মুখ ধুতে যে ৮টি ভুল করি আমরা

অনলাইন ডেস্ক

মুখ ধুতে যে ৮টি ভুল করি আমরা

ভুলভাবে মুখ ধোয়া ত্বকের সমস্যা তৈরি করে। তাই সমস্যা এড়াতে এ বিষয়টির দিকে খেয়াল রাখা উচিৎ। তবে তার আগে আমাদের জানতে হবে মুখ ধুতে গিয়ে আমরা কোন ধরনের ভুলগুলো করে থাকি। স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট টপটেন হোম রেমিডি জানিয়েছে মুখ ধোয়ার আটটি ভুলের কথা। আসুন সেগুলো একটু জেনে নেই:

১. বেশি মুখ ধোয়া

মুখ না ধুলে ছত্রাক তৈরি হয় এবং এগুলো বিভিন্ন ত্বকের সমস্যা তৈরি করে। তাই অনেকেই বারবার সাবান নিয়ে মুখ ধোয়। তবে বেশি বেশি মুখ ধোয়া ত্বকে অস্বস্তি বা প্রদাহ তৈরি করতে পারে। এতে তেল নিঃসরণ বেড়ে যায়।

দিনে দুবার সঠিক নিয়মে মুখ ধোয়া প্রয়োজন। প্রথমে সকালে ঘুম থেকে উঠে এবং দ্বিতীয়বার রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে বা বাইরে থেকে ঘরে ফিরে। এর মাঝখানে যদি মুখ পরিষ্কারের প্রয়োজন হয়, তবে সাবান-পানি দিয়ে নয়, মুখ পরিষ্কারের ভেজা টিস্যু ব্যবহার করুন। তবে এটিও বেশি করবেন না।

২. গরম পানি দিয়ে মুখ ধোয়া

শীতের সময় গরম পানি দিয়ে মুখ ধোয়া খুব আরামের। তবে এটি কিন্তু মুখকে শুষ্ক করে দেয়। আবার খুব ঠান্ডা পানি দিয়েও মুখ ধোয়া ঠিক নয়। মুখ ধুতে হালকা গরম পানি বা ঘরের তাপমাত্রার পানি ব্যবহার করুন। এটি ত্বককে ভালো রাখতে কাজে দেয়। পরিশোধিত পানি দিয়েই মুখ ধোয়া উচিত। এমন পানি ব্যবহার করা ঠিক নয়, যেটি আপনি খেতে পারবেন না।

৩. মেকআপ না তোলা

মুখ ধোয়া মেকআপ ভালোভাবে পরিষ্কার করতে সাহায্য করে। তবে মুখ ধোয়ার আগে মেকআপ তোলা জরুরি। এই মেকআপ তুলতে আপনি ক্লিনজার ব্যবহার করতে পারেন। মেকআপ তুলতে ঘরে তৈরি মেকআপ রিমুভারও ব্যবহার করতে পারেন।  

নারকেল তেল, জলপাইয়ের তেল, দুধ হলো প্রাকৃতিক মেকআপ রিমুভার। একটি তুলার টুকরোকে এগুলোর যেকোনো একটির মধ্যে ভেজান এবং মুখ আলতো করে পরিষ্কার করুন। চোখের মেকআপ তোলার ক্ষেত্রে বাড়তি মনোযোগ দিন। এর পর মুখ ধুয়ে ফেলুন। মেকআপ না ধুয়ে কিছুতেই ঘুমিয়ে পড়বেন না। এতে ত্বকে বেশ ক্ষতি হয়।

৪. ভুল ক্লিনজারের ব্যবহার

অনেকে মুখ ধোয়ার জন্য ফেসিয়াল ক্লিনজার ব্যবহার করেন। তবে অনেকেই সঠিক ক্লিনজারটি বেছে নিতে পারেন না। ত্বকের ভিন্নতায় ক্লিনজারও কিন্তু ভিন্ন। আপনার ত্বকের সঙ্গে যে ক্লিনজার যাবে, সেটিই ব্যবহার করুন।

