কাদের মির্জার নির্যাতনের বর্ণনা দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়লেন জাপা নেতা

আকবর হোসেন সোহাগ, নোয়াখালী

কাদের মির্জার নির্যাতনের বর্ণনা দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়লেন জাপা নেতা

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার নির্মম নির্যাতনের শিকার উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম স্বপন নির্যাতনের বর্ণনা তুলে ধরে অঝরো কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

এমন একটি ভিডিও শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে। ২ মিনিট ১৩ সেকেন্ডের ভিডিওতে নির্যাতিত জাপা নেতা বলেন, আমাকে কালামিয়া ম্যানশনের সামনে থেকে মির্জা মিয়া আর ছেলে ৩০-৪০ জন ছিল। এসময় কাদের মির্জা অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে সাইফুল ইসলামকে।

এরপর তাকে মোটরসাইকেলে করে উঠিয়ে নিয়ে যায় পৌরসভার তৃতীয় তলায়। তারপর নির্মম নির্যাতন। এ সব কথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

একাধিক সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় কাদের মির্জা ও তার অনুসারীরা কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আবদুল লতিফ মুন্সীসহ তিন নেতাকে ডেকে নিয়ে বসুরহাট পৌরসভা ভবনে সংবাদ সম্মেলন করতে বাধ্য করে। সেখানে দেওয়া একটি লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আব্দুল লতিফ মুন্সী। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত (৮ সেপ্টেম্বর) রাতে নিজ ইচ্ছায় বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জার সাথে সাক্ষাৎ করতে যান উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক স্বপন। পরে কোন অনাকাঙ্খিত ঘটনা ছাড়া তিনি সুস্থ শরীরে পৌরসভা থেকে চলে যান। অপরদিকে, তাদের এ ধরণের বক্তব্য নাকচ করে দিয়েছেন ভুক্তভোগী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম। তিনি বলেন, তারা চাপে পড়ে ভয়ে এমন বক্তব্য দিয়েছেন। যা পুরোপুরি মিথ্যা এবং আব্দুল কাদের মির্জার সাজানো নাটক। আমি সুস্থ হলে এ ঘটনায় আইনের আশ্রয় নেব।

চরফকিরা ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত নারী (ইউপি সদস্য) ও স্বপনের স্ত্রী নাজমা ইসলাম জানান, বেধড়ক মারধর করে আমার স্বামীর মাথাসহ পুরো শরীর থেঁতলে দিয়েছে, দুই পা ভেঙ্গে দেয় কাদের মির্জা ও তার অনুসারীরা। এ সময় তারা তাকে ফ্যানের সাথে ফাঁসি দিয়ে মেরে ফেলার চেষ্টা করে। আগে থেকেই কাদের মির্জা তাকে মুঠোফোনে গালিগালাজ করত হুমকি দিত। গত ৬ মাসে আমার স্বামী বসুরহাট যায়নি। গতকাল বিকেলে এক কাজে তিনি বসুরহাট বাজারে যান। খবর পেয়ে কাদের মির্জা তাকে আটক করে নির্মম নির্যাতন চালায়। এ ঘটনায় আমি কাদের মির্জার বিচার দাবি করছি।

নির্যাতিত স্বপন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নোয়াখালী-৫ (কবিরহাট- কোম্পানীগঞ্জ) আসনে জাতীয় পার্টির মনোনীত সংসদ সদস্য প্রদপ্রার্থী ছিল। এ ছাড়াও নোয়াখালী জেলা জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক। তিনি উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ডের মোখলেছের রহমান পন্ডিত বাড়ির জিয়াউল হক জিয়ার ছেলে।

আরও পড়ুন


কুমিল্লায় পাথরবোঝাই ট্রাকের চাপায় রিকশায় থাকা ৩ জন নিহত

মাদারীপুরে কলেজ ছাত্রী অপহরণ মামলায় সাবেক ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

এসআইয়ের সঙ্গে পরকীয়ায় ঘর ছাড়লেন নারী, স্বামীর লিখিত অভিযোগ

কৌশানির খোলামেলা ছবিতে ‘অশালীন’ মন্তব্যের ঝড়!


এ বিষয়ে জানতে শনিবার সকাল ১১টা ১৬ মিনিটে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জার ফোনে একাধিক বার কল করা হলেও তিনি কল কেটে দেন। তাই এ বিষয়ে তার কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুদ্দিন আনোয়ার জানান, তিনি বিষয়টি শুনেছেন। তবে এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বা তার পরিবার কোন লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে জাপা নেতা সাইফুল ইসলাম স্বপনকে বসুরহাট বাজারের কালামিয়া ম্যানশনের সামনে থেকে কাদের মির্জার নেতৃত্বে তাঁর অনুসারীরা তুলে নিয়ে যান। এরপর রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত পৌরসভা ভবনের তৃতীয় তলার একটি কক্ষে তাঁকে আটকে রেখে মধ্য যুগীয় কায়দায় নির্মম নির্যাতন চালানোর অভিযোগ করেন তার ছেলে মইনুল ইসলাম শাওন। শাওন আরও অভিযোগ করেন, বাবার সাথে থাকা টাকা, মোটরসাইকেল, মুঠোফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এমন ভাবে মারধর করা হয়েছে শুধু কোন রকম জাবনটা রাখছে। কোম্পানীগঞ্জে রাজনীতিতে মির্জার বিরুদ্ধে যারা আছে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়ার জন্য বাবাকে চাপ দেয় মির্জা। তার প্রতিপক্ষরা যে সকল অনিয়ম করে নাই, সেগুলো করছে বলে তাদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার জন্য বলে। একপর্যায়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আবদুল লতিফ মেম্বারকে ডেকে নিয়ে মুমূর্ষ অবস্থায় তাঁর কাছে বাবা হস্তান্তর করেন।

এরপর পরিবারের সদস্যরা তাকে প্রথমে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকে তাকে আনোয়ার খান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দিয়ে নিরাপত্তার অভাবে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। এখন বাসায় তার চিকিৎসা চলছে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

প্রবাল দ্বীপ সেন্ট মার্টিন ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা

অনলাইন ডেস্ক

প্রবাল দ্বীপ সেন্ট মার্টিন ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা

দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্ট মার্টিনে পর্যটকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কক্সবাজার জেলা ও টেকনাফ উপজেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) এ ঘোষণা দেয়া হয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

জানা গেছে, প্রায়ই দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ট্রলারে করে সেন্ট মার্টিনে বেড়াতে গিয়ে পর্যটকরা আটকে পড়ার ঘটনা  ঘটছে। তাই সার্বিক বিবেচনায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। 

সেন্ট মার্টিন কোস্টগার্ডের স্টেশন কমান্ডার তারেক আহমেদ ও টেকনাফের ইউএনও পারভেজ চৌধুরী গণমাধ্যমকে জানান, চলতি বছরের ৩১ মার্চ থেকে দুটি নৌপথে পর্যটক পরিবহনের কাজে নিয়োজিত ১০টি জাহাজ চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এখন থেকে পর্যটক পরিবহনের জন্য কোনো ধরনের অনুমতি নেই। নতুন করে অনুমতি দেওয়া হলে আবার জাহাজ চলাচলের মাধ্যমে পর্যটক পরিবহনে কোনো বাধা থাকবে না।

আরও পড়ুন


বুধবার রাজধানীর যেসব এলাকার মার্কেট বন্ধ থাকবে

প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদের গান ও নাচের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

মেসির জোড়া গোলে জয় পেল পিএসজি (ভিডিও)

‘ডু অর ডাই’ ম্যাচে সাকিব-মুস্তাফিজের কার্যকর বোলিংয়ে স্বস্তির জয়


টেকনাফ পৌরসভার কায়ুকখালীয়া ঘাটে ইজারাদারের টোল আদায়কারী ও টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথের সার্ভিস ট্রলার মালিক সমিতির টিকিট বিক্রেতা মো. জোবায়ের বলেন, স্থানীয় প্রশাসনের অনুমতি না থাকায় কোনো পর্যটককে সেন্ট মার্টিনের টিকিট বিক্রি করা হয়নি। ফলে কোনো পর্যটক মঙ্গলবার সেন্ট মার্টিনে যেতে পারেননি।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

টেকনাফে ফিরেছেন আটকে পড়া তিন শতাধিক পর্যটক

অনলাইন ডেস্ক

কক্সবাজারের সেন্টমার্টিন থেকে টেকনাফে ফিরেছেন আটকে পড়া তিন শতাধিক পর্যটক।  

আবহাওয়া ভাল থাকায় মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সকাল ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ৯টি ট্রলারে এসব পর্যটক টেকনাফের উদ্দেশে রওয়ানা হন। 

লঘু চাপের প্রভাবে বঙ্গোপসাগর উত্তাল থাকায় গেল রোববার টেকনাফের সাথে সেন্টমার্টিন সমুদ্র পথে যাত্রী বাহী ট্রলার চলাচল বন্ধ করে দেয় প্রশাসন। 

আরও পড়ুন:


পিএসসির প্রশ্ন ফাঁস করলে ১০ বছরের জেল: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

গাজীপুর সাফারি পার্কে জেব্রা পরিবারে নতুন অতিথি

‘সংখ্যালঘু’ শব্দটি থাকা উচিত না

পায়রা সেতুর উদ্বোধন ২৪ অক্টোবর


এ কারণে ওই দিন বিকেল থেকে ট্রলারসহ কোন নৌযান প্রবালদ্বীপ থেকে ছেড়ে আসেনি। ফলে সেন্টমার্টিনে আটকা পড়েন তিন শতাধিক পর্যটক।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

প্রেমিকের সঙ্গে দীর্ঘদিন শারীরিক সম্পর্ক, বিয়ের দাবি তরুণীর

অনলাইন ডেস্ক

প্রেমিকের সঙ্গে দীর্ঘদিন শারীরিক সম্পর্ক, বিয়ের দাবি তরুণীর

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিকার সঙ্গে দীর্ঘদিন শারীরিক সম্পর্ক করে প্রেমিক শ্রী নিমাই চন্দ্র। কিন্তু হঠাৎই নিমাই বিয়ের চেষ্টা করলে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছেন প্রেমিকা।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) বিকাল ৫টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের বারাইটারী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

জানা যায়, প্রায় ১ বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে গ্রামের শ্রী নরেশ চন্দ্রের ছেলে শ্রী নিমাই চন্দ্রের (২৪) সঙ্গে কামাত আঙ্গারিয়া গ্রামের এক তরুণীর (২০)। বিয়ের প্রলোভনে অনেকবার শারীরিক সম্পর্ক করেন অভিযুক্ত প্রেমিক। বিষয়টি জানাজানি হলে নিমাইয়ের পরিবার ফুলবাড়িতে পাত্রী খুঁজে চুক্তিপত্র ও আশির্বাদ সম্পন্ন করে।

এ খবর পেয়ে তরুণী সোমবার (১৮ অক্টোবর) বিকাল ৫টার দিকে বিয়ের দাবিতে নিমাইয়ের বাড়িতে প্রবেশের চেষ্টা করলে বাড়ির লোকজন তাকে গলা ধাক্কা দিয়ে বের করে দেয়। পরে প্রেমিকের বাড়ির সামনে অবস্থান নেন এবং বৃষ্টিতে ভিজে অসুস্থ হয়ে পড়ে সে।

আরও পড়ুন


বরিশালে টানা বৃষ্টিতে জনজীবন বিপর্যস্ত

একসঙ্গে আইরিন-ইমন

ঘোষিত প্রণোদনার দাবিতে শের-ই বাংলা মেডিকেলে নার্সদের বিক্ষোভ

ভয় নেই, পাশে আছি: আওয়ামী লীগ


ঘটনাটি জানাজানি হলে লোকজন জমায়েত হতে দেখে নিমাই আত্মগোপন করে। বিষয়টি সমাধানের জন্য স্থানীয় ব্যক্তিরা এসে প্রেমের বিষয়টির সত্যতা পেয়ে নিমাইয়ের স্বজনকে ওই প্রেমিকার বিয়ে নিমাইয়ের সঙ্গে দিতে বলে। উপায় না পেয়ে ছেলে পক্ষ বুধবার বিয়ের তারিখ দিলেও অসুস্থ হয়ে পড়া ওই তরুণীকে তার স্বজনরা ওই বাড়ি থেকে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করায়।

এ বিষয়ে ভুরুঙ্গামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন ঘটনার সত‍্যতা স্বীকার করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দ বিষয়টি মীমাংসা করবেন বলে জানালে মেয়েটিকে তার অভিভাবকের জিম্মাায় দেওয়া হয়েছে। তবে এ ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

কর্মহীন বরগুনার পাঁচ হাজারেরও বেশি মৎস্য শ্রমিক

সুমন শিকদার, বরগুনা

ইলিশ ধরা, পরিবহন ও বিক্রি নিষেধ থাকায় কর্মহীন হয়ে পড়েছে বরগুনার পাঁচ হাজারেরও বেশি মৎস্য শ্রমিক। বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে তাদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। তাই নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন সরকারি সহায়তা পাওয়ার দাবি করছেন এই মৎস্য শ্রমিকরা। 

এবিষয়ে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে বলছেন, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা। 
বাংলাদেশের বৃহত্তম মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র পাথরঘাটা বিএফডিসি মৎস্য ঘাট। ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা চলায় মৎস্য অবতরণ, ক্রয়-বিক্রয়ে সরগরম থাকা এই মৎস্য ঘাটটি এখন জনশূন্য। 

ইলিশ ধরা, ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন বন্ধ থাকায় শুধুমাত্র এই মৎস্যঘাটেরই পাঁচ হাজারের বেশি শ্রমিক এখন বেকার।

মৎস্য কেন্দ্রিক এই শ্রমিকদের বিকল্প পেশা না থাকায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে স্বাভাবিক জীবন। একমাত্র আয়ের পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় পরিবার পরিজন নিয়ে বিপাকে পড়েছেন তারা।

নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন সময় জেলেদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা থাকলেও এই মৎস্য শ্রমিকদের জন্য নেই কোন সহায়তা। তাই নিষেধকালে জেলেদের মতো শ্রমিকদেরও সহায়তার আওতায় আনার দাবি মৎস্য শ্রমিকদের।

আরও পড়ুন:


পিএসসির প্রশ্ন ফাঁস করলে ১০ বছরের জেল: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

গাজীপুর সাফারি পার্কে জেব্রা পরিবারে নতুন অতিথি

‘সংখ্যালঘু’ শব্দটি থাকা উচিত না

পায়রা সেতুর উদ্বোধন ২৪ অক্টোবর


ঘাট শ্রমিকদের জন্য সরকারের কোনো বরাদ্দ না থাকায় মৎস্য বিভাগের কিছুই করার থাকে না। তবে কর্মহীন হয়ে পড়া এই শ্রমিকদেরও সরকারি সহায়তার আওতায় আনা যায় কিনা এবিষয়ে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে বলছেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা।

বরগুনাসহ দেশের উপকূলীয় সাগর-নদীতে ৪ অক্টোবর মধ্যরাত থেকে শুরু হয়েছে ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা; চলবে আগামী ২৫ অক্টোবর মধ্যরাত পর্যন্ত।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

সিলেটে বিষপানে যুবকের আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক

সিলেটে বিষপানে যুবকের আত্মহত্যা

সিলেটের বিশ্বনাথে জুনেদ আহমদ (৩০) নামের এক যুবক বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন।

আজ সকালে ৭টায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

মৃত, জুনেদ আহমদ নামতিনি উপজেলার দশঘর ইউনিয়নের চাঁন্দভরাং পুরানগাঁও গ্রামের মৃত আঙ্গুর মিয়ার ছেলে। পেশায় তিনি কৃষিজীবী ছিলেন। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, পরিবারের লোকজনের সাথে অভিমান করে সোমবার রাত ১টায় কীটনাশক পান করেন তিনি। এসময় বমির শব্দ শুনে পরিবারের সদস্যরা তার রুমে ছুটে যান। বিষয়টি আচ করতে পেয়ে দ্রুত তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান তারা। পরে আজ মঙ্গলবার সকাল ৭টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।

 

আরও পড়ুন:


পিএসসির প্রশ্ন ফাঁস করলে ১০ বছরের জেল: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

গাজীপুর সাফারি পার্কে জেব্রা পরিবারে নতুন অতিথি

‘সংখ্যালঘু’ শব্দটি থাকা উচিত না

পায়রা সেতুর উদ্বোধন ২৪ অক্টোবর


বিশ্বনাথ পুলিশ স্টেশনের অফিসার ইন-চার্জ গাজী আতাউর রহমান বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর