একযুগে ম্যালেরিয়া কমেছে ৯৩ শতাংশ

একযুগে ম্যালেরিয়া কমেছে ৯৩ শতাংশ

Other

ম্যালেরিয়া নির্মূলে স্বাস্থ্য ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের যৌথ উদ্যোগ দরকার। অনেক বেশি ম্যালেরিয়া টেস্টও করা দরকার। শুধু অর্থ বরাদ্দই নয় তার সঠিক ব্যবস্থাপনা ও জবাবদিহিতার বিষয়েও জোর দিতে হবে। কালের কণ্ঠ আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে সংশ্লিষ্টরা এসব কথা বলেন।

পার্বত্য চট্টগ্রামকে ম্যালেরিয়ার আখড়া বলা হয়। বর্তমানে বান্দরবান আর খাগড়াছড়িতে ম্যালেরিয়া বাহিত মশা এনোফিলিসের আনাগোনা সবচে বেশি। এই এলাকায় ম্যালেরিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যাও বেশি বলে জানায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তাদের গবেষণা আরও বলছে, দেশের ১৩টি জেলার ৭২টি উপজেলায় ম্যালেরিয়ার প্রাদুর্ভাব।

২০৩০ সালের মধ্যে দেশ থেকে ম্যালেরিয়া নির্মূল করার আশ্বাস দিয়েছে সরকার। কিন্তু করোনাকালে ম্যালেরিয়ার দিকে মনোযোগ কিছুটা কমেছে।

‘ম্যালেরিয়ায় কোভিডের চ্যালেঞ্জ’ শিরোনামে কালের কণ্ঠ এক গোলটেবিল বৈঠকে উঠে আসে এসব বিষয়। ব্রাকের সহযোগিতায় রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ইডাব্লিউএমজি মিলনায়তনে বক্তারা, ম্যালেরিয়াকে কিভাবে নির্মূল করা যায় তা নিয়েও আলোচনা করেন।   

আরও পড়ুন:


দুই মেয়েসহ মা নিখোঁজ উৎকন্ঠায় পরিবার

রশি দিয়ে বাধা প্রতিবন্ধী শহিদের বন্দী জীবন

বাগেরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় ক্রিকেটার রিদু নিহত

স্কুল খোলার পর যেভাবে চলবে প্রাথমিকের ক্লাস!


ম্যালেরিয়ার টেস্ট বাড়ানোর পরামর্শ দেন বক্তারা। আন্ত:মন্ত্রণালয়ের বৈঠকের মাধ্যমে ম্যালেরিয়ার নির্মূলের বিষয়ে উদ্যোগ নেয়ার কথাও বলেন তারা।

এক যুগ ব্যবধানে ২০০৮ থেকে ২০২০ এ ম্যালেরিয়া রোগী কমেছে ৯৩ শতাংশ।  

news24bd.tv/আলী