একটি ভালো ক্লিনজার হয়তো মুখের ময়লা সম্পূর্ণভাবে পরিষ্কার করবে না। তবে এটি তেলকে খুব বেশি বের হতে দেবে না। এটি ত্বককে আর্দ্র ও স্বাস্থ্যকর রাখতে কাজ করবে। আর ক্লিনজার কেনার সময় নন-সোপ ক্লিনজার ব্যবহার করুন।

৫. ভালোভাবে মুখ না ধোয়া

মুখ পরিষ্কারের জন্য ক্লিনজারের ব্যবহার ভালো। তবে ক্লিনজার যদি ভালো করে পরিষ্কার করা না হয়, এটি ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। ক্লিনজার মুখে থেকে গেলে এটি ময়লাকে আরো বেশি টেনে আনে। ক্লিনজার ব্যবহারের পর মুখ ভালোভাবে ধুয়ে নেবেন।

আরও পড়ুন:


নোয়াখালীতে প্রকাশ্যে গুলি, একে অপরকে দুষছেন আওয়ামী লীগ নেতারা

কে এই মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দ

সিরিজ জয়ের মিশনে বিকেলে নামছে টাইগাররা


৬. ময়লা হাত দিয়ে মুখ ধোয়া

অনেকেই মুখ ধুতে শুরু করেন হাত না ধুয়েই। ত্বক ভালো রাখতে হলে অবশ্যই বিষয়টি বন্ধ করা উচিত। আপনি যখন ময়লা হাত দিয়ে মুখ ধুতে থাকেন, হাতের ময়লা মুখের ত্বকে চলে যায়। এটিও ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। তাই মুখ ধোয়ার আগে ভালো মানের সাবান দিয়ে আগে হাত ধুয়ে নিন।

৭. তোয়ালে দিয়ে মুখ ঘষা

ধোয়ার পর অনেকেই খুব জোরে জোরে তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছতে থাকেন। এতে অস্বস্তি এবং শুষ্কতা বেড়ে যায়। অনেক সময় দ্রুত চামড়া ঝুলে পড়ার সমস্যাও হয়। তোয়ালে ব্যবহারের আগে নরম পরিষ্কার কাপড় দিয়ে মুখ মুছে নিন। মুখ মোছার জন্য নরম পরিষ্কার কাপড় আলাদা করে রাখুন। আর মুখ মোছার জন্য অবশ্যই পরিষ্কার কাপড় ব্যবহার করুন।

৮. ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার না করা

অনেকেই মুখ ধোয়ার সঙ্গে সঙ্গে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করেন না। তবে মুখ ধোয়ার পরপরই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা প্রয়োজন। যাঁদের ত্বক তৈলাক্ত, তাঁরা ওয়াটার বেজ ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করবেন। আর যাঁদের ত্বক শুষ্ক, তাঁরা অয়েলি ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করবেন। একটি ভালো ময়েশ্চারাইজার ত্বককে অতিরিক্ত শুষ্ক হয়ে যাওয়া থেকে প্রতিরোধ করবে। তাই মুখ ধোয়ার পর অবশ্যই এই কাজ করুন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে যেসব খাবার খাবেন

অনলাইন ডেস্ক

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে যেসব খাবার খাবেন

বর্তমানে অস্বাস্থ্যকর জীবন-যাপনের কারণে অনেকেই উচ্চ রক্তচাপে ভুগে থাকেন। এটি স্বাস্থ্যের উপর খুবই মারাত্মক প্রভাব ফেলতে পারে। 

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে কিছু খাবার আছে। আসুন জেনে নিই সেই সম্পর্কে:

১. ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফল
ভিটামিন সি সমৃদ্ধ বিভিন্ন ফল যেমন— জাম্বুরা, কমলা এবং লেবু ইত্যাদি ফলগুলো উচ্চ রক্তচাপ কমাতে শক্তিশালী হিসেবে কাজ করতে পারে।  এগুলো ভিটামিন, খনিজ এবং উদ্ভিদের যৌগ দ্বারা পরিপূর্ণ যা উচ্চ রক্তচাপের কমিয়ে হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস করে এবং আপনার হার্টকে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে।

