দেশে ফিরলেন কাবুলে আটকে পড়া ৬ বাংলাদেশি প্রকৌশলী

অনলাইন ডেস্ক

দেশে ফিরলেন কাবুলে আটকে পড়া ৬ বাংলাদেশি প্রকৌশলী

দোহা বিমানবন্দর থেকে দেশের উদ্দেশে উড়াল দেয়ার আগে আফগানিস্তান থেকে উদ্ধার হওয়া ছয় বাংলাদেশি। ছবি: সংগৃহীত

আফগানিস্তানের কাবুল থেকে উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশের ১২ নাগরিকের ছয়জন দেশে ফিরেছেন। মঙ্গলবার দুপুরে দেশে ফেরার উদ্দেশে কাতারের দোহা থেকে প্রথমে দুবাই যান তারা। পরে দুবাই থেকে ইকে ৫৮৪ ফ্লাইটে রাত ১১টা ২৬ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান।

বিমানবন্দরের একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। সূত্র জানায়, দুবাই থেকে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ইকে ৫৮৪ ফ্লাইটে তারা ঢাকায় ফিরেছেন। তাদের নিয়ে ফ্লাইটটি ঢাকার বিমানবন্দরে রাত ১১টা ২৬ মিনিটে অবতরণ করে।

দেশে ফেরা ছয় প্রকৌশলী হচ্ছেন- রাজীব বিন ইসলাম, মো. কামরুজ্জামান, মো. নজরুল ইসলাম, ইমরান হোসাইন, আবু জাফর মোহাম্মদ মাসুদ করিম ও শেখ ফরিদ উদ্দিন। তারা আফগান ওয়্যারলেসে কর্মরত ছিলেন।

এ ছয় প্রকৌশলীর গত ১৬ আগস্ট দেশে ফেরার কথা ছিল। তবে আগের দিন অর্থাৎ, ১৫ আগস্ট তালেবান আফগানিস্তানের কাবুল দখল করার পর তাদের ফ্লাইট বাতিল হয়ে যায়। পরে ২৬ আগস্ট তাদের কাবুল থেকে ঢাকায় আসার কথা ছিল। কিন্তু সেদিন কাবুল বিমানবন্দরে দুটি বোমা বিস্ফোরণে তাদের দেশে ফেরা অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। অবশেষে যুক্তরাষ্ট্র ও জাতিসংঘের সহায়তায় তাদের কাতারের দোহায় নিয়ে যাওয়া হয়।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, কাবুল থেকে দেশের ফেরার অপেক্ষায় ছিলেন ১৫ বাংলাদেশি। তাদের মধ্যে ১২ জনকে দুই দফায় শনিবার (২৮ আগস্ট) কাতারে নিয়ে যাওয়া হয়। ১৫ বাংলাদেশির মধ্যে বাকি তিন জন এখনও কাবুলে অবস্থান করছে বলে জানা গেছে। এদের মধ্যে একজন আফগান ওয়্যারলেসে কর্মরত প্রকৌশলী। 

আফগানিস্তানে এ পর্যন্ত ২৯ বাংলাদেশির অবস্থান নিশ্চিত করেছে দেশটির কূটনৈতিক মিশনের দায়িত্বে থাকা উজবেকিস্তানের বাংলাদেশ দূতাবাস।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

৩০০ কোটি টাকার ভেজাল ওষুধ তৈরি হচ্ছে প্রতিবছর !

অনলাইন ডেস্ক

৩০০ কোটি টাকার ভেজাল ওষুধ তৈরি হচ্ছে প্রতিবছর !

দেশে বছরে ৩০০ কোটি টাকার ভেজাল ওষুধ তৈরি হয় বলে জানিয়েছে পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা) নেতারা।ভেজাল ওষুধের ফলে রোগীর স্বাস্থ্যঝুঁকি ও প্রাণহানির ঘটনাও ধীরে ধীরে বেড়ে চলছে বলে জানেয়েছে তারা।

শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে ‘নকল, ভেজাল ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ চক্রের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই’ দাবিতে শনিবারের এই মানববন্ধনে এসব কথা জানানো হয়। 

বক্তারা বলেন, দেশে বর্তমানে প্রায় ৩০০টি ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান রয়েছে। বর্তমানে মাত্র ৩ শতাংশ ওষুধ আমদানি করতে হয় আর ৯৭ শতাংশ অভ্যন্তরীণ উৎপাদন থেকেই দেশের চাহিদা মেটানো হচ্ছে। দেশের চাহিদা মিটিয়ে ১৫৭টি দেশে বাংলাদেশ ওষুধ রপ্তানি করে। কিন্তু কিছু লাইসেন্সধারী ও লাইসেন্সবিহীন কোম্পানি অধিক মুনাফার জন্য ভেজাল ওষুধ তৈরি ও বাজারজাত করছে, যা মানুষের যেমন আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে, তার চেয়ে বেশি শারীরিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। ঔষধ আইন ১৯৪০ ও জাতীয় ঔষধ নীতি ২০১৬ যথাযথ বাস্তবায়নের দাবি জানান বক্তারা।

আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনা


 

পবার চেয়ারম্যান আবু নাসের খানের সভাপতিত্বে ও সম্পাদক এম এ ওয়াহেদের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন পবার সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী আবদুস সোবহান, মানবাধিকার উন্নয়ন কেন্দ্রের মহাপরিচালক মাহবুল হক, সামাজিক শক্তির সভাপতি হাবিব উল্লাহ, বাংলাদেশ ট্যুরিস্ট সাইক্লিস্টের প্রধান সমন্বয়ক রোজিনা আক্তার, পুরান ঢাকা নাগরিক উদ্যোগের সভাপতি নাজিমউদ্দীন  প্রমুখ। 

news24bd.tv/আলী 

পরবর্তী খবর

হেফাজতের নতুন মহাসচিব

অনলাইন ডেস্ক

হেফাজতের নতুন মহাসচিব

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সদ্য নিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আল্লামা সাজিদুর রহমানকে পুর্ণাঙ্গ দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। শনিবার (৪ ডিসেম্বর) ঢাকার খিলগাঁও কার্যালয়ে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের নায়েবে আমীর আল্লামা শাহ আতাউল্লাহ হাফেজি।বৈঠক শেষে হেফাজতের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা মুহিউদ্দিন রাব্বানি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

বৈঠকের শুরুতে মরহুম মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলামের জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়। ঢাকা ও চট্টগ্রামে দোয়া মাহফিল করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

দোয়া মাহফিলের অনুষ্ঠানটি আগামি (২২ ডিসেম্বর) ঢাকার খিলগাঁও মাখজানুল উলুম মাদরাসায় হেফাজতের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হবে।

আরও পড়ুন:


আফ্রিকার ৭ দেশ থেকে এলেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন

দুই হাত হারানো ফাল্গুনীকে বিয়ে করলো এনজিও কর্মী সুব্রত

স্বাধীনতার ৫০ বছরে স্বাস্থ্যখাতে অভাবনীয় সাফল্য

ঢাকার যানজটেই শেষ জিডিপির প্রায় ৮৭ হাজার কোটি টাকা


 

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, নায়েবে আমীর অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান চৌধুরী (পীর সাহেব দেওনা), ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আল্লামা সাজিদুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা আনোয়ারুল করীম, সহকারী মহাসচিব মাওলানা জহুরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদরীস নদভী, প্রচার সম্পাদক মাওলানা মুহিউদ্দীন রাব্বানী, দাওয়া সম্পাদক মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম সুবহানী, সহকারী দাওয়া সম্পাদক মাওলানা ওমর ফারুক, মাওলানা মোবারক উল্লাহ, মাওলানা মুসতাক আহমদ ও মাওলানা শাব্বির আহমদ রশীদ প্রমুখ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

জাওয়াদ আতঙ্কে শত শত ফিশিং ট্রলার নিরাপদ আশ্রয়ে

বাগেরহাট প্রতিনিধি

জাওয়াদ আতঙ্কে  শত শত ফিশিং ট্রলার নিরাপদ আশ্রয়ে

উপকূলীয় ধেয়ে আসা ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ আতংকে সতর্ক রয়েছে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসন। ইতোমধ্যে আবহাওয়া অধিদপ্তর ২ নম্বর সতর্ক সংকেত ঘোষণা করেছে। ঘূর্ণিঝড়টি দুপুরে মোংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ৮৮০ কিলোমিটার দূলে অবস্থান করছে। ফলে ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ আতঙ্কে রয়েছে বাগেরহাটের উপকূলবাসী। শনিবার দিনভর সুর্য এর দেখা মেলেনি। বিকাল থেকে গুমোদ আবহাওয়ার সাথে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। এদিকে ধেয়ে আসা ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ প্রভাবে বঙ্গোপসাগরে আসড়ে পড়ছে বিশাল বিশাল ঢেউ। এই অবস্থায় উত্তাল সাগেরে টিকতে না পেরে সকাল থেকে নিরাপদ আশ্রয়ে শত শত ফিশিং ট্রলার সুন্দরবনের ছোট ছোট খালসহ শারণখোলা, রায়েন্দা, মোংলা ও বাগেরহাটের প্রধান মৎস্য অবতরন কেন্দ্র কেবি ফিশারী ঘাটে অবস্থান নিয়েছে। 

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে শনিবার দুপুরে বাগেরহাটের নদীর পানি ২৪০ সেন্টিমিটার বৃদ্ধির রেকর্ড করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। তবে, তা এখনও বিপদ সীমার নিচে রয়েছে। রাতের জোয়ারে পানির চাপ বৃদ্ধির আশঙ্কা করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন জানান, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ ধেয়ে আসা খবরে দেশী বিদেশী পর্যটক, দূবলা শুটকী পল্লীর জেলেসহ সকল কর্মকর্তা বনরক্ষীদের সতর্ক থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। জাওয়াদের প্রভাবে ইতিমধ্যেই সুন্দরবনের নদ-নদীতে পানির উচ্চতা বেড়েছে। বঙ্গোপসাগর উত্তাল থাকায় টিকতে না পেরে কয়েক শত ফিশিং ট্রলার সুন্দরবনের কটকা, কচিখালী, সুপতি, দুবলা, মেহের আলী, হিরন পয়েন্টসহ বিভিন্ন স্থানের ছোট ছোট খালে আশ্রয় নিয়েছে।

আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনা


ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রস্তুতির বিষয়ে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আজিজুর রহমান জানান, মোংলা সমুদ্র বন্দরকে ২ নম্বর সতর্ক সংকেত দেয়া হলেও আমরা সতর্ক অবস্থানে রয়েছি। শরণখোলা, মোড়েলগঞ্জ, মোংলা ও রামপালসহগ সকল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে আবহাওয়া পরিস্থিতির উপর সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য। প্রয়োজন পড়রে দ্রুত সময়ের মধ্যে ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রগুলো খুলে দিতে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

চেয়ারম্যান হতে নয়, আপনাদের সেবক হতে এসেছি : আমজাদ

অনলাইন ডেস্ক

চেয়ারম্যান হতে নয়, আপনাদের সেবক হতে এসেছি : আমজাদ

আমি চেয়ারম্যান হতে আাসি নাই । আমি আপনাদের সেবক হতে এসেছি। আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন গরিব দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারি বলে জানিয়েছেন আসন্ন ঢাকার দোহারের রাইপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. আমজাদ হোসেন। মো. আমজাদ হোসেন দোহারের রাইপাড়া ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

তিনি শুক্রবার সন্ধ্যায়  দোহারের রাইপাড়া ইউনিয়নে তার পক্ষে আয়োজিত নির্বাচনী উঠান বৈঠকে এসব কথা বলেন।

উঠান বৈঠকে মো. আমজাদ বলেন, আমি চেয়ারম্যান হতে আাসি নাই । আমি আপনাদের সেবক হতে এসেছি। আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন গরিব দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারি। আমি সবসময় মানুষের বিপদে আপদে মানুষের সাহায্য করতে পারি। জনগণের পাশে থেকে সারাজীবন সেবা করতে চাই। আমি আপনাদের দোয়া ও ভোট প্রার্থনা করছি। আমাকে যদি চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেন তাহলে প্রত্যয়নপত্র সম্পূর্ণ ফ্রি সার্ভিস দিবো।

আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনা


তিনি আরও বলেন, গরিব ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়ার দায়িত্ব আমি নিতে চাই। অনেক গরিব মানুষ আছেন যারা টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না আমি তাদের চিকিৎসার দায়িত্বও নিতে চাই। আপনারা আমাকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করলেও সারাজীবন আপনাদের সেবায় নিয়োজিত থাকবো। আমি আপনাদের সেবক হয়ে কাজ করবো। 

মাসুমের সঞ্চালনায় ও ইছাক আকনের সভাপতিত্বে উঠান বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মবজেল হোসেন, বাবুল আলী, শেখ আসলাম, হাছেন আলী, কামাল হোসেন , কাবিল খাঁন, মো : লাবলু, খলিল হোসেন  প্রমুখ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

৪০ দিন জামাতে নামাজ আদায়ে পুরষ্কার পেল শিশুরা

অনলাইন ডেস্ক

৪০ দিন জামাতে নামাজ আদায়ে পুরষ্কার পেল শিশুরা

৫০ নামাজী শিশুকে উৎসাহ পুরস্কার দেয়া হয়েছে। টানা ৪০ দিন মসজিদে গিয়ে জামাতের সাথে নামাজ আদায় করায় তাদেরকে এ পুরস্কার দেয়া হয়। এজি চ্যারিটি ফাউন্ডেশন নামের একটি সংগঠনের পক্ষ থেকে এ পুরষ্কার প্রদান করা হয়।

শুক্রবার বিকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের ভূইশ্বর চান্দের পাড়া শাহী জামে মসজিদে তাদের পুরষ্কৃত করা হয়। 

আরও পড়ুন:

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

হাফ পাস শুধুমাত্র ঢাকায় কার্যকর হবে বললেন এনা


এসময় উপস্থিত ছিলেন ওই মসজিদের খতিব মাওলানা ইয়াছিন বিন সিরাজ, এজি চ্যারিটি ফাউন্ডেশনের চেয়াম্যান শাফায়েত উল্লাহ (শাফী), সহ-সভাপতি নাজমুল হাসান, সাবেক ইউপি সদস্য আবুল বাশার, মসজিদের সভাপতি মো. লোকমান সরকার, মাওলানা জহিরুল ইসলাম, মাওলানা এনায়েত উল্লাহ, মাওলানা দেলোয়ার, মো. রাসেলসহ উপস্থিত মুসল্লীবৃন্দ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর