মুুনিয়ার বাসায় শেষ দুই ঘণ্টায় কে গিয়েছিল?

নিজস্ব প্রতিবেদক

মুুনিয়ার বাসায় শেষ দুই ঘণ্টায় কে গিয়েছিল?

প্রতীকী ছবি

মুনিয়ার মৃত্যু নিয়ে এখন তদন্ত করছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। পুলিশের এলিট এই তদন্তকারী সংস্থার আলাদা একটি সুনাম ও গ্রহণযোগ্যতা ইতোমধ্যে দেশবাসীর কাছে তৈরি হয়েছে। যে কোনো জটিল মামলার তদন্ত করার ক্ষেত্রে তারা বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে।

বনজ কুমার মজুমদারের নেতৃত্বে সংস্থাটি এখন একটি মর্যাদাপূর্ণ বিভাগে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। তিনি ২০১৬ সালে পিবিআইতে যোগ দেওয়ার পর মামলাগুলোর রেকর্ড সংরক্ষণের জন্য নতুন সফটওয়্যার তৈরি করা থেকে শুরু করে পিবিআইর জন্য আলাদা একটি অত্যাধুনিক ফরেনসিক ল্যাব স্থাপন করেন। তাদের তদন্তের বিশ্বাসযোগ্যতা প্রশ্নাতীত। এবং বিভিন্ন মামলায় তারা এ কথার প্রমাণ রেখেছে। তাদের অসাধারণ মেধায় বহু জটিল মামলার তদন্তে রহস্যের জট ​খুলেছে ইতোমধ্যে। 

গত ছয় সেপ্টেম্বর ৮নং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল মুনিয়াকে হত্যা ও ধর্ষণের অভিযোগে তার বোন তানিয়ার করা মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব পিবিআইকে দেয়া হয়। পিবিআই এখন এই মামলার তদন্তের কাজ শুরু করেছে। 

উল্লেখ্য, গত ২৬ এপ্রিল মুনিয়া রাজধানী গুলশানের একটি ফ্ল্যাটে মারা যান। মৃত্যুর পর তার বোন নুসরাত তানিয়া এ মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে গুলশান থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মাস তিনেক তদন্তের পর গুলশান থানা চূড়ান্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করেন। এবং এই ঘটনায় কোনো আত্মহত্যার প্ররোচনা নেই বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। ​ 

ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পুলিশের চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার পর বাদি নুসরাত তানিয়া একটি নারাজি দরখাস্ত দেন। এ আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত উভয়পক্ষের বক্তব্য শুনে নারাজি দরখাস্তটি নাকচ করে দেন এবং মামলার চূড়ান্ত রিপোর্ট প্রদান করেন। এর কয়দিন পর গত ছয় সেপ্টেম্বর নুসরাত তানিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে নতুন করে মামলা করেন। এবার আর আত্মহত্যার প্ররোচনা নয় সরাসরি হত্যা ও ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। 

পিবিআই সূত্র বলছে, যে কোনো একটি হত্যা মামলার প্রধান উপজীব্য হলো ঘটনাস্থলে কে উপস্থিত ছিল। কারণ হত্যা স্বশরীরে উপস্থিত না হয়ে করা সম্ভব নয়। আর এ কারণেই মুনিয়ার মৃত্যুর আগে গুলশানের ঐ ফ্ল্যাটে কারা গিয়েছিল সেটি এই মামলার এখন প্রধান তদন্তের বিষয় বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, মুনিয়ার কল রেকর্ড যাচাই করে দেখা গেছে মৃত্যুর দুই ঘণ্টা আগ পর্যন্ত মুনিয়া তার বোন নুসরাত তানিয়ার সঙ্গে কথা বলেছেন। এই সময় তিনি নুসরাতকে কলা আনার কথাও বলেছেন। অর্থাৎ যতক্ষণ পর্যন্ত তিনি নুসরাত তানিয়ার সঙ্গে কথা বলেছেন, ততক্ষণ পর্যন্ত মারা যাননি। কথা বলার পরবর্তী দুই ঘণ্টার মধ্যে মুনিয়া মৃত্যুবরণ করেছেন বলে ময়নাতদন্তের রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়। কাজেই প্রশ্ন উঠেছে এই সময়ে মুনিয়ার ফ্ল্যাটে কারা গিয়েছিল। এবং যাদের অভিযুক্ত করা হয়েছে, তাদের কেউ সে ফ্ল্যাটে গিয়েছিল কি না। 

পিবিআই সূত্র বলছে, মুনিয়ার মামলাটি অত্যন্ত স্পষ্ট। মুনিয়া নিজ ফ্ল্যাটে মারা যান, বাহিরে কোথাও নয়। মৃত্যুর আগের ২৪ ঘণ্টা অথবা কথা বলার পরবর্তী সময় থেকে মৃত্যু পর্যন্ত সময় কেউ মুনিয়ার ফ্ল্যাটে গিয়েছিল কি না সেটি হলো মামলার প্রধান উপজীব্য বিষয়। লক্ষণীয় ব্যাপার যে আটজনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে তাদের কেউেই ওই সময়ের মধ্যে মুনিয়ার ফ্ল্যাটে যাননি। তাহলে মুনিয়ার বাড়িতে গিয়েছিল কে? সিসি টিভি ফুটেজটি প্রকাশ করা এবং নুসরাত তানিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমেই এর সমাধান হতে পারে বলে দাবি করছে একাধিক সূত্র। 

বিশেষ করে মুনিয়ার মৃত্যুর আগে নুসরাতের নির্দেশে তিন জন ব্যক্তি মুনিয়ার বাসায় গিয়েছিল। তারা বিভিন্ন সময়ে মুনিয়ার বাসায় যেত। এরা নুসরাতের পরিচিত ও সহচর বলে জানা যায়। এই তিন জনকেই পরবর্তীতে নুসরাতের সঙ্গে গুলশান থানায় দেখা গেছে। পাশাপাশি সিএমএম আদালতেও এই তিন জন গিয়েছিল। এই তিন জনই নুসরাত তানিয়ার ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি এবং যারা মুনিয়ার সম্পর্কে বিভিন্ন খোঁজ-খবর নিতেন তাদের লোক বলে জানা গেছে। 

কাজেই প্রশ্ন হলো যে মুনিয়ার বাসায় শেষ ‍দুই ঘণ্টায় যারা গিয়েছিল, যদি এটি হত্যাকাণ্ড হয় তাহলে এই হত্যাকাণ্ডের জন্য তারাই দায়ী। অবশ্য পিবিআই পুরোপুরি বিষয়টি নিরপেক্ষ এবং নির্মোহ ভাবে তদন্ত করছে। তদন্ত শেষ হলেই বুঝা যাবে মুনিয়া আদতে মুনিয়াকে হত্যা করা হয়েছে নাকি এটা আত্মহত্যা। যদি হত্যাই হয়ে থাকে তাহলে কারা হত্যা করল?

আরও পড়ুন


লন্ডনের বিলাসবহুল হোটেলে মরিয়ম নওয়াজের ছেলের বিয়ে

বারবার রিমান্ডে পরীমণি: ক্ষমা চাইলেন দুই বিচারক

বছর না ঘুরতেই অন্তঃসত্ত্বা কাজল!

বাণিজ্য মেলা হবে এবার নতুন স্থানে, ১ জানুয়ারি থেকে শুরু


NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

মন্দিরে কোরআন শরিফ রাখা হয়েছিল দাঙ্গা লাগানোই উদ্দেশ্যে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

মন্দিরে কোরআন শরিফ রাখা হয়েছিল দাঙ্গা লাগানোই উদ্দেশ্যে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

বিশ্ব দরবারে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে আর নিজেদের স্বার্থ সিদ্ধির জন্যই এক শ্রেণির মানুষ মন্দির-মন্ডপে হামলার মতো ঘটনা ঘটাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

রোববার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস উপলক্ষ্যে এক আলোচনায় তিনি একথা বলেন। 

আরও পড়ুন:


টাকা না দেওয়ায় নানাকে হত্যা করে ঘরেই পুঁতে রাখে নাতি

আমরা আরও বেশি সতর্ক: ওবায়দুল কাদের

 

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, দেশের অগ্রগতি থামিয়ে দেওয়া ও বিদেশের কাছে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতেই মন্দিরে কোরআন শরিফ রাখা হয়েছিল। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দাঙ্গা লাগানোই উদ্দেশ্য ছিল বলে জানান মন্ত্রী।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর

‘পবিত্র কোরআন অবমাননার’ ব্যাপারে সাংবাদিকদের প্রশ্নে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

‘পবিত্র কোরআন অবমাননার’ ব্যাপারে সাংবাদিকদের প্রশ্নে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কুমিল্লায় পূজামণ্ডপের ঘটনায় দায়ী ব্যক্তিদের খুব শিগগির গ্রেফতার করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

রোববার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যেভাবে এগোচ্ছি, তাতে আমরা আশা করছি, খুব শিগগির তাদের (দায়ী) গ্রেফতার করতে পারব।

আরও পড়ুন:


টাকা না দেওয়ায় নানাকে হত্যা করে ঘরেই পুঁতে রাখে নাতি

আমরা আরও বেশি সতর্ক: ওবায়দুল কাদের


তিনি আরও বলেন, কুমিল্লার ঘটনায় সন্দেহভাজন দু-তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আসলে যারা করেছে, তাদেরও চিহ্নিত করা হবে।
news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ডেঙ্গু: একদিনে আরও ১৮৩ জন হাসপাতালে, মৃত্যু ১

অনলাইন ডেস্ক

ডেঙ্গু: একদিনে আরও ১৮৩ জন হাসপাতালে, মৃত্যু ১

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গেলো ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ১৮৩ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। আর মৃত্যু হয়েছে একজনের। আক্রান্তদের অধিকাংশই রাজধানী ঢাকার বাসিন্দা। 

আজ বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ১৪১ জন রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে এবং ৪২ জন ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এতে আরও বলা হয়েছে, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৬৯ জনে। ঢাকার ৪৬টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৬৮৮ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৮১ জন।

আরও পড়ুন:


গাজীপুরে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে পার্লার কর্মীকে গণধর্ষণ

পরিকল্পিতভাবে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি পূজায় সহিংসতা সৃষ্টি করেছে: কাদের

ইন্দোনেশিয়ার বালিতে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ৩

ঘোড়ার খামারে বিয়ে করছেন বিল গেটসের মেয়ে


বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এ বছরের ১ জানুয়ারি থেকে আজ (১৬ অক্টোবর) পর্যন্ত হাসপাতালে সর্বমোট রোগী ভর্তি হয়েছেন ২১ হাজার ২০১ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ২০ হাজার ২৪৯ জন রোগী। ডেঙ্গুতে এ সময়ে ৮৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু-শনাক্ত দুটোই কমেছে

অনলাইন ডেস্ক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু-শনাক্ত দুটোই কমেছে

মহামারী করোনা ভাইরাসে গেলো ২৪ ঘণ্টায় আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭ হাজার ৭৫২ জনে। 

আজ বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গেলো ২৪ ঘণ্টায় প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে শনাক্ত হয়েছেন ২৯৩ জন। এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৬৫ হাজার ১৭৪ জনে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২ শতাংশের নিচে নেমে এসেছে।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

‘রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং’ থাকলেই ১০% হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুফ: আতিক

অনলাইন ডেস্ক

‘রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং’ থাকলেই ১০% হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুফ: আতিক

যেসব ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিংয়ের ব্যবস্থা থাকবে, সেসব ভবন মালিকদেরকে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

আজ দুপুরে রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওয়ের বলরুমে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত ‘পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) সেক্টরে ৫০ বছরের অর্জন ও ভবিষ্যৎ করণীয়’ শীর্ষক সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন,  নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) সেক্টরে বাংলাদেশ গত ৫০ বছরে যথেষ্ট অগ্রগতি ও সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।
       
মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ডিএনসিসি সকলকে সাথে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন কর্তৃক পরিবেশবান্ধব ও স্বাস্থ্যসম্মত ৬৩টি পাবলিক টয়লেট নির্মাণের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে ৪৮টির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে।
 
ডিএনসিসি মেয়র বলেন, নগরীর অধিকাংশ বাসাবাড়ি এমনকি অভিজাত এলাকার ভবনগুলোতেও কার্যকর সেপটিক ট্যাংক ও সোক ওয়েল না থাকায় অপরিশোধিত পয়ঃবর্জ্য সরাসরি ড্রেন কিংবা খালে পতিত হওয়ায় জলাশয়ের পানিসহ সার্বিক পরিবেশ দূষিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, নগরীর বাসাবাড়িগুলোতে আধুনিক সেপটিক ট্যাংক ও সোক ওয়েল স্থাপন করতে হবে এবং পরিশোধনের কার্যকর ব্যবস্থা সচল রাখতে হবে।

মেয়র আতিক বলেন, নগরীতে অঞ্চলভিত্তিক ফিক্যাল স্লাজ প্ল্যান্ট স্থাপনের মাধ্যমে পরিশোধন ব্যবস্থাকে আরও জোরদার করতে হবে।

তিনি বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে দেশে প্রথমবারের মতো বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের কাজ শেষ পর্যায় রয়েছে।
 
ডিএনসিসি মেয়র বলেন, নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন এবং দূষণ নিয়ন্ত্রণে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন কাজ করে যাচ্ছে।
 
তিনি বলেন, নগরীর জলাবদ্ধতা সমস্যার সমাধানকল্পে সুপরিকল্পিত একাধিক জলাধার প্রয়োজন। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয়, কল্যাণপুর জলাধারের জন্য নির্ধারিত ১৭৩ একর জমির মধ্যে মাত্র ৩ একর জমিতে জলাধার রয়েছে আর বাকি ১৭০ একর জমিই অবৈধ দখলদারদের দখলে রয়েছে। তাই সবাই মিলে অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে।

ডিএনসিসি মেয়র আরও বলেন, অপরিকল্পিত ঢাকাকে সবাই মিলে সবার বাসযোগ্য সুস্থ, সচল ও আধুনিক ঢাকায় রূপান্তরিত করতে হবে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে প্রধান অতিথি হিসেবে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে ডিএসসিসির মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বক্তব্য দেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর