কামরুল ইসলাম সিদ্দিকের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
কামরুল ইসলাম সিদ্দিকের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

কামরুল ইসলাম সিদ্দিকের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়নের রূপকার, আন্তর্জাতিক খ্যাতিমান প্রকৌশলী বীর মুক্তিযোদ্ধা কামরুল ইসলাম সিদ্দিকের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী গতকাল বুধবার পালিত হয়েছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) প্রতিষ্ঠাতা প্রধান প্রকৌশলী, সাবেক সচিব কামরুল ইসলাম সিদ্দিক ২০০৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর ইন্তেকাল করেন।  

এলজিইডি প্রতিষ্ঠা ছাড়াও তিনি গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) চেয়ারম্যান হিসেবেও কর্মদক্ষতার স্বাক্ষর রাখেন। এ ছাড়া রাজধানীর অবকাঠামো উন্নয়নে ঢাকা যানবাহন সমন্বয় বোর্ডের (ডিটিসিবি) নির্বাহী পরিচালক হিসেবেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন তিনি।

 

একাত্তর-পরবর্তী সময় নিজস্ব ধ্যান-ধারণাকে বিশ্ব প্রেক্ষাপটের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশ উপযোগী প্রযুক্তির মাধ্যমে গ্রামবাংলার যুদ্ধবিধ্বস্ত অবকাঠামো উন্নয়নে তিনি অক্লান্ত কাজ করেছেন।  

কর্মজীবনে তিনি অসংখ্য উন্নয়নমূলক কাজ, সমাজসেবামূলক ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠায় অবদান রেখেছেন। প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম সিদ্দিকের জন্য তার পরিবার ও কিউআইএস মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে দেশবাসীর কাছে দোয়া চাওয়া হয়েছে।

কামরুল ইসলাম সিদ্দিক ১৯৬৬ সালে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পুরকৌশলে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ২০০৪ সালে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের সভাপতি নির্বাচিত হন।  

২০০৩-০৪ মেয়াদে গ্লোবাল ওয়াটার পার্টনারশিপে দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের প্রথম চেয়ারপারসন নির্বাচিত হন তিনি। দেশসেবার জন্য সি.আর দাশ স্বর্ণপদক, শেরেবাংলা স্বর্ণপদক, বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী স্বর্ণপদক, জাইকা ফেলোশিপ এবং মরণোত্তর আইইবি গোল্ড মেডেল পান তিনি।

আরও পড়ুন


বিয়ে করেছেন অপূর্ব'র সাবেক স্ত্রী অদিতিও

মুক্তিযুদ্ধের সময়ে ‘দাদা ভাই’য়ের লেখা হিসাবের খাতা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর

সিরাজগঞ্জ-৬ আসনের সংসদ সদস্য হাসিবুর রহমান স্বপন আর নেই

দেশে পৌঁছেছে ক্যাপ্টেন নওশাদের মরদেহ


NEWS24.TV / কামরুল

;