মেসেঞ্জার ব্যাবহার যে কারণে ঝুঁকিপূর্ণ

নিবিড় আমীন

মেসেঞ্জার ব্যাবহার যে কারণে ঝুঁকিপূর্ণ

জনপ্রিয় অ্যাপ ফেসবুক মেসেঞ্জার ব্যাবহারে বিপদের ঝুঁকি দেখছেন অনেক নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা। এই প্ল্যাটফর্ম থেকে কারও সরে যাওয়ার গুরুত্বপূর্ণ কারণ রয়েছে বলে জানানো হয়েছে ফোর্বস ম্যাগাজিনের এক প্রতিবেদনে। এদিকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের তথ্য সুরক্ষা বিধি লঙ্ঘন করায় ২২৫ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা করা হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপকে। 

ফোর্বস ম্যাগাজিনে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, মেসেঞ্জার অ্যাপের সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো ডিফল্ট অ্যান্ড-টু-অ্যান্ড এনক্রিপশনের অভাব। যা এমন একটি যোগাযোগ ব্যবস্থা যেখানে শুধুমাত্র যোগাযোগকারীরাই একে অন্যের বার্তা পড়তে পারেন। নৈতিকভাবে এটি অ্যাপ সংশ্লিষ্ট কাউকেই তাদের মধ্যকার বার্তা পড়ার অনুমোদন দেয় না। আর এখানেই রয়েছে মেসেঞ্জারের নিরাপত্তার ঘাটতি।

অবশ্য সবধরণের যোগাযোগের ক্ষেত্রে অ্যান্ড-টু-অ্যান্ড এনক্রিপশনের গুরুত্বকে ডিফল্ট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মেসেঞ্জার। সম্প্রতি নতুন করে সুরক্ষার বিষয় যোগ করেছে প্লাটফর্মটি। ব্যবহারকারীকে কারা ইনবক্স করতে পারবে, রিকোয়েস্ট ফোল্ডারে কে যেতে পারবে এবং কারা মোটেও বার্তা দিতে পারবেনা, এসব নির্ধারণ করার সক্ষমতা দেবে প্লাটফর্মটি। যদিও মেসেঞ্জার এনক্রিপশন এই প্লাটফর্মে শিশু নির্যাতনকে চিহ্নিত করার ক্ষমতা হ্রাস করবেনা বলে জানিয়েছে ফেসবুক, তবে তা শিশুদের জন্য কতটা সুরক্ষিত হবে তা নিয়ে থেকে যাচ্ছে প্রশ্ন।


আরও পড়ুন

পিএইচডি ডিগ্রি, মাস্টার্স ডিগ্রির কোনো মূল্য নেই : তালেবানঘোষিত শিক্ষামন্ত্রী

হাতে ইনজুরি সৌম্যর!

মোবাইল ফোন গিলে ফেলে হাসপাতালে ভর্তি!

নতুন ছবিতে আবারও ভক্তদের মনে ঝড় তুললেন জয়া


এদিকে, ইইউ এর ডেটা সুরক্ষা বিধি লঙ্ঘন করায় ২২৫ মিলিয়ন জরিমানার মুখোমুখি হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। প্লাটফর্মটি ফেসবুকের মালিকানাধীন অন্যান্য সংস্থার সঙ্গে তথ্য-উপাত্ত শেয়ার করার নীতিমালা ভঙ্গ করেছে। অনুসন্ধান করে এ ঘটনার সত্যতার প্রমাণ পেয়েছে আয়ারল্যান্ডের ডেটা গোপনীয়তা সুরক্ষা কমিশন। জরিমানার পাশাপাশি হোয়াটসঅ্যাপকে ‘প্রতিকারমূলক পদক্ষেপ’ নেওয়ার নির্দেশ হয়েছে তারা।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত

পরবর্তী খবর

ই-কমার্সে চমকপ্রদ অফারের ফাঁদ, এক বছরে ১৯ হাজার অভিযোগ

রিশাদ হাসান

২০২০-২১ অর্থ বছরে দেশের ১৯টি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ভোক্তাদের অভিযোগ ১৩ হাজারের বেশী। এছাড়াও শেষ ২ মাসে অভিযোগের সংখ্যা  বেড়েছে আরো ৬ হাজার। প্রতিষ্ঠানগুলোর চমকপ্রদ অফারে প্রলুব্ধ হওয়ার কারনেই এই দশা বলছেন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা। তাই এধরনের অফারে ক্রেতাদের লোভে না পড়ার পরামর্শ দিচ্ছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

রাজধানীর কারওয়ান বাজার এলাকার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এখানে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের নামে অভিযোগ দিতে এসেছেন দুই ব্যাক্তি।

অধিদপ্তরের তথ্যমতে চলতি বছরের জুন মাস পর্যন্ত দেশের মোট ১৯টি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ভোক্তাদের অভিযোগ ১৩৩১৭টি।

এরচেয়ে ভয়াবহ তথ্য হলো সবশেষ দুই মাসে অভিযোগ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯৩০৪টি। সবচেয়ে বেশী অভিযোগ ইভ্যালির ৭১৩৮টি। ই অরেঞ্জের নামে শুরুতে মাত্র ১০টি অভিযোগ থাকলেও মাত্র ৭ দিনে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬৪৩টিতে।

রও পড়ুন:

ধীর জীবন মানেই অলস জীবন নয়

একটি হটডগ আয়ু কমাতে পারে ৩৬ মিনিট পর্যন্ত!

ইভ্যালি ধরলেও সমস্যা, ছাড়লেও সমস্যা! কোথায় যাবেন ফারিয়া?

তৃতীয় স্বামীর কাছে শুধু বিচ্ছেদই নয়, খরচও চাইলেন শ্রাবন্তী


 

প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অফারের নামে গ্রাহকের সাথে প্রতারণা দেশের ই-কমার্স ব্যবসায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে।

আকর্ষণীয় অফারে প্রলুব্ধ না হয়ে প্রতিষ্ঠান বুঝে পন্য ক্রয়ের পরামর্শ দিচ্ছেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক।

তিনি জানান, এই মুহুর্তে দুটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের প্রধান আইনের আওতায় থাকায় ভোক্তাদের অভিযোগ নিষ্পত্তি করতে পারছেনা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ২৪ ঘণ্টা নজরদারি করবে বিটিআরসি

অনলাইন ডেস্ক

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ২৪ ঘণ্টা নজরদারি করবে বিটিআরসি

ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউবসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ২৪ ঘণ্টা নজরদারি চালাবে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। এই নজরদারির মাধ্যমে ব্যক্তিগত, সামাজিক, ধর্মীয় বা রাষ্ট্রীয় যে কোনো আপত্তিকর কনটেন্ট দ্রুত শনাক্ত ও অপসারণে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া যাবে বলে জানিয়েছে তারা।

এর আগে সাম্প্রতিক সময়ে পরীমণি ইস্যুতে পুলিশ কর্মকর্তা গোলাম সাকলায়েনের ব্যক্তিগত ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এছাড়া কলেজছাত্রী মুনিয়া ও জেকেজি হেলথকেয়ারের ডা. সাবরিনার ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও ফাঁস হলে দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। নাগরিকদের ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের কড়া সমালোচনা করেন উচ্চ আদালত।

এই সমালোচনার মুখে ইন্টারনেটভিত্তিক সব ওয়েবসাইট ২৪ ঘণ্টা নজরদারির আওতায় আনার সিদ্ধান্ত বিটিআরসি। বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যামসুন্দর বিশ্বাস বলেন, আমরা ইতোমধ্যেই সাইবার সিকিউরিটি সেল নামে একটি বিশেষ সেল গঠন করছি। নজরদারির চালানোর জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি স্থাপন করছি।

আরও পড়ুন:

অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

ছাত্রকে যৌন হয়রানি ২৭ বছরের তরুণীর, ২০ বছরের কারাদণ্ড

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


শুধু নাগরিকদের ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও নয়, এই সেলের মাধ্যমে সামাজিক মাধ্যম ও সব ওয়েবসাইটে সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী অপপ্রচারসহ সব ধরণের আপত্তিকর কনটেন্ট সবকিছুই নজরদারি করা হবে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

প্রসঙ্গত, গত এক বছরে শুধুমাত্র ফেসবুক থেকেই প্রায় ৫ হাজার আপত্তিকর কনটেন্ট অপসারণ করেছে বিটিআরসি। এছাড়া ইউটিউবে ৪৩১ টি লিংক বন্ধের অনুরোধ করা হয় যার মধ্যে ৬২ টি লিংক বন্ধ করা হয়।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের হাতে জিম্মি রাষ্ট্র

নেট ব্যবহারকারী ৯০ শতাংশের বেশিরই তথ্য ফাঁস

রিশাদ হাসান

তথ্য প্রযুক্তির যুগে আপনার তথ্য কতটা নিরাপদ। ল্যানসেটের গবেষণা বলছে, বিশ্বব্যাপি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর ৯০ শতাংশের বেশী মানুষ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর হাতে তুলে দিয়েছেন তাদের তথ্য। অথচ ব্যবহারকারী নিজেই জানেন না কবে আর কিভাবে দিয়েছেন এত তথ্য। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এতে করে ব্যক্তিগত স্বার্থ অক্ষুন্ন থাকলেও একটি রাষ্ট্রের সমষ্টিগত তথ্য জিম্মি হয়ে হয়ে পড়ছে গুটি কয়েক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের হাতে।

যখনই নিজের মুঠোফোন কোন এ্যাপ ডাউনলোড করা হচ্ছে, সেই অ্যাপ চেয়ে বসে লোকেশন, ফোনবুক, মাইক্রোফোন। তবে ক্ষেত্র বিশেষে অনুমতি চায় ব্যাক্তিগত মেসেজিং, গ্যালারিসহ বিভিন্ন তথ্য।

এসব তথ্য দিয়ে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো ব্যক্তি, বয়স ও পছন্দ ভেদে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন পাঠায়। তথ্যগুলো ছোট প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের কাছেও বিক্রি হয় চড়া মূল্যে। সেই সাথে তারা বের করে সমষ্টিগত এমন কিছু তথ্য যা কোন রাষ্ট্রের কাছেও নেই।

আরও পড়ুন


আশ্রয়ণ প্রকল্প: এটা তো দুর্নীতির জন্য হয়নি, এটা কারা করলো?

আগের স্ত্রীকে তালাক না দিয়েই মাহিকে বিয়ে করেছে রাকিব

আমরা কখনো জানতামও না যে এই সম্পদ আমাদেরই ছিলো

নাশকতার মামলায় নওগাঁর পৌর মেয়র সনিসহ বিএনপির ৩ নেতা কারাগারে


 

একটি দেশ গুটি কয়েক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের কাছে জিম্মি হতে পারে না উল্লেখ করে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নিজস্ব সার্চ ইঞ্জিন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ডেটা সেন্টার তৈরির মাধ্যমে দেশের তথ্য ও দেশেই রাখতে হবে।

 news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বাজারে এলো আইফোন ১৩, যা আছে ফোনটিতে

অনলাইন ডেস্ক

বাজারে এলো আইফোন ১৩, যা আছে ফোনটিতে

অবশেষে বাজারে এলো আইফোন ১৩। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) ক্যালিফোর্নিয়ার অ্যাপল পার্কে উচ্চমানের পারফরম্যান্স সমৃদ্ধ এই আইফোনটির লঞ্চিং হয়।

গোলাপি, নীল, কালো (মিডনাইট), লাল (প্রোডাক্ট রেড) আর স্টারলেট এই পাঁচটি কালারে মিলবে আইফোনটি। দেখতে অনেকটা আইফোন ১২ মডেলের মতোই। তবে আগের মডেলের আইফোনগুলো থেকে ৫০ শতাংশ বেশি দ্রুত পারফরম্যান্স দেবে এবারের অ্যাপলের নতুন চিপ।

অ্যাপেল জানিয়েছে, আইফোন ১৩ ও আইফোন ১৩ মিনির পেছনে থাকছে ১২ মেগাপিক্সেলের দুটি ক্যামেরা। ক্যামেরায় দেওয়া হয়েছে সিনেম্যাটিক মোড। ভিডিও কনটেন্ট তৈরিতেও নতুন আইফোনে বেশ সুবিধা নিয়ে আসা হয়েছে।

এছাড়া নতুন আইফোনগুলো চলবে অ্যাপলের তৈরি এ১৫ বায়োনিক প্রসেসরে। যা আগের চেয়ে দ্রুতগতির। অপরদিকে স্টোরেজ ৫০০ জিবি। সর্বনিম্ন ৬৪ জিবির বদলে রয়েছে ১২৮ জিবি স্টোরেজ।

ডিসপ্লেতেও আনা হয়েছে বেশ পরিবর্তন। যা প্রায় ২০ শতাংশ বেশি উজ্জ্বল। অপরদিকে পুরোনো সিরিজের থেকে আড়াই ঘণ্টা বেশি ব্যাটারি ব্যাকআপ দেবে আইফোন ১৩।

এই সিরিজের রয়েছে কয়েকটি মডেল। যেমন- আইফোন ১৩, আইফোন ১৩ মিনি, আইফোন ১৩ প্রো এবং আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্স।

আইফোন ১৩ -এর দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৭৯৯ ডলার মার্কিন ডলার, আইফোন ১৩ মিনি ৬৯৯ ডলার, আইফোন ১৩ প্রোর দাম ৯৯৯ ডলার। আর আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্সের দাম পড়বে ১ হাজার ৯৯ ডলার।

আরও পড়ুন:


জামালপুরে মাদ্রাসা থেকে ৩ ছাত্রী উধাও, আজও মেলেনি খোঁজ

বার্সেলোনাকে উড়িয়ে দিলো বায়ার্ন

চেকের ছবি শেয়ার করে জায়েদ খান বললেন বিষয়টি অনেক গর্বের

কিয়ামতের দিন আল্লাহ যে তিন ব্যক্তির দিকে ফিরেও তাকাবেন না


‘অ্যাপল হাব’ ব্লগের তথ্যানুযায়ী আইফোন ১৩-র দাম হতে পারে ৭৯৯ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ৬৮ হাজার টাকা। তবে এটি বাংলাদেশে আসলে তার দাম আরও বাড়তে পারে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

এবার গুগলকে বড় অংকের জরিমানা করলো দক্ষিণ কোরিয়া

অনলাইন ডেস্ক

এবার গুগলকে বড় অংকের জরিমানা করলো দক্ষিণ কোরিয়া

মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আলফাবেটের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান গুগলকে নতুন আইনে ১৭৭ মিলিয়ন ডলার জরিমানা করলো দক্ষিণ কোরিয়া। আজ মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) জরিমানার বিষয়টি জানিয়েছে কোরিয়া ফেয়ার ট্রেড কমিশন (কেএফটিসি)।

প্রযুক্তি বিশ্বের অন্যতম দুই জায়ান্ট গুগল ও অ্যাপলের আধিপত্যবাদী আচরণে লাগাম টানতে সম্প্রতি আইন পাস করে দক্ষিণ কোরিয়া, যেটি ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হয়েছে। সেই আইনের আওতায় জরিমানা করা হয়েছে গুগলকে। 

জরিমানার প্রতিক্রিয়ায় গুগল জানিয়েছে, তারা আপিল করবে।

অ্যান্ড্রয়েড নামে গুগলের জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে। সারা বিশ্বে ৮০ ভাগ মোবাইল ফোনে এটি ব্যবহার করা হয়। অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমটি যাতে স্থানীয় স্মার্টফোন নির্মাতারা মডিফাই করতে না পারে তার সব ব্যবস্থা করে রেখেছে গুগল। এই বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার আপত্তি রয়েছে।

আরও পড়ুন:


দুই মেয়েসহ মা নিখোঁজ উৎকন্ঠায় পরিবার

রশি দিয়ে বাধা প্রতিবন্ধী শহিদের বন্দী জীবন

বাগেরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় ক্রিকেটার রিদু নিহত

স্কুল খোলার পর যেভাবে চলবে প্রাথমিকের ক্লাস!


 

মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমের বাজার নিয়ন্ত্রণে গুগলের পরেই আছে আরেক মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপল। এই বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার আপত্তি রয়েছে।

তথ্যসূত্র : রয়টার্স, ব্লুমবার্গ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর