ডিজিটাল অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া উচিৎ: মোস্তাফা জব্বার

অনলাইন ডেস্ক

ডিজিটাল অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া উচিৎ: মোস্তাফা জব্বার

দেশে ই-কমার্সের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অপরাধকারীদের কোনো প্রকার ছাড় না দিয়ে নির্মমতার সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া উচিৎ বলে মনে করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। পাশাপাশি দ্রুততার সঙ্গে অপরাধীদের বিচারের আওতায় এনে তাদের অপরাধ দমন করা প্রয়োজন বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

ডাক বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এর মাধ্যমে কিছু ই-কমার্স খাতে সন্দেহজনক লেনদেন করা গ্রাহকদের অ্যাকাউন্ট সাময়িক বন্ধ করা এবং সে সকল তথ্য আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে দেওয়ার প্রেক্ষাপটে গতকাল শনিবার এক ওয়েবিনারে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

ওয়েবিনারে অংশ নেন বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইনটেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ) প্রধান আবু হেনা মোহা. রাজী হাসান, অর্থনৈতিক অপরাধ এবং মানব পাচার ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম বিভাগের (সিটিটিসি) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. তৌহিদুল ইসলাম, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশর সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল ওয়াহেদ তমাল এবং নগদ-এর চিফ অপারেটিং অফিসার আশীষ চক্রবর্তী। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ‘নগদ’-এর চিফ পাবলিক অ্যাফেয়ার্স অফিসার সোলায়মান সুখন।

‘ই-কমার্স: বর্তমান পরিস্থিতি ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক ওই ওয়েবিনারে মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, মানুষ যেমন অপরাধের জন্য টেকনোলজি ব্যবহার করে, তেমনি টেকনোলজি দিয়ে অপরাধীদের দমন করতে হবে। ডিজিটাল অপরাধীকে দমনের জন্য ডিজিটাল প্রযুক্তি দরকার যেমনটা ‘নগদ’ করছে। ডিজিটাল অপরাধীদেরকে এখনই শাস্তি না দিতে পারলে ভবিষ্যতে তারা দশগুণ বড় হয়ে সংখ্যাটা দশ গুণ বাড়িয়ে দেবে, যোগ করেন মন্ত্রী।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমরা এমন একটি ডিজিটাল সোসাইটি চাই, যেটা সম্পূর্ণভাবে অপরাধ মুক্ত থাকবে।’ তিনি বলেন, নগদ ডাক বিভাগেরই একটি সেবা। সুতরাং সরকারের দিক থেকে বলতে পারি, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সর্বোচ্চ সহায়তা করা হবে, যাতে তারা সহজেই অপরাধীদেরকে খুঁজে বের করতে পারে।

বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইনটেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ) আবু হেনা মোহা. রাজী হাসান বলেন, মানি লন্ডারিং আইনে ৪ থেকে ১২ বছরের শাস্তি এবং যে অর্থ প্রতারণা করছে তার দ্বিগুণ জরিমানা করার নিয়ম রয়েছে। এই আইনের আওতায় যেকোনো প্রতিষ্ঠান তাদের তথ্য দিতে বাধ্য। এ ছাড়া একজন ব্যক্তি কোথায় এবং কোন প্রতিষ্ঠানে টাকা ট্রান্সফার করেছে, সে বিষয়ে তথ্য দিতে বাধ্য। প্রতিষ্ঠানগুলোকে স্বপ্রণোদিত হয়েও তথ্য দিতে হয়। অস্বাভাবিক লেনদেনের রিপোর্ট পর্যালোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমরা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে পাঠাই।
 
আলোচনায় অংশ নিয়ে ‘নগদ’-এর চিফ অপারেটিং অফিসার আশীষ চক্রবর্তী বলেন, লেনদেনে আমরা সন্দেহভাজন অ্যাকাউন্টের কেবল তালিকা শেয়ার করতে পারি, যেখানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বাকি কাজটা করে থাকে। তবে সন্দেহভাজনের মধ্যে কিছু অ্যাকাউন্ট হয়তো রয়েছে যারা অপরাধের সঙ্গে যুক্ত না-ও হতে পারেন, আমরা আপাতত সেই অ্যাকাউন্টগুলোও বন্ধ করেছি। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কী করবে, তারা সিদ্ধান্ত নেবেন। তিনি বলেন, আমরা আশাবাদী বিএফআইইউ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যে সিদ্ধান্ত নেবেন, সে অনুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। তিনি বলেন, অপরাধ যারা করেছেন, তারাই এখন দেখছি ‘নগদ’-কে নিয়ে নানান রকম প্রপাগান্ডা ছড়াচ্ছেন।
 
ই-কমার্সে প্রতারকদের শাস্তির বিষয়ে সিটিটিসি-এর কর্মকর্তা মো. তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ২০১৮ সালে ই-কমার্সের যে নীতিমালা হয়, সেখানে পুলিশকে ইনভলভ করা না হলেও ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্টের ২২ ও ২৩ ধারা ও প্যানেল অ্যাক্ট অনুসারে পুলিশ এখানে ব্যবস্থা নিতে পারে। আর ভোক্তারাও থানায় অভিযোগ করতে পারেন, যেখানে অপরাধীকে ২ থেকে ৭ বছর পর্যন্ত শাস্তির আওতায় আনা যায়। তিনি বলেন, যে ই-কমার্সগুলো প্রতারণা করছে, তাদের ক্ষেত্রে অ্যাকশন নিতে হবে এবং অসাধু ই-কমার্স ব্যবসায়ী ও তাদের সহযোগীদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স অবস্থান নেওয়ার এখনই প্রকৃত সময়। 
ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশর সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াহেদ তমাল বলেন, যে ই-কমার্সগুলো প্রতারণা করছে, তাদের ক্ষেত্রে অ্যাকশন নিতে হবে এবং অসাধু ই-কমার্স ব্যবসায়ী ও তাদের সহযোগীদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স অবস্থান নেওয়ার এখনই প্রকৃত সময়।
 
সম্প্রতি ডাক বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এর মাধ্যমে বিভিন্ন ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে সন্দেহজনক লেনদেনের লক্ষণ পরিলক্ষিত হয়। নগদ কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির মাধ্যমে বেশ কিছু সন্দেহভাজন লেনদেন সনাক্ত করে সেসব অ্যাকাউন্টের তথ্য একাধিক নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করে। পাশাপাশি সাময়িকভাবে অ্যাকাউন্টগুলোর লেনদেন স্থগিত করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) বিভাগে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ করা হয়েছে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত

পরবর্তী খবর

মেসেন্জারে ভিডিও কলে আনা হলো নতুন 'গ্রুপ এফেক্ট'

অনলাইন ডেস্ক

মেসেন্জারে ভিডিও কলে আনা হলো নতুন 'গ্রুপ এফেক্ট'

ফেসবুক মেসেঞ্জার ভিডিও কল এবং মেসেঞ্জার রুমে একটি নতুন গ্রুপ এফেক্ট ফিচার নিয়ে এসেছে। ডেইলি হান্টের সূত্রে জানা যায়, নতুন এই ফিচারের মাধ্যমে গ্রুপে থাকা সকলেই ভিডিও কলে 'এআর' ফিল্টার এবং এফেক্টস প্রয়োগ করতে পারেন।

ফেসবুক জানিয়েছে নতুন এই গ্রুপ এফেক্ট ফিচার দ্রুত ইন্সটাগ্রামেও যোগ করা  হবে। গ্রুপ এফেক্ট ভিডিও কলে থাকা সবার জন্য প্রযোজ্য। শুরুতে ৭০টিরও বেশি গ্রুপ এফেক্ট নিয়ে নতুন এই ফিচার সামনে এনেছে মেসেঞ্জার।


আরও পড়ুন:

চাঞ্চল্যকর সেই দম্পতি হত্যার রহস্য উদঘাটন করলো পিবিআই

দুই সন্তানের বাবার নামে প্রেমিকার মামলা

সুইমিং পুলে শুয়ে কী বললেন শ্রাবন্তী?

চলছে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের সোনালি অধ্যায় : হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা


নতুন এই গ্রুপ এফেক্ট ফিচারটি বিশ্বজুড়ে সকল ব্যবহারকারীদের জন্য চালু হতে চলেছে। সব ব্যবহারকারীদের এই ফিচার পেতে কিছুটা সময় লাগতে পারে।

আপনার জন্য এটি চালু হয়েছে কিনা জানতে আপনি প্রথমে ফোনের ফেসবুক অ্যাপ ওপেন করুন। তারপর মেসেঞ্জারে গিয়ে একটি ভিডিও কল স্টার্ট করুন। এরপর স্মাইলি ফেস অপশনে গিয়ে ট্যাপ করে এফেক্টস ট্রে ওপেন করুন। একটি গ্রুপ এফেক্টস চেক করুন এবং ভিডিও কলের সকল অংশগ্রহণকারীদের আবেদন করার জন্য সব অপশনগুলো দেখতে এটি সিলেক্ট করুন।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

নাম পরিবর্তন হচ্ছে ফেসবুকের

অনলাইন ডেস্ক

সেই ১৭ বছরের পুরোনো নাম পরিবর্তনের পরিকল্পনা করছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) নাম পরিবর্তনের সঙ্গে জড়িত একটি সূত্রের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে দ্য ভার্জ।
 
ধারণা করা হচ্ছে, আগামী সপ্তাহে এ পরিবর্তন আসতে পারে। ফেসবুকের নতুন নাম হতে পারে মেটাভার্স। মূলত নিজেদের পুনর্গঠিত করতেই ফেসবুকের এ নাম পরিবর্তনের উদ্যোগ।

আরও পড়ুন:


তাইওয়ানকে চীনের হাত থেকে রক্ষা করতে বদ্ধপরিকর যুক্তরাষ্ট্র

অভিযুক্ত ইকবালের সঙ্গে ছাত্রলীগ নেতা মিশু-রায়হান-অনিকের পরিচয় যেভাবে

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চাকরির সুযোগ, আবেদন অনলাইনে

আরও বিস্তৃতি বাড়াচ্ছে আইপিএল, আসছে নতুন দল


মেটাভার্স নামের অর্থ হলো একটি ভার্চ্যুয়াল জগৎ। যেখানে ইন্টারনেটের মাধ্যমেই এ জগতের সঙ্গে যুক্ত হওয়া যাবে। এ জগৎ বাস্তবতার সঙ্গে ডিজিটাল সংমিশ্রণ। ভার্চ্যুয়াল রিয়েলিটি অথবা অগমেন্টেড রিয়েলিটির মাধ্যমে গড়ে ওঠার কারণে এই জগতে ব্যবহারকারীদের নিজেকে আরও জীবন্ত মনে হবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

মাত্র ১৬ হাজার টাকায় ৬ জিবি র‍্যামের ফোন

অনলাইন ডেস্ক

মাত্র ১৬ হাজার টাকায় ৬ জিবি র‍্যামের ফোন

বর্তমানে সকলের হাতে হাতে স্মার্ট ফোন। নিত্য নতুন ফোন আসছে প্রতিনিয়তই। তাই তো এবার স্মার্টফোন জগতের অন্যতম শীর্ষ ব্র্যান্ড ইনফিনিক্স নিয়ে এলা নতুন ডিভাইস হট ১১এস। যার মূল্য ১৬হাজার টাকার মধ্যেই।

জি৮৮ প্রসেসর, ১২৮ জিবি স্টোরেজ ও ৬ জিবি র‌্যামের ফোনটি পাওয়া যাবে  ১৫,৯৯০ টাকায়।

হট ১১এস মডেলের এই মোবাইলটিতে রয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেল ট্রিপল এআই নাইটস্কেপ ক্যামেরা। ফ্রন্টে সেলফি তোলার জন্য আছে ডুয়েল এলইডি ফ্ল্যাশ সম্বলিত ৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল বিশেষ ক্যামেরা। এছাড়া সামনে ও পেছনে উভয় ক্যামেরায় রয়েছে এআই ফিচার।

স্মার্টফোনটিতে আরো আছে ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। যেটির সাহায্যে একনাগাড়ে ১৩ ঘণ্টা গেম খেলা যাবে। মাত্র ৫ শতাংশ চার্জেও মোবাইলটিতে কথা বলা যাবে অতিরিক্ত দুই ঘণ্টা। অত্যাধুনিক এই ডিভাইসটির ৪ জিবি র‍্যাম এবং ৬ জিবি র‍্যামের দুটি ভার্সন আছে এবং উভয় ভার্সনেই রয়েছে ১২৮ জিবি স্টোরেজ সুবিধা।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


 

৪ জিবি র‍্যাম ভার্সনটির দাম মাত্র ১৪,৯৯০ টাকা ও ৬ জিবি র‍্যাম ভার্সনটির দাম নির্ধারিত হয়েছে ১৫,৯৯০ টাকা। গ্রাহকরা গ্রিন ওয়েভ এবং পোলার ব্ল্যাক দুটি রঙের স্মার্টফোন কিনতে পারবেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ফেলে দেওয়া মোবাইল ফোনে কোটি টাকার ব্যবসা

অনলাইন ডেস্ক

ফেলে দেওয়া মোবাইল ফোনে কোটি টাকার ব্যবসা

তাই মোবাইল ফোন তৈরিতে ব্যবহার করা হয় মুল্যবান এই ধাতব স্বর্ণ। কারণ এটি বিদ্যুৎ সুপরিবাহী। শুধু সোনাই নয় রুপা ও তামা ব্যবহার করা হয়ে থাকে মোবাইল ফোন তৈরিতে। সোনা ক্ষয় হয় না, মরিচা ধরে না। তাই মোবাইল ফোনের ইন্টিগ্রেটেড সারকিট বোর্ডের ছোট্ট কানেকটরগুলোতে স্বর্ণ ব্যবহৃত হয়। যদিও এটি খুব সামান্য পরিমাণে থাকে। তবে ফেলে দেওয়া অনেকগুলো ফোন থেকে সংগ্রহ করা যায় উল্লেখযোগ্য পরিমাণ সোনা, যা দিয়ে চলে কোটি টাকার ব্যবসা। 

বিবিসিেএবং আনন্দবাজার সূত্রে জানা যায়, স্মার্টফোন বা আইফোন, সব ধরনের মোবাইল ফোন তৈরিতেই সোনা থাকে।। হিসাব করে দেখা গেছে, ফোনে ৩৪ থেকে ৫০ মিলিগ্রাম পর্যন্ত সোনা থাকে। একটি ফোনে পরমাণ সামান্যই থাকে। কিন্তু যে হারে পরিত্যক্ত মোবাইলের সংখ্যা বাড়ছে তাতে সংগৃহীত সোনার পরিমাণ কম নয়।

অব্যবহৃত মোবাইল ফোন যেখানে আমাদের কাছে প্রযুক্তি বর্জ্য। সেখান থেকে সোনার মতো দামি ধাতু বের করে চলছে রমরমা ব্যবসা। হিসাব বলছে, ৪১টি মোবাইল ফোন থেকেই ১ গ্রাম সোনা পাওয়া যায়। বাংলাদেশি মুদ্রায় এখন যার গড় মূল্য ছয় হাজার ২৭৩ টাকা। ওই হিসাবেই দেখা গেছে, বিশ্বে সারা বছরের বাতিল মোবাইল ফোন থেকে চার হাজার কোটি টাকার সোনা পাওয়া যায়।


আরও পড়ুন:

ইয়েমেনে বিমান হামলায় ১৬০ হুথি বিদ্রোহী নিহত

গাড়ি উৎপাদন কমাচ্ছে টয়োটা

ক্যাটরিনাকে বিয়ের প্রসঙ্গে এবার মুখ খুললেন ভিকি

আত্মহত্যার চেষ্টা করা ছাত্রী বোর্ড পরীক্ষায় প্রথম!


মোবাইল ফোনে সোনার কানেকটরগুলো ডিজিটাল ডাটা দ্রুত এবং যথাযথ স্থানান্তর করার জন্যও ব্যবহৃত হয়। মোবাইল ফোনের মতো, সোনা কম্পিউটার ও ল্যাপটপের আইসিগুলিতেও ব্যবহৃত হয়। আর এই ভাবেই বাতিল মোবাইল, ল্যাপটপ ইত্যাদি দিয়ে চলে কোটি কোটি টাকার ব্যবসা।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত 

পরবর্তী খবর

ফেসবুক হ্যাক হয়েছে বুঝবেন যেভাবে

অনলাইন ডেস্ক

ফেসবুক হ্যাক হয়েছে বুঝবেন যেভাবে

যতই সাবধানতা অবলম্বন করা হোক না কেন, যে কোনো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হতে পারে। সম্প্রতি হ্যাকারদের তৎপরতা বেড়ে গেছে। ফেসবুক হ্যাকিং এর শিকার হচ্ছেন বিশ্বের নামি-দামি ব্যক্তি থেকে শুরু করে অনেকেই। ফেসবুক হ্যাকিংয়ের শিকার স্বয়ং ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গও। সুতরাং ফেসবুক হ্যাক হওয়া নতুন কিছু নয়।

তবে কিছু লক্ষণ খেয়াল করলে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি কেউ হ্যাক করে ব্যবহার করছে কিনা। 

আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট এর লগইন তথ্য দেখে খুব সহজেই বুঝতে পারবেন আপনার অ্যাকাউন্ট কোন কোন ডিভাইস থেকে ব্যবহার করা হয়েছে বা হচ্ছে। লগইন হিস্ট্রি দেখার জন্য ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লগইন করে মেন্যু থেকে Settings and Privacy তে ক্লিক করুন। এবার Settings এ ক্লিক করে Security & Login এ গিয়ে Where You Logged In সেকশনটি দেখুন।

আরও পড়ুন:


গাজীপুরে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে পার্লার কর্মীকে গণধর্ষণ

পরিকল্পিতভাবে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি পূজায় সহিংসতা সৃষ্টি করেছে: কাদের

ইন্দোনেশিয়ার বালিতে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ৩

ঘোড়ার খামারে বিয়ে করছেন বিল গেটসের মেয়ে


সেখানে কোন ডিভাইস থেকে, কোন সময়ে, কোন স্থান থেকে কোন ব্রাউজার ব্যবহার করে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লগইন করা হয়েছে তার তালিকা দেখতে পাবেন। আপনি লগইন করেননি এমন ডিভাইস দেখলে আপনি নিশ্চিত হতে পারেন অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে। যেসব ডিভাইসে বর্তমানে অ্যাকাউন্টে লগইন করা আছে, সেসব ডিভাইসের পাশে Active Now লেখা থাকবে। 

তালিকার প্রতিটি ডিভাইস ক্লিক করলে থ্রি-ডট মেন্যু থেকে আপনি অপরিচিত ডিভাইস থেকে অ্যাকাউন্ট লগ আউট করে ফেলতে পারেন। এ ছাড়া একবারে সকল ডিভাইস থেকে লগ আউট করতে 'Log Out Of All Sessions' ক্লিকের সুযোগও রয়েছে। 

থার্ড পার্টি টুল ব্যবহার করেও আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে কিনা জানতে পারেন। এমনই একটি সাইট 'Have I Been Pwned'। এই সাইটে প্রবেশ করে ফেসবুক অ্যাকাউন্টের ফোন নম্বর বা ইমেইল ঠিকানা দিয়ে 'pwned? ' বাটনে ক্লিক করলেই পাওয়া যাবে অ্যাকাউন্টের লগইন সংক্রান্ত তথ্য।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর