নারীদের শিক্ষা নিয়ে নতুন যে কথা বলল তালেবান

অনলাইন ডেস্ক

নারীদের শিক্ষা নিয়ে নতুন যে কথা বলল তালেবান

বিশ্ববিদ্যালয়ে নারীরা পড়তে পারবেন; তবে পুরুষদের থেকে আলাদা হয়ে ক্লাস করতে হবে। এ কথা আগেই ঘোষণা দিয়েছেলি আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণে নেওয়া তালেবান সরকার। এবার সেই নিয়মই আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিলেন তালেবানের শিক্ষামন্ত্রী।

তিনি জানিয়েছেন, আফগানিস্তানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বর্তমানে যেসব বিষয় পড়ানো হচ্ছে, সেগুলো পর্যালোচনা করা হবে।

আজ রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে আফগানিস্তানের নতুন শিক্ষামন্ত্রী তালেবান নেতা আবদুল বাকি হাক্কানি এসব তথ্য জানিয়েছেন বলে আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে জানানো হয়।

আরও পড়ুন: 


টঙ্গী রেল ক্রসিংয়ের পাশে যুবকের মরদেহ

সিলেট-৩ আসন থেকে নির্বাচিত হাবিবের শপথ গ্রহণ

সিরাজগঞ্জে ট্রাকচাপায় যুবক নিহত

আত্রাই নদীতে গোসলে নেমে স্বামী-স্ত্রী নিখোঁজ


তিনি বলেছেন, আফগান নারীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পড়তে পারবেন। তাঁদের হিজাব পরতে হবে। তবে মুখ ঢাকা বাধ্যতামূলক কি না, তা তিনি স্পষ্ট করেননি।

তালেবানের শিক্ষামন্ত্রী হাক্কানি বলেন, ‘শ্রেণিকক্ষে নারী ও পুরুষ শিক্ষার্থীদের আলাদাভাবে বসতে হবে। আমরা ছেলে–মেয়েদের একসঙ্গে ক্লাস করতে দেব না।

সহশিক্ষারও অনুমোদন দেব না আমরা।’ আফগানিস্তানের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে পাঠদানের বিষয়গুলো পর্যালোচনা করা হবে বলেও জানান নতুন এই শিক্ষামন্ত্রী।

হাক্কানি বলেন, ‘দেশে যা বিদ্যমান রয়েছে, তা দিয়েই আমরা দেশ গঠনের কাজ শুরু করব।’ আফগানিস্তানের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পঠনপাঠন বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলের বিশ্ববিদ্যালয়ের সমপর্যায়ে নিয়ে যেতে চান বলে জানান আফগান শিক্ষামন্ত্রী।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

কাশ্মীরে ২ বেসামরিক নাগরিককে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

কাশ্মীরে ২ বেসামরিক নাগরিককে হত্যা

ফাইল ছবি

জম্মু কাশ্মীরে দুই পৃথক হামলায় কর্মসূত্রে কাশ্মীরে বসবাসকারী দুই বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (১৬ অক্টোবর) স্থানীয় সময় রাতে এই ঘটনা ঘটে। গত দুই সপ্তাহের মধ্যে এ নিয়ে কাশ্মীরে ৮ জন বেসামরিক নাগরিককে খুন করা হল। খবর ইন্ডিয়া ডট কমের।

ঘটনার দিন রাতে শ্রীনগরে হিন্দু ধর্মবলম্বী এক ফুটপাত ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা। এর ঘন্টাখানেক পর পুলওয়ামা জেলার একটি গ্রামে গুলি করা হয় মুসলিম এক কর্মীকে। নিহত প্রথমজনের বাড়ি বিহার রাজ্যে এবং অন্যজনের উত্তরপ্রদেশে বলে জানায় পুলিশ।

এর আগে দেশটির পুলিশ এক ঘোষণায় জানায়, শ্রীনগর, প্যামপোর ও পুলওয়ামায় যৌথ বাহিনীর অভিযানে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ গেছে ৪ সন্দেহভাজন সন্ত্রাসীর। এদের মধ্যে ৩ জন গত সপ্তাহের তিন বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যুর সঙ্গে জড়িত ছিলেন। 

আরও পড়ুন:

যে কারণে ইভ্যালির ওয়েবসাইট-অ্যাপ বন্ধ

ঘোড়ার খামারে বিয়ে করছেন বিল গেটসের মেয়ে

চীনে পবিত্র কোরআনের অ্যাপ সরিয়ে নিল অ্যাপল

স্কাউটদলের অভিযানে দুর্ঘটনা, ১১ জন নিহত


অপরদিকে শনিবার সন্ত্রাসীদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের পর নিখোঁজ দুই সেনার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

কলকাতা প্রেস ক্লাবে ‘বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার’

অনলাইন ডেস্ক

কলকাতা প্রেস ক্লাবে ‘বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার’

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষে কলকাতা প্রেস ক্লাবে উদ্বোধন হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার’। আগামী ২৮ অক্টোবর বঙ্গবন্ধুর নামে ওই মিডিয়া সেন্টারের উদ্বোধন করবেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

মিডিয়া সেন্টারের আয়োজক কলকাতা প্রেস ক্লাব। ইতোমধ্যেই প্রায় সব আয়োজন শেষ পর্যায়ে। এই মিডিয়া সেন্টারেই থাকছে একটি গ্রন্থাগারও যেখানে থাকবে বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়ন সম্পর্কিত কিছু মূল্যবান বই- যেগুলো গণমাধ্যম কর্মীদের প্রভূত সহায়তা করবে। 

এ ব্যাপারে শনিবার কলকাতাস্থ বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের প্রথম সচিব (প্রেস) রঞ্জন সেন জানান বছরব্যাপী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের যে জন্ম শতবর্ষ উদযাপন চলছে, তারই অংশ হিসেবে কলকাতা প্রেস ক্লাবের তরফে সেখানে ‘বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার’ স্থাপনের ব্যাপারে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। এরপর সবদিক বিবেচনা করে বাংলাদেশের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় তাতে অনুমোদন দেয়। আগামী ২৮ অক্টোবর তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ কলকাতায় আসবেন এবং ওইদিন তার হাত ধরেই কলকাতা প্রেস ক্লাবে উদ্বোধন হবে।’

সেন আরও বলেন বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে কলকাতা প্রেস ক্লাব এক গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছিল। তাই সেই প্রেস ক্লাবের প্রতি সম্মান ও মর্যাদা রেখেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখানে বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

অন্যদিকে কলকাতা প্রেস ক্লাবের সভাপতি স্নেহাশিস সুর জানান ‘খুব শিগগির প্রেস ক্লাব কলকাতাতে বঙ্গবন্ধু সংবাদ কেন্দ্র নামে একটি কেন্দ্র স্থাপিত হতে চলেছে। যেখানে গণমাধ্যমের কর্মীরা বসে কাজ করতে পারবেন এবং ভিডিও জার্নালিস্টরা তাদের ছবি সম্পাদনা করতে পারবেন।’  

‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তী এবং বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবর্ষ উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ সরকার কলকাতা প্রেস ক্লাবকে এই মিডিয়া সেন্টারটি উপহার দিচ্ছে।’ 

তার অভিমত ‘অতিমারি কিংবা যে কোন পরিস্থিতিতে গণমাধ্যমের কর্মীদের মুহূর্তের মধ্যেই তাদের সংবাদ প্রেরণ করতে হয়। সেক্ষেত্রে অত্যন্ত ঠাণ্ডা মাথায় বসে ভাবনা চিন্তা করে, পুরনো তথ্য ঘেঁটে সেই সংবাদ প্রেরণের ক্ষেত্রে একটা জায়গা প্রয়োজন। সেই ভাবনা থেকেই কলকাতার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত প্রেস ক্লাব কলকাতায় নতুন এই মিডিয়া সেন্টার চালু হতে চলেছে-যাতে সংশ্লিষ্ট গণমাধ্যমের কর্মীরা নিজেদের অফিসে না গিয়েও এই মিডিয়া সেন্টারেই বসেই তাদের কাজ সেরে ফেলতে পারবেন। সেখানে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়ন সম্পর্কিত কিছু বই রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর ফলে ভারত-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উন্নয়নের ক্ষেত্রে যারা আগ্রহী-সেই সব গণমাধ্যমের কর্মীদের কাজের ক্ষেত্রেও প্রভূত উপকারে আসবে।’  


অনলাইনে পণ্য ডেলিভারি বিলম্বে করা যাবে মামলা

স্বামীর দাবীতে প্রথম বউয়ের বাড়িতে দ্বিতীয় বউ

সামাজিক মাধ্যম ছাড়ার ঘোষণা আমিরের

সাধ্যের মধ্যে ৮ জিবি র‍্যামের রেডমি ফোন


মুক্তিযুদ্ধে প্রেস ক্লাবের অবদানের দিকটি তুলে ধরে প্রেস ক্লাব সভাপতি বলেন ‘আমরা সকলেই মুক্তিযুদ্ধের বিষয়টিতে সংবেদনশীল। এর আগে মুক্তিযুদ্ধের স্মরণে-যে সাংবাদিকরা মুক্তিযুদ্ধের ঘটনা নিয়ে প্রতিবেদন করেছিলেন- কলকাতা প্রেস ক্লাব তাদের রচনা সম্বলিত একটি স্মারক গ্রন্থ প্রকাশ করেছে। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময় কলকাতার দুই প্রখ্যাত সাংবাদিক পেশার তাগিদে সরাসরি যুদ্ধক্ষেত্রে উপস্থিত ছিলেন যদিও তারা আর ফিরে আসেন নি। তাদের স্মরণেও কলকাতা প্রেস ক্লাবে শহিদ বেদী স্থাপিত হয়েছে। এরপর এই বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টারটি স্থাপিত হতে চলেছে।’  

উল্লেখ্য, ইতোমধ্যেই ভারতের নয়াদিল্লীতে ‘প্রেস ক্লাব অব ইন্ডিয়া’য় বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার চালু হয়েছে। গত সেপ্টেম্বর মাসের গোড়ার দিকে দিল্লির রাইসিনা রোডে অবস্থিত ‘প্রেস ক্লাব অব ইন্ডিয়া’র দ্বিতীয় তলায় ওই মিডিয়া সেন্টারের উদ্বোধন করেন ড. হাছান মাহমুদ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

চলছে বঙ্গোপসাগরে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে চার দেশের নৌমহড়া

অনলাইন ডেস্ক

চলছে বঙ্গোপসাগরে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে চার দেশের নৌমহড়া

বঙ্গোপসাগরে অস্ট্রেলিয়া, ভারত, জাপান ও যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিতীয় পর্যায়ের নৌমহড়া মহড়া মালাবার ২০২১ শুরু হয়েছে। গত সোমবার (১১ অক্টোবর) চার দেশের এই মহড়া শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন সপ্তম নৌবহরের কমান্ডার।

চলতি বছরের মহড়ার আয়োজন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনী। এতে বিভিন্ন অত্যাধুনিক কৌশলসহ চার দেশের নৌবাহিনীর মধ্যকার আন্তঃসহযোগিতা বাড়াতে বিভিন্ন কার্যক্রমও রয়েছে।

মার্কিন ক্যারিয়ার স্টাইক গ্রুপ ওয়ানের কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল ড্যান মার্টিন বলেন, মালাবার ২০২১ মহড়ায় আমাদের বাহিনীগুলোর সক্ষমতা বাড়বে। বিশ্বজুড়ে সবার জন্য অপ্রতিদ্বন্দ্বী নৌ নিরাপত্তা অর্জনের পারস্পরিক আকাঙ্ক্ষা থেকে এই মহড়ার আয়োজন করা হয়েছে।

প্রথম পর্যায়ের মালাবার নৌমহড়া শুরু হয়েছিল গেল আগস্টে। এতে বিভিন্ন নৌ অভিযান, ডুবোজাহাজ-বিধ্বংসী অভিযানসহ বিভিন্ন হামলার অনুশীলন করা হয়েছে।


অনলাইনে পণ্য ডেলিভারি বিলম্বে করা যাবে মামলা

স্বামীর দাবীতে প্রথম বউয়ের বাড়িতে দ্বিতীয় বউ

সামাজিক মাধ্যম ছাড়ার ঘোষণা আমিরের

সাধ্যের মধ্যে ৮ জিবি র‍্যামের রেডমি ফোন


মহড়ার বর্তমান পর্যায়টি অনুষ্ঠিত হচ্ছে বঙ্গোপসাগরে। ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় বিভিন্ন অঞ্চলে অভিযান পরিচালনা ও প্রশিক্ষণে আয়োজন করা হয়েছে দ্বিতীয় পর্যায়ের মহড়ায়।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

স্বপ্ন নিয়ে ভারত যাত্রা : পালাক্রমে ধর্ষণের শিকার বাংলাদেশি কিশোরী

অনলাইন ডেস্ক

স্বপ্ন নিয়ে ভারত যাত্রা : পালাক্রমে ধর্ষণের শিকার বাংলাদেশি কিশোরী

অবৈধভাবে বাংলাদেশ থেকে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে প্রবেশ করেছিলো এক কিশোরী। তার স্বপ্ন ছিলো সেখানে কাজ করে সংসারে স্বচ্ছলতা ফেরাবে। কিন্তু ভারতের পশ্চিমবঙ্গে প্রবেশের পরই ওই কিশোরী পালাক্রমে ধর্ষণের শিকার হয়। পরে স্থানীয় বাসিন্দাদের সহযোগিতায় ও পুলিশের হস্তক্ষেপে গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত ব্যক্তিদের।তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ‘প্রোটেকশন অব চিলড্রেন ফ্রম সেক্সুয়াল অফেন্সেস’ (পকসো) আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার তাদের বনগাঁ মহকুমা আদালতে পাঠানো হলে, আদালত ৪ দিনের পুলিশি রিমান্ডের নির্দেশ দেন। অন্যদিকে কিশোরীকে হোমে পাঠানোর ব্যবস্থা হচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত দুই ব্যক্তিই দীর্ঘদিন দিন ধরে এমন কাজে লিপ্ত। দরিদ্রতার সুযোাগ নিয়ে কাজের লোভ দেখিয়ে বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচার করে দিত নারীদের।

পুলিশ জানিয়েছে, কাজের সন্ধানে বাংলাদেশের শরীয়তপুরের পুটিয়াকান্দি গ্রামের ১৭ বছরের এক কিশোরী বাংলাদেশ থেকে ভারতে আসে। অবৈধভাবে সীমান্ত পেরিয়ে সে ওঠে বাগদার হরিহরপুর নামক এলাকায়।

আরও পড়ুন:


মিনিস্টারে বিশাল নিয়োগ , যোগ্যতা ৮ম শ্রেণী

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে চাকরি, যোগ্যতা এসএসসি

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরে চাকরির সুযোগ, যোগ্যতা এইচএসসি

পল্লী বিদ্যুৎতে বড় নিয়োগ, যোগ্যতা এসএসসি


 

জানা গেছে, হরিহরপুরের বাসিন্দা শরিফুল মলি­কের সঙ্গে যোগাযোগ করে তার সঙ্গেই চোরাপথে ভারতে আসে ওই বাংলাদেশি কিশোরী। এরপর শরিফুলের বাড়িতেই অবস্থান করতে থাকে। শরিফুল তাকে আশ্বাসও দেয় কয়েকদিনের মধ্যেই তাকে কোনো ভালো কাজ পাইয়ে দেওয়ার। কিন্তু এরই মধ্যে বাড়ি থেকে কিশোরীকে একটি নির্জন জায়গায় নিয়ে গিয়ে শরিফুল তাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। তবে কেবল শরিফুলই নয়, ওই কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে তারই সহযোগী ২৮ বছর বয়সী মহসিন বিশ্বাসের বিরুদ্ধেও।

পরে স্থানীয় বাসিন্দাদের সহায়তায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে কিশোরীও। তার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে পুলিশ শরিফুল ও মহসিন নামে দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ফিল্মি কায়দায় প্রেমিকের সঙ্গে পরিকল্পনায় স্বামীকে হত্যা স্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক

ফিল্মি কায়দায় প্রেমিকের সঙ্গে পরিকল্পনায় স্বামীকে হত্যা স্ত্রীর

দীর্ঘদিন এক সাথে সুখেই সংসার করছিলো মুসলিমা বিবি(৪৫) ও আনসুর আলি গাজী (৫৩)। কিন্তু তাদের সেই সুখের সংসারে পরকিয়ার ভাইরাস ছড়ায়  সাইদুল শেখ নামে এক ব্যক্তি। সেই ভাইরাসে তছনছ হয়ে যায় আনসুর আলির সাজানো সংসার। অবস্থা এমন পর্যায়ে পৌছায় তার নিজের স্ত্রীই কথিত পরকিয়া প্রেমিকের সঙ্গে পরিকল্পনা করে তাকে(স্বামী) হত্যা করার। ফিল্মি কায়দার সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী স্ত্রীই হত্যা করেন স্বামীকে।

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ভাঙড়ে।

জি নিউজ এক প্রতিবেদনে বলছে, বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) রাতে স্বামীকে প্রথমে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে দেন মুসলিমা। তারপর ঘুমিয়ে পড়া স্বামীর গলা টিপে ধরেন তিনি। তার একটু পরেই প্রেমিক সাইদুল ঘরে ঢুকে আনসুরের মুখে বালিশ চেপে ধরলে তার মৃত্যু হয়।

আরও পড়ুন:


মিনিস্টারে বিশাল নিয়োগ , যোগ্যতা ৮ম শ্রেণী

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে চাকরি, যোগ্যতা এসএসসি

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরে চাকরির সুযোগ, যোগ্যতা এইচএসসি

পল্লী বিদ্যুৎতে বড় নিয়োগ, যোগ্যতা এসএসসি


 

এ ঘটনায় মুসলিমাকে গ্রেপ্তার করলেও প্রেমিক সাইদুল পলাতক রয়েছেন। পুলিশের কাছে হত্যার বিষয়টি স্বীকারও করেছেন মুসলিমা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর