১৬ কোটি বছর আগের ‘উড়ন্ত ডাইনোসর’র জীবাশ্ম আবিষ্কার

১৬ কোটি বছর আগের ‘উড়ন্ত ডাইনোসর’র জীবাশ্ম আবিষ্কার

Other

কোটি কোটি বছর আগে পাখির মতো আকাশে উড়ে বেড়াতো এক প্রজাতির ডায়নোসর। সরীসৃপ হলেও উড়ার ক্ষমতা থাকায় বিজ্ঞানীরা এই প্রজাতিকে বলতো উড়ন্ত ড্রাগন। সম্প্রতি চিলির আতাকামা মরুভূমিতে এই ড্রাগনের জীবাশ্ম আবিষ্কার করেছেন বিজ্ঞানীরা।

এতদিন ধারণা ছিল, কেবল উত্তর গোলার্ধেই বিচরণ করতো জুরাসিক যুগের এই ডায়নোসর।

জুরাসিক পার্ক চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অনেকেই টেরাসর প্রজাতির এই উড়ন্ত ডায়নোসরের সাথে পরিচিত। ছোট বড় অনেকের পছন্দের তালিকায় রয়েছে এই ডাইনো। এই প্রজাতির জীবাশ্ম সর্বপ্রথম আবিষ্কার করেছিলেন আতাকামা ডেজার্ট মিউজিয়াম অব ন্যাচারাল হিস্টরি অ্যান্ড কালচারের কর্মকর্তা ওসালদো রোজাস। পরবর্তীতে এ নিয়ে গবেষণা চালান চিলি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। আর সেখান থেকেই প্রকাশিত হয় দক্ষিণ গোলার্ধে উড়ন্ত ড্রাগনের অস্তিত্বের বিষয়টি।

আরও পড়ুন:


এসএসসি-এইচএসসির পরীক্ষা ও ফলাফলের নতুন নিয়ম

ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি রোহিত শর্মার কাঁধে

রমিজ রাজা পিসিবির চেয়ারম্যান

৯৩০ মাইল পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া

আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় নষ্ট হচ্ছে কোটি টাকার গাছ


এতদিন পর্যন্ত এই উড়ন্ত ডাইনোর বিচরণ নিয়ে যা জানা ছিল, প্রকৃতপক্ষে তাদের বিস্তৃতি আরও বেশি ছিল বলে জানান চিলি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী জোনাথন অ্যালার্কন। সাম্প্রতিক এই আবিষ্কার থেকে উত্তর ও দক্ষিণ গোলার্ধের প্রাণীদের সম্ভাব্য স্থানান্তর ও তাদের আন্তঃসম্পর্কের সূত্রেরও ইঙ্গিত মেলে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এসব টেরাসরদের এক প্রজাতি পাওয়া যায় কিউবাতেও। উপকূলীয় প্রাণ ছিল এগুলো। সম্ভবত উত্তর ও দক্ষিণে জায়গা বদল করতো তারা। অথবা এ অঞ্চলে একবার এসে আর ফেরত ও যায়নি বলেও ধারণা করা হয়।

news24bd.tv তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর