শেখ আবদুল হাকিম কেন গুরুত্বপূর্ণ?
শেখ আবদুল হাকিম কেন গুরুত্বপূর্ণ?

শেখ আবদুল হাকিম কেন গুরুত্বপূর্ণ?

Other

শেখ আবদুল হাকিম কেন গুরুত্বপূর্ণ? ভাবছিলাম যখন তখনই আরেক শেখের সঙ্গে দেখা হয়ে গেল। প্রশ্নটা করতেই শেখ রোকন বললেন, 'শেখ আবদুল হাকিম বেশির ভাগ ক্ষেত্রে বিদেশি সাহিত্যের ছায়া অবলম্বনে লিখেছেন, তবে ঝরঝরে একটা গদ্য ভাষা তৈরি করেছেন। সাহিত্যামোদী একটা প্রজন্ম তৈরি হয়েছে তাঁর লেখা পড়ে। তাঁর অনুবাদে আমরা পরিচিত হয়েছি বিশ্বসাহিত্যের অনেক ধ্রুপদি রচনার সঙ্গে।

'

রোকনের সব কথার সঙ্গে আমি এক মত। সন্দেহাতীতভাবে এটা হাকিম ভাইয়ের গুরুত্বের একটি জায়গা। আমি তাঁর অনুবাদে প্রথম পড়েছি ‘হাকলবেরি ফিন’, ‘ফ্রাঙ্কেনস্টাইন’, ‘থ্রি মাস্কেটিয়ার্স’, ‘অল কোয়ায়েট অন দ্য ওয়েস্টার্ন ফ্রন্ট’ ইত্যাদি বই। এই সবই বেরিয়েছিল সেবা প্রকাশনী থেকে।

হাকিম ভাই গুরুত্বপূর্ণ। তবে আলোচনায় এসেছেন ‘মাসুদ রানা’র ২৬০টি সিরিজের কপিরাইট দাবি করে। এটা বছরখানেক আগের কথা। ওই সময় কপিরাইট অফিস তাঁর পক্ষে রায় দিলেও কাজী আনোয়ার হোসেনের আপিলের পর বিষয়টি এখন বিচারাধীন রয়েছে। এ নিয়ে যে আমি হাকিম ভাইকে খুব সমর্থন করছি, তা নয়। ঘোস্ট রাইটার কপিরাইট ও লেখার কৃতিত্ব দাবি করতে পারেন কিনা আজ সেই আলাপের দিন নয়।

আমরা সেবা প্রকাশনীর বই পড়ে পড়ে বড় হয়েছি। সেই সব বইয়ের মধ্যে 'মাসুদ রানা' সিরিজ ছিল সবচেয়ে পরিচিত এবং এটি বেশির ভাগ সময় পাঠ্যবইয়ের ভাঁজের আড়ালে লুকিয়ে-চুরিয়ে পড়ার বিষয়। বিখ্যাত গোয়েন্দা সিরিজ ‘মাসুদ রানা’র সবচেয়ে জনপ্রিয় বইগুলোর লেখক শেখ আবদুল হাকিম এগুলোর পাঠকদের মতো নিজেকে লুকিয়ে রাখতে বাধ্য হয়েছিলেন।  

সেবার নিয়ম অনুসারে এগুলো প্রকাশ হয়েছে কাজী আনোয়ার হোসেনের নামে। একটু বড় হওয়ার পর অবশ্য নানানভাবে মাসুদ রানার ঘোস্ট লেখক সম্পর্কিত তথ্যটি আমাদের জানা হয়ে যায়।  

লেখক হিসেবে আড়ালে থাকতে বাধ্য হয়েছিলেন বলে কী ব্যক্তি মানুষটি নিভৃতে চলে গিয়েছিলেন, আড্ডা, সভা-সমাবেশ কোথাও তাঁকে দেখা যেত না— হাকিম ভাইয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ও সখ্য গড়ার চেষ্টায় আমার এমনটাই মনে হয়েছে।  

তবে আড্ডা হাকিম ভাই নিয়মিতই দিতেন, শিল্পী ধ্রুব এষের বাসায়। দু-একবার ওই আড্ডায় আমিও গিয়েছি। ওই আড্ডাতেই বোধ হয় শেখ আবদুল হাকিম আর বুলবুল চৌধুরী হরিহর আত্মা হয়ে যান।

এই পর্যন্ত লিখে বিকেলবেলায় যখন পোস্ট করতে গেলাম, তখন জানলাম বুলবুল ভাইও আর নেই। হাকিম ভাইকে তো দূর থেকে দেখেছি। বুলবুল ভাই যে একান্ত আপনজন ছিলেন। টুকা কাহিনিখ্যাত বুলবুল চৌধুরী তো ষাটের দশক থেকে বাংলাদেশের সাহিত্যাঙ্গনের পরিচিতজন।  

বুলবুল চৌধুরী (বাঁয়ে) ও শেখ আবদুল হাকিমের এ ছবিটি নিয়েছি হুমায়ূন কবীর ঢালীর ওয়াল থেকে। প্রতিকৃতি দুটি শিল্পী মাসুক হেলালের আঁকা।

(সোশ্যাল মিডিয়া বিভাগের লেখার আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়। )

 

আরও পড়ুন:


টেকনাফের সমুদ্র সৈকতে আবারও ভেসে এলো মৃত তিমি

নাটোরে 'আগুন পানির ডাক্তার' গ্রেপ্তার

বন্ধুদের সাথে নৌ ভ্রমণে গিয়ে নিখোঁজ স্কুলছাত্র

নোয়াখালীতে কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় সিএনজি চালকের মৃত্যু


NEWS24.TV / কামরুল