পরকীয়ায় জড়িয়ে নিজ ঘরেই লাশ হলেন প্রবাসীর স্ত্রী
পরকীয়ায় জড়িয়ে নিজ ঘরেই লাশ হলেন প্রবাসীর স্ত্রী

পরকীয়ায় জড়িয়ে নিজ ঘরেই লাশ হলেন প্রবাসীর স্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

চুয়াডাঙ্গায় নিজ ঘরেই এক প্রবাসীর স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। ওই গৃহবধূর নাম জেসমিন আরা আয়না (৩০)। নিহত জেসমিন আরা আয়না ওই গ্রামের কুয়েত প্রবাসী হাবিল হোসেনের স্ত্রী।

মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে সদর উপজেলার যাদবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসীদের ধারণা, পরকীয়ার কারণে তিনি খুন হয়ে থাকতে পারেন।

এদিকে এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গ্রামের তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। তারা হলো - একই গ্রামের মৃত সৌরভ হোসেনের ছেলে হাসান আলী, মৃত বাহার নস্করের ছেলে রহমান ও উসমান মণ্ডলের ছেলে মামুন।

পুলিশ ও এলাকা সূত্রে জানা গেছে, জেসমিন আরা আয়না দুই সন্তানের জননী। তিনি মঙ্গলবার রাতে নিজ ঘরেই ঘুমিয়েছিলেন। রাত আড়াইটার দিকে গোঙানির শব্দ শুনে প্রতিবেশীরা জেসমিনের বাড়িতে আসেন। এ সময় খাটের ওপর জেসমিনের রক্তাক্ত মৃতদেহ দেখতে পান তারা। তবে ঘরের গ্রিলের তালা খোলা ছিল। এ কারণেই পুলিশের ধারণা জেসমিনের সম্মতিতেই খুনি ঘরে ঢুকে খুনের ঘটনা ঘটিয়েছে।

আরও পড়ুন


জামায়াত নেতাদের মুক্তি চাইলেন কর্নেল অলি

সে দিন শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছিলেন পরীমণি, অভিযোগপত্রে পুলিশ

সিরিয়া ও রাশিয়া প্রথমবারের মতো এমন মহড়া চালালো

চুটিয়ে প্রেম করছেন পূজা চেরি!


বুধবার সকাল ৯টায় জেসমিনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ খান জানান, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সকালে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রকৃত খুনের কারণ উদঘাটন ও খুনি শনাক্তের জন্য পুলিশ কাজ শুরু করেছে।

news24bd.tv এসএম