'ছেলেদের সাথে বসা যাবে না, মানতে হবে ড্রেসকোড'
'ছেলেদের সাথে বসা যাবে না, মানতে হবে ড্রেসকোড'

'ছেলেদের সাথে বসা যাবে না, মানতে হবে ড্রেসকোড'

অনলাইন ডেস্ক

আফগান নারীদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা গ্রহণের অনুমতি দিচ্ছে তালেবান। তবে তারা ছেলেদের সঙ্গে ক্লাস করতে পারবে না। সেই সাথে নারীদের আলাদা ড্রেসকোড মেনে চলতে হবে। আফগানিস্তানের কেয়ারটেকার সরকারের উচ্চ শিক্ষাবিষয়ক মন্ত্রী আবদুল বাকি হাক্কানি এ নির্দেশনার কথা জানিয়েছেন।

খবর বিবিসির।

হাক্কানি বলেছেন, আফগানিস্তানের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সহশিক্ষা নিষিদ্ধ থাকবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে পুরুষের পাশাপাশি বসে নারীরা শিক্ষা অর্জন করতে পারে না। এছাড়া নারীরা শুধুমাত্র নির্দিষ্ট কিছু বিষয় নিয়েই পড়তে পারবে।

তিনি আরও বলেন, ‘তালেবান শেষবার ক্ষমতায় আসার পর আফগানিস্তানের শিক্ষাব্যবস্থায় বড় ধরনের পরিবর্তন এসেছে। অতীতের তুলনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা নাটকীয়ভাবে বেড়েছে। এটা সমৃদ্ধ ও আত্মনির্ভরশীল আফগানিস্তানের জন্য আশাব্যাঞ্জক। যেখানে শেষ করেছিলাম সেখান থেকেই আমরা আবার শুরু করবো। ’

আরও পড়ুন:

ডায়োজিনিস দ্য সিনিক হতে পারেন আমাদের এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত!

রক্ত দিয়ে এরশাদকে লেখা প্রেমিকার চিঠি

যে কারণে স্ট্যাপলার পিন মুক্ত হচ্ছে না টাকার বান্ডিল


বোরকা ও নিকাব পড়ে আপাদমস্তক শরীর ঢেকে রেখে নারীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে পারবেন বলে চলতি মাসের শুরুতেই জানানো হয়।  

এর আগে, ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত তালেবান শাসনামলে আফগানিস্তানে নারী ও মেয়েশিশুদের স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা নিষিদ্ধ ছিল। কিন্তু এবার ক্ষমতায় ফিরে তালেবান পূর্বের কঠোর অবস্থান থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দেয়।

news24bd.tv/ নকিব