শিশু ধর্ষণ : মাদ্রাসা অধ্যক্ষ ও শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা
শিশু ধর্ষণ : মাদ্রাসা অধ্যক্ষ ও শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

শিশু ধর্ষণ : মাদ্রাসা অধ্যক্ষ ও শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

অনলাইন ডেস্ক

১৫ আগস্ট সকালে মাদ্রাসার তৃতীয় তলার টয়লেটে নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ১০ বছরের এক ছাত্রকে ধর্ষণ করেন এক শিক্ষক। এরপর ২৭ আগস্ট সকালে শিশুটিকে টয়লেটে নিয়ে আবারও ধর্ষণ করেন তিনি। সেই ঘটনার পর ওই দিনই শিশুটি বাসায় চলে আসে।

পরে বিকালে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ শিশুর বাবাকে ফোন করে ছেলেকে মাদ্রাসায় ফেরত পাঠাতে বলেন।

  কিন্তু বাবা তার সন্তাকে মাদ্রাসায় যাওয়ার কথা বলার পর ওই শিশু কান্নাকাটি শুরু করে। এরপর শিশুটি তার পরিবারের কাছে ধর্ষণের ঘটনা খুলে বলে।  

ওই দিনই শিশুটির আত্মীয়স্বজন মাদ্রাসায় গিয়ে অধ্যক্ষের কাছে বিষয়টি জানালে অভিযুক্ত শিক্ষককে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একপর্যায়ে ওই শিক্ষক অভিযোগ স্বীকার করেন। পরে শিশুটির স্বজনেরা সেখান থেকে চলে আসেন। এরপর শিশুটির স্বজনেরা গতকাল জানতে পারেন, অধ্যক্ষের সহযোগিতায় অভিযুক্ত শিক্ষক মাদ্রাসা থেকে পালিয়ে গেছেন।

সেই ঘটনার পর আজ  সোমবার নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রের বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মাদ্রাসা  অধ্যক্ষ ও শিক্ষকের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা করেছেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্র পাঁচ বছর আগে এই মাদ্রাসায় ভর্তি হয়। বর্তমানে সে হেফজ বিভাগে পড়ছে। ১৫ আগস্ট সকালে মাদ্রাসার তৃতীয় তলার টয়লেটে নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই ছাত্রকে ধর্ষণ করেন এক শিক্ষক। এরপর ২৭ আগস্ট সকালে শিশুটিকে টয়লেটে নিয়ে আবারও ধর্ষণ করেন তিনি।  

আরও পড়ুন:


জিয়ার লাশ চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজ থেকে রাঙ্গুনিয়া পাহাড়ে নিয়েছিল কে?

সীতাকুণ্ডের ৩ হাজার পরিবারে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের উপহার

এবার কাবুল বিমানবন্দরের কাছে রকেট হামলা


 

কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুবকর সিদ্দিক জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের চেষ্টা চলছে।

news24bd.tv/আলী

;