২. কুমড়ো বীজ
কুমড়ো বীজ দেখতে অনেক ছোট মনে হলেও পুষ্টিগুণে অনেক পরিপূর্ণ। এতে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের জন্য গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টির একটি ঘনীভূত উৎস যেমন— ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম এবং আর্জিনিন থাকে। এছাড়া এতে নাইট্রিক অক্সাইড উৎপাদনের জন্য প্রয়োজনীয় একটি অ্যামিনো অ্যাসিড থাকে যা রক্তনালী শিথিলকরণ এবং রক্তচাপ কমানোর জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

৩. চর্বিযুক্ত মাছ

বিভিন্ন চর্বিযুক্ত মাছ ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের অনেক ভালো উৎস হতে পারে। আর এটি হার্টের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী। এই চর্বিগুলো উচ্চ রক্তচাপের মাত্রা কমানো ছাড়াও প্রদাহ কমাতে এবং অক্সিলিপিনস নামক রক্তবাহী যৌগের মাত্রা হ্রাস করে।

৪. গাজর
গাজরে ক্লিনোজেনিক, পি-কুমারিক এবং ক্যাফিক অ্যাসিডের মতো ফেনোলিক যৌগ থাকে। আর এ যৌগগুলো রক্তনালীকে শিথিল করতে এবং প্রদাহ কমিয়ে উচ্চ রক্তচাপের মাত্রা কমাতে সাহায্য করতে পারে। আর রক্তচাপ কমাতে গাজর কাঁচা অবস্থাতেই খাওয়া আরও উপকারী।

আরও পড়ুন:


পিএসসির প্রশ্ন ফাঁস করলে ১০ বছরের জেল: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

গাজীপুর সাফারি পার্কে জেব্রা পরিবারে নতুন অতিথি

‘সংখ্যালঘু’ শব্দটি থাকা উচিত না

পায়রা সেতুর উদ্বোধন ২৪ অক্টোবর


৫. চিয়া বীজ

চিয়া বীজে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের জন্য অপরিহার্য পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম এবং ফাইবার প্রচুর পরিমাণে থাকে। গবেষণায় দেখা গেছে যে চিয়া বীজ রক্তচাপ কমায় এবং এটি ১২ সপ্তাহের বেশি সময় ধরে খেলে তা আরও বেশি উপকার করে।

৬. পালং শাক
পালং শাকে নাইট্রেট বেশি থাকে।এ ছাড়া এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, পটাসিয়াম, ক্যালসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়াম প্রচুর পরিমাণে থাকায় তা উচ্চ রক্তচাপের মাত্রা কমাতে পারে। এ ছাড়া পালং শাক ধমনীর শক্ততা হ্রাস করতে এবং হৃদযন্ত্রের উন্নতিতে সাহায্য করতে পারে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

আজকের রাশিফল, কী আছে ভাগ্যে জেনে নিন

অনলাইন ডেস্ক

আজকের রাশিফল, কী আছে ভাগ্যে জেনে নিন

আজ মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর। বৈদিক জ্যোতিষে ১২টি রাশি- মেষ, বৃষ, মিথুন, কর্কট, সিংহ, কন্যা, তুলা, বৃশ্চিক, ধনু, মকর, কুম্ভ ও মীন-এর ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। একই রকমভাবে ২৩টি নক্ষত্রেরও ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়ে থাকে। ভাগ্যরেখা অনুযায়ী আপনার আজকের দিনটি কেমন কাটবে, জেনে নিন।   

মেষ: বিবাহযোগ্যরা বিবাহের পূর্ব প্রস্তুতি নিতে পারেন। প্রেমিকযুগলের জন্য সুবর্ণ সুযোগ অপেক্ষা করবে। দীর্ঘদিনের দাম্পত্য ও পারিবারিক কলহবিবাদের মীমাংসা হবে। আশ্রিত প্রতিপালিত ব্যক্তি ও শ্রমিক-কর্মচারীদের প্রতি তীক্ষè নজর রাখা শ্রেয় হবে।

বৃষ: ডাকযোগে চেক মানিঅর্ডার বিকাশ এমনকি নগদ অর্থ আসতে পারে। দূর থেকে আসা কোনো সংবাদ বেকারদের মুখে হাসি ফোটাবে। গৃহবাড়ি অতিথি সমাগমে মুখর হয়ে থাকবে। সন্তানরা আজ্ঞাবহ হয়ে থাকবে, এমনকি তারা কোনো না কোনো পুরস্কার পাবে।

মিথুন: ভাগ্যলক্ষ্মী প্রসন্ন হওয়ায় সফলতা আপনার দ্বারে এসে টোক্কা মারবে। চতুর্দিক থেকে তরতাজা উন্নতি করতে থাকায় মন আনন্দে নাচবে। প্রেম রোমান্স বিনোদন ভ্রমণ বিবাহ বিনিয়োগ শুভ হবে। লৌকিকতায় যেমন ব্যয় হবে তেমনি উপহারসামগ্রীও পাবেন।

কর্কট: ব্যবসা-বাণিজ্যে লোকসান গুনতে হতে পারে। আয় বুঝে ব্যয় করুন নয় তো সঞ্চয়ে হাত পড়বে। দূর থেকে কোনো অপ্রিয় সংবাদ আসতে পারে। অবশ্য সংকটকালে বন্ধুবান্ধব আত্মীয়-পরিজন সাহায্যের হাত বাড়িয়ে ধরবে। প্রেমিকযুগল সাবধান।

সিংহ: কর্মপ্রত্যাশীদের মুখে হাসির ঝলক ফুটবে। ভাইবোনদের কাছ থেকে প্রাপ্ত সহযোগিতা স্বপ্ন পূরণ নিশ্চিত করবে। গৃহবাড়ি অতিথি সমাগমে মুখর হয়ে থাকবে। লটারি জুয়া রেস শেয়ার হাউজিং প্রভৃতিতে বিনিয়োগ না করাই শ্রেয় হবে। ভ্রমণ শুভ।

কন্যা: যে কাজে হাত দেবেন তাতেই কমবেশি সফলতাপ্রাপ্ত হবেন। নিত্যনতুন ব্যবসা-বাণিজ্যের পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হবে। গৃহবাড়িতে নতুন আসবাবপত্র বস্ত্রালঙ্কার ও খেলনাসামগ্রীর পসরা সাজবে। মন সুর সংগীত ও ধর্মের প্রতি আকৃষ্ট থাকবে।

তুলা: হাত বাড়ালেই নিত্যনতুন সুযোগ এসে হাজির হবে। শূন্য পকেট পূর্ণ হয়ে উঠবে। প্রেম রোমান্স বিনোদন ভ্রমণ বিবাহ বিনিয়োগ বন্ধুত্ব শুভ হবে। গৃহবাড়ি অতিথি সমাগমে মুখর হয়ে থাকবে। সন্তানদের সাফল্যে গৌরবান্বিত হওয়ার সম্ভাবনা।

বৃশ্চিক: দীর্ঘদিনের আটকে থাকা কাজ চালু হবে। ব্যবসা-বাণিজ্যে মজুদ মালের দাম ফুলেফেঁপে উঠবে। বিদেশে অবস্থানরত স্বজনদের স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের পথ খুলতে পারে। অপরিচিত কাউকে আশ্রয় দেওয়া ও আশ্রয় নেওয়া নির্বুদ্ধিতার পরিচয় হবে।

ধনু: একদিকে আয়-উপার্জন কম অপরদিকে খরচের লাগামহীন চাপ আপনাকে জীর্ণ করে তুলবে। দুর্জনেরা আত্মীয়বেশে আপনার সুখের সংসারে অশান্তির অনল জ্বেলে দিতে পারে। সংকটকালে বন্ধুবান্ধব আত্মীয়-পরিজন দূরে থেকে মজা দেখবে।

 

আরও পড়ুন


প্রথম ম্যাচে বাজে খেলায় ২য় ম্যাচে দল থেকে বাদ পড়ছে যে ক্রিকেটাররা

ইউপি ও পৌরসভা নির্বাচনে আরও খুনোখুনির আশঙ্কা

দলে পরিবর্তন, এক নজরে ওমানের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ পররাষ্ট্রমন্ত্রী কলিন পাওয়েল মারা গেছেন


মকর: দীর্ঘদিনের অসুস্থতা থেকে মুক্তি পাবেন। শ্রমিক-কর্মচারীদের মনে মালিকপ্রীতি দেখা দেবে। লম্বা দূরত্বের সফরে নিজে ড্রাইভ করা থেকে বিরত থাকুন। শিক্ষার্থীদের মন ফেসবুক ইউটিউব প্রেম প্রসঙ্গ ও অনুচিত কাজবাজের প্রতি বিশেষভাবে আকৃষ্ট থাকবে।

কুম্ভ: বেকার যুবক-যুবতীরা কর্মের সন্ধান পাবেন। অংশীদারদের সহযোগিতায় ব্যবসার বহুল প্রচার ও প্রসার ঘটবে। বিদেশগমন ও স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের পথ অচিরেই খুলবে। রাগ, জেদ, ক্রোধ, হঠকারী সিদ্ধান্ত ঘাতক বলে প্রমাণিত হবে।

মীন: বিবাহযোগ্যদের বিবাহ প্রেমিকযুগলের প্রেমের স্বীকৃতি এমনকি সম্ভাব্য ক্ষেত্রে পরিবারে ছোট্ট নতুন মুখের আগমন ঘটতে পারে। গৃহবাড়ি অতিথি সমাগমে মুখর হয়ে থাকবে। লৌকিকতায় অবশ্য প্রচুর ব্যয় হওয়ার সম্ভাবনা। মন ধর্মের প্রতি ঝুঁকবে।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

ব্যায়ামের পর যে খাবার খাবেন না

অনলাইন ডেস্ক

ব্যায়ামের পর যে খাবার খাবেন না

শরীরটাকে ফিট রাখতে দরকার শরীরচর্চার। সুস্থভাবে বাঁচার জন্য নিয়মিত শরীরচর্চা করা উচিত। অনেকে জিমে যান, অনেকে ঘরে ব্যায়াম করেন। ব্যায়াম করছেন আবার ইচ্ছামতো খাবারও খেয়ে নিচ্ছেন। ভাবছেন, ব্যায়াম করলে তো খাবারের সব শক্তি হাওয়ায় মিলিয়ে যাবে। ব্যাপারটা আসলে তা নয়। ব্যায়াম করার পাশাপাশি কিছু খাবারও নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

আসুন সেগুলো একটু জেনে নেই:

১. অতিরিক্ত চিনিযুক্ত খাবার
শরবত, কোমল পানীয়, বাড়তি চিনি দিয়ে চা বা যেকোনো অতিরিক্ত মিষ্টি খাবার ব্যায়ামের পর পর খাওয়া উচিত না। সুস্থ থাকতে চাইলে চিনিযুক্ত খাবার পরিহার করতে হয়। অনেকেই যেই ভুলটা করে থাকে সব সময় তা হলো ব্যায়ামের পর পরই তৃষ্ণা পেলে কোমল পানীয় কিংবা এনার্জি ড্রিংক খেয়ে নেন।
কিন্তু কোমল পানীয়তে অতিরিক্ত চিনি থাকে যা স্বাস্থ্যর জন্য খুবই ক্ষতিকর। তৃষ্ণা পেলে কোমল পানীয় না খেয়ে পানি অথবা চিনি ছাড়া আইস চা খান।

২. অতিরিক্ত লবণযুক্ত খাবার
ব্যায়াম করলে ঘামের সাথে প্রচুর পরিমাণে পানি ও পটাশিয়াম বের হয়ে যায় শরীর থেকে। এই পটাশিয়ামের অভাব পূরণের জন্য অনেকেই অতিরিক্ত লবণ যুক্ত খাবার বা পানীয় খেয়ে থাকেন। যদিও কিন্তু এর প্রয়োজন নেই। খাবারের সঙ্গে যে লবণ দেহে প্রবেশ করে, তাই যথেষ্ট। পটাসিয়ামের অভাব দূর করতে পুষ্টিকর খাবার খান। বিশেষ করে কলায় প্রচুর পটাশিয়াম আছে। তাই ব্যায়াম করার পর ক্ষুদা লাগলে কলা ও কিছু শুকনো ফল খেয়ে নিন। শরীরের শক্তি ফিরে পাবেন।

৩. ফ্যাটযুক্ত খাবার
অনেকে সামান্য ব্যায়াম করেই পনির, বার্গার, পিজ্জা, বিরিয়ানি, পোলাও ইত্যাদি খাবার খেয়ে ফেলেন। কিন্তু সুস্থ থাকতে চাইলে বা ওজন কমাতে চাইলে ব্যায়াম করেই অতিরিক্ত ফ্যাট যুক্ত খাবার খাওয়া একেবারেই উচিত নয়। ব্যায়াম করার পর যেকোনো ধরনের ফাস্ট ফুড, ফ্যাট যুক্ত খাবার অথবা তেলে ভাজা পোড়া খাবার এড়িয়ে চলুন। ব্যায়াম করার পর এ ধরণের খাবার খাওয়ার প্রতি ঝোঁক থাকলে মেদ কমার বদলে রক্তের খারাপ কোলেস্টেরল বেড়ে গিয়ে হার্টের অসুখ হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


৪. কেক, পেস্ট্রি

কেক, পেস্ট্রি ,ক্রিম রোল, ডোনাট ইত্যাদি খাবার খেতে খুবই সুস্বাদু। এধরণের খাবার গুলো খেলে পেটে থাকেও অনেকক্ষন। আর ব্যায়াম করার পর প্রচন্ড ক্ষুধা লাগলে এগুলো খেতেও বেশ ভালো লাগে।

ব্যায়াম করার পর শরীরের হারানো গ্লাইকোজেন পূরণ করার জন্য কার্বোহাইড্রেটের বেশ চাহিদা থাকে। কেক কিংবা পেস্ট্রি জাতীয় খাবারগুলোতে প্রচুর কার্বোহাইড্রেট আছে, কিন্তু এগুলোর পুষ্টি উপাদান খুবই কম। তাই এধরনের খাবার এড়িয়ে লাল আটার রুটি কিংবা লাল চালের ভাত খেয়ে কার্বোহাইড্রেটের অভাব পূরন করা উচিত।

৫. শুধু কাঁচা শাক সবজি
অনেকে আবার ব্যায়াম করে ওজন কমানোর পাশাপাশি ডায়েটও করে থাকেন। ব্যায়াম করলে শরীরের প্রচুর ক্যালরি পুড়ে যায়। তাই শরীরে শক্তি যোগানোর জন্য ব্যায়ামের পর দরকার আদর্শ খাবার। ব্যায়ামের পর শরীরের জন্য ক্যালরি, ভিটামিন, প্রোটিনযুক্ত সুষম খাবার দরকার । যারা ডায়েটে শুধু মাত্র সালাদ বা কাঁচা শাক সবজি রাখে তাদের শরীরের প্রয়োজনীয় ক্যালরির চাহিদা পূরণ হয় না। তাই ব্যায়ামের পর শুধু কাঁচা সবজি না খেয়ে সামান্য তেল দিয়ে রান্না সবজি, মুরগির মাংস ইত্যাদি পুষ্টিকর খাবার খাওয়া উচিত। তা না হলে শরীর দুর্বল হয়ে যাবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

আজকের রাশিফল, কী আছে ভাগ্যে জেনে নিন

অনলাইন ডেস্ক

আজকের রাশিফল, কী আছে ভাগ্যে জেনে নিন

আজ সোমবার, ১৮ অক্টোবর। বৈদিক জ্যোতিষে ১২টি রাশি- মেষ, বৃষ, মিথুন, কর্কট, সিংহ, কন্যা, তুলা, বৃশ্চিক, ধনু, মকর, কুম্ভ ও মীন-এর ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। একই রকমভাবে ২৩টি নক্ষত্রেরও ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়ে থাকে। ভাগ্যরেখা অনুযায়ী আপনার আজকের দিনটি কেমন কাটবে, জেনে নিন।   

মেষ: কোনো ব্যতিক্রমী বিষয়ের প্রতি আগ্রহ বাড়তে পারে। নিজেকে দক্ষ ও ভালো কর্মী হিসেবে প্রকাশ করতে পারবেন। কাজকর্মে ভাগ্যের আনুকূল্য পেতে পারেন। দূরদৃষ্টির সঙ্গে অর্থের সদ্ব্যবহার করুন।

বৃষ: ভালো কাজের আশ্বাস পাবেন। পরিবেশ কিছুটা নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাবে। কাজে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে হবে। অর্থ অপচয় হতে পারে। জীবন সম্পর্কে আশাবাদী দৃষ্টিভঙ্গি রাখুন। সুস্থ থাকুন।

মিথুন: মনের কোনো আশা পূরণ হতে পারে। কর্ম ও আর্থিক ক্ষেত্র অনুকূলে। কোনো প্রচেষ্টার অগ্রগতি হবে। পুরনো পাওনা আদায় হতে পারে। কোনো বন্ধুর সান্নিধ্যে সময় ভালো কাটবে।

কর্কট: কর্মপরিবেশ অনুকূলে থাকবে। উন্নতির ক্ষেত্রে অন্যের সহায়তা পাবেন। ব্যবসায়ীদের কাজে অগ্রগতি। নতুন কোনো কাজের যোগাযোগ আসতে পারে। কাজের ধারাবাহিকতা বজায় রাখুন।

সিংহ: কোনো যোগাযোগে উৎসাহিত হবেন। কর্মস্থলে দায়িত্ব বাড়বে। কারো সাহচর্যে আনন্দ পাবেন। কোনো দ্বন্দ্ব বিরোধে জড়াবেন না। অতীত অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে সফলতা পেতে পারেন।

কন্যা: আয় বাড়লেও ব্যয়ের চাপ থাকবে। প্রত্যাশা পূরণে অন্যের সহযোগিতা পাবেন। ব্যবসায় কিছু পরিবর্তন আসতে পারে। অন্যের ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন।

তুলা: কর্মস্থলে সহযোগিদের সহযোগিতা পাবেন। প্রত্যাশিত অর্থলাভে বিলম্ব। দাম্পত্য জীবন শুভ। ব্যবসায় পরিবর্তন আসতে পারে। কাজে বাধা-বিঘ্ন থাকলেও ইচ্ছাশক্তির জোরে তা কাটিয়ে উঠবেন।

বৃশ্চিক: বেকারদের চাকরি লাভের সম্ভাবনা। কোনো কারণে মনে সংশয় বা ভয় কাজ করতে পারে। ব্যবসায় বাড়তি চাপ আসবে। আপনার কোনো আচরণ প্রিয়জনের সঙ্গে পার্থক্য তৈরি করতে পারে।

ধনু: অপ্রত্যাশিত প্রাপ্তির সম্ভাবনা। কর্মক্ষেত্র থাকবে উদ্দীপনাপূর্ণ। প্রেম-প্রণয় শুভ। কোনো সমস্যা সমাধানে বন্ধুর সহযোগিতা পাবেন। শিক্ষাক্ষেত্রে সাফল্য আশা করা যায়। রোমান্স শুভ।

আরও পড়ুন


টি-টোয়েন্টিতে রেকর্ড, মালিঙ্গার ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছিলেন সাকিব

চিকিৎসকের আত্মহত্যা, লাশের পাশে পড়ে থাকা চিঠিতে যা লেখা ছিল

আরেক দফায় বেড়েছে ভোজ্য তেলের দাম, সয়াবিন লিটার প্রতি ১৬০ টাকা

বঙ্গবন্ধুর ছোট ছেলে শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন আজ


মকর: বিষয়-সম্পত্তির আলোচনায় অগ্রগতি। রাজনৈতিক ও সামাজিক কর্মকাণ্ডে অনুকূল অবস্থা বিরাজ করবে। আর্থিক ব্যাপারে সচেতন থাকুন। স্ববিরোধী কোনো কাজে হাত দেবেন না।

কুম্ভ: কাজকর্মে উৎসাহ বাড়বে। কোনো তথ্য আপনার কাজের সহায়ক হতে পারে। আর্থিক অনিশ্চয়তা কমে আসবে। কর্মক্ষেত্রে পদস্থদের আনুকূল্য পাওয়া যাবে। নিজ পন্থায় অগ্রসর হবেন।

মীন: অর্থপ্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে। কর্মস্থলে কিছু পরিবর্তন হতে পারে। স্বজন বিষয়ে উদ্বেগ। পারিবারিক ক্ষেত্রে মতবিরোধজনিত সমস্যার অবসান হবে। মনকে প্রফুল্ল রাখুন। ভালো থাকুন।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

মেকআপ তুলতে প্রাকৃতিক উপাদান

অনলাইন ডেস্ক

মেকআপ তুলতে প্রাকৃতিক উপাদান

মেকআপ ভালোভাবে না তোলা হলে স্কিনের পোরসগুলো বন্ধ হয়ে দেখা দিতে পারে ব্রণের সমস্যা। এ ধরনের সমস্যা এড়াতে সুন্দরভাবে মেকআপ তুলে ফেলতে হবে। চটজলদি কীভাবে মেকআপ তুলবেন চলুন জেনে নেওয়া যাক।

নারিকেল তেল:

মেকআপ তুলতে নারিকেল তেলের জুরি মেলা ভার। । নারকেল তেলে প্রচুর ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে, যা আপনার ত্বকের গভীরে গিয়ে মেকআপ তুলতে সাহায্য করবে। আর তাছাড়া মেকাপের পর আপনার মুখ যদি রুক্ষ হয়ে যায়, তাহলে নারকেল তেল আপনার সমস্যার সমাধান করতে পারে। তবে যাদের স্কিন অতিরিক্ত তৈলাক্ত তারা নারিকেল তেল এড়িয়ে চলুন।

দুধ:

ত্বকের জন্য সবচেয়ে ভালো ক্লিনজার হল দুধ। দুধ, অলিভ অয়েল একটা বাটিতে মিশিয়ে নিন। এবার তুলা ভিজিয়ে ভালো করে মেকআপ তুলুন। এতে স্কিন থেকে ভালোভাবে  মেকআপ উঠবে সেই সাথে মুখের রুক্ষ ভাব কিন্তু দূর হয়ে যাবে।

বেকিং সোডা ও মধু:

বেকিং সোডা আর মধুও কিন্তু মুখের জন্য খুব ভালো। এক চামচ বেকিং সোডা আর এক চামচ মধু মিশিয়ে নিন। এবার তা দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন। পরদিন সকালে দেখবেন মুখ পুরো মোলায়েম হয়ে গেছে।

শসা:

যাদের তৈলাক্ত স্কিন তাদের জন্য শসা অনেক উপকারী। ত্বক পরিচর্যায় যেমন শসার জুড়ি মেলা ভার, তেমনি মেকআপ ওঠানোর ক্ষেত্রেও এটি অত্যন্ত কার্যকরী। যাদের মুখে ব্রণ আছে তাদের জন্য শসার রস খুবই উপযোগি। পরিমাণমতো শসা টুকরো করে কেটে ব্লেন্ড করে নিন। এবার মিশ্রণটি ত্বকে লাগান। শসার রস ফ্রিজে রেখে অনেকদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করতে পারেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর