মক্কা ক্লকের বিরল দৃশ্য
মক্কা ক্লকের বিরল দৃশ্য

মক্কা ক্লকের বিরল দৃশ্য

অনলাইন ডেস্ক

সৌদি আরবের মক্কা নগরীতে ১৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয়ে চতুর্মুখী ‘মক্কা ক্লক’ ঘড়িটি লাগানো হয়। এর এক মুখে লাগানো হয়েছে ৯ কোটি ৮০ লাখ পিস গ্লাস মোজাইক। শিলালিপির ওপর শৈল্পিক কারুকার্যে অলঙ্করণ করে আরবিতে লেখা আছে ‘আল্লাহু আকবর’ শব্দগুচ্ছ, যা ২১০০০ রঙিন বিজলি বাতির আলোয় উদ্ভাসিত হয়ে ওঠে।

‘মক্কা ক্লক’টি বিশ্বের সবচেয়ে বড় ঘড়ি।

এটি পবিত্র মসজিদুল হারামের পাশে অবস্থিত। গত বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) চতুর্মুখী ক্লক টাওয়ারে বজ্রপাত আঘাতের বিরল দৃশ্য ধরা পড়ে  সৌদির ফটোগ্রাফার আবদুল্লাহ আল শরিফের ক্যমেরায়।

আবদুল্লাহ আল শরিফ ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করার সঙ্গে সঙ্গে হাজার হাজার মানুষ দেখেন।

আরও পড়ুন:


মুনিবুর বদলি হলেও যতদিন ইচ্ছে কর্মস্থলে থাকবেন: বরিশাল জেলা প্রশাসক

জরুরি অবতরণ করা বিমানের সেই ক্যাপ্টেন নওশাদ ‘ক্লিনিক্যালি ডেড’

ঢাবিতে ছাত্রদলের মিছিলে ছাত্রলীগের হামলা, আহত ১০


 

সৌদি ফটোগ্রাফার আবদুল্লাহ আল শরিফ বলেন, আকাশে মেঘ জমা ও বজ্রপাতের আলোকদৃশ্য ধারণ করতে উঁচু ভবনের ছাদে যাই। আকাশে বজ্রপাত শুরু হলে সেটি ধারণ করতে থাকি। এক পর্যায়ে মাগরিব ও এশার মধ্যবর্তী সময়ে ‘মক্কা ক্লক’ টাওয়ারে বজ্রপাতের দৃশ্যের ছবি ধারণ করতে সক্ষম হই। এটি বিরল দৃশ্য।

উল্লেখ্য, পবিত্র মক্কা শরিফে আসা মুসলমানের অনেকেই জানে না যে, সেই সুবিশাল ‘মক্কা ক্লক’ বিশ্বের সবচেয়ে বড় ঘড়ি। ওটা শুধু বড়ই নয়, নতুনত্বের দিক দিয়েও শ্রেষ্ঠ।

news24bd.tv/আলী

;