কুষ্টিয়ার কহিনূর ভিলা গণহত্যা দিবস

জাহিদুজ্জামান:

১৮ সেপ্টেম্বর। কুষ্টিয়ার কহিনূর ভিলা গণহত্যা দিবস। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে এই বাড়ির ১৬ জনকেই গলাকেটে হত্যা করে রাজাকার ও বিহারীরা। মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তা করে স্বাধীনতার পক্ষে থাকায় একটি পরিবার নিশ্চিহ্ন হয়ে গেলেও তাদের স্মৃতি রক্ষায় নেয়া হয়নি কোন উদ্যোগ। বাড়ির সামনে যে স্মৃতিফলক আছে সেখানে অস্পস্ট হয়ে গেছে শহিদদের নাম।

১৯৭১ সালে ১৮ সেপ্টেম্বর সকালে এই বাড়ির সামনে ড্রেনে রক্ত দেখে আঁতকে ওঠেন স্থানীয়রা। তখনও কেউ বুঝতেই পারেনি রাত গভীরে কী নৃশংসতা চলেছে কহিনূর ভিলায়। মুক্তিযোদ্ধাদের রুটি আর পানি দেয়ার অপরাধে রাজাকার ও বিহারীরা বাড়ির ১৬ জনকে গলা কেটে হত্যা করে।

আরও পড়ুন:


নোটিশ দিয়ে ইভ্যালির অফিস বন্ধ রাখার ঘোষণা

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার যশোরে লিখিত অভিযোগ

ইভ্যালী-পঞ্জি স্কীমস: কই এর তেলে তিমি ভাজা!

যদি পারি অবশ্যই আমি বাংলায় গান গাইবো : ইয়োহানি


বিভৎস মরদেহগুলো বাড়ির পেছনেই গণকবর দেন স্থানীয়রা। দেশ স্বাধীনের পর এই পরিবারের উত্তরসূরীরা ভারত থেকে এসে কহিনূর ভিলায় বসবাস শুরু করেন। এ গণহত্যার শিকার যারা আজো পায়নি শহিদের মর্যাদা, নেয়া হয়নি স্মৃতি সংরক্ষণের উদ্যোগ

কোন উদ্যোগ নেয়া হবে কী না- প্রশ্ন ছিলো জেলা প্রশাসকের কাছে।

কহিনূর ভিলাকে অধিগ্রহণ করে স্মৃতি জাদুঘর করার প্রস্তাব রয়েছে মুক্তিযোদ্ধাদের।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

চুয়াডাঙ্গার তরুণ উদ্ভাবন করেছেন মৎস্য চাষের নিরাপত্তাযন্ত্র

জামান আখতার, চুয়াডাঙ্গা

চুয়াডাঙ্গার তরুণ উদ্ভাবন করেছেন মৎস্য চাষের নিরাপত্তাযন্ত্র

আধুনিক মৎস্য চাষকে সহজ করতে ‘পন্ডগার্ড’ নামের একটি যন্ত্র উদ্ভাবন করেছেন চুয়াডাঙ্গার তরুণ উদ্ভাবক আহমেদুল কবীর উপল। এর ফলে দেশের মৎস্যচাষে যান্ত্রিকীকরণ আরো একধাপ এগিয়ে যাবে। কমে আসবে শ্রমিক নির্ভরতা। সাশ্রয় হবে খরচ। সরকারি-বেসরকারি সহযোগিতায় যন্ত্রটি মৎস্যচাষীদের কাছে পৌঁছে দেয়া গেলে মাছ উৎপাদনে আরো সমৃদ্ধ হবে বাংলাদেশ।

আইপি ক্যামেরা, ব্যাটারি, সোলার প্যানেলের সাথে কিছু যন্ত্র আর অ্যাপভিত্তিক প্রযুক্তির সমন্বয়ে তৈরি হয়েছে ‘পন্ডগার্ড’। যন্ত্রে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে সোলার সিস্টেম। যন্ত্রটি নিভৃতপল্লীতে থাকা মাছের খামারের নিরাপত্তায় ব্যবহার করা যাবে। বাড়িতে বসেই দূরের মৎস্য প্রকল্পে করা যাবে নজরদারি। ফলে কমে আসবে শ্রমিক নির্ভরতা।

উদ্ভাবক জানান, বর্তমানে যন্ত্রটি কেবল নিরাপত্তা বিধানে কার্যকর হবে। পরবর্তিতে এটি আরো উন্নয়নের মাধ্যমে সংয়ক্রিয়ভাবে মাছের খাবার প্রদান করবে। একই সাথে পানির গুণগত মান নির্ণয় এবং ব্যবহারকারীকে বার্তা প্রেরণ করবে। যা ডিজিটাল পদ্ধতিতে সারাদেশের পানি গবেষণায়ও কাজে আসবে।

আরও পড়ুন


দ্রব্যমূল্য: টিসিবির পণ্য কিনতে দীর্ঘ লাইন

ফকির লালন সাঁইয়ের তিরোধান দিবস আজ, হচ্ছে না বাউল মেলা

পাত্র দেখানোর কথা বলে তরুণীকে আটকে রেখে ৩ দিন ধরে লাগাতার ধর্ষণ ঘটকের

চাকরির কথা বলে তরুণীকে হোটেলে নিয়ে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে নূর


উদ্ভাবকের মতে, ‘পন্ডগার্ডে’ ব্যবহৃত লাইটগুলি আলোকফাঁদ হিসেবে কাজ করছে। এতে একদিকে জলাশয় সংলগ্ন জমির কীটপতঙ্গ বিনাখরচে নিধন হচ্ছে। অন্যদিকে মাছের প্রোটিনের চাহিদাও মিটছে বিনামূল্যে।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা দীপক কুমার পাল বলেন, আহমেদুল কবীর উপল ইতিমধ্যে বেশ কিছু পরিবেশবান্ধব ও সাশ্রয়ী যন্ত্র উদ্ভাবন করে নীতিনির্ধারকদের নজরে এসেছেন। তার উদ্ভাবিত ‘সোলারবোট’ সরকারের এটুআই প্রকল্পে ব্যাপক প্রসংশিত হয়।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ফকির লালন সাঁইয়ের তিরোধান দিবস আজ, হচ্ছে না বাউল মেলা

জাহিদুজ্জামান, কুষ্টিয়া

ফকির লালন সাঁইয়ের তিরোধান দিবস আজ, হচ্ছে না বাউল মেলা

মরমী সাধক ফকির লালন সাঁইয়ের ১৩১তম তিরোধান দিবস আজ। করোনার কারণ দেখিয়ে এবারো বাউল মেলার আয়োজন বাতিল করেছে জেলা প্রশাসন।

তবে কুষ্টিয়ার ছেঁউড়িয়ায় আখড়াবাড়ি খোলা থাকায় জড়ো হয়েছেন সাধু-বাউল-ফকিররা। প্রথা অনুযায়ী তারা ভক্তি-শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন সাঁইজির চরণে।

এমন ঘোষণা দেয়া হয়েছে কয়েকদিন আগেই। ফকির লালনের দেহত্যাগের পর ১৩১ বছরে এবার দ্বিতীয়বারের মতো হচ্ছে না অনুষ্ঠান আয়োজন। তারপরও লালন ধামে অবস্থান নিয়েছেন সাধু-ফকির, বাউল-পাগলরা। জাতপাতহীন-মানবতার লালন দর্শন প্রচার হচ্ছে তারই গানে।

নিজস্ব রেওয়াজে ভক্তি-শ্রদ্ধা দিচ্ছেন লালন অনুসারীরা। তবে, অনুষ্ঠান না করার ঘোষণায় মর্মাহত তারা।

আখড়াবাড়ির বাইরে লালন একাডেমির মাঠে রোদ-বৃষ্টিতে কষ্ট করেও আছেন অনেক ফকির-বাউল।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

একাধিক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেম, ঘরে স্ত্রী রেখেই স্কুলছাত্রীকে বিয়ে মাদ্রাসা শিক্ষকের

অনলাইন ডেস্ক

একাধিক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেম, ঘরে স্ত্রী রেখেই স্কুলছাত্রীকে বিয়ে মাদ্রাসা শিক্ষকের

১৯ বছর বয়সী দশম শ্রেণির এক মাদরাসা ছাত্রীকে বিয়ে করার অভিযোগ উঠেছে সাতক্ষীরার তালার একই মাদরাসার শিক্ষক খায়রুল ইসলামের বিরুদ্ধে। খায়রুল ইসলাম মানিকহার দ্বিমুখী দাখিল মাদরাসার কম্পিউটার শিক্ষক ও ওমরপুর গ্রামের মৃত মুসলিম সানার ছেলে।

জানা গেছে, খায়রুল ইসলামের কাছে প্রাইভেট পড়তো ওই ছাত্রী। প্রাইভেট পড়ানোর সুযোগে কায়েক মাস আগে ওই ছাত্রীকে বিয়ে করেন খায়রুল। তিনি গত ১১ বছর আগে ওমরপুর এলাকার ওহাব মোড়লের মেয়ে তানিয়াকে বিয়ে করেন।

বিয়ের বিষয়ে খায়রুল ইসলাম বলেন, ‘আমার প্রথম স্ত্রীর অনুমতি নিয়েই ওই ছাত্রীকে বিয়ে করেছি। সে দশম শ্রেণিতে পড়লেও তার বয়স ১৯ বছর বলে দাবি করেন তিনি।

ওই ছাত্রীর পিতা বলেন, ‘খায়রুলকে আমি অনেক বিশ্বাস করতাম। আমার মেয়ে তার কাছে প্রাইভেট পড়তো। একমাত্র মেয়েকে ফুঁসলিয়ে বিয়ে করায় আমার স্ত্রী এবং আমি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছি।’

আরও পড়ুন


পাত্র দেখানোর কথা বলে তরুণীকে আটকে রেখে ৩ দিন ধরে লাগাতার ধর্ষণ ঘটকের

চাকরির কথা বলে তরুণীকে হোটেলে নিয়ে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে নূর

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসরের পর্দা উঠছে আজ

রোববার রাজধানীর যেসব এলাকার মার্কেট বন্ধ থাকবে


মানিকহার দ্বিমুখী দাখিল মাদরাসা সুপার ফজলুর রহমান জানান, আমি লোকমুখে শুনেছি খায়রুল আমাদের মাদরাসার এক ছাত্রীকে বিয়ে করেছে। কিন্তু এ ব্যাপারে কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

খায়রুল ইসলামের প্রথম স্ত্রীর ভাই আজহারুল ইসলাম জানান, আমার বোনের সঙ্গে ১১ বছর আগে খায়রুলের বিবাহ হয়। সে সময় খায়রুলের কিছুই ছিল না। আমরা টাকা খরচ করে তাকে চাকরি পাইয়ে দিয়েছি। খায়রুল চাকরি পাওয়ার পর তার প্রতিষ্ঠানের একাধিক শিক্ষার্থীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক করে। এ নিয়ে ইতোপূর্বে একাধিকবার শালিসও হয়েছে। সম্প্রতি খায়রুল তার প্রতিষ্ঠানের এক শিক্ষার্থীকে বিয়ে করেছে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

পাত্র দেখানোর কথা বলে তরুণীকে আটকে রেখে ৩ দিন ধরে লাগাতার ধর্ষণ ঘটকের

অনলাইন ডেস্ক

পাত্র দেখানোর কথা বলে তরুণীকে আটকে রেখে ৩ দিন ধরে লাগাতার ধর্ষণ ঘটকের

পাত্র দেখানোর কথা বলে বগুড়ার শিবগঞ্জে এক কলেজছাত্রীকে অপহরণ করে আটকে রেখে ৩ দিন ধরে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ঘটক শাহিনুরের বিরুদ্ধে। পরে অপহৃত কলেজছাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ। এসময় ওই ঘটককেও গ্রেপ্তার করা হয়।

গতকাল শনিবার (১৬ অক্টোবর) রাত ১১টার দিকে ঘটককে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত শাহিনুর রহমান (৪৩) শিবগঞ্জ থানার রায়নগর ইউনিয়নের করতকোলা গ্রামের মৃত মোবারক প্রাং এর ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঘটক শাহিনুরের পেশা ঘটকালি। সেই সূত্রে ওই কলেজছাত্রীর বাবার সঙ্গে পরিচয় হয় তার। ভালো ছেলের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার কথা বলে ঘটক শাহিনুর ওই কলেজ ছাত্রীকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে যান।

গত ১৩ অক্টোবর সকাল ১০টার দিকে ওই ছাত্রী কলেজে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। সন্ধ্যা পার হলেও বাড়ি না ফেরায় তার পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজ শুরু করেন। একপর্যায়ে ঘটকের বাড়িতে গিয়ে ঘটককে না পেয়ে তাদের মনে সন্দেহ হয়। ঘটককে ফোন দিলে ফোন রিসিভ করেননি।

আরও পড়ুন


চাকরির কথা বলে তরুণীকে হোটেলে নিয়ে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে নূর

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসরের পর্দা উঠছে আজ

রোববার রাজধানীর যেসব এলাকার মার্কেট বন্ধ থাকবে

কানাডায় ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি: চ্যালেঞ্জ কোথায়?’ আলোচনা অনুষ্ঠিত


আরও জানা গেছে, কয়েকদিন ধরে ঘটক এবং ওই ছাত্রীর সন্ধান করতে গিয়ে জানতে পারে শিবগঞ্জ থানার রহবল এলাকায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে ঘটক তার মেয়েকে নিয়ে আত্মগোপন করে আছেন। শনিবার (১৬ আক্টোবর) রাতে ওই ছাত্রীর পরিবারের লোকজন সেখানে গেলে ঘটক পালানোর চেষ্টা করেন। এসময় স্থানীয় লোকজন তাকে আটক করে গণধোলাই দেয়। পরে পুলিশে খবর দেয়া হলে ঘটক শাহিনুরকে গ্রেপ্তার এবং কলেজছাত্রীকে উদ্ধার করে। ঘটক শাহিনুর ভালো ছেলের সাথে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ইতোপূর্বে আরো ৩ জনকে বিয়ে করেন। কিন্তু পরে কেউ তার সংসার করেনি।

শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বলেন, অপহৃত কলেজছাত্রীকে ঘটক শাহিনুরের হেফাজত থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া শাহিনুরের বিরুদ্ধে কলেজছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মামলা করেন।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

চাকরির কথা বলে তরুণীকে হোটেলে নিয়ে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে নূর

অনলাইন ডেস্ক

চাকরির কথা বলে তরুণীকে হোটেলে নিয়ে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে নূর

চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় নিয়ে এক তরুণীকে পতিতাবৃত্তি করানোর অভিযোগে নুর আলম খান (৩৬) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ওই যুবকতে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় পৌর শহরের রেডসন হোটেল থেকে গ্রেপ্তার করা হয় নুর আলমকে। এ ঘটনায় মানবপাচার আইনে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, খুলনা থেকে গত বৃহস্পতিবার চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ওই তরুণীকে কুয়াকাটায় নিয়ে আসে আলমগীর। পরে তাকে হোটেল রেডিসনে নিয়ে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষয়টি জানতে পারে পুলিশ। পরে বিকালে হোটেল রেডিসনে অভিযান চালায় কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশ। এসময় ওই হোটেল থেকে আলমগীরকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং ওই তরুণীকে উদ্ধার করা হয়।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এ ঘটনায় মানবপাচার আইনে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

news24bd.tv এসএম

আরও পড়ুন


টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসরের পর্দা উঠছে আজ

রোববার রাজধানীর যেসব এলাকার মার্কেট বন্ধ থাকবে

কানাডায় ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি: চ্যালেঞ্জ কোথায়?’ আলোচনা অনুষ্ঠিত

ছড়াচ্ছিল দুর্গন্ধ, উৎস খুঁজতে গিয়ে মিলল চিকিৎসকের মরদেহ


 

পরবর্তী খবর