৬০ হাজার টাকা দিয়েও আশ্রয়ণের ঘর পেলনা আলিয়ারা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

৬০ হাজার টাকা দিয়েও আশ্রয়ণের ঘর পেলনা আলিয়ারা

"মোর গরুলাও গেল, বাড়িও গেল, এলা স্যারের হুমকির তানে এলাকায় থাকিবাউ পারু না। মোর আর থাকার কোনো জায়গা নাই।" এভাবেই সাংবাদিকদের কাছে এসে প্রলাপ গাইতে থাকে আলিয়ারা খাতুন (২৫)।

আজ সাংবাদিক খুঁজতে শহরের কলেজপাড়ায় ঠাকুরগাঁও রিপোটার্স ইউনিটি কার্যালয় এসে সাংবাদিকের কাছে ইউএনও ও তার শ্যালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী সেই নারী।

এলাকাবাসীর তথ্যমতে, ঠাকুরগাঁও হরিপুর উপজেলার স্বামী পরিত্যক্তা অসহায় মহিলা আলিয়া (২৫)। নিজের ০২ টি গরুই ছিল তার সম্বল। তবে তিনি চাচ্ছিলেন মাথা গোজার একটি নিশ্চিত ঠিকানা। 

সেই আশাতেই নিজের শেষ সম্বল বিক্রি করে সে। গরু বিক্রির ৬০ হাজার টাকা হরিপুর ইউএনওর শ্যালককে দিয়ে তিনি আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘরে উঠেন। তবে উঠার ০৪ মাস পর তাকে বের করে দেওয়া হয়।

আলিয়ারা খাতুন সাংবাদিকদের জানান, হরিপুরের জীবনপুর কুশলগাঁও এলাকার ইয়াসিন আলীর মেয়ে আলিয়ারা খাতুন প্রায় ২ বছর পূর্বে ১ সন্তান নিয়ে স্বামী পরিত্যক্ত হয়ে দুলাভাই নঈমউদ্দীনের সরকারি খাস জমিতে নির্মিত বসতবাড়ির আশ্রয় গ্রহণ করে।  

ভূমিহীনদের জন্য আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর দেওয়া হবে জানার পর আলিয়ারা তদবির শুরু করেন। আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মাণের তদারককারী তরিকুল ও উপজেলা ভূমি অফিসের কর্মচারী মানিক এর কথামত সে নিজের গাভী বিক্রি করে ইউএনওর শ্যালক তানভীন হাসানকে সরাসরি ৬০ (ষাট) হাজার টাকা প্রদান করে।

পরে তারা আলিয়ারাকে তারবাগান এলাকায় অবস্থিত আশ্রয়ন প্রকল্পের ২ নং ঘরটির দখল বুঝিয়ে দেয়। সেই ঘরে তিনি প্রায় চার মাস যাবৎ সন্তান সহ বসবাস করছিলেন। পরবর্তীতে তরিকুল ও মানিক আলিয়ারার কাছে পুনরায় ২০ (বিশ) হাজার টাকা দাবি করে এবং টাকা না দিলে ঘর থেকে বের করে দিবে বলে হুমকি দেয়। টাকা দিতে না পারায় তারা আলিয়ারাকে গত ০১/০৯/২০২১ ইং তারিখে ঘর থেকে বের করে দেয়।

এসব বিষয়ে আলিয়ারা ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক বরাবরে গত ৫ তারিখে একটি লিখিত অভিযোগ করে। সেটা জানার পর ১৩ তারিখ দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে হরিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল করিম তাকে কৌশলে কার্যালয়ে ডাকে। সেখানে ইউএনও আলিয়ারাকে পুলিশ ও তার কার্যালয়ের কর্মচারী দ্বারা মানসিক ও শারীরিক ভাবে নির্যাতন করে এবং হুমিকি দেয় যে, তাদের মত করে জবানবন্দি না দিলে বড় ধরনের ক্ষতি করবে। 

সে সময় জোরপূর্বক আলিয়ারার কাছে তাদের মতো করে স্বীকারোক্তিমূলক ভিডিও ধারণ করে এবং সাদা কাগজে স্বাক্ষর করিয়ে নেয়। তাই নিরাপত্তাহীনতার কারণে সামাজিক ও রাষ্ট্রীয়ভাবে নিরাপত্তার জন্য সাংবাদিকদের কাছে সাহায্য চান আলিয়া।

ইউএনওর শ্যালক তানভিন হাসানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এই বিষয়ে কিছু বলতে অস্বীকৃতি জানান।

হরিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আব্দুল করিম বলেন, সেই মহিলা অনেক খারাপ ও মিথ্যে কথা বলে। তাকে শারীরিক নির্যাতন করা হয়নি। আর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরে টাকা লেনদেনের কোন সুযোগ নেই। তার কোন ভিডিও রেকর্ড করা হয় নাই।

উল্লেখ্য, এর আগেও হরিপুর উপজেলায় টাকার বিনিময়ে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর বরাদ্ধের অনেক অনিয়মের নিউজ প্রকাশিত হয়। এছাড়াও হরিপুরে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নিম্নমানের তৈরি হওয়ায় ঘরে ফাটল দেখা দেয়। ঘর বরাদ্ধে ইউএনওর শ্যালকের টাকা লেনদেনের বিষয়টিও নিউজে প্রকাশিত হয়।

আরও পড়ুন:


আইএস বধূ শামীমা বাংলাদেশে নয়, ফিরতে চান ব্রিটেনে

করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০ হাজারের কাছাকাছি মৃত্যু

রদ্রিগোর গোলে ইন্টার মিলানকে হারাল রিয়াল মাদ্রিদ

চট্টগ্রামের উপকূলে মিলল তিনটি মৃত ডলফিন!


NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

ঝিনাইদহে ১১টি ইজিবাইকসহ ছিনতাই চক্রের ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তার

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ :

ঝিনাইদহে ১১টি ইজিবাইকসহ ছিনতাই চক্রের ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তার

ঝিনাইদহে ১১টি ইজিবাইকসহ ছিনতাই চক্রের ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৬। 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো শাহিনুর সরদার (৩২) মোছা. তিন্নী ওরফে টুনি (২৭) ও ইমরান হোসেন (৩০)। বুধবার রাতে মাগুরা ভায়না মোড়ের টিবি ক্লিনিক পাড়া থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে। বৃহস্পতিবার বিকেলে ঝিনাইদহ র‌্যাব কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব কমাণ্ডার এ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে ঝিনাইদহ র‌্যাবের কোম্পানি কমাণ্ডার মেজর মোহাম্মদ শরীফুল আহসান জানান, ঝিনাইদহসহ এ অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকা থেকে ইজিবাইক ছিনতাই করে একটি চক্র ভাড়া দেয় এবং বিক্রি করে থাকে। তারা নিজস্ব গোয়েন্দা তথ্যে ভিত্তিতে জানতে পারেন ওই চক্রটি মাগুরার ভায়নার মোড় এলাকায় অবস্থান করছে।

খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি বিশিষ টিম মাগুরা ভায়না মোড়ের টিবি ক্লিনিকের পাশে বিসমিল্লাহ হোটেলের পিছনে ভাড়াকৃত গ্যারেজে অভিযান চালান। 

আরও পড়ুন:


সারারাত যৌনকর্মে সময় না দেয়ায় হত্যা!

অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

লালমনিরহাটে বন্যায় বিধ্বস্ত হয়ে দুই উপজেলা বিদ্যুৎ বিহীন

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা কে এই ইকবাল?


র‌্যাবের অভিযান টের পেয়ে পালানোর সময় মাগুরা শালিখার সরসোনার গফুর সরদারের ছেলে শাহিনুর সরদার, তার স্ত্রী মোছা. তিন্নী ওরফে টুনি ও ঝিনাইদহের পাইকপাড়ার আব্দুল হান্নানের ছেলে শরিফুল ইসলামে গ্রেপ্তার করে। 

সে সময় তাদের কাছ থেকে ১১টি ইজিবাইক, ৫৫ টি ইজিবাইকের ব্যাটারি ও ১১টি ইজিবাইকের চাবি উদ্ধার করে। গ্রেপ্তারকৃতরা এসব ইজিবাইক ছিনতাই করে বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে থাকে বলে র‌্যাবের কাছে স্বীকার করেছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে তাদের থানায় সোপদ্দ করা হয়েছে। 

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

নাটোরে সম্প্রীতি সমাবেশ ও র‌্যালী অনুষ্ঠিত

নাটোর প্রতিনিধি:

নাটোরে সম্প্রীতি সমাবেশ ও র‌্যালী অনুষ্ঠিত

দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর সন্ত্রাসী হামলা, প্রতিমা ভাংচুর, অগ্নি সংযোগ ও বসতবাড়িতে লুটপাটের প্রতিবাদে নাটোরে সম্প্রীতি সমাবেশ ও র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শহরের স্বাধীনতা চত্বর থেকে একটি র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি আলাইপুর এলাকায় অনিমা চৌধুরী অডেটোরিয়ামে গিয়ে শেষ হয়। 

আরও পড়ুন:


সারারাত যৌনকর্মে সময় না দেয়ায় হত্যা!

অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

লালমনিরহাটে বন্যায় বিধ্বস্ত হয়ে দুই উপজেলা বিদ্যুৎ বিহীন

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা কে এই ইকবাল?


পরে সেখানে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল, জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ, পুলিম সুপার লিটন কুমার সাহাসহ অন্যান্যরা। 

এ সময় বীর মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি, সকল ধর্মের প্রতিনিধি, ছাত্র শিক্ষকসহ সামাজিক ও রাজনৈতিক নের্তৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

মন্দিরে হামলার ঘটনার ভিডিও ফুটেজ দেখে র‌্যাবের অভিযানে আরও তিনজন গ্রেপ্তার

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

মন্দিরে হামলার ঘটনার ভিডিও ফুটেজ দেখে র‌্যাবের অভিযানে আরও তিনজন গ্রেপ্তার

নোয়াখালীর চৌমুহনীতে মন্দিরে হামলা-ভাংচুরের ঘটনার ভিডিও ফুটেজ দেখে আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব-১১। 

আজ বহস্পতিবার ভোর থেকে জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- সোহরাব হোসাইন (৩২), মো. মানু (৩২) ও মো. হরুন অর রশিদ(৪৫)। 

আরও পড়ুন:


সারারাত যৌনকর্মে সময় না দেয়ায় হত্যা!

অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

লালমনিরহাটে বন্যায় বিধ্বস্ত হয়ে দুই উপজেলা বিদ্যুৎ বিহীন

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা কে এই ইকবাল?


আজ সকালে চৌমুহনীতে সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার মো. শামীম হোসেন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা প্রত্যেকে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন।

এছাড়া গতরাতে জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ভিডিও ফুটেজ দেখে আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এ নিয়ে এসব ঘটনায় মোট ১০৭ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। এর মধ্যে এজাহারভুক্ত ৬৮ জন, সন্দেহভাজন ৩৯ জন।

এসব ঘটনায় বেগমগঞ্জ মডেল থানায় ৮টি মামলা হয়েছে। এসব মামলার এজাহারে ২১৯ জনের নাম উলে­খ সহ অজ্ঞাত আরও পাঁচ হাজার লোককে আসামি করা হয়েছে।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

নোয়াখালীতে হামলায় নিহতদের পরিবারের পাশে সাংসদ একরাম

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীতে হামলায় নিহতদের পরিবারের পাশে সাংসদ একরাম

নোয়াখালীর চৌমুহনীতে গত শুক্রবারের হামলায় নিহত যতন সাহা ও প্রান্ত দাসের পরিবার এবং ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির সংস্কারের জন্য আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন সদর-সুবর্নচর আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী।

আজ  বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনি ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহত দুই পরিবারের স্বজনদের খোঁজ খবর নেন। তাদের সঙ্গে কিছু সময় কাটান। পরে দুই পরিবারকে দুই লাখ টাকা করে মোট চার লাখ টাকা অনুদান দেন। এরপর হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত কয়েকটি মন্দির পরিদর্শন করে সেগুলো সংস্কারের জন্য চার লাখ টাকা অনুদান দেন। 

আরও পড়ুন:


সারারাত যৌনকর্মে সময় না দেয়ায় হত্যা!

অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

লালমনিরহাটে বন্যায় বিধ্বস্ত হয়ে দুই উপজেলা বিদ্যুৎ বিহীন

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা কে এই ইকবাল?


এ সময় তিনি হামলার ভিডিও ফুটেজ দেখে ঘটনার সাথে জড়িতদের প্রত্যেককে দ্রুত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানান। হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হিন্দু সম্প্রদায়ের পাশে দাঁড়ানোর জন্য দলীয় নেতাকর্মীদেরকে নির্দেশ দেন।

এ সময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবিএম জাফর উল্যা, নোয়াখালী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম সামছুদ্দিন জেহান, জেলা যুবলীগের আহবায়ক ইমন ভট্ট, একরামুল হক বিপ্লব সহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

ঠাকুরগাঁওয়ে দ্রুত আসামিদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ে দ্রুত আসামিদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

ঠাকুরগাঁও শহরের গোয়ালপাড়া হেডস এর মোড়ে গত শনিবার (১৬ই অক্টোবর) আনুমানিক রাত ৮টায় পরিবারের লোকজনের সামনে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে দুই সন্তানের "মা" মুসলেমিনা আক্তার লিজা (৩০)।

পরে প্রতিবেশীরা লাশ উদ্ধার করে আধুনীক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। কিন্তু তার পরের দিন রোববার এ ঘটনায় লিজার পিতা এসএম মুরশিদ বাদী হয়ে সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও চৌরাস্থায় লিজা’র প্রতিবেশি ও পরিবারের লোকজন লিজাকে হত্যাকারী স্বামী অন্য আসামিদের দ্রুত বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করে।

লিজাকে হত্যা করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার নাটক করা হচ্ছে এমন অভিযোগ তুলেন লিজা’র বাবা। মেয়েকে হত্যাকারিদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধনে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন বাবা।

মানববন্ধনে লিজা’র বাবা বলেন আমার মেয়েকে নির্মমভাবে হত্যা করেছেন তার পাষণ্ড স্বামী জবাইদুল রহমান জুয়েল (৩৮) ও তার পরিবারের লোকজনেরা। পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে আমার মেয়েকে বলে জানান তিনি।

অভিযোগে বলা হয়, দীর্ঘ দিন ধরে আসামি জুয়েল পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। সে কারণে জুয়েল আমার মেয়ের সংসারে কোন প্রকার খরচ দিত না ও বাসায় যেত না। কিছু বললেই আমার মেয়েকে নির্মম অত্যাচার করত। এ জন্য কয়েকবার পারিবারিক ভাবেও আলোচনা করা হয় ও জুয়েলকে সাবধান করা হয়। পরে জুয়েল আমার কাছে ১ লাখ টাকা দাবি করে আমি সেটা দিতে না পারায় সে আমার মেয়েকে হত্যা করে।

লিজা’র প্রতিবেশি ও পরিবারের লোকজন বলেন, থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে এখন দ্রুত আসামিদের গ্রেপ্তারের ও দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

আরও পড়ুন:


সারারাত যৌনকর্মে সময় না দেয়ায় হত্যা!

অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

লালমনিরহাটে বন্যায় বিধ্বস্ত হয়ে দুই উপজেলা বিদ্যুৎ বিহীন

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা কে এই ইকবাল?


news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর