সিংহভাগ মানুষকে দ্রুত টিকার আওতায় আনতে চায় সরকার (ভিডিও)

সিংহভাগ মানুষকে দ্রুত টিকার আওতায় আনতে চায় সরকার (ভিডিও)

Other

দেশে করোনা সংক্রমণের হার ১০ শতাংশে নামলেও আগামী ১০ থেকে ১২ সপ্তাহের মধ্যে আবারো তা বাড়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন জনস্বাস্থ্যবিদরা। তারা বলছেন, সবকিছু উন্মুক্তভাবে চলতে থাকায় দেশে শিগগির করোনার তৃতীয় ঢেউ আসবে। এমন পরিস্থিতি মোকাবেলায় মাসে দুই কোটি ডোজ টিকা প্রয়োগ করার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

জানাচ্ছেন প্রায় তিন মাস পর দেশে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার তুলনায় দৈনিক শনাক্ত রোগীর হার এখন ১০ শতাংশে নেমেছে।

কমেছে করোনায় মারা যা্ওয়ার সংখ্যা। স্বাভাবিক হয়েছে জনজীবন। মাস্ক পরা কিংবা স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে ঢেলেঢালাভাব গোটা দেশজুড়ে।

জনস্বাস্থ্যবিদরা বলছেন, র্দীঘদিনের লকডাউনের সুফল মিলছে এখন। তবে মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি না মানার প্রচলনের কারণে আবারো করোনার বড় ঝুঁকিতে পড়তে যাচ্ছে গোটা দেশ। নভেম্বর-ডিসেম্বর নাগাদ দেশে আসবে করোনার তৃতীয় ঢেউ। এমন ঝুকির কথা সরকারের বিবেচনা রয়েছে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, প্রতি মাসে দেড় থেকে দুই কোটি ডোজ টিকা দিতে চায় সরকার। আগামী তিন মাসে দেশে আসবে আরো ৬ কোটি ডোজ টিকা। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশের সব মানুষকে টিকা আ্ওতায় আনা না গেলে ঝুঁকি কমবে না করোনার। দেশের মাত্র ২ শতাংশের কম মানুষ টিকা পেয়েছে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত

;