এক নারীর তিন স্বামী, ভুক্তভোগী এক স্বামীর মামলা

নয়ন বড়ুয়া জয়

এক নারীর তিন স্বামী। প্রতারণার অভিযোগে চট্টগ্রামে প্রবাসী স্বামীর মামলা। নানান কৌশলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ স্বামীর। বিবাহ বিচ্ছেদসহ প্রতারণা রোধে প্রশাসনকে আরো কঠোর হওয়ার পরামর্শ সমাজ বিজ্ঞানীদের। 

কখনো তার নাম মিনু আক্তার আবার কখনো নাছনিন আক্তার সিমু আবার কখনো ফাতেমা খাতুন। ভিন্ন ভিন্ন নামে তিনটি জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে প্রায় একই সময়ে ৩ পুরুষের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। এমন সব অভিযোগে ভুক্তভোগী এক স্বামী প্রবাসী ইমাম হোসেন চট্টগ্রাম আদালতে সম্প্রতি একটি মামলা দায়ের করেছেন।

ইমাম কাতারে অবস্থানকালে ফেসবুকে মিনুর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক হয়। এরপর দেশে এসে ২০১৯ সালে ৬ ফেব্রুয়ারিতে তাদের বিয়ে হয়।

এর ২০ দিন পর কাতারে ফিরে যান ইমাম। পরে মনোমালিন্য হলেও নানা সময়ে স্ত্রীর জন্য তিনি প্রায় সাত লাখ টাকা পাঠান।


বিয়ে ছাড়াই আবারও মা হচ্ছেন কাইলি জেনার

বলিউড পরিচালক বিশাল ভরদ্বাজের প্রস্তাবে মিমের না!

দেশমাতা, আমাকে কি একটু নিরাপত্তা দিতে পারেন


সমাজ বিজ্ঞানীরা বলছেন, আইনের সঠিক প্রয়োগ ছাড়া থামানো যাবে না এসব প্রতারণা।

পারিবারিক ও সামাজিক বন্ধন অটুট রাখতে নীতি নৈতিকতার চর্চা জরুরি বলছেন সমাজ বিশ্লেষকরা।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ময়মনসিংহে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:

ময়মনসিংহে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

সাদ্দাম হোসেন নামের এক পুলিশ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে ময়মনসিংহের আদালতে মামলা হয়েছে। ওই কনেস্টবল ময়মনসিংহ পুলিশ লাইনে কর্মরত রয়েছেন এবং তার গ্রামের বাড়ি গৌরীপুর উপজেলার নাজিরপুর গ্রামে।

আজ বুধবার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. রাসিজুল ইসলাম নির্যাতিতার জবানবন্দি নেন। পরে মামলাটি আমলে নিয়ে ময়মনসিংহের পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) দ্রুত তদন্ত প্রতিবেদন পাঠানোর জন্য আদেশ দিয়েছেন। 

আরও পড়ুন


ছাড়পত্র পেলেন তামিম, খেলতে যাবেন নেপাল

‘শিশুবক্তা’ খ্যাত রফিকুলের হাইকোর্টে জামিন আবেদন

বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে ফেরত দেবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কুয়েত ও সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শেখ হাসিনার বৈঠক


আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. সাঈদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

মামলার বিবরণে জানা যায়, পাশাপাশি বাড়ির বাসিন্দা হওয়ার সাদ্দাম হোসেন দীর্ঘদিন যাবত ওই যুবতীকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এতে রাজী না হওয়ায় ২১ মে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে আবারও বিয়ের প্রলোভন ও খুন জখমের ভয় দেখিয়ে গত দুই জুলাই ধর্ষণ করে।

এদিকে বিয়ের কথা বললে সাদ্দাম হোসেন এড়িয়ে যায়। পরে ওই ভুক্তভোগী নারী তার পরিবারকে জালে পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়। এতেও প্রতিকার না পেয়ে আদালতে মামলা করেন।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

ভারতীয় সিরিয়াল সিআইডি দেখে এটিএম বুথ লুট করে তারা

নাঈম আল জিকো

ভারতীয় সিরিয়াল সিআইডি দেখে এটিএম বুথ লুট করে তারা

ভারতীয় সিরিয়াল সিআইডি দেখে এটিএম বুথ লুট করার পরিকল্পনা করে শামিম আহমেদ চক্র। আর প্রযুক্তিগত দিক থেকে দক্ষ হওয়ায় সুকৌশলে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের বুথ ভেঙে ২৪ লাখ টাকা নিয়ে যায় তারা।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানান ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশিদ। এসময় বলেন, সিলেটের ওসমানীনগরে ঘটে যাওয়া এ ঘটনায় জড়িত তিনজনকে গ্রেফতারের পর এমনটাই জানিয়েছেন তারা।

চলতি মাসের ১২ তারিখ রাত সোয়া তিনটা। সিলেটের ওসমানী নগর থানার শেরপুর এর নতুন বাজার হাজি ইউনুস উল্লাহ মার্কেটের ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের নিচ তলায় থাকা এটিএম বুথের দৃশ্য ঢুকে টাকা লুট করে এই চক্র। ওই বুথে হঠাৎই মুখোশ পরে ঢুকে পড়ে চারজন ডাকাত। জিম্মি করা হয় বুথটির নিরাপত্তারক্ষীকে।

পরিচয় গোপন রাখতে একে একে প্রতিটি সিসিটিভি ক্যামেরা রং দিয়ে নষ্ট করে তারা। বুথ ভেঙে লুট করে ২৪ লাখ টাকা।

আরও পড়ুন


পার্বত্যাঞ্চলে চলছে জুম তোলার ধুম, ভাল ফলনের আশা

গোয়ায় গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় অভিনেত্রী ও তার প্রেমিকের মৃত্যু

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সফল হয়েছি: মেয়র তাপস

কুষ্টিয়ায় পূজা মন্ডবে দুর্বৃত্তদের প্রতিমা ভাঙচুর


ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। ডিএমপির ডিবির যুগ্ন কমিশনার হারুন অর রশিদ জানান, রাজধানী ও হবিগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে, শামীম আহমেদ, নূর মোহাম্মদ ও আব্দুল হালিমকে। উদ্ধার করা হয় লুট হওয়া ১০ লাখ টাকাসহ ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি। 

তিনি আরও জানান, ভারতীয়  বিভিন্ন চলচ্চিত্র ও সিআইডি অনুষ্ঠান দেখে তারা এই কৌশল রপ্ত এবং উদ্বুদ্ধ হয়।

এই ঘটনায় জড়িত চারজনের মধ্যে একজন এখনো পলাতক রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ডেমরায় স্ত্রীকে অপহরণের পর হত্যার অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক

ডেমরায় স্ত্রীকে অপহরণের পর হত্যার অভিযোগ

রাজধানীর ডেমরায় স্ত্রীকে অপহরণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। 

এ ঘটনায় নিহত আঞ্জুমান আরা মিতুর (২৮) বাবা মো. নুরুল আমিন হাওলাদার সোমবার রাতে ডেমরা থানায় অভিযুক্ত চারজন ও অজ্ঞাত দুই-তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। 

আসামিরা হলেন- মৃতের স্বামী ডেমরার পূর্ব হাজীনগর মহিলা মাদ্রাসাসংলগ্ন কালাম ভিলার ভাড়াটিয়া ও ঝালকাঠির সদর থানার বংকুড়া গ্রামের মো. আব্দুস সালামের ছেলে মো. কামরুল হাওলাদার, তার সহযোগী ও আপন ভাই ফোরকান, একই বাড়ির ভাড়াটিয়া শহিদুল এবং অজ্ঞাত ঠিকানার ইব্রাহিম। 

আরও পড়ুন


ছাড়পত্র পেলেন তামিম, খেলতে যাবেন নেপাল

কুয়েত ও সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শেখ হাসিনার বৈঠক

স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামীর ফাঁসির আদেশ


মামলার পর রাতেই পুলিশ মৃতের স্বামী কামরুল ও দেবর ফোরকানকে গ্রেপ্তার করে মঙ্গলবার আদালতে পাঠায়।

জানা যায়, ১৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে ডেমরার স্টাফ কোয়ার্টার বাসস্ট্যান্ড থেকে অপহরণ হন মিতু। খোঁজ না পেয়ে তার বাবা ১৭ সেপ্টেম্বর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। 

ওই দিনই মিতুর লাশ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানার তাজমহল রোড এলাকার পাশের জমি থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। অপহরণের পর পরই মাইক্রোবাসে মিতুকে কৌশলে হত্যা করা হয়।

ডেমরা থানার ওসি খন্দকার নাসির উদ্দিন বলেন, মিতু হত্যার বিষয়টি গ্রেপ্তারকৃতরাও স্বীকার করেছেন পুলিশের কাছে।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৫০

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৫০

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে ৫০ জনকে আটক করেছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টা থেকে বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে তাদের আটক করা হয়।

আজ ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগ থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের এডিসি ইফতেখায়রুল ইসলাম জানান, অভিযানে আটকদের কাছ থেকে ১৬৭৯ পিস ইয়াবা, ১৫৮ গ্রাম ৫৫ পুরিয়া হেরোইন, ৪ কেজি ৩১০ গ্রাম গাঁজা ও ১২ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়।

আরও পড়ুন:


পাঁচ বছরে বাংলাদেশকে ১২০০ কোটি ডলার দেবে এডিবি

লোহাগড়ায় বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার

বিচারের কাঠগড়ায় অং সান সুচি

‘বিসমিল্লাহ’র ফজিলত


আসামিদের বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৪৩টি মামলা করা হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

মায়ের সাথে অভিমানে কিশোরীর আত্মহত্যা

জুবাইদুল ইসলাম, শেরপুর

মায়ের সাথে অভিমানে কিশোরীর আত্মহত্যা

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে মায়ের সাথে অভিমান করে রাজিয়া (১৩) নামে এক স্কুলছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার রাজনগর ইউনিয়নের খানারপাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রাজিয়া স্থানীয় দিনমজুর আব্বাছ আলীর মেয়ে এবং পার্শ্ববর্তী মালিঝিকান্দা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে রাজিয়া স্কুলে যাবার সময় তার মায়ের কাছে ৫টি টাকা চায়। কিন্তু রাজিয়ার মা ঘরে টাকা নেই বলে না দিয়ে তাকে বকুনি দিয়ে স্কুলে যেতে বলে পাশের বাড়ি চলে যান। পরে অভিমান করে সবার অজান্তে ঘরের ধর্নার সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে রাজিয়া। কিছুক্ষণ পর মা ও তার ভাই ঘরে ঢুকে রাজিয়াকে ঝুলতে দেখে দ্রুত নামিয়ে বাঁচানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু তার আগেই রাজিয়া মারা যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে পুলিশ।

নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বছির আহমেদ বাদল বলেন, পরিবারের আপত্তি না থাকায় যথাযথ কর্তৃপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিনা ময়নাতদন্তে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা রুজু হয়েছে। 

আরও পড়ুন:


টাকার অভাবে বাঁচানো গেল না শরীরের বাইরে হৃৎপিণ্ড নিয়ে জন্মানো শিশুটিকে

কিশোরীকে স্বামীর ঘরে ঢুকিয়ে দরজা বন্ধ করে বাইরে পাহারা দেয় স্ত্রী

গাড়িচাপা দেওয়া ইসরাইলি ২ পুলিশের অবস্থা আশঙ্কাজনক

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর