বিচার ব্যবস্থার ওপর মানুষের আস্থা ফেরানোই বড় চ্যালেঞ্জ: বিশেষ সাক্ষাতকারে আইনমন্ত্রী
বিচার ব্যবস্থার ওপর মানুষের আস্থা ফেরানোই বড় চ্যালেঞ্জ: বিশেষ সাক্ষাতকারে আইনমন্ত্রী

বিচার ব্যবস্থার ওপর মানুষের আস্থা ফেরানোই বড় চ্যালেঞ্জ: বিশেষ সাক্ষাতকারে আইনমন্ত্রী

Other

দেশের আদালতগুলোতে প্রায় ৪০ লাখ মামলার জট রয়েছে। এমন প্রেক্ষাপটে দ্রুত বিচারের মাধ্যমে মামলা জট কমানো এবং একইসাথে বিচার ব্যবস্থার উপর মানুষের আস্থা ফিরিয়ে আনাকেই বড় চ্যালেঞ্জ মনে করছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। নিউজ টোয়েন্টিফোরকে দেয়া বিশেষ সাক্ষাৎকারে তিনি এই চ্যালেঞ্জের কথা তুলে ধরেন।

দেশের আদালতগুলোতে ক্রমেই বাড়ছে মামলা জট।

এমনকি ঝুলে আছে পঞ্চাশ বছরেরও পুরাতন মামলা। এমন অবস্থায় ২০২০ সালের মধ্যে অন্তত ছয় লাখ মামলা কমিয়ে আনার টার্গেট; কিন্তু করোনা মহামারিতে ঝুলে গেছে সেই পরিকল্পনা।

news24bd.tv

একান্ত সাক্ষাৎকারে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক জানালেন, আগামি বছরের মধ্যে এই মামলা জট কমানো-ই তারঁ সামনে এখন বড় চ্যালেঞ্জ।

ফেনীর মাদরাসা শিক্ষার্থী নুসরাত হত্যা, বুয়েটের ছাত্র আবরার হত্যা, রাজধানীর শহীদ রমিজউদ্দিন কলেজের দুই শিক্ষার্থী বাস চাপা পড়ে নিহত হওয়াসহ আলোচিত মামলাগুলার দ্রুত বিচার সম্পন্ন করতে পারাকে অর্জন হিসেবেই দেখছেন আইনমন্ত্রী। জনগণের আস্থা ফিরিয়ে আনতে দ্রুত বিচারের এই প্রথা চালু রাখতে চান আনিসুল হক।

আরও পড়ুন:


তালেবানরা মুক্তিযোদ্ধা: ডা. জাফরুল্লাহ

পদত্যাগ করলেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানি

৬৪০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা সম্পন্ন: মেয়র আতিক

যে কারণে সরকারকে মোবারকবাদ জানালো হেফাজত


news24bd.tv

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক মনে করেন বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যা, একাত্তরে যুদ্ধাপোরাধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধাধের বিচারের মাধ্যমে বিচারহীনতার সংষ্কৃতি থেকে বের হয়ে আসতে পেরেছে বাংলাদেশ। বিচার প্রাপ্তির সংস্কৃতিকে আরো সুদৃঢ় ও সুসংহত করতে চান তিনি।

বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা কিংবা ২১ শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামিদের দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা অব্যাহত আছে বলেও জানান আইনমন্ত্রী।

news24bd.tv নাজিম

;