ক্রিকেটকে মালিঙ্গার বিদায়

অনলাইন ডেস্ক

ক্রিকেটকে মালিঙ্গার বিদায়

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক আগ মূহূর্তে বড় ঘোষণা দিলেন লাসিথ মালিঙ্গা। ঝাঁকড়া রঙিন চুল, অদ্ভূত বোলিং অ্যাকশন, ইয়র্কারের পসরা সাজানো মালিঙ্গা ওয়ানডে ও টেস্ট ফরম্যাটকে আগেই বিদায় জানিয়েছিলেন, এবার সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটেও না খেলার সিদ্ধান্ত নিলেন শ্রীলঙ্কার কিংবদন্তি এই পেসার।

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) টুইট পোস্টে মাধ্যমে সব ফর‌ম্যাটের ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন ৩৮ বছর বয়সী এই তারকা।

মালিঙ্গা বলেন, ‘টি-টোয়েন্টির জুতা জোড়া তুলে রাখছি। পাশাপাশি সব ফরম্যাটের ক্রিকেটকে বিদায় জানাচ্ছি। এই যাত্রায় যারা আমাকে সাহায্য করেছেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ। নতুনদের সঙ্গে নিজের অভিজ্ঞতা ভাগ করার জন্য মুখিয়ে আছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স, মেলবোর্ন স্টারস, কেন্ট ক্রিকেট ক্লাব, রংপুর রাইডার্স, গুয়েনা ওয়ারিয়র্স, মারাঠা ওয়ারিয়র্স এবং মন্ট্রিয়েল টাইগারসকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। এখন আমি তরুণ ক্রিকেটারদের সঙ্গে নিজের অভিজ্ঞতা ভাগ করতে চাই, যারা ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট ও জাতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করতে চায়।’


বিয়ে ছাড়াই আবারও মা হচ্ছেন কাইলি জেনার

বলিউড পরিচালক বিশাল ভরদ্বাজের প্রস্তাবে মিমের না!

দেশমাতা, আমাকে কি একটু নিরাপত্তা দিতে পারেন


 

এর আগে ২০১১ সালে টেস্ট ও ২০১৯ সালে ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নেন মালিঙ্গা। এবার টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকে বিদায় বলার মাধ্যমে সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায় বললেন এই পেসার। প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে ১০০ টি-টোয়েন্টি উইকেটও নিয়েছিলেন তিনি। 

সীমিত ওভারের ক্রিকেটে শ্রীলঙ্কার সবচেয়ে সফল পেসার মালিঙ্গা। টি-টোয়েন্টিতে ২৯৫ ম্যাচ খেলে ৩৯০ উইকেট নিয়েছেন তিনি। এই ফরম্যাটে উইকেট শিকারীর তালিকায় তার উপরে আছেন কেবল ডোয়াইন ব্রাভো, ইমরান তাহির ও সুনীল নারিন। জাতীয় দলের হয়ে টি-টোয়েন্টিতে তার ১০৭ উইকেটই সর্বোচ্চ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে আফগানিস্তানের রানের রেকর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে আফগানিস্তানের রানের রেকর্ড

সুপার টুয়েলভে প্রথম লড়াইয়ে আজ মুখোমুখি হয়েছে আফগানিস্তান ও স্কটল্যান্ড। শারজাতে  আগে ব্যাটিং করে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে রানের রেকর্ড গড়ল আফগানিস্তান।

স্কটিশদের বিপক্ষে তারা ৪ উইকেটে ১৯০ রান করেছে। এর আগে ২০১৬ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ৬ উইকেটে ১৮৬ রান করে তারা। 

বিশ্বকাপে জয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে স্কটল্যান্ডকে করতে হবে ১৯১ রান। শারজার উইকেটকে বলা হচ্ছিল মন্থর। অথচ মাঠে নামলেই দেখা যাচ্ছে উইকেট রান প্রসবা। আফগানিস্তারে ব্যাটম্যানরা তেমন কিছুই তো করে দেখালেন। ইনিংসের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একই ফ্লোতে খেলেছেন। দুই ওপেনার হজরতউল্লাহ জাঝাই ও মোহাম্মদ শাহজাদ উড়ন্ত সূচনা এনে দেন। ৫৪ রানের গুটি গড়ে শাহজাদ (২২) আউট হন। জাঝাই সাজঘরে ফেরার আগে ৩০ বলে করেন ৪৪ রান। 

১০ ওভারে আগফানিস্তানের রান ছিল ৮২। শেষ ১০ ওভারে তারা তোলে ১০৮ রান। এর পুরো কৃতিত্বটা যাবে রহমতউল্লাহ গুরবাজ ও নাজিবুল্লাহ জারদানের উপর। দুজনের ৫২ বলে ৮৭ রানের জুটি আফগানিস্তানকে বড় সংগ্রহ এনে দেয়।

আরও পড়ুন: পূজামণ্ডপের ঘটনাটি দুঃখজনক: বদিউল আলম মজুমদার

৩৭ বলে ১ চার ও ৪ ছক্কায় ৪৬ রান করেন রহমতউল্লাহ। ইনিংসের শেষ বলে আউট হওয়ার আজে নাজিবুল্লাহ ৩৪ বলে করেন ৫৯ রান। তার ইনিংসে ছিল ৫টি চার ও ৩টি ছক্কা। অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী শেষদিকে নেমে ৪ বলে ২ চারে তোলেন ১১ রান। 

বল হাতে স্কটল্যান্ডের হয়ে শাফইয়ান শরিফ ৩৩ রানে ২ উইকেট নেন। ১টি করে উইকেট পেয়েছেন জয় ডেভে ও মার্ক ওয়াট। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

ম্যাচ চলাকালে বাগযুদ্ধ

লিটন ও লাহিরুকে যে শাস্তি দিলো আইসিসি

অনলাইন ডেস্ক

লিটন ও লাহিরুকে যে শাস্তি দিলো আইসিসি

শারজাতে সুপার টুয়েলভে গ্রুপ-১ এর ম্যাচে গতকাল মুখোমুখি হয়েছিলো বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। ম্যাচ চলার সময় তীব্র বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েছিলেন টাইগার ওপেনার লিটন দাস ও লঙ্কান পেসার লাহিরু কুমারা। ব্যাপারটা মোটেও ভাল ভাবে নেয়নি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।  

শাস্তিটা জরিমানার ওপর দিয়েই গেছে। কুমারাকে ম্যাচ ফির ২৫ শতাংশ আর লিটনকে ১৫ শতাংশ জরিমানা করেছে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা।  

ম্যাচের শেষ ম্যাচ রেফারি জাভাগল শ্রীনাথ লেভেল-ওয়ান পর্যায়ের আচরণবিধি ভঙ্গে দোষী সাব্যস্ত করে দুই ক্রিকেটারকে এই জরিমানা করেন। শুধু তাই নয় দুই ক্রিকেটারের ডিসিপ্লিনারি রেকর্ডে ১টি করে ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হয়েছে। তবে দুই বছরের মধ্যে ৪টি বা এর বেশি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হলে সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারকে নির্বাসিত করা হবে। 

সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসি জরিমানার বিষয়টি জানায়।

রোববার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচে বাংলাদেশের ইনিংসে ৫.৫তম ওভারে লাহিরু কুমারার বলে মিড অফে দাঁড়িয়ে থাকা দাসুন শানাকার হাতে ক্যাচ তুলে দেন ওপেনার লিটন কুমার দাস। 

আরও পড়ুন: ১৫ দিনের বিরতি ছাড়াই ওমরাহ পালনের সুযোগ

 

১৬ বলে ১৬ রান করে সাজঘরে ফেরার সময় হঠাৎ দেখা যায়- লাহিরুর সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে যান লিটন। উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় চলছে দুইজনের মধ্যে। তখন ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম এসে লাহিরুকে ধাক্কা দিয়ে লিটনের কাছ থেকে দূরে সরাতে চান। সেই ঝামেলা থামাতে আম্পায়াররা হস্তক্ষেপ করেন। কিন্তু প্রায় হাতাহাতির পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছিল এ ঝামেলা। ধাক্কাধাক্কিও করতে দেখা যায় দুই ক্রিকেটারকে। পরে শ্রীলংকার বাকি প্লেয়াররা এসে বিষয়টি মিটিয়ে দেন। 
এদিন আরব আমিরাতের শারজা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করে ৪ উইকেটে ১৭১ রান করে বাংলাদেশ। 

টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৭ বল হাতে রেখেই ৫ উইকেটের জয় নিশ্চিত করে শ্রীলংকা ক্রিকেট দল।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

লিটন দাসকে শাস্তি দিল আইসিসি

অনলাইন ডেস্ক

লিটন দাসকে শাস্তি দিল আইসিসি

বাংলাদেশের ওপেনার লিটন দাস ও শ্রীলংকার পেসার লাহিরু কুমারাকে শাস্তি দিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি)। আচরণবিধি ভঙ্গের জন্য তাদের এ জরিমানা করা হয় বলে সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসি জানায়।

বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশ, লিটনকে ম্যাচ ফির ১৫ শতাংশ আর কুমারাকে ২৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। রোববার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচে বাংলাদেশের ইনিংসে ৫.৫তম ওভারে লাহিরু কুমারার বলে মিড অফে দাঁড়িয়ে থাকা দাসুন শানাকার হাতে ক্যাচ তুলে দেন ওপেনার লিটন কুমার দাস। 

১৬ বলে ১৬ রান করে সাজঘরে ফেরার সময় হঠাৎ দেখা যায়- লাহিরুর সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে যান লিটন। উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় চলছে দুইজনের মধ্যে।

আরও পড়ুন: খালেদা জিয়ার চামড়ার নিচে ফোসকার মতো হয়েছে

তখন ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম এসে লাহিরুকে ধাক্কা দিয়ে লিটনের কাছ থেকে দূরে সরাতে চান। সেই ঝামেলা থামাতে আম্পায়াররা হস্তক্ষেপ করেন। কিন্তু প্রায় হাতাহাতির পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছিল এ ঝামেলা। ধাক্কাধাক্কিও করতে দেখা যায় দুই ক্রিকেটারকে। পরে শ্রীলংকার বাকি প্লেয়াররা এসে বিষয়টি মিটিয়ে দেন। 

এদিন আরব আমিরাতের শারজা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করে ৪ উইকেটে ১৭১ রান করে বাংলাদেশ। 

টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৭ বল হাতে রেখেই ৫ উইকেটের জয় নিশ্চিত করে শ্রীলংকা ক্রিকেট দল।

news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর

লজ্জাজনক হারের পর এবার দুঃসংবাদ শুনলো ভারত

অনলাইন ডেস্ক

লজ্জাজনক হারের পর এবার দুঃসংবাদ শুনলো ভারত

একদিন আগেই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপে প্রথমবারের মত হেরেছে ভারত। বিশ্বকাপের শুরুটা খারাপ হওয়ায় পরবর্তী ম্যাচগুলো এখন ভারতের জন্য আরও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এরই মধ্যে টিম ইন্ডিয়া শঙ্কায় পড়ে গেছে অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়াকে নিয়ে।

ম্যাচের মধ্যেই ব্যাটিংয়ে নেমে কাঁধে চোট অনুভব করেন পান্ডিয়া। সেসময়ই তাকে বেশ কয়েকবার কাঁধে হাত বুলাতে দেখা যায়। এরপর পাকিস্তানের ব্যাটিংয়ের সময় এক ওভারের জন্যেও ফিল্ডিংয়ে নামেননি তিনি। তার পরিবর্তে ফিল্ডিং করেছেন ঈশান কিশান।

পান্ডিয়াকে তার কাঁধের চোটের পর পরই স্ক্যান করানোর জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্টের জন্য অপেক্ষায় আছে টিম ম্যানেজমেন্ট। 

বিশ্বকাপের আগেও দীর্ঘদিন চোট নিয়ে দলের বাহিরে ছিলেন পান্ডিয়া। আইপিএলের ১৪তম আসরে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে সবকটি ম্যাচ খেলতে পারেনি এই অলরাউন্ডার। 

ফলে মাত্রই চোট থেকে ফিরে আসায় তাকে দলে রাখা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিলো। ভারতের সাবেক ক্রিকেটাররা হার্দিকের ফিটনেস নিয়ে সন্তুষ্ট ছিলেন না। কারণ ব্যাটিংটা করলেও বোলিং করতে পারছিলেন না পান্ডিয়া। 

কিন্তু নির্বাচকেরা আস্থা রেখেছিলেন পান্ডিয়ার উপরেই। তবে ১৫ সদস্যের দলের বাহিরে ও রিজার্ভ মিলিয়ে ৫-৬ জন ক্রিকেটার সংযুক্ত আরব আমিরাতে বায়ো বাবলের মধ্যেই রেখে দিয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই। দলের যেকোন প্রয়োজনে ডাক পড়তে পারে সেসব খেলোয়াড়দের।

আরও পড়ুন:

ভারতীয় মিডিয়ার চোখে কোহলিদের হারের ৫ কারণ


news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

শহীদ আফ্রিদি-শাহিন আফ্রিদিকে নিয়ে আইসিসির টুইট

অনলাইন ডেস্ক

শহীদ আফ্রিদি-শাহিন আফ্রিদিকে নিয়ে আইসিসির টুইট

শাহিন আফ্রিদি, শহীদ আফ্রিদি

মাঠের চিরশত্রু  ভারতকে গতকাল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১০ উইকেটে হারিয়েছে পাকিস্তান। আর তাতে বড় অবদান রেখে শিরোনামে উঠে এসেছেন শাহিন আফ্রিদি। তার আরও একটি বড় পরিচয় রয়েছে তিনি পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও কিংবদন্তি অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদির বড় মেয়ের জামাই। 

এক জন ব্যাট হাতে বিপক্ষকে ধ্বংস করতেন, অন্য জন বল হাতে গতকাল ভারতের তিন অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে দেন। সেই যে ব্যাকফুটে চলে যায় ভারত।এরপর আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। এদিন ৩১ রান খরচায় ৩ উইকেট নেন তিনি।

শুরুতে রোহিত শর্মা এবং লোকেশ রাহুলকে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন শাহিন আফ্রিদি। সেই ধাক্কা গোটা ম্যাচে সামলাতে পারেনি ভারত। রোহিত, রাহুল এবং পরে বিরাট কোহরিকে ফিরিয়ে দেওয়ার পর শাহিনের উচ্ছ্বাসের ভঙ্গি দেখেই সমর্থকদের মনে পড়ে যায় অন্য আফ্রিদিকে। শাহিদ আফ্রিদি এবং শাহিন আফ্রিদি দু’জনেই উইকেট নেওয়ার পর আকাশের দিকে দু’হাত তুলে এক রকম ভাবে উৎসব করেন। 

আরও পড়ুন: রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সাফল্য নেই, এটি দুঃখজনক: জাপা চেয়ারম্যান

ক্রিকেটের শীর্ষ সংস্থা দুই আফ্রিদির উদযাপনের দৃশ্য একই ছবিতে তুলে ধরেছে। দুইজনকেই দেখা যাচ্ছে দুই হাত আকাশের দিকে তুলে উদযাপন করতে। তাদের জার্সি নাম্বারও একই- ১০। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে সাবেক অলরাউন্ডারের জার্সি পেয়েছেন শাহীন আফ্রিদি।

দুই আফ্রিদির ছবি দিয়ে আইসিসি ক্যাপশনে লিখেছে, ‘একই নাম, একই নাম্বার, নতুন যুগ।’ ভারতের ইনিংস শেষ হওয়ার পর পর এই ছবি প্রকাশ করে তারা।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর