হিন্দু দেবতার নামে মুসলিমের দোকান, ভাংচুরের পর বদলানো হলো দোকানের নাম

অনলাইন ডেস্ক

হিন্দু দেবতার নামে মুসলিমের দোকান, ভাংচুরের পর বদলানো হলো দোকানের নাম

দোকানের নাম 'শ্রীনাথ ধোসা সেন্টার'। আর এতেই অভিযোগ তুলে এক মুসলিম ধোসা বিক্রেতার দোকানে ভাংচুর করা হয়েছে। ভারতের মথুরায় এই ঘটনা ঘটেছ। খবর সংবাদ প্রতিদিনের।

যারা ভাঙচুর করেছেন তাদের অভিযোগ, কেন হিন্দু দেবতার নামে দোকানের নামকরণ করা হয়েছে? ভাঙচুরের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়। অবশেষে পদক্ষেপ নিয়েছে পুলিশ। মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেই সাথে দোকানের নামও বদলে রাখা হয়েছে ‘আমেরিকান ধোসা সেন্টার’।

মথুরার সদরবাজার সংলগ্ন তাকিয়া মহল্লায় চাকা লাগানো একটি দোকান চালান ওই ধোসা বিক্রেতা। নিজের সেই দোকানের নাম হিন্দু দেবতার নামে রেখেছিলেন তিনি। এই ‘অপরাধেই’ ওই ব্যক্তির ওপরে চড়াও হয় স্থানীয়রা।

ভিডিওতে দেখা গেছে, কিভাবে ওই ব্যক্তিকে নানা প্রশ্নবাণে জর্জরিত করছিল তারা। কেন মুসলিম হয়েও হিন্দু দেবতার নামে দোকানের নাম রেখেছেন ওই ব্যক্তি, জানতে চাওয়া হয় তার কাছে। এতে মথুরা অপবিত্র হচ্ছে বলেই দাবি স্থানীয়দের। এমনকি ওই দলকে কৃষ্ণনাম জপ করতেও দেখা যায় মথুরাকে।

ভিডিওতে দেখা যায়, দোকানের এই নাম দেখে ভুল করে এখানে খায় হিন্দুরা। এরপরই শুরু হয় ভাঙচুর।

থানার ইন্সপেক্টর সূর্যপ্রকাশ শর্মা জানিয়েছেন, ‘মূল অভিযুক্ত শ্রীকান্ত চকবাজার এলাকার বাসিন্দা। তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে নিজের অপরাধ স্বীকারও করেছে।’ অভিযুক্তরা কেউই কোনো রাজনৈতিক দলের সদস্য নয় বলেও জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন:

মডার্নার আরও ১০ লাখ ডোজ টিকা বাতিল করেছে জাপান

ঘূর্ণিঝড় আইডার আঘাতে ১০ লক্ষাধিক বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

সাফিয়াত সোবহান সানবীর: উন্নততর ব্যবসা পদ্ধতিতে বিশ্বকে বদলে দেয়া এক নায়ক

সোশ্যাল মিডিয়া এক নতুন মাদক, স্মার্টফোন যার ডিলার!


রোববার সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই দোকান ভাঙচুরের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর এফআইআর দায়ের হয় অভিযুক্তদের নামে। তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪২৭ এবং ৫০৬ ধারায় মামলা করা হয়েছে।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

সাবেক ক্রিকেটার ও ধারাভাষ্যকার মাইকেল স্লেটার গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

সাবেক ক্রিকেটার ও ধারাভাষ্যকার মাইকেল স্লেটার গ্রেফতার

সাবেক অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার ও বিখ্যাত ধারাভাষ্যকার মাইকেল স্লেটারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

জানা গেছে, গত সপ্তাহের ঘটনায় মঙ্গলবার স্লেটারের বিরুদ্ধে ডোমেস্টিসক ভায়োলেন্সের অভিযোগ আনা হয়। আর এ অভিযোগের ভিত্তিতেই  আজ বুধবার তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

এ ব্যাপারে আজ বুধবার এক বিবৃতিতে নিউ সাউথ ওয়েলস পুলিশ জানিয়েছে, ‘অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তের পর গোয়েন্দারা ম্যানলিতে তার বাড়িতে যায় এবং ৫১ বছর বয়সী এক ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলে। পরবর্তীতে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং বর্তমানে সে ম্য়ানলি পুলিশ স্টেশনে রয়েছে।’

প্রসঙ্গত, বছরের প্রথম দিকে কড়া অস্ট্রেলিয়ান নিয়ম কানুনের জেরে সাময়িকভাবে আইপিএল ফেরত অজি ক্রিকেটারদের দেশে ঢুকতে না দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ ঝাড়েন। মালদ্বীপে ডেভিড ওয়ার্নারের সঙ্গেও তার হাতাহাতি খবর মেলে, যদিও দুই পক্ষই তা অস্বীকার করে। এরপর এই গ্রেফতারি নতুন বিতর্ক সৃষ্টি করল স্লেটারকে ঘিরে।  

আরও পড়ুন:


হত্যা মামলায় আসামির জিজ্ঞাসাবাদের ভিডিও ফাঁস, ওসি প্রত্যাহার

ইউপি নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগের ৩১ চেয়ারম্যান

এখনও যেভাবে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবার সুযোগ রয়েছে বাংলাদেশের!

প্রোগ্রামে ‘বোরকা না পরার’ নির্দেশ ঢাবি ছাত্রলীগ নেত্রীর!


মাইকেল স্লেটার অজিদের হয়ে ১৯৯৩-২০০১ সালের মধ্যে ৭৪টি টেস্টের পাশপাশি ৪২টি ওয়ানডেও খেলেছেন। তবে বিতর্কের জেরে তাকে সম্প্রতি এক ব্রডকাস্টার ধারাভাষ্যকারের তালিকা থেকেও বাদ দেয়।   

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

বিশ্বে আবারও করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বে আবারও করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে

২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে পূর্ববর্তী দিনের চেয়ে করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যু আরও বেড়েছে। একদিনে প্রাণ হারিয়েছে ৬ হাজার ৯৮৩ জন। আক্রান্ত হয়েছে ৪ লাখ ১ হাজারের বেশি।

এ নিয়ে বিশ্বে মোট শনাক্তের সংখ্যা ২৪ কোটি ২২ লাখ ছাড়ালো। আর ৪৯ লাখ ২৮ হাজার ছাড়িয়ে গেল মোট প্রাণহানির সংখ্যা।

২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে সর্বোচ্চ ৬৫ হাজার ১১৮ জন আক্রান্ত হয়েছে। প্রাণহানি হয়েছে ১ হাজার ৪৬১ জনের। রাশিয়ায় ১ হাজার ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাজ্য ও ভারতে যথাক্রমে ৪৩ হাজার ও ১৪ হাজারের বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে। তুরস্কেও বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। দেশটিতে একদিনে ৩০ হাজার ৮৬২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


এছাড়া এখন পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনা প্রকোপ থেকে সুস্থ হয়েছে ২১ কোটি ৯৬ লাখের বেশি মানুষ।  

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

গরু জবাই নিষিদ্ধের প্রস্তাব অনুমোদন হলো শ্রীলংকায়

অনলাইন ডেস্ক

গরু জবাই নিষিদ্ধের প্রস্তাব অনুমোদন হলো শ্রীলংকায়

শ্রীলংকা সরকার একটি খসড়া আইন অনুমোদন করেছে। সে আইনে দেশে গরু জবাই নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

সরকার বলছে, এই নিষেধাজ্ঞার ফলে শ্রীলংকার গবাদি দুগ্ধ-শিল্প উপকৃত হবে। মন্ত্রিসভায় প্রস্তাবটি পাশ হওয়ার পর খসড়া আইনটিকে অনুমোদনের জন্য এখন সংসদে তোলা হবে।

সমালোচকদের উদ্ধৃত করে বিবিসি জানায়, শ্রীলংকার সংখ্যালঘু মুসলমানদের লক্ষ্য করে আইনটি তৈরি করা হয়েছে। কারণ তারাই গোমাংসের প্রধান ভক্ষক। শ্রীলংকার কট্টরপন্থী সিংহলী বৌদ্ধ গোষ্ঠীগুলি গোমাংস নিষিদ্ধ করার সরকারি প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছে বলেও জানিয়েছে বিবিসি।

শ্রীলংকা একটি বৌদ্ধ সংখ্যাগুরু দেশ। জনসংখ্যার ৭০ শতাংশ লোক এই ধর্মের অনুসারী। কিন্তু দেশটির বেশিরভাগ মানুষই মাংসভোজী। তবে বৌদ্ধদের একাংশ গরুকে পবিত্র-জ্ঞান করেন এবং তারা গোমাংস খাওয়া থেকে বিরত থাকেন। তবে সে দেশের জনসংখ্যার ১০ শতাংশ মুসলমান। এরা সহ খ্রিস্টান, কিছু বৌদ্ধ এবং হিন্দুরাও গরুর মাংস খান।

আরও পড়ুন:


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইপিএল নিয়ে জুয়া, ৩ জনের সাজা

চট্টগ্রাম আদালত এলাকায় বোমা হামলা মামলার রায় আজ

টুইটার অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে আদালতে ট্রাম্প

যুবলীগ নেতার সঙ্গে ভিডিও ফাঁস! মামলা তুলে নিতে নারীকে হুমকি


সরকারের সমালোচকরা বলছেন, শ্রীলংকার গোমাংসের ব্যবসা এবং হালাল সার্টিফিকেশনের নিয়ন্ত্রণ মুসলমানদের হাতে। ফলে এরাই এই প্রস্তাবিত আইনে ক্ষতিগ্রস্ত হতে যাচ্ছেন। তবে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, গরু জবাই বন্ধ করার পক্ষে বিভিন্ন দল অবস্থান নিয়েছে। তাদের যুক্তি, কৃষিকাজ এবং দুগ্ধ শিল্পের জন্য প্রয়োজনীয় গরু দেশে নেই।

শ্রীলংকায় গরু জবাই নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব প্রথম উঠেছিল ২০০৯ সালে। সে সময় একজন সংসদ সদস্য ভিজেদাসা রাজাপাক্সে এসংক্রান্ত একটি প্রস্তাব সংসদে তুলেছিলেন। তবে সে সময় প্রস্তাবটি সংসদে গৃহীত হয়নি। এরপর ২০১২ সালে ক্যান্ডি শহরের কর্তৃপক্ষ পৌর এলাকার মধ্যে গরু জবাই নিষিদ্ধ করে। পরের বছর এনিয়ে বিতর্কটি তীব্র আকার ধারণ করে যখন গরু জবাই নিষিদ্ধ করার দাবিতে একজন বৌদ্ধ ভিক্ষু নিজের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন।

এরপর কট্টরপন্থী দুটি সিংহলী বৌদ্ধ সংগঠন, সিনহালা রাভায়া এবং বদু বালা সেনা, একে তাদের আন্দোলনের একটি প্রধান বিষয়বস্তুতে পরিণত করে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাক্সে ২০১৬ সালের প্রস্তাবটিকে নতুন করে সংসদে তুলে আনেন এবং আইন প্রক্রিয়ার কাজ শুরু করেন।

news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর

গাড়ির কাগজ দেখানোর কথা বলে পুলিশকে অপহরণ করলো গাড়ি চোর!

অনলাইন ডেস্ক

গাড়ির কাগজ দেখানোর কথা বলে পুলিশকে অপহরণ করলো গাড়ি চোর!

গাড়ির কাগজপত্র পরীক্ষার সময় রাস্তা থেকে কর্তব্যরত এক পুলিশ সদস্যকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। রাস্তায় চলাচলকারী সব গাড়ি থামিয়ে কাগজ দেখছিলেন পুলিশ। সে সময় একটি ‘সুইফট ডিজায়ার’ গাড়ি এসে দাড়ায়।  সে সময়ে গাড়িতে থাকা ব্যক্তিকে পুলিশ সদস্যরা গাড়ির কাগজপত্র দেখাতে বললে গাড়ি চালক বলে,‘মোবাইলে কাগজের ছবি নেই কিন্তু গাড়িতে কাগজ রাখা আছে। একজন গাড়িতে উঠে কাগজ দেখে যান।’

পরে এক পুলিশ সদস্য উঠে বসেন গাড়িতে। কিন্তু কাগজ দেখানোর পরিবর্তে গাড়ির গতি বাড়ান চালক। মুহূর্তে পুলিশকর্মীকে নিয়ে ধুলো উড়িয়ে হাওয়া হয়ে যায় গাড়িটি। আনন্দবাজার   এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

পুলিশ সদস্যকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশে। রোববার রাজ্যের গ্রেটার নয়ডা এলাকার সূরজপুরে অদ্ভূত এ কাণ্ডটি আলোচনার জন্ম দিয়েছে।  

এ ঘটনায় পুরো এলাকায় হইচই পড়ে যায়। হতবাক পুলিশকর্মীরাও। শেষ পর্যন্ত ঘটনাস্থল থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে একটি পুলিশ ফাঁড়ির সামনে অপহৃত পুলিশকর্মীকে নামিয়ে দেন সচিন। পরে পুলিশ সচিনকে গ্রেফতার করে।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


জানা গেছে, ট্রাফিক কনস্টেবলকে অপহরণের অভিযোগে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ  ২৯ বছরের সচিন রাওয়াল নামে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। দু’বছর আগে গুরুগ্রামে একটি গাড়ির দোকান থেকে ‘টেস্ট ড্রাইভ’-এর নাম করে গাড়ি চুরি করেছিলেন তিনি। পুলিশকর্মীকে অপহরণসহ একাধিক ধারায় সচিনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

জাপান উপকূলে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া

অনলাইন ডেস্ক

জাপান উপকূলে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া

জাপান উপকূলে ফের একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। মঙ্গলবার দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের সামরিক বাহিনী এ তথ্য দিয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

সংবাদমাধ্যমটি জানায়, পেনিনসুলার পূর্বে সিনপো থেকে এ ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে। এদিকে আলজাজিরা জানায়, বিষয়টি দক্ষিণ কোরীয় ও মার্কিন গোয়েন্দারা বিশ্লেষণ করে দেখছে। ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোর এ ঘটনাকে অত্যন্ত দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিয়ো কিশিদা।


আরও পড়ুন:

টিকা নিতে অস্বীকার করায় কোচকে বহিষ্কার

কাতারে শুরা কাউন্সিলে ২ নারী নিয়োগ

দ্বিতীয় ম্যাচ নিয়ে যা বললেন সাকিব

নাইজেরিয়ার বন্দুকধারীদের হামলায় কমপক্ষে ৪৩ জন নিহত


কিম প্রশাসনের এমন ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে স্থিতিশীলতা আনতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে কোনো কিছুকেই আমলে না নিয়ে ক্ষেপনাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে পিয়ংইয়ং।

মঙ্গলবার মার্কিন সেনাবাহিনী এই ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের জন্য উত্তর কোরিয়ার প্রতি নিন্দা জানায় এবং দেশটিকে পরবর্তী কোনো অস্থিতিশীল কাজ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানায়।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত 

পরবর্তী খবর