‘আজীবন সম্মাননা অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন আব্দুল কাদের মিয়া

অনলাইন ডেস্ক

‘আজীবন সম্মাননা অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন আব্দুল কাদের মিয়া

মহামারী করোনার সময়ে দেশে ও প্রবাসে অপরিসীম ভূমিকার জন্যে ‘আজীবন সম্মাননা অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন আব্দুল কাদের মিয়া। নিউজার্সির আটলান্টিক সিটির সার্ফ স্টেডিয়ামে হাজারো প্রবাসীর উচ্ছ্বল উপস্থিতিতে এই অ্যাওয়ার্ড হস্তান্তর করেন আটলান্টিক সিটির মেয়র মার্টি স্মল। 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এই অঞ্চলের ৪ সিটির মেয়রকে পাশে নিয়ে বিপুল করতালির মধ্যে এই অ্যাওয়ার্ড হস্তান্তর করা হয়।

এ সময় পাশে ছিলেন প্লিজ্যান্টভিল সিটির মেয়র জুডি এম ওয়ার্ড, নর্থফিল্ড সিটির মেয়র আর্লেন্ড চো, এ্যাগ হারবার সিটি মেয়র লিসা জিয়াপেটি এবং এবসিকনের মেয়র কিম্বার্লি হরটন। 

বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব আটলান্টিক কাউন্টির উদ্যোগে এই ‘বাংলাদেশ মেলা’য় স্থানীয় কংগ্রেসম্যানের প্রতিনিধি ছাড়াও ছিলেন স্টেট অ্যাসেম্বলীম্যান ভিঞ্চ মেজো এবং জন আরমেটো। ছিলেন ডজনখানেক সিটি কাউন্সিলম্যান। 

সকলকে মঞ্চে অভিবাদন জানান হোস্ট সংগঠনের সভাপতি শহীদ খান, সেক্রেটারি সোহেল আহমেদ, মেলা কমিটির আহবায়ক মোহাম্মদ সেলিম এবংসদস্য-সচিব ফরহাদ সিদ্দিক। 

মানবসেবার এই সম্মাননা ক্রেস্ট গ্রহণের পর অনুভূতি ব্যক্তকালে যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি আব্দুল কাদের মিয়া বলেন, এমন সম্মানে ভূষিত করায় সামনের দিনে আমার দায়িত্ব আরো বেড়ে গেল। সাধ্য অনুযায়ী মানুষের পাশে ছিলাম, এখনও রয়েছি, সামনের দিনেও থাকবো ইনশাআল্লাহ। এজন্যে সকলের দোয়া চাচ্ছি। 

করোনাকালে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার জন্যে আটলান্টিক সিটির সাংবাদিক আকবর হোসেনকে ‘আজীবন সম্মাননা’ ক্রেস্ট প্রদান করেন আটলান্টিক সিটির মেয়র মার্টি স্মল। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

কানাডার ক্যালগেরিতে প্রতিবাদ সভা এবং কার র‌্যালি

লায়লা নুসরাত, কানাডা

কানাডার ক্যালগেরিতে প্রতিবাদ সভা এবং কার র‌্যালি

বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর সংঘবদ্ধ বর্বরোচিত অত্যাচার, হত্যা, নির্যাতন, ভয়ভীতি প্রদর্শন, পূজা মন্ডপ ও প্রতিমা ভাঙচুর এবং স্বাধীনতার পর থেকে ক্রমবর্ধমান সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে কানাডার স্থানীয় সময় দুপুরে ‘বাংলাদেশি হিন্দু কম্যুনিটি ইন ক্যালগেরি’র আয়োজনে বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ এবং শহরজুড়ে গাড়ি সমাবেশ কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

ক্যালগেরিতে ক্রমবর্ধমান আন্দোলন এবং গত সপ্তাহের মানববন্ধনের পর কার র‍্যালি ও প্রতিবাদ সমাবেশে বৈরী আবহাওয়াকে উপেক্ষা করে বাংলাদেশিদের পাশাপাশি অন্যান্য দেশের বিভিন্ন ভাষাভাষীরাও অংশ নেয়।

আলবার্টার কোভিড রেস্ট্রিকশনের মধ্যেও কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে আচরণবিধি মেনে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে মানুষ প্রতিবাদ এবং সারা বিশ্বকে সাথে নিয়ে এই নির্যাতন প্রতিরোধের জন্য অঙ্গীকার করা হয়। সভার দাবীর প্রতি কতিপয় প্রাদেশিক এম,এল,এ, কানাডার সংসদ সদস্য এবং রাজনীতিবিদরা সমর্থন জানায়।

বক্তারা বলেন - বাংলাদেশে হিন্দু, খ্রিস্টান এবং বৌদ্ধসহ সংখ্যালঘু সম্প্রদায় এবং আদিবাসীরা কয়েক দশক ধরে লক্ষ্যবস্তু সহিংসতা, ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগের শিকার হয়ে আসছে। বাংলাদেশের হিন্দু সম্প্রদায়, আদিবাসী জনগোষ্ঠী এবং অন্যান্য সমস্ত সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে সমস্ত বর্বর ও নৃশংস হামলার আমরা তীব্র নিন্দা জানাই।

সভায় নিয়মিত জাতিগত নিধন, ভাঙচুর, মন্দির ধ্বংস এবং সংখ্যালঘুদের উপর হামলা অবিলম্বে বন্ধ করার আহ্বান জানানো হয়। এজন্য কানাডার প্রভিন্সিয়াল ও ফেডারেল সরকারসহ বিশ্বের সকল মানুষের কাছে এই জাতিগত নিধন ও সাম্প্রদায়িক অত্যাচার প্রতিরোধে যাথাসাধ্যভাবে এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয়। এছাড়াও বাংলাদেশ সরকারের কাছে তারা সবার যথাযথ নিরাপত্তা ও দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের দাবী জানানো হয়।

আরও পড়ুন


বাংলাদেশের খেলার দিনে ৬ হাইভোল্টেজ ম্যাচ

স্বপ্নের পায়রা সেতুর উদ্বোধন আজ, দক্ষিণাঞ্চলে উৎসবের আমেজ

‘ক্রসফায়ারের হুমকি দিয়ে মুসাকে দিয়ে স্ত্রী মিতুকে হত্যা করায় স্বামী বাবুল’

রাত ১২টার দিকে ঘরে ঢুকে সপ্তম শ্রেণিপড়ুয়া প্রেমিকাকে ধর্ষণ প্রেমিকের


অনুষ্ঠানে অন্যান্য দেশের ও বিভিন্ন ভাষাভাষীর বিভিন্ন সংগঠনের মানুষ সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য প্রদান করে। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ক্যালগেরির কাউন্সিলর রাজ ঢালিওয়াল, বিশ্ব হিন্দু ফাউন্ডেশনের পরিচালক গোপাল সাইনি, হিন্দু সোসাইটির প্রেসিডেন্ট নবদীপ মাহেন্দ্রু, ইসকন ক্যালগেরির প্রেসিডেন্ট আত্মারাম দাস। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশী সাংস্কৃতিক কর্মী, প্রগতিশীল বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, এবং বাংলাদেশ কানাডা এসোশিয়েশন অফ ক্যালগেরির সভাপতি মোহাম্মদ রশিদ রিপন এছাড়াও মোহাম্মদ কাদের, মাহমুদ হাসান দীপু, জুবায়ের সিদ্দিকী, বায়েজিদ গালিব এবং জেবুন্নেসা চপলা সহ অন্যরা। প্রচন্ড প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যে সবাই স্লোগান ও গানে সকল সংখ্যালঘু নির্যাতনের অবসান চান, বাংলাদেশকে অসাম্প্রদায়িক এবং সবার জন্য সমান একটি দেশে রূপান্তরের জন্য বিশ্ববাসীর সহায়তা কামনা করেন। আয়োজকরা স্বাধীনতার পর থেকে আস্তে আস্তে জাতিগত নিধন এবং বাংলাদেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়দের বিলুপ্তি আর চলতে না দেয়ার জন্য প্রতিরোধের শপথ নিতে বাংলাদেশীদেরদের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রতিবাদ সমাবেশের পর গাড়ীতে কালো কাপড় বেঁধে এবং প্রতিবাদী ব্যানার ও পোস্টার নিয়ে শহর প্রদক্ষিণ করা হয় এবং শহরের প্রাণকেন্দ্র সিটি হলে গিয়ে শেষ হয়। অনুষ্ঠানে প্রায় সত্তুরোর্ধ গাড়ি অংশ নেয়।

উল্লেখ্য বাংলাদেশি হিন্দু কম্যুনিটি ইন ক্যালগেরি আয়োজিত এই শান্তিপূর্ণ সমাবেশে আয়োজকরা মনে করেন এই প্রতিবাদ প্রত্যেকটি প্রগতিশীল বাংলাদেশীদের জন্য। জাতি-ধর্ম-বর্ণ-গোত্র-মতামত নির্বিশেষে সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ুক এই প্রতিবাদ।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কানাডার টরন্টোতে মানববন্ধন

অনলাইন ডেস্ক

সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কানাডার টরন্টোতে মানববন্ধন

বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে পূজামন্ডপ এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে দৃর্বৃত্তদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন টরন্টো প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

তারা বলেছেন, বিভিন্ন সময়ে সংঘটিত সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিচার না হওয়ায় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা, নিপীড়ন বাড়ছে। এটি কোনোভাবেই কাম্য নয়। স্থানীয় সময় শুক্রবার টরন্টোর বাঙালিপাড়া হিসেবে পরিচিত ডেনফোর্থে আয়োজিত মানববন্ধনে এ দাবি জানানো হয়।

’সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস, রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশ’ স্লোগান নিয়ে ‘সচেতন নাগরিক সমাজ, টরন্টো’ এ ব্যানারে সব দল-মতের মানুষের অংশগ্রহণে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সচেতন নাগরিকবৃন্দের মানববন্ধন শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন চাকসুর সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজিমউদ্দিন আহমেদ। তিনি তার বক্তৃতায় বাংলাদেশে যে কোনো ধরনের সাম্প্রদায়িক উসকানির বিরুদ্ধে সাধারন নাগরিকদের রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

টরন্টো ফিল্ম ফোরামের মানববন্ধন শেষে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা নিরঞ্জন সরকার বাচ্চু, ফিল্ম ফোরামের সভাপতি এনায়েত করিম বাবুল, সাধারণ সম্পাদক মনিস রফিক, ইঞ্জিনিয়ার আবদুল গফফার, অলক চৌধুরী, আজিমউদ্দিন আহমেদ, শিবু চৌধুরী, নবিউল হক বাবলু, রাজকুমার বিশ্বাস প্রমুখ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

পূজামণ্ডপ ও ঘর-বাড়িতে হামলার প্রতিবাদে কানাডার টরেন্টোতে মানববন্ধন

লায়লা নুসরাত, কানাডা

পূজামণ্ডপ ও ঘর-বাড়িতে হামলার প্রতিবাদে কানাডার টরেন্টোতে মানববন্ধন

বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে পূজামন্ডপ এবং সনাতনধর্মালম্বীদের বাড়ি-ঘরে হামলার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে দৃর্বৃত্তদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে টরন্টো প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

তারা বলেছেন, বিভিন্ন সময়ে সংঘটিত সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিচার না হওয়ায় সংখ্যালঘুদের উপর হামলা, নীপিড়ন বাড়ছে। এটি কোনোভাবেই কাম্য নয়। স্থানীয় সময় শুক্রবার টরন্টোর বাঙালিপাড়া হিসেবে পরিচিত ডেনফোর্থে আয়োজিত মানববন্ধনে এই দাবি জানানো হয়।

‘সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস, রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশ’ শ্লোগান নিয়ে ‘সচেতন নাগরিক সমাজ, টরন্টো’- এই ব্যানারে সকল দল-মতের মানুষের অংশগ্রহনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

পরে রাতে টরন্টো ফিল্ম ফোরামের উদ্যোগে পৃথক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে টরন্টোর সাংস্কৃতিক সংগঠক এবং কর্মীরা অংশ নিয়ে বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের প্রতিবাদ জানান। দুটি মানববন্ধনে অংশ গ্রহণকারীরা সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি সম্বলিত পোষ্টার, ব্যানার এবং ফেষ্টুন বহন করেন।

‘সচেতন নাগরিকবৃন্দে’র মানববন্ধন শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন চাকসুর সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজিমউদ্দিন আহমেদ। তিনি তাঁর বক্তৃতায় বাংলাদেশে যে কোনো ধরনের সাম্প্রদায়িক উসকানির বিরুদ্ধে সাধারণ নাগরিকদের রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

আরও পড়ুন


টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: কোন দলের খেলা কবে দেখে নিন সময়সূচি

বাসা ভাড়া করে বিয়ের আশ্বাসে বারবার শারীরিক সম্পর্ক কনস্টেবলের

বিএফইউজে নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে

শনিবার ঢাকার যে সব মার্কেট ও দর্শনীয় স্থান বন্ধ


টরন্টো ফিল্ম ফোরামের মানববন্ধন শেষে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা নিরঞ্জন সরকার বাচ্চু, ফিল্ম ফোরামের সভাপতি এনায়েত করিম বাবুল, সাধারণ সম্পাদক মনিস রফিক, ইঞ্জিনিয়ার আবদুল গফফার, অলক চৌধুরী, আজিমউদ্দিন আহমেদ, শিবু চৌধুরী,নবিউল হক বাবলু, রাজকুমার বিশ্বাস প্রমূখ।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কানাডার বিভিন্ন সংগঠন চারদিনের প্রতিবাদ কর্মসূচী ঘোষণা করেছে। তারই অংশ হিসেবে আজ দুটি মানববন্ধন হয়।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

শ্রমিক ও পর্যটকদের জন্য সুখবর দিলো মালয়েশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

শ্রমিক ও পর্যটকদের জন্য সুখবর দিলো মালয়েশিয়া

প্রায় ১৬ মাস পর অভিবাসী কর্মী ও বিদেশি পর্যটকদের প্রবেশের অনুমতি দিতে যাচ্ছে মালয়েশিয়া। দেশটির প্রধানমন্ত্রী দাতুক সেরি ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব এ তথ্য জানিয়েছেন।

মহামারি ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত বিশেষ কমিটি বিদেশি শ্রমিকদের প্রবেশের প্রস্তাবিত মানসম্মত পরিচালন পদ্ধতির সঙ্গে একমত হয়েছে বলে দেশটির প্রধানমন্ত্রী শুক্রবার (২২ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন:


তাইওয়ানকে চীনের হাত থেকে রক্ষা করতে বদ্ধপরিকর যুক্তরাষ্ট্র

অভিযুক্ত ইকবালের সঙ্গে ছাত্রলীগ নেতা মিশু-রায়হান-অনিকের পরিচয় যেভাবে

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চাকরির সুযোগ, আবেদন অনলাইনে

আরও বিস্তৃতি বাড়াচ্ছে আইপিএল, আসছে নতুন দল


 

মালয়েশিয়া গ্লাভস থেকে আইফোন পার্টস পর্যন্ত সবকিছু উৎপাদনে প্রায় দুই মিলিয়ন নথিভুক্ত অভিবাসী শ্রমিকের ওপর নির্ভরশীল। রাবার গ্লাভস শিল্প এ বছর এবং পরের বর্ধমান চাহিদা মেটাতে বিদেশি শ্রমিকদের ফেরার অনুমতি দেওয়ার জন্য সরকারের কাছে আবেদনও করেছিল।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত

অনলাইন ডেস্ক

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত

তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী (৬০) নামে এক বাংলাদেশি সৌদি আরবে লরিচাপায় নিহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাতে জেদ্দা শহরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তোফায়েল লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার চরমোহনা ইউপির আলী আকবর মাস্টারবাড়ির দুদু মিয়ার বড় ছেলে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সময় রাত ৯টার দিকে কাজ শেষে তোফায়েল তার জেদ্দা শহরের বাসায় ফিরছিলেন। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা বেপরোয়া গতির একটি লরি চাপা দিলে ঘটনাস্থলে তিনি মারা যান।

আরও পড়ুন:


ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রী এখন মানসিক রোগী!

আগামী মাসেই ফেসবুকের প্রতিদ্বন্দ্বী নিয়ে আসছেন ট্রাম্প

পূজামণ্ডপে কোরআন শরিফ রেখে গদা নিয়ে যায় ইকবাল

মানবদেহে প্রতিস্থাপিত হল শূকরের কিডনী


তোফায়েল বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সৈনিক ছিলেন। বছর তিনেক আগে তিনি অবসরে যান। তার তিন মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে। ছেলেটি সেনাবাহিনীর সৈনিক পদে কর্মরত রয়েছেন।

চরমোহনা ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান পাঠান জানান, তোফায়েলের লাশ দেশে আনার চেষ্টা চলছে।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর