ট্রেন থেকে দুই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাল উত্তর কোরিয়া

অনলাইন ডেস্ক

ট্রেন থেকে দুই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাল উত্তর কোরিয়া

ক্ষেপণাস্ত্রবাহী রেল রেজিমেন্ট থেকে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কেসিএনএ আজ (বৃহস্পতিবার) এ তথ্য জানিয়েছে।

ক্ষেপণাস্ত্র দুটি উৎক্ষেপণের পর সেগুলো ৮০০ কিলোমিটার দূরে উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকূলে গিয়ে পড়ে।

চলতি বছরের শুরুতেই রেজিমেন্টটি গঠন করা হয়।

উত্তর কোরিয়ার সেনা কর্মকর্তা মার্শাল পাক জং চোঁ-এর বরাত দিয়ে কেসিএনএ জানায়, দেশটির জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়ানো যেকোনো শক্তিকে মোকাবিলা করতে এ ক্ষেপণাস্ত্রব্যবস্থার নকশা করা হয়েছে। এর পরিসর আরও বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

এ ছাড়া ক্ষেপণাস্ত্রের কিছু ছবি প্রকাশ করেছে উত্তর কোরিয়া।

সেগুলোয় দেখা যায়, দেশটির পার্বত্য অঞ্চলে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেন থেকে একটি ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন: 


রাসেলের বাসায় র‌্যাবের অভিযান চলছে

স্ত্রী হত্যার অভিযোগ, স্বামী-শ্বশুর পলাতক

চীনে ১০ কি.মি. গভীরতার শক্তিশালী ভূমিকম্পের হানা

দুবলার চর থেকে খুলনা কাঁকড়া পরিবহনে বাধা নেই: হাইকোর্ট


গতকালের ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের মধ্য দিয়ে এক সপ্তাহের কম সময়ের মধ্যে দুবার নতুন ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাল উত্তর কোরিয়া।

এর আগে গত সোমবারই নতুন একটি দূরপাল্লার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানোর খবর প্রকাশ করে কেসিএনএ।

ওই ক্ষেপণাস্ত্র ১ হাজার ৫০০ কিলোমিটার বা ৯৩০ মাইল দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম বলে জানানো হয়।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

নাইজেরিয়ার বন্দুকধারীদের হামলায় কমপক্ষে ৪৩ জন নিহত

অনলাইন ডেস্ক

নাইজেরিয়ার বন্দুকধারীদের হামলায় কমপক্ষে ৪৩ জন নিহত

নাইজেরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় সোকোটো রাজ্যে বন্দুকধারীদের হামলায় অন্তত ৪৩ জন মারা গেছেন। স্থানীয় একটি সাপ্তাহিক বাজারে গেল রোববার থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত এ ঘটনা ঘটে।

প্রদেশটির গভর্নরের কার্যালয়ের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, রোববার স্থানীয় গরন্য এলাকায় সাপ্তাহিক বাজারে এলোপাথাড়ি গুলি চালায় সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। হামলার সময় বাজারে অনেক ক্রেতা-বিক্রেতাদের ভিড় ছিল। সোমবার সকাল পর্যন্ত অব্যাহত ছিল এ হামলা। এতে অন্তত ৪৩ জনের মৃত্যু হয়।


আরও পড়ুন:

পিএসসির প্রশ্ন ফাঁস করলে ১০ বছরের জেল: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

গাজীপুর সাফারি পার্কে জেব্রা পরিবারে নতুন অতিথি

‘সংখ্যালঘু’ শব্দটি থাকা উচিত না

পায়রা সেতুর উদ্বোধন ২৪ অক্টোবর


হামলার সময় প্রাণ নিয়ে পালানোর চেষ্টার সময়েও অনেকে আহত হন। গেল ১২ বছর ধরে নাইজেরিয়াভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী বোকো হারাম আইএসের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে আসছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত 

পরবর্তী খবর

ভারতে ভারী বৃষ্টিপাতে নিহত বেড়ে ৪০

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে ভারী বৃষ্টিপাতে নিহত বেড়ে ৪০

ভারতের কেরালাসহ কয়েকটি রাজ্যে টানা বৃষ্টিতে সৃষ্ট বন্যায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪০ জনে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকায় এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, 'সোমবার পর্যন্ত নিম্নচাপের বৃষ্টিতে কেরালায় ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। বন্যার পানিতে ধস নেমে মারা গিয়েছেন অধিকাংশ মানুষ। নিখোঁজ আরও অনেকে। এই পরিস্থিতিতে দু’টি বড় নদীবাঁধের লকগেট খোলার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে কেরালা প্রশাসন। ফলে পরিস্থিতির আরও অবনতির আশঙ্কা থাকছে।'  

এদিকে গতকাল সোমবার কেরালার পানিমন্ত্রী রসি অগাস্টিন জানান, ইদ্দুকি বাঁধের পানি যেকোনো মুহূর্তে বিপদসীমা পেরিয়ে যাবে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়।

গতকাল সোমবার সকাল ৭টায় ছিল বিপদসীমার মাত্র দুই ফুট নিচে পানি। আজ মঙ্গলবার সেই সীমা পেরিয়ে যায়।

আরও পড়ুন


এশিয়ার শীর্ষ ধনী মুকেশ আম্বানির বাড়ির অন্দরমহলের খবর একনজরে

ইউপি ও পৌরসভা নির্বাচনে আরও খুনোখুনির আশঙ্কা

দলে পরিবর্তন, এক নজরে ওমানের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ পররাষ্ট্রমন্ত্রী কলিন পাওয়েল মারা গেছেন


রাজ্যের অধিকাংশ জেলা যেখানে প্লাবিত, সেখানে বাঁধের পানি ছাড়লে বিপদ আরও বাড়তে পারে বলে বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন। 

কেরালা ছাড়াও সোমবার উত্তরাখণ্ড, পশ্চিমবঙ্গ, রাজস্থান, দিল্লিসহ ভারতের আরও ১০টি রাজ্যে ভারী বৃষ্টি হয়েছে।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

থামছে না সোশ্যাল মিডিয়ায় নারীবিদ্বেষী মন্তব্য, বিবিসি সাংবাদিকের প্রশ্ন

অনলাইন ডেস্ক

থামছে না সোশ্যাল মিডিয়ায় নারীবিদ্বেষী মন্তব্য, বিবিসি সাংবাদিকের প্রশ্ন

শুধু ঘর কিংবা ঘরের বাইরে নয়, নারীরা অনলাইন বা সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মেও নিরাপদ নয়। কিন্তু নারীরা সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোতে কতটা অনিরাপদ তার উত্তর খুঁজে বের করার চেষ্টা করেছেন বিবিসির প্রথম স্পেশালিষ্ট ডিজইনফরমেশন রিপোর্টার মারিয়ানা স্প্রিং।

তিনি বলেন, আমি অনলাইনে প্রতিদিন অসংখ্য গালিগালাজপূর্ণ অবমাননাকর মেসেজ পাই। এগুলো এতোটাই আক্রমণাত্মক যে পরিমার্জন ছাড়া প্রকাশের উপযুক্ত নয়। কিন্তু কেন? আমার মূলত অনলাইনে ষড়যন্ত্রমূলক ও ভুয়া নিউজ খুঁজে বের করা এবং এর প্রভাব নিয়ে কাজ করি। কাজের অংশ হিসেবে সমালোচনার শিকার হতে হবে এটা জানা কথা, কিন্তু মন্তব্যগুলো খুবই নারীবিদ্বেষী।

প্রতিবেদনে মারিয়ানা বলেন, এটা শুধু আমি নই, বিশ্বজুড়ে রাজনীতিবিদ থেকে শুরু করে রিয়েলিটি-শো লাভ আইল্যান্ডের ডক্টর পর্যন্ত সকলের কাছ থেকেই নারীকে উদ্দেশ্য করে ঘৃণামূলক উক্তি ব্যবহার করতে দেখা যায়। নতুন এক গবেষণায় দেখা যায়, অনলাইনে নারীরা পুরুষের তুলনায় অপেক্ষামূলক বেশি আক্রমণের শিকার হয়।

অনলাইনে নারীদের আক্রমণের শিকার হওয়ার বিষয় পর্যবেক্ষণের জন্য বিবিসির একটি দল পাঁচটি জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে একটি ভুয়া ট্রল অ্যাকাউন্ট তৈরি করে। যেখানে তারা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে একটি গবেষণা চালায়।

এর অংশ হিসেবে ৯০ হাজারের বেশি পোস্ট ও মন্তব্য বিশ্লেষণ করে দলটি দেখতে পায়-

- তাদের ট্রল অ্যাকাউন্টকে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে আরও বেশি করে নারী বিরোধী কনটেন্ট সুপারিশ করে। যার মধ্যে কিছু ছিল যৌন সহিংসতা নিয়েও।

- রিয়েলিটি-শো তে নারী প্রতিযোগীরা অসমভাবে লক্ষ্যবস্তু হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এখানে প্রায়ই তারা নারীবিদ্বেষী ও বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার হয়।

যদিও সোশ্যাল মিডিয়াগুলো বলছে তারা নারীদের বিরুদ্ধে অনলাইনে ঘৃণা ছড়ানোর বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নেয়। যারা এগুলোতে নারীবিদ্বেষ ছড়ায় তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকাউন্ট স্থগিত করা, নিষেধাজ্ঞা প্রদান করা, এমনকি বন্ধ করে দেয়ার মতো ব্যবস্থা নেয়ার নিয়ম আছে।

আরও পড়ুন:

মেয়াদ-বেতন দুটোই বাড়ছে টাইগার কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর

পরের দুই ম্যাচ জিতলেও মূল পর্ব অনিশ্চিত টাইগারদের

নবীর ভবিষ্যদ্বাণী, বৃষ্টির মতো বিপদ নেমে আসবে

ডেলিভারি বয় থেকে বিশ্বকাপে অঘটনের নায়ক


কিন্তু মারিয়ানা স্প্রিং নিজের অভিজ্ঞতা থেকে জানান, তারা প্রায়ই এসবের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয় না। তিনি বলেন, আমাকে উদ্দেশ্য করে পাঠানো ভয়ংকর খারাপ কিছু বার্তার বিরুদ্ধে আমি রিপোর্ট করি। কিন্তু কয়েক মাস পরেও সেই অ্যাকাউন্টগুলো ফেসবুকেই থেকে যায়।
 
তিনি বলেন, আমার অভিজ্ঞতায় এটি একটি প্যাটার্নের অংশ। সেন্টার ফর কাউন্টারিং ডিজিটাল হেট -এর এক নতুন গবেষণায় দেখা গেছে টুইটার ও ইনস্টাগ্রামে ৩০০টি অ্যাকাউন্টের ৯৭ শতাংশই রিপোর্টের পরেও বন্ধ করা হয়নি। 

তবে টুইটার এবং ইনস্টাগ্রাম বলছে তাদের নিয়ম লঙ্ঘন করলেই পদক্ষেপ নেয়া হয় এবং অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা একমাত্র বিকল্প নয়।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

স্ত্রীর ২২তম জন্মদিনের উপহার ৬ কোটি টাকার গাড়ি!

অনলাইন ডেস্ক

স্ত্রীর ২২তম জন্মদিনের উপহার ৬ কোটি টাকার গাড়ি!

ভালোবাসার নিদর্শনস্বরূপ দামি উপহার আদানপ্রদান বেশ প্রচলিত একটি পদ্ধতি। স্ত্রীর ২২তম জন্মদিনে তাই ছয় কোটি টাকার 'রোলস রয়েস' উপহার দিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের পাশাপাশি সংবাদমাধ্যমেরও নজর কেড়েছেন এক ভারতীয় স্বামী। 

দুবাই ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, দুবাইয়ে বসবাসকারী ভারতীয় ব্যবসায়ী আমজাদ সিতারা বিসিসি গ্রুপের সিইও। তার স্ত্রী মারজানার জন্মদিনে ছয় কোটি টাকা দামের একটি ‘রোলস রয়েস’ গাড়ি উপহার দেন তিনি। উপহার দেওয়ার সময়ে ভিডিও ধারণ করা হয়। পরে আমজাদ ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করলে তা ভাইরাল হয়।

খালিজ টাইমসকে মারজানা বলেন, আমাদের সন্তানের বয়স মাত্র একমাস। আমার কোন ধারণাই ছিল না সে আমাকে এই গাড়িটা উপহার দেয়ার চিন্তা করছে। এটা অনেক বড় একটা সারপ্রাইজ ছিল। আমি গাড়ি খুবই ভালোবাসি, আর এটা ছিল আমার স্বপ্নের গাড়ি। এর আগেই সে (সিতারা) আমাকে একটা মার্সিডিজ ই-ক্লাস উপহার দিয়েছিল।

আরও পড়ুন:

মেয়াদ-বেতন দুটোই বাড়ছে টাইগার কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর

পরের দুই ম্যাচ জিতলেও মূল পর্ব অনিশ্চিত টাইগারদের

নবীর ভবিষ্যদ্বাণী, বৃষ্টির মতো বিপদ নেমে আসবে

ডেলিভারি বয় থেকে বিশ্বকাপে অঘটনের নায়ক


প্রসঙ্গত, ২০২০ সালে ৪ জানুয়ারি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তারা। স্ত্রীর জন্মদিনের পাশাপাশি এ বছর ছিল তাদের প্রথম বিবাহবার্ষিকী। করোনা মহামারির কারণে এবার তারা বিবাহবার্ষিকী উদযাপন করতে না পারলেও স্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে চমক দিতে ভুলেননি এই ভারতীয় ধনকুবের।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

লাফিয়ে বাড়ছে ডলারের দাম

অনলাইন ডেস্ক

লাফিয়ে বাড়ছে ডলারের দাম

রপ্তানি আয়ে ধীরগতি ও প্রবাসী আয়ের নিম্নমুখী প্রবণতার মধ্যে বিভিন্ন পণ্যের আমদানি চাহিদা বাড়ায় ব্যাংকগুলোতে মার্কিন ডলারের সংকট দেখা দিয়েছে। ঘাটতি মেটাতে তারা কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে মার্কিন ডলার কিনছে। এ কারণে প্রায় প্রতিদিনই বাড়ছে ডলারের দাম। বাংলাদেশ ব্যাংক ও বাণিজ্যিক ব্যাংক সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, গত রবিবার ডলারের বিপরীতে টাকার মান কমেছে প্রায় পাঁচ পয়সা। অর্থাৎ ডলারের দাম বেড়েছে। গতকাল সোমবার আন্ত ব্যাংক মুদ্রাবাজারে প্রতি ডলার বিক্রি হচ্ছে ৮৫ টাকা ৬৫ পয়সায়। এর প্রভাব পড়েছে খোলাবাজারেও। খোলাবাজারে প্রতি ডলার কিনতে এখন খরচ হচ্ছে প্রায় ৮৯ টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যানুযায়ী, গত ৫ আগস্ট আন্ত ব্যাংক মুদ্রাবাজারে প্রতি ডলার ৮৪ টাকা ৮০ পয়সায় বিক্রি হয়। ওই মাসে খোলাবাজারে ডলার বিক্রি হয়েছে ৮৭ টাকা ৪০ পয়সা থেকে ৮৭ টাকা ৫০ পয়সায়। আড়াই মাসেরও কম সময়ে ডলারের বিপরীতে টাকা ৮৫ পয়সা দর হারিয়েছে। আর খোলাবাজারে কমেছে প্রায় দেড় টাকা।

ডলারের দাম নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখতে বাজারে ডলার বিক্রি বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। চলতি অক্টোবর মাসের প্রথম ১৩ দিনে বিক্রি করা হয়েছে প্রায় ৩৫ কোটি ডলার। এটি আগস্ট মাসের পুরো সময়ের চেয়ে চার কোটি ডলার বেশি। সব মিলে গত আড়াই মাসে প্রায় ১২৯ কোটি ডলার বিক্রি করা হয়েছে। দেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ১১ হাজার কোটি টাকা।

সাধারণত ডলারের দাম বাড়লে প্রবাসী ও রপ্তানিকারকরা লাভবান হন। আর ক্ষতিগ্রস্ত হন আমদানিকারক ও সাধারণ মানুষ। কারণ ডলারের দাম বাড়লে পণ্যমূল্যও বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘ব্যবসা-বাণিজ্য স্বাভাবিক হওয়ায় এখন আমদানি বেশ বাড়ছে। আবার বিলম্বে পরিশোধ শর্তে যেসব পণ্য আমদানি করা হয়েছিল, সেগুলোও পরিশোধ করতে হচ্ছে। করোনার টিকা আমদানির অর্থও পরিশোধ করতে হচ্ছে। সব মিলিয়ে ডলারের চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় দামও বাড়ছে।’ তবে সংকট সামাল দিতে বাজারে প্রয়োজনীয় ডলার সরবরাহ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হওয়ার পর দেশে আমদানির গতি বাড়ছে। মূলধনী যন্ত্রপাতি, শিল্পের কাঁচামাল, শিল্পের মধ্যবর্তী পণ্য, খাদ্যপণ্য, জ্বালানি তেলসহ সব পণ্যের আমদানিই এখন বেশ ঊর্ধ্বমুখী।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে (জুলাই-আগস্ট) এক হাজার ৭৬ কোটি ডলারের পণ্য আমদানি করা হয়েছে। এই অঙ্ক গত অর্থবছরের (২০২০-২১) একই সময়ের চেয়ে ৪৫.৩১ শতাংশ বেশি। অন্যদিকে একই সময়ে এক হাজার ২১৩ কোটি ডলারের বিভিন্ন পণ্য আমদানির ঋণপত্র (এলসি) খোলা হয়েছে। এই অংশ গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ৪৮.৬০ শতাংশ বেশি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) বলেন, বাজারের সরবরাহের চেয়ে ডলারের ঘাটতি রয়েছে। বেশির ভাগ ব্যাংকেই চলছে ডলারের সংকট। এর কারণ রপ্তানি আয়ের ধীরগতি ও প্রবাসী আয় কমে যাওয়া। কিন্তু আমদানি বাড়ছে বেশ গতিতে। তিনি আরো বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক খুব প্রয়োজন ছাড়া কোনো ব্যাংকের কাছে ডলার বিক্রি করছে না।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য বলছে, গত জুন থেকে প্রবাসী আয় কমছে। সেপ্টেম্বর মাসে দেশে যে পরিমাণ প্রবাসী আয় এসেছে, তা আগের মাসের চেয়ে প্রায় সাড়ে ৪ শতাংশ এবং গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ২০ শতাংশ কম। এ ছাড়া চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসের হিসাবে প্রবাসী আয়ের প্রবাহ কমেছে প্রায় সাড়ে ১৯ শতাংশ। আর চলতি অক্টোবর মাসের প্রথম ১৪ দিনে দেশে এসেছে মাত্র ৮৮ কোটি ডলার।

অন্যদিকে চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে রপ্তানি আয় বেড়েছে মাত্র ১১.৩৭ শতাংশ।

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে দেশে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে একই জায়গায় ‘স্থির ছিল ডলারের দর। গত ৫ আগস্ট থেকে টাকার বিপরীতে ডলারের দাম বাড়তে শুরু করে। এখন প্রায় প্রতিদিনই বাড়ছে দাম।

আরও পড়ুন


যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ পররাষ্ট্রমন্ত্রী কলিন পাওয়েল মারা গেছেন

বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ, আরও দুদিন বৃষ্টির সম্ভাবনা

চিকিৎসকের আত্মহত্যা, লাশের পাশে পড়ে থাকা চিঠিতে যা লেখা ছিল

আরেক দফায় বেড়েছে ভোজ্য তেলের দাম, সয়াবিন লিটার প্রতি ১৬০ টাকা


বাজার স্থিতিশীল রাখতে গত আগস্ট মাসে রেকর্ড পরিমাণ ডলার বিক্রি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ওই মাসে ৬৪ কোটি ১০ লাখ ডলার বিক্রি করা হয়। তবে সেপ্টেম্বর মাসে বিক্রির পরিমাণ কিছুটা কমে হয় ৩০ কোটি ৫০ লাখ ডলার। আর অক্টোবর মাসের প্রথম ১৩ দিনে বিক্রি করা হয়েছে ৩৪ কোটি ৭০ লাখ ডলার। সব মিলে চলতি অর্থবছরের আগস্ট থেকে ১৩ অক্টোবর পর্যন্ত ১২৯ কোটি ৩০ লাখ ডলার বিক্রি করা হয়েছে। অথচ চাহিদা না থাকায় চলতি অর্থবছরের প্রথম মাসেও কোনো ডলার বিক্রি করতে হয়নি বাংলাদেশ ব্যাংককে। উল্টো জুলাইয়েও ব্যাংকগুলো থেকে ২০ কোটি ৫০ লাখ ডলার কিনেছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। গত অর্থবছরে প্রায় ৮০০ কোটি ডলার কেনা হয়েছিল।

নিয়ম অনুযায়ী, ব্যাংকগুলো চাইলেও বাড়তি ডলার নিজেদের কাছে রাখতে পারে না। বাংলাদেশ ব্যাংকের নীতিমালা অনুযায়ী, একটি ব্যাংক তার মূলধনের ১৫ শতাংশের সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা নিজেদের কাছে রাখতে পারে। এর অতিরিক্ত হলেই তাকে বাজারে ডলার বিক্রি করতে হবে।

সূত্র: কালের কণ্ঠ 

 

পরবর্তী খবর