নারীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ, এসআই গ্রেপ্তার
Breaking News
নারীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ, এসআই গ্রেপ্তার

নারীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ, এসআই গ্রেপ্তার

Other

থানায় সাধারণ ডায়রি করতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নারী-এমনি অভিযোগ উঠেছে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শকের খায়রুল আলমের বিরুদ্ধে।  

পুলিশ বলছে, এরই মধ্যে এসআই খায়রুলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনার সত্যতা মিললে, প্রচলিত আইনের পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে নেয়া হবে বিভাগীয় ব্যবস্থা।  

প্রায় এক মাস আগে শেরে বাংলা নগর থানায় একটি অভিযোগ নিয়ে যান ওই নারী। ভুক্তভোগী নারীর অভিযোগ সাধারণ ডায়েরি না নিয়ে ব্যক্তিগতভাবে বিষয়টি দেখার আশ্বাস দেন শেরে বাংলা নগর থানার সাব ইন্সপেক্টর খায়রুল আলম।

ভুক্তভোগীর সমস্যটি পারিবারিকভাবে সমাধান হয়ে গেলেও ঐ পুলিশ সদস্য তার সাথে যোগাযোগ করতে থাকে। পুলিশ অফিসার খায়রুল বারবার কল দেয়ায় নম্বার বন্ধ করতে বাধ্য হন ভুক্তভোগী নারী। কিন্তু তাতেও রেহাই পাননি তিনি।

নতুন নম্বার জোগাড় করে সোমবার সকালে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে যান গুলশানের একটি আবাসিক হোটেলে। সেখানে তাকে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতন করা হয় বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

আরও পড়ুন:


জেল থেকে আজ কখন মুক্তি পাচ্ছেন পরীমনি?

পাকিস্তানে মার্কিন সেনাদের উপস্থিতি দীর্ঘস্থায়ী হবে না

বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে চাকরির সুযোগ

তাওবার নামাজ পড়ার নিয়ম


এই ঘটনায় গুলশান থানায় একটি ধর্ষণ মামলা হয়েছে। গ্রেপ্তার হয়েছেন সাব ইন্সপেক্টর খায়রুল আলম। অপরাধ প্রমাণিত হলে আইনি ব্যবস্থার পাশাপাশি বিভাগিয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

এরই মধ্যে, গুলশান থানা পুলিশ অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য খায়রুল আলমকে আদালতে হাজির করে পাঁচ দিনের রিমান্ড চাইলে তা নামঞ্জুর করেন মুখ্য মহানগনর হাকিম মাহমুদা আক্তারের আদালত।  

news24bd.tv নাজিম