কে কাকে বড় করলো। কঙ্গনার অভিনয়ে জয়া নাকি জয়ার জীবনে অভিনয় করে কঙ্গনা বড় হলো? বাস্তব জীবনে দুজনের একটা মিল আছে, দুজনেই ঠোটকাঁটা, মানে স্পস্ট কথা বলেন। কখনো কখনো তাদেরকে একরোখা মনে হতে পারে।

আরও পড়ুন


অপু বিশ্বাসের নতুন ভিডিও, যে বার্তা দিলেন ভক্তদের (ভিডিও)

দশমীর দিনে মুক্তি পেল ‘চন্দ্রাবতী কথা’

থেমে-থেমে জ্বর আসছে খালেদা জিয়ার, খাচ্ছেনও খুবই অল্প

কুমিল্লার ঘটনা উদ্দেশ্যমূলক ও পরিকল্পিত: রিজভী


অনেক দিন মনে থাকবে ‘থালাইভা’ ছবিটির কথা। এই মুভি থেকে শেখার আছে অনেক, যদি শেখার মানসিকতা থাকে। মুভি শেষ হয়েছে জলললিতাকে প্রথমবারের মতো মূখ্যমন্ত্রী দেখিয়ে। তারপর তার বাকী জীবন জানতে ইন্টারনেটে ভালোই সময় দিলাম। আম্মার জেল, মুক্তি, মৃত্যু পুরোই সিনেমাটিক। বিলাসিতা নাকি নায়িকাসুলভ জীবন, দুর্নীতি নাকি শিশুতোষ খামখেয়ালি- নানা প্রশ্ন হয়তো করা যাবে, কিন্তু এমন মুভি একজন মানুষকে কতো সাবলীলভাবে অন্যের মনে স্থায়ী করে দেয়, তা জানার ও বোঝার বিষয় আছে।

আমাদেরও অনেক নায়ক আছেন, খুব অল্পই মহা নায়ক আছেন, তাদের জীবনীভিত্তিক সিনেমার চাহিদা দেশে আছে বলেই মনে করি। এদেশের কেউ যদি তাদের নিয়ে মুভি না বানায়, একদিন হয়তো দেখবো অন্যদেশের কেউ আমাদের নায়ক-মহানায়কদের জীবন নিয়ে সিনেমা বানাচ্ছেন। এদেশের মানুষ, আমারতো মনে হয় সে সব ছবি অত্যন্ত আগ্রহ নিয়ে দেখবে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর