সকাল ৬টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত রপ্তানি বাণিজ্য চলবে!

অনলাইন ডেস্ক

সকাল ৬টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত রপ্তানি বাণিজ্য চলবে!

দেশের বৃহত্তর স্থল বন্দর বেনাপোল-পেট্রোপোলের মধ্যে সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত রপ্তানি বাণিজ্য চলে। তবে বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে ভারতে রপ্তানি পণ্যের পরিমাণ বেশি হওয়ায় এখন থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত চলবে রপ্তানি বাণিজ্য।

বোরবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বেনাপোল-পেট্রোপোল বন্দরের নোম্যান্সল্যান্ডে দুই দেশের বন্দর কতৃপক্ষের এক আলোচনার মধ্যেমে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বেনাপোল বন্দরের সহকারী পরিচালক আতিকুল ইসলাম জানান, বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের সঙ্গে আমদানি পণ্যের পাশাপাশি পণ্য রপ্তানিও বেড়েছে। কিন্তু পেট্রাপোল বন্দর বাংলাদেশ থেকে প্রতিদিন ১৫০-২০০ ট্রাক রপ্তানি পণ্য ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে প্রবেশ করাত। যার ফলে প্রায় প্রায় ১২০০ থেকে ১৩০০ ট্রাক ভারতে প্রবেশের অপেক্ষায় বেনাপোল বন্দরে অবস্থান করছে। এতে বন্দর এলাকায় পণ্য খালস ব্যহত হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, রপ্তানি বাণিজ্য আরো গতিশীল করতে বোরবার সন্ধ্যায় নোম্যান্সল্যান্ডে ভারতের পেট্রোপোল বন্দরের কতৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করা হয়। এবং তারা প্রতিদিন সকল ৬টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত ২০০ অধিক রপ্তানি পণ্যের ট্রাক বাংলাদেশ থেকে ভারতে প্রবেশ করতে পারবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

আরও পড়ুন: 


স্কুলের আলমারিতে মিলল ব্যালট পেপারের মুড়ি

জামায়াতের কেন্দ্রীয় সেক্রেটারিসহ ৫ নেতা রিমান্ডে

ভাসানচর থেকে পালানোর সময় দুই রোহিঙ্গা আটক

তালেবান নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাক্ষাৎ


NEWS24.TV / কেআই 

পরবর্তী খবর

ইভ্যালির গ্রাহকদের পাওনার ব্যাপারে নতুন সিদ্ধান্ত

অনলাইন ডেস্ক

ইভ্যালির গ্রাহকদের পাওনার ব্যাপারে নতুন সিদ্ধান্ত

ইভ্যালির গ্রাহকরা আগামী ছয় মাস পাওনা আদায়ের জন্য বোর্ডকে চাপ দিতে পারবেন না। তবে কোনো গ্রাহক চাইলে পাওনার কথা বোর্ডের কাছে বা আদালতের জানাতে পারবেন।

ইভ্যালি পরিচালনার জন্য বোর্ড গঠন সংক্রান্ত লিখিত আদেশে এ কথা বলা হয়েছে।

বিস্তারিত আসছে...

পরবর্তী খবর

বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু

যশোর প্রতিনিধি:

বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু

পবিত্র ঈদ এ মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে একদিন বন্ধ থাকার পর বেনাপোল স্থলবন্দরের সঙ্গে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের আমদানি-রপ্তানি শুরু হয়েছে। এর ফলে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে ভারত-বাংলাদেশের বন্দর এলাকায়।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে পেট্রাপোল বন্দর থেকে রপ্তানি পণ্য নিয়ে ট্রাক আসে বেনাপোল বন্দরে। বেনাপোল দিয়েও ট্রাক রপ্তানি পণ্য নিয়ে যায় ভারতে। দেশের ৭৫ ভাগ শিল্প প্রতিষ্ঠানের কাঁচামালের পাশাপাশি বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য আসে এই বন্দর দিয়ে।

আরও পড়ুন:


সারারাত যৌনকর্মে সময় না দেয়ায় হত্যা!

অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

লালমনিরহাটে বন্যায় বিধ্বস্ত হয়ে দুই উপজেলা বিদ্যুৎ বিহীন

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা কে এই ইকবাল?


বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস কার্গো শাখার রাজস্ব অফিসার সাইফুর রহমান মামুন জানান, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু হয়েছে। আমদানি-রপ্তানি শুরু হওয়ায় কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে দু'দেশের বন্দর এলাকায়।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

শেয়ারবাজারে টানা দরপতন, হঠাৎ কি হলো?

অনলাইন ডেস্ক

শেয়ারবাজারে টানা দরপতন, হঠাৎ কি হলো?

টানা সাত কার্যদিবসে সাড়ে তিনশ পয়েন্ট কমেছে প্রধান পুঁজিবাজার ডিএসইর সূচক। গুজব আর আতংক ছড়িয়ে ফায়দা নেয়ার চেষ্টা করছে একটি মহল, এমনটাই বলছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। অবশ্য নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির চেয়ারম্যান বলছেন, স্বাভাবিক দর সংশোধন হচ্ছে পুঁজিবাজারে। তবে যারা গুজব রটিয়ে বিনিয়োগকারিদের ক্ষতি করছে তাদেরকে কোন ছাড় দেয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি তার। 

হঠাৎ কি হলো পুঁজিবাজারে? এমন প্রশ্ন এখন বিনিয়োগকারিদের মুখে মুখে। গেলো এক বছরে এমন পরিস্থিতি দেখেনি তারা। সূচক ও শেয়ারের টানা দরপতনে তাই অনেকটাই দিশেহারা ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারিরা।

গেলো দশ অক্টোবর ৭ হাজার ৩৬৭ পয়েন্টে দিন শেষ করেছিলো দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ এর প্রধান সূচক। তবে তারপর থেকেই শুরু হয় দরপতন। শুরুতে সূচক পতন কিছুটা কম হলেও সবশেষ দুই কার্যদিবসেই প্রায় দুইশ পয়েন্ট পতন হয়েছে ডিএসইএক্স। মঙ্গলবার বাজারে ছড়িয়ে দেয়া হয় বেশ কিছু গুজব। যার মধ্যে বিএসইসি চেয়ারম্যানের পদত্যাগের গুজব ছড়াতেও কার্পন্য করেনি চক্রটি।

সূচক ও শেয়ার দরের সাথে গেলো সাত দিনে প্রায় ১৮ হাজার কোটি টাকার বাজার মূলধন খোয়া গেছে। ৫ লাখ ৮৪ হাজার থেকে বর্তমানে বাজার মূলধন দাঁড়ড়িয়েছ ৫ লাখ ৬৬ হাজারে। তবে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারিদের আতংকিত হয়ে শেয়ার বিক্রি না করতে আহ্বান জানিয়েছেন নিয়ন্ত্রক সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত।

আরও পড়ুন:


৬ মাস ধরে জেলে থাকা বিএনপির ৩ নেতা পূজামন্ডপের হামলার আসামি

বিশ্বে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে , ২০২২ সাল পর্যন্ত থাকতে পারে করোনা মহামারি

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা কে এই ইকবাল?

পূজামণ্ডপে কোরআন শরিফ রেখে গদা নিয়ে যায় ইকবাল


তিনি বলেন, বিদেশ থেকে কিছু লোক গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করছে। যারা গুজব ছড়াচ্ছে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।  

খুব শীঘ্রই পুঁজিবাজার ইতিবাচক ধারায় ফিরবে বলেও আশাবাদি বিএসইসির চেয়ারম্যান। 

news24bd.tv রিমু    

পরবর্তী খবর

নগদের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর তামিম ইকবাল, থাকছে বাইক জেতার সুযোগ

অনলাইন ডেস্ক

নগদের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর তামিম ইকবাল, থাকছে বাইক জেতার সুযোগ

বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক ও দেশের ইতিহাসে সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল এবার বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়েছেন। ডাক বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এর সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়ে তামিম ইকবাল এখন প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন প্রচারে অংশ নেবেন এবং ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ভূমিকা রাখবেন।

এখনকার সময়ে বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়কে পাশে পাওয়ার ঘোষণার দিনেই টি-২০ বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে ‘নগদ’ তার গ্রাহকদের জন্য ঘোষণা করেছে আকর্ষণীয় এক ক্যাম্পেইনের। ‘নগদ’-এর গ্রাহকরা এখন থেকে ক্যাশ ইন বা অ্যাড মানি, মোবাইল রিচার্জ ও টি-২০ কুইজ খেলে প্রতিদিন জিতে নিতে পারবেন একটি করে মোটরবাইক। পাশাপাশি প্রতি মিনিটে প্রথম পাঁচজন গ্রাহক পাবেন ১০০ টাকা পর্যন্ত বোনাস।

সম্প্রতি ‘নগদ’-এর প্রধান কার্যালয়ে তামিম ইকবাল ও ডাক বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এর মধ্যে এ সম্পর্কিত একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে ‘নগদ’-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর এ মিশুক, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) রাহেল আহমেদ, নির্বাহী পরিচালক নিয়াজ মোর্শেদ এলিট ও নির্বাহী পরিচালক মারুফুল ইসলাম ঝলক উপস্থিত ছিলেন।

ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ‘নগদ’-এর সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের পর তামিম ইকবাল বলেন, “দেশের অন্যতম জনপ্রিয় মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এর সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে আমি আনন্দিত। অনেকদিন ধরেই আমি ‘নগদ’ ওয়ালেট ব্যবহার করছি। নগদ-এ রেজিস্ট্রেশন খুব সহজ ও ঝামেলাহীন। সেবাও সাশ্রয়ী ও সহজলভ্য।”

তিনি বলেন, “কয়েক বছর আগেও আমরা ডিজিটালি অ্যাডভান্স ছিলাম না। সবকিছু তখন এতো সহজও ছিল না। কিন্তু ‘নগদ’ এখন এক ক্লিকেই সবকিছুর সমাধান দিচ্ছে। কোথাও গিয়ে ওয়ালেট হারিয়ে গেলে এখন আর চিন্তা করতে হয় না, কারণ আমার ফোনেই আছে ‘নগদ’ ওয়ালেট। আমি যেকোনো সময় প্রয়োজনে মোবাইল রিচার্জ, হোটেল বুকিং, এয়ার টিকেটিংসহ নানান কাজ নগদ-এর মাধ্যমে করে থাকি। এক কথায় ‘নগদ’ ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসে একটা রেভুল্যুশন নিয়ে এসেছে।”

তামিম ইকবালকে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে পেয়ে ‘নগদ’-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর এ মিশুক বলেন, “মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সেবার মাধ্যমে মানুষের দিনবদলের অগ্রযাত্রায় বিশ্বসেরা একজন ক্রিকেটার ‘নগদ’-এর সঙ্গে থাকবেন, এটি অত্যন্ত আনন্দের একটি ব্যাপার। আমরা তাঁকে পেয়ে অত্যন্ত আনন্দিত। আমরা আশা করি তামিম ইকবাল সামনের দিনে মানুষের মনে আরও মুগ্ধতা ছড়াবেন এবং ‘নগদ’-কে আরও বড় জায়গায় নিয়ে যেতে উৎসাহ দেবেন।”

আরও পড়ুন


ছাত্রদলের ছাত্রীবিষয়ক সম্পাদক চেয়ারম্যান নির্বাচনে নৌকার মাঝি

প্রথমবারের মতো কারাগারে ছেলের সঙ্গে দেখা করলেন শাহরুখ (ভিডিও)

নুরের নতুন রাজনৈতিক দলের ঘোষণা ২৬ অক্টোবর!

সশরীরে আজ থেকে জাহাঙ্গীরনগরে ক্লাস-পরীক্ষা শুরু


টি-২০ কুইজে অংশ নিয়ে জিতুন মোটরবাইক

চলমান টি-২০ বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে প্রতিদিন মোটরবাইক জেতা ও বোনাস পাওয়ার ক্যাম্পেইন চালু করেছে ‘নগদ’। এ জন্য গ্রাহকদের ‘নগদ’ অ্যাকাউন্টে উদ্যোক্তা পয়েন্ট থেকে সকাল ১০টা থেকে রাত ০৯টা ৫৯ মিনিটের মধ্যে নূন্যতম ১,০০০ টাকা ক্যাশ-ইন অথবা যেকোনো ব্যাংকের ভিসা বা মাস্টার কার্ড থেকে নূন্যতম ১,০০০ টাকা অ্যাড মানি করতে হবে।

এই ক্যাম্পেইনটির আওতায় প্রতি মিনিটে প্রথম পাঁচজন জিতে নিতে পারবেন ১০০ টাকা বোনাস। ক্যাম্পেইনটি চলবে ১৪ নভেম্বর ২০২১ পর্যন্ত।

ক্যাম্পেইনটির আওতায় মোটরবাইক জিততে চাইলে গ্রাহককে ১,০০০ টাকা বা তার বেশি ক্যাশ ইন বা অ্যাড মানি করতে হবে পাশাপাশি যেকোনো পরিমাণ মোবাইল রিচার্জ ও ‘নগদ’ অ্যাপের মাধ্যমে টি-২০ কুইজ খেলতে হবে। এই তিনটি কাজ করতে হবে একসাথে। টি-২০ কুইজে করা সর্বোচ্চ স্কোরের ভিত্তিতে প্রতিদিন একজন গ্রাহক মোটরবাইক বিজয়ী হতে পারবেন।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

১১ কোটিতে বিক্রি হলো সেই ১ রুপির কয়েন

অনলাইন ডেস্ক

১১ কোটিতে বিক্রি হলো সেই ১ রুপির কয়েন

১৩৬ বছরের পুরাতন একটি কয়েন বিক্রি হয়েছে ১১কোটি টাকায়। নিলামে ভারতের সেই এক রুপির কয়েনটির দাম উঠেছে ১০ কোটি রুপি (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ১১ কোটি টাকা)। আকারে এসময়ের সাধারণ এক টাকার কয়েনের চেয়ে কিছুটা বড়। এর এক পিঠে খোদাই করা রয়েছে ইংল্যান্ডের রানি ভিক্টোরিয়ার ছবি। অন্য পিঠে ইংরেজি অক্ষরে লেখা ‘ওয়ান রুপি ইন্ডিয়া ১৮৮৫’।

ভারতে ব্রিটিশ শাসনামল ১৮৮৫ সালে মুম্বাইয়ের কোনও মিন্টে কয়েনটি বানানো হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার ৯ বছর আগেই ভারতীয় মুদ্রায় সামান্য পরিবর্তন আসে। তখন কয়েনে রানি ভিক্টোরিয়ার বদলে লেখা শুরু হয়েছিল সম্রাজ্ঞী ভিক্টোরিয়া বা ‘ভিক্টোরিয়া এমপ্রেস’। নিলামে ওঠা কয়েনটি সেই সময়ের।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


 

এক ওয়েবসাইটে ওই কয়েনটির ছবি পোস্ট করেছিলেন এক সংগ্রাহক। এরপর কয়েনটি কেনার জন্য হুড়োহুড়ি পড়ে যায় সংগ্রাহকদের মধ্যে।

এর আগে গত জুন মাসে ১৯৩৩ সালের আমেরিকার একটি কয়েন এক কোটি ৮৯ লক্ষ ডলারে বিক্রি হয়েছিল। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর