বিকল্প জ্বালানিতে বসুন্ধরা এলপিজির আন্তর্জাতিক অর্জন

অনলাইন ডেস্ক

বিকল্প জ্বালানিতে বসুন্ধরা এলপিজির আন্তর্জাতিক অর্জন

বাংলাদেশে টেকসই উন্নয়নে অর্জনের পথে ‘বিকল্প জ্বালানি’ নিশ্চিত করতে ধারাবাহিক প্রচেষ্টার জন্য আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে বসুন্ধরা এলপিজি। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যভিত্তিক অর্থনীতি সাময়িকী ‘বিজনেস ট্যাবলয়েড’ বসুন্ধরা এলপি গ্যাসকে ‘সেরা এলপি গ্যাস কম্পানি’ হিসেবে অ্যাওয়ার্ড প্রদান করে বলে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

প্রতিবছর নিজ নিজ ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্বদের এ পুরস্কার দেয় লন্ডনভিত্তিক ওই অনলাইন সংবাদ ম্যাগাজিন। কোনো প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট শিল্প খাতে সম্ভাবনা ও দক্ষতা বিবেচনায় নেওয়া হয় বলে জানানো হয়।

আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পাওয়ায় বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়াত সোবহান ভোক্তা, বিক্রেতা, পরিবেশকসহ সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। সেই সঙ্গে এই শ্রেষ্ঠত্ব বজায় রাখতে আরো দৃঢ়তার সঙ্গে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

বাংলাদেশের প্রথম এলপি গ্যাস কোম্পানি হিসেবে বসুন্ধরা ২০ বছর ধরে রান্নার বিকল্প জ্বালানি সরবরাহে হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে এবং লক্ষাধিক মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে।

আরও পড়ুন:

আবারও ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে আমাজন

সানি লিওনের সঙ্গে দুষ্টুমি করলো কে?

অন্তর্বাসের মধ্যে লুকানো ছিল অর্ধকোটি টাকার গলানো সোনা!

এবার পাশ্চাত্যের মানবিকতা নিয়ে কঠোর সমালোচনা পুতিনের


বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের হেড অব সেলস জাকারিয়া জালাল বলেন, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস দুই দশকেরও অধিক সময়ের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে দেশে এলপিজি বাজারকে শক্তিশালী করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। বাংলাদেশ এবং বিশ্বব্যাপী ব্র্যান্ডকে শক্তিশালী করার জন্য স্বল্পমেয়াদি ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার প্রতিফলনেই এই আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি।

গত দুই দশকে ধারাবাহিকভাবে ‘বেস্ট ব্র্যান্ড এবং সুপার ব্র্যান্ড’ স্বীকৃতি পাওয়া বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের অর্জনে যুক্ত হলো বিজনেস ট্যাবলয়েডের অ্যাওয়ার্ড।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

আত্মহত্যা ছাড়া আর কোনো পথ দেখছি না: শাকিল

অনলাইন ডেস্ক

আত্মহত্যা ছাড়া আর কোনো পথ দেখছি না: শাকিল

বোনের জমানো টাকা দিয়ে তিনটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে প্রায় ছয় লাখ টাকার চারটি মোটরবাইক অর্ডার দিয়েছিলেন। নির্ধারিত সময় পার হলেও পাননি কাঙ্ক্ষিত মোটরবাইক। 

উল্টো এখন বোনের প্রয়োজনে টাকা ফেরত দিতে পারছেন না। চারদিকে অন্ধকার দেখা ওই ব্যক্তি (ছদ্মনাম শাকিল হাসান) বলেন, ‘আত্মহত্যা ছাড়া আর কোনো পথ দেখছি না।’ 

পরিচয় গোপন করে শাকিল হাসান আরও বলেন, ‘আমার বোনের অ্যাকাউন্টে চার লাখ টাকার মতো ছিল। ভগ্নিপতি বিদেশ যাবেন, সেজন্য টাকাগুলো রাখা হয়েছিল। গত জুন মাসে তিনি (ভগ্নিপতি) আমাকে সেই টাকা ব্যবহারের অনুমতি দেন। তবে তিন মাসের মধ্যে টাকাগুলো ফেরত দিতে হবে। পণ্য অর্ডার দেওয়ার ৪৫ দিনের মধ্যে ডেলিভারির আশায় টাকাগুলো নিয়েছিলাম। কিন্তু তিনটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে পণ্য অর্ডার দিয়ে টাকা আটকে যাওয়ায় এখন তা ফেরত দিতে পারছি না। এখন ভগ্নিপতির বিদেশে যাওয়ার তারিখ চলে এসেছে। টাকাগুলো না পেলে বোনের সংসার টিকবে না। এ অবস্থায় আত্মহত্যা ছাড়া আর কোনো পথ দেখছি না।’

চাকরির পাশাপাশি ব্যবসা ও পুনঃবিক্রির জন্য মূলত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান থেকে মোটরবাইকগুলোর অর্ডার দিয়েছিলেন শাকিল।

তিনি বলেন, বোনের গচ্ছিত টাকাগুলো। কয়েক মাস আগে ইভ্যালিতে একটি মোটরবাইক (অ্যাপাচি আরটিআর ১৬০ ফোরভি) অর্ডার করি। নির্ধারিত সময়ে বাইকটি দিতে না পেরে এর বিপরীতে তারা আমাকে একটি চেক দেয়। বলে, তাদের ফোন পেলে চেকটি নিয়ে ব্যাংকে গিয়ে ক্যাশ করতে। কিন্তু আজ পর্যন্ত তাদের ফোন পাইনি। আদৌ চেক ক্যাশ করতে পারব কি না, তাও জানি না।

একই সময়ে ই-অরেঞ্জে এক লাখ ৪০ হাজার টাকায় ইয়ামাহা এফজেড-এস ভার্সন থ্রি অর্ডার দেন শাকিল। কিন্তু এখনও টাকা বা বাইকের হদিস কিছুই পাননি তিনি। জুনের ১৫ ও ১৭ তারিখে ই-কমার্স কিউকম.কম থেকে ইয়ামাহা আর-ওয়ান ফাইভ, ইয়ামাহা এফজেড এফআই ভার্সন টু (মোট চার লাখ ৩০ হাজার টাকার মতো) অর্ডার দেন তিনি। এখানেও ধরা খান। বর্তমানে টাকা বা বাইক কোনোটি না পেয়ে চোখে সর্ষে ফুল দেখছেন শাকিল হাসান।
সূত্র: ঢাকা পোস্ট 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

বগুড়ায় জমে উঠেছে শীতকালীন সবজির বেচা-কেনা

আব্দুস সালাম বাবু, বগুড়া

বগুড়াসহ উত্তরের বাতাস এখনো হিম ধরেনি। সন্ধ্যা নামলে কুয়াশাও পড়ে না। শীত আসার দেরি থাকলেও শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত কৃষকেরা। আগাম জাতের সবজি চাষে মাঠে নেমেছে তারা। 

এরই মধ্যে বগুড়ার হাট বাজারে জমে উঠেছে শীতকালীন সবজির বেচা-কেনা। ভালো ফলনে আশানরূপ দাম পেয়ে হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে। জেলার চাহিদা মিটিয়ে এখন দেশের বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছে এ অঞ্চলের সবজি। 

বিভিন্ন ধরনের শাকসহ বছর জুড়ে ৪০ প্রকারের সবজি উৎপাদন করে বগুড়ার চাষিরা । তবে শীতের সবজি ফলনে এখন মাঠে বেশি সময় দিচ্ছেন এ অঞ্চলের চাষিরা। শীতের মৌসুমে ১২ হাজার ৫৪০ হেক্টর জমিতে এবার সবজি চাষের লক্ষ্যমাত্রা ৩ লাখ ৫ হাজার ৫০০ মেট্রিকটন। ভালো দামের আশায় এরই মধ্যে চাষিরা উত্তরের বৃহৎ পাইকারী হাট মহস্থান বাজারে আনতে শুরুও করেছেন। 

আরও পড়ুন:


বিমানবন্দরে শুরু আরটি-পিসিআর ল্যাবের কার্যক্রম

নির্মাণশৈলী ও রাতে নৈসর্গিক দৃশ্য দেখতে পায়রা সেতুতে পর্যটকদের ভিড়

কাল লাখ লাখ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বন্ধ হয়ে যাবে!

জাপার ফিরোজ রশীদের বিরুদ্ধে সম্পত্তি দখলের অভিযোগ, হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত


অক্টোবর থেকে মার্চের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত শীতকালীন সবজি হাটে বাজারে পাওয়া যায়। জেলার নদর, শিবগঞ্জ, সারিয়াকান্দির চরাঞ্চল, গাবতলী ও শাজাহানপুর উপজেলায় সবচেয়ে বেশি সবজি চাষ হয়ে থাকে।

বগুড়ায় প্রতি বছর দুই মৌসুমে ১৮ হাজার ১৮৮ হেক্টর জমিতে ৪ লাখ মেট্রিক টন সবজি উৎপাদন হয়।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

মসিকে ৩৪১ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:

মসিকে ৩৪১ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের (মসিক) ২০২১-২০২২ অর্থবছরে ৩২১.৪৩ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট অনুমোদন করা হয়েছে। 

এর মধ্যে যার মোট রাজস্ব বাজেট ৭৫.২০ কোটি টাকা এবং মোট উন্নয়ন বাজেট ২৪৬.২৩ কোটি টাকা। সেই সাথে গত অর্থবছরের ৪৯৪.৮৪ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেটের বিপরীতে ১৮৪.৫২ কোটি টাকার সংশোধিত বাজেট অনুমোদন করা হয়। 

রোববার দুপুরে নগর ভবনের শহীদ শাহাবুদ্দিন মিলনায়তনে মসিক মেয়র ইকরামুল হক টিটুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বাজেট সভায় এ অনুমোদন করা হয়। 

এ সময় মেয়র বলেন, ‘অর্জনযোগ্য একটি বাজেট প্রণয়নের চেষ্টা করেছি। নির্বাচিত পরিষদ প্রায় আড়াই বছর অতিবাহিত করলেও করোনার কারনে আমাদের অনেক কার্যক্রম বিলম্বিত হয়েছে। তবে ইতিমধ্যে আমরা করের বিন্যাস, আদায় পদ্ধতিসহ অনেক কিছুই নির্ধারিত করতে পেরেছি। বাজেট লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে আমরা নিজেদের আরও সুদৃঢ় করতে পারব।’

রও পড়ুন:


কাল লাখ লাখ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বন্ধ হয়ে যাবে!

বিয়ের আগেই পাত্রের মাকে নিয়ে পালিয়ে গেল পাত্রীর বাবা!

বিশ্বকাপের আগে কোহলিকে স্বস্তি দিলেন অশ্বিন

ইংরেজি শেখার জন্য বিয়ে করেছিলেন শেবাগ-যুবরাজ-হরভজন!!


মসিক সূত্র জানায়, চলতি অর্থবছরে সাধারণ সংস্থাপন খাতে ১৯ কোটি ৫৪ লক্ষ টাকা, শিক্ষা-সংস্কৃতি- খেলাধুলা ও সমাজকল্যাণ খাতে ৩ কোটি ১ লক্ষ টাকা, স্বাস্থ্য খাতে ২ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খাতে ১০ কোটি ৯৫ লক্ষ টাকা, উন্নয়ন খাতে ১৮ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা, পরিবহন খাতে ৬ কোটি ৪৮ লক্ষ টাকা, নগর পরিকল্পনা খাতে ২ কোটি টাকা এবং বিবিধ খাতে ০৭ কোটি টাকা বাজেট প্রস্তাব করা হয়।

সভায় সঞ্চালন করেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। এ সভায় অর্থ ও সংস্থাপন বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও প্যানেল মেয়র-১ আসিফ হোসেন ডনসহ অন্যান্য প্যানেল মেয়র, কাউন্সিলবৃৃন্দ এবং বিভিন্ন বিভাগ ও শাখা প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে বেলা ১১ টায় মেয়রের সভাপতিত্বে প্যানেল মেয়র, কাউন্সিলর ও বিভাগ-শাখা প্রধানদের উপস্থিতিতে ১৪ তম কর্পোরেশন সভা অনুষ্ঠিত হয়।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

ই-কমার্সে অর্ডার দিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী নিজেই প্রতারিত

অনলাইন ডেস্ক

ই-কমার্সে অর্ডার দিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী নিজেই প্রতারিত

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি জানিয়েছেন ই-কমার্সে অর্ডার দিয়ে নিজেই প্রতারিত হয়েছেন। তিনি বলেন, একটি ই-কমার্স সাইটে কোরবানি ঈদের জন্য গরু অর্ডার দিয়ে তিনি কাঙ্ক্ষিত গরু পাননি।

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, গেল কোরবানির ঈদের আগের কোরবানি ঈদে আমি একটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান উদ্বোধনকালে একটি গরুর জন্য এক লাখ টাকা দিয়েছিলাম। কিন্তু আমাকে যে গরুটি দেখিয়েছিল, আমি সেটি পায়নি। আমি নিজেই অর্ডার করে প্রতারিত হয়েছিলাম। একটি জিনিস নতুন করে চালু করলে, সেটা নিয়ে সমস্যার সৃষ্টি হয় তার ভুক্তভোগী আমি নিজেই।

রও পড়ুন:


কাল লাখ লাখ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বন্ধ হয়ে যাবে!

বিয়ের আগেই পাত্রের মাকে নিয়ে পালিয়ে গেল পাত্রীর বাবা!

বিশ্বকাপের আগে কোহলিকে স্বস্তি দিলেন অশ্বিন

ইংরেজি শেখার জন্য বিয়ে করেছিলেন শেবাগ-যুবরাজ-হরভজন!!


আজ রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের সম্মেলন কক্ষে ‘প্রতিযোগিতা আইন বাস্তবায়নের মাধ্যমে বাজারে সুষ্ঠু প্রতিযোগিতাপূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টিতে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের (ইআরএফ) ভূমিকা’ শীর্ষক কর্মশালায় তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারপারসন মফিজুল ইসলাম বলেন, ২০২০ সালের নভেম্বরে ইভ্যালির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে কমিশনের পক্ষ থেকে। মামলাটা আদালতে চলমান। শিগগিরই রায় হবে।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

ইভালির মতো গ্রাহক ঠকানো বন্ধে সরকার কাজ করছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

ইভালির মতো গ্রাহক ঠকানো বন্ধে সরকার কাজ করছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, অর্থনীতি বড় হয়েছে, দুর্নীতিও বেড়েছে। ই-ভ্যালির মতো আর কোনো কোম্পানি যাতে গ্রাহককে ঠকাতে না পারে সে বিষয়ে কাজ করছে সরকার।

তিনি বলেন, ই-কমার্স ব্যবসা বন্ধ করা যাবে না, তবে নজরদারির আওতায় নিয়ে আসা হবে। 

বিস্তারিত আসছে..

পরবর্তী খবর