স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, স্বামী-শ্বশুর পলাতক

মোহাম্মদ আল-আমীন, গাজীপুর

স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, স্বামী-শ্বশুর পলাতক

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে উপজেলার রশিদপুর এলাকায় (১৫ সেপ্টেম্বর রাতে) স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনার পর থেকে স্বামী ও শ্বশুর পলাতক রয়েছে। এ বিষয়ে থানায় মেয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

নিহত হলেন- গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর থানার রশিদপুর বড়চালা এলাকার মৃত শামীম হোসেনের মেয়ে সাদিয়া আক্তার মিম(২০) এবং একই এলাকার শাহ -আলম সরকারের ছেলে শিমুল সরকারের স্ত্রী।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রায় ২বছর আগে সাদিয়া আক্তার মিমের সাথে শিমুলের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের কিছু দিন পর থেকে স্বামী বিভিন্ন সময় সাদিয়াকে যৌতুকের জন্য চাপ দিতো। এছাড়া স্বামী সাথে সাথে স্বামীর পরিবারও বিভিন্ন সময় যৌতুক দাবি করতেন এবং নানা রকমের অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতেন। এটা এক সময় জীবন নাশের হুমকিতেও পরিণত হয়। এবিষয় নিয়ে দুই পরিবার একাধিক বার বসেও কোনো সমাধান হয়নি। পরে যৌতুকের দাবিতে মাস খানেক আগে সাদিয়ার বাবার কাছে মোটরসাইকেল কেনার জন্য ৫০হাজার টাকা দাবি করে শিমুল ও তার পরিবার। নিহতের পরিবার টাকা দিতে রাজি না হওয়াতে ২দিন ধরে বেধর মারধর করে শিমুল সাদিয়াকে। এসময় কোনো খাবারও দেওয়া হয়নি সাদিয়াকে। এ বিষয় নিয়ে দুই পরিবার বুধবার সন্ধ্যায় মিমাংসা হলেও মনের আক্রোশ মেটাতে রাতে ওই নারীকে হত্যা করে ঘরের মেঝে মধ্যে ফেলে রেখে তার স্বামী ও স্বামীর পরিবার দাবি নিহতের পরিবারের। পরে কৌশল করে পালিয়ে যায় স্বামী ও শ্বশুর। তারা এখনো পলাতক রয়েছে। পরের দিন (১৬ সেপ্টেম্বর) বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয়দের খবরের ভিত্তিতে পুলিশ লাশ উদ্ধার করেন। পরে ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

আরও পড়ুন: 


চীনে ১০ কি.মি. গভীরতার শক্তিশালী ভূমিকম্পের হানা

দুবলার চর থেকে খুলনা কাঁকড়া পরিবহনে বাধা নেই: হাইকোর্ট


নিহতের স্বজন আবু সাইদ জানান, সাদিয়াকে তার স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোক মাঝে মাঝে যৌতুকের জন্য চাপ দিয়ে আসছিল এবং মাঝে মাঝে মারধোর করতো স্বামী ও তার পরিবার। এর মাঝে মোটরসাইকেল কিনবে বলে ৫০হাজার টাকা দাবি করে। টাকা দিতে না পারায় মেয়েটিকে খুব মারধর করে। সকালে জানতে পারি সাদিয়া মারা গেছে। আমাদের সন্দেহ ওর স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোক ওকে হত্যা করেছে। তা না হলে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোক পলাতক কেন? আমরা অভিযোগ দিতে চাইছি। তবে পুলিশ বলছে ইউডি মামলা করার জন্য এতে নাকি ময়নাতদন্তের পর সব বেড়িয়ে আসবে।

কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম জানান, নিহতে পরিবার ইউডি মামলা করার প্রস্তুতি করছে। আমরা মামলা নিয়ে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব। তবে স্বামীর পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে সাদিয়া নাকি ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর জানা যাবে এটা হত্যা না আত্মহত্যা।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

মেয়র আতিকুলের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলা খারিজ

অনলাইন ডেস্ক

মেয়র আতিকুলের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলা খারিজ

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আস সামছ জগলুল হোসেনের আদালতে এ মামলাটি করেন রাজধানীর ভাষানটেক পুনর্বাসন প্রকল্পের রূপকার মো. আব্দুর রহিম। এরপর আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। কিন্তু মামলা নেওয়ার মতো কোনো উপাদান না থাকায় এটি খারিজ করে দেন আদালত।

সাইবার ট্রাইব্যুনালের পেশকার শামীম আল মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন:


পিএসসির প্রশ্ন ফাঁস করলে ১০ বছরের জেল: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

গাজীপুর সাফারি পার্কে জেব্রা পরিবারে নতুন অতিথি

‘সংখ্যালঘু’ শব্দটি থাকা উচিত না

পায়রা সেতুর উদ্বোধন ২৪ অক্টোবর

এর আগে, মো. আব্দুর রহিম নামের এক ব্যক্তি আজ মঙ্গলবার ঢাকা সাইবার ট্রাইব্যুনালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮ এর ২৫/২৯ ধারায় মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে মেয়র আতিকুলের বিরুদ্ধে বাদীর সম্পত্তি দখল, বিভিন্ন মিডিয়ায় ডিজিটাল ডিভাইসের মাধ্যমে বাদী ও তার পরিবারের সম্পর্কে আক্রমণাত্মক, মিথ্যা, ভীতি প্রদর্শক ও মানহানীকর তথ্য প্রকাশের অভিযোগ আনা হয়েছিল।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

শপথ নিলেন স্থায়ী নিয়োগ পাওয়া ৯ বিচারপতি

অনলাইন ডেস্ক

শপথ নিলেন স্থায়ী নিয়োগ পাওয়া ৯ বিচারপতি

সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে স্থায়ী নিয়োগ পাওয়া ৯ বিচারপতি শপথ নিয়েছেন। আজ সকাল ১১টার দিকে সুপ্রিম কোর্টের জাজেস লাউঞ্জে শপথ অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন স্থায়ী বিচারপতি হিসেবে শপথবাক্য পাঠ করান। এসময় ৯ বিচারপতির স্ত্রী, সন্তানরা জাজেস লাউঞ্জে উপস্থিত ছিলেন।

শপথ নেওয়া বিচারপতিরা হলেন- বিচারপতি মুহম্মদ মাহবুব-উল ইসলাম, বিচারপতি শাহেদ নূরউদ্দিন, বিচারপতি মো. জাকির হোসেন, বিচারপতি মো. আখতারুজ্জামান, বিচারপতি মো. মাহমুদ হাসান তালুকদার, বিচারপতি কাজী ইবাদত হোসেন, বিচারপতি কে এম জাহিদ সারওয়ার, বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হক ও বিচারপতি কাজী জিনাত হক।

এর আগে, রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে সোমবার (১৮ অক্টোবর) আইন বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বরত সচিব মো. গোলাম সারওয়ারের স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এই নিয়োগ দেওয়া হয়।

# হাইকোর্টের স্থায়ী বিচারপতি হলেন ৯ জন

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

হাইকোর্টের স্থায়ী বিচারপতি হলেন ৯ জন

অনলাইন ডেস্ক

হাইকোর্টের স্থায়ী বিচারপতি হলেন ৯ জন

সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে ৯ জন অতিরিক্ত বিচারপতিকে স্থায়ী বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে সোমবার (১৮ অক্টোবর) আইন বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বরত সচিব মো. গোলাম সারওয়ারের স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এই নিয়োগ দেওয়া হয়।

স্থায়ী হওয়া বিচারপতিরা হলেন- বিচারপতি মুহম্মদ মাহবুব-উল ইসলাম, বিচারপতি শাহেদ নূরউদ্দিন, বিচারপতি মো. জাকির হোসেন, বিচারপতি মো. আখতারুজ্জামান, বিচারপতি মো. মাহমুদ হাসান তালুকদার, বিচারপতি কাজী ইবাদত হোসেন, বিচারপতি কে এম জাহিদ সারওয়ার, বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হক ও বিচারপতি কাজী জিনাত হক।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

কিউকমের আরজে নিরব ও রিপন মিয়া ফের রিমান্ডে

অনলাইন ডেস্ক

কিউকমের আরজে নিরব ও রিপন মিয়া ফের রিমান্ডে

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান কিউকমের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) রিপন মিয়ার দুইদিন ও হেড অব সেলস (কমিউনিকেশন অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন) অফিসার হুমায়ুন কবির ওরফে আরজে নিরবের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) বিকেলে শুনানি শেষে এই রিমান্ডের আদেশ দেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ উর রশিদের আদালত।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লালবাগ থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা এসআই হেলাল উদ্দিন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

১৩ বছর পর হত্যা মামলার রায়ে যুবকের মৃত্যুদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক

১৩ বছর পর হত্যা মামলার রায়ে যুবকের মৃত্যুদণ্ড

কিশোরগঞ্জে কৃষক বাচ্চু মিয়া হত্যা মামলায় জসিম উদ্দিন (৩৫) নামের একজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত চারজনকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন।

আজ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ নার্গিস ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন। 

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জসিম উদ্দিন, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার কর্শা কড়িয়াইল ইউনিয়নের মনাকর্শা গ্রামের আবদুল মজিদের ছেলে।

মামলার এজাহার ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, মনাকর্শা গ্রামের জসিম উদ্দিনের সঙ্গে পুকুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে বিরোধ ছিল একই এলাকার কৃষক বাচ্চু মিয়ার। ২০০৮ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর বিকালে  বাচ্চু মিয়া স্থানীয় বাজারে ধান বিক্রি করতে যাচ্ছিলেন। এ সময় জসিম উদ্দিন ও তার ভাইয়েরা রাস্তায় বাচ্চু মিয়াকে কুপিয়ে হত্যা করেন।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


এ ঘটনায় ঐদিন রাতেই বাচ্চু মিয়ার বড় ভাই হারুনুর রশীদ বাদী হয়ে ছয়জনকে আসামি করে কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে ২০১০ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি পাঁচজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। দীর্ঘ ১৩ বছর পর এ রায় দেন বিচারক। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর