ইভ্যালি ধরলেও সমস্যা, ছাড়লেও সমস্যা! কোথায় যাবেন ফারিয়া?

অনলাইন ডেস্ক

ইভ্যালি ধরলেও সমস্যা, ছাড়লেও সমস্যা! কোথায় যাবেন ফারিয়া?

গত জুনে আলোচিত ই-কমার্স সাইট ইভ্যালির প্রধান প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। মাসখানেক আগে তিনি ওই কোম্পানি ছেড়ে তিনি চলে আসেন।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে ফারিয়া উল্লেখ করেন, ‘কিছু বিষয় এখন পরিস্কার করার সময় এসেছে। আমি জুন-জুলাই এই দুই মাস একটি “ই কমার্স সাইটে” তাদের গণসংযোগ বিভাগে কাজ করেছি। আমি সেখানে যোগদানের ১৫ দিন পর থেকেই বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি রিপোর্ট চলে আসায় তাদের কার্যক্রম অনেকটাই কমে এসেছিল। জুলাইয়ের পর আমার দাপ্তরিক কোন কাজই ছিল না! তাই আগস্টে আমি চাকরি ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্তে আসি।’

তিনি আরও জানান, ‘আমি কখনও প্রকাশ্যে কোথাও এই কোম্পানির প্রমোট করিনি। কখনো বলিনি আপনারা বিশ্বাস রাখেন কিংবা আস্থা রাখেন। কারণ সেখানে দাপ্তরিক কাজের বাইরে আমার কোনো কিছু প্রচার প্রকাশের কোনো চুক্তি ছিল না। যেহেতু আমি পেশায় অভিনেত্রী সুতরাং আমাকে কোনো কোম্পানির প্রচারের কাজে অংশ নিলে আলাদা সম্মানি দিতে হয়। সেখানে সেই সুযোগ নেই।’

চাকরি ছাড়ার বিষয়টি না জানানোর বিষয়ে ফারিয়া যুক্তি উপস্থাপন করেন, ‘আমি অহেতুক আলোচনার অংশ হতে চাইনি। আরিফ আর হোসাইন ভাই যখন বললেন, তিনি আর এখানে কাজ করছেন না। তখনও আপনারা তাকে নিয়ে ট্রোল করলেন। চাকরি ছাড়লেও সমস্যা, কাজ করলেও সমস্যা! কোথায় যাবো? অপ্রয়োজনীয় আলোচনার অংশ হতে ভাল লাগে না। কিন্তু আমার ভাগ্য এতো খারাপ কেন, আমারই সবসময় আলোচনা/সমালোচনায় পড়তে হয়।’

বিবৃতিতে তিনি প্রকাশিত কিছু সংবাদের প্রতি ক্ষোভ জানিয়ে বলেন, ‘কিছু গণমাধ্যম লিখছে আমি নাকি অভিযোগ করেছি বেতন পাইনি! কাকে অভিযোগ করেছি? কখন অভিযোগ করেছি? কীভাবে করেছি? এই প্রমাণ কেউ দিচ্ছে না! আমার অভিযোগ থাকলে সেটা আমি প্রতিষ্ঠানটির এইচআর ডিপার্টমেন্টে করবো। সাংবাদিক ভাইদের কেন করবো? তারা কি আমাকে বেতন দেবে?’

ইভ্যালি নিয়ে আশা প্রকাশ করে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি যেই কোম্পানিতে কাজ করেছি তারা এখন একটা খারাপ পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। আশা করবো, তারা সব দায় পরিশোধ করে গ্রাহকদের পাশে থাকবে!’

রও পড়ুন:

হাতিয়ায় দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৬

তৃতীয় স্বামীর কাছ থেকে মুক্তি পেতে মামলা করলেন শ্রাবন্তী

কুড়িগ্রামে ধর্ষণ মামলায় বিএনপি নেতা গ্রেপ্তার

অবশেষে ফুঁ দিয়ে আগুন ধরানো সেই সাধুবাবা গ্রেপ্তার


গত বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকালে মোহাম্মদপুরে স্যার সৈয়দ রোডের নিলয় কমপ্রিহেনসিভ হোল্ডিংয়ের (হাউজ নম্বর ৫/৫এ) বাসা থেকে ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল ও তার স্ত্রী প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনকে আটক করে র‍্যাব।

পরদিন শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) আদালত তাদের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রিমান্ডের প্রথম দিনে তাদেরকে কয়েক দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এর আগে বুধবার গভীর রাতে ইভ্যালির সিইও মো. রাসেল ও তার স্ত্রী প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনের বিরুদ্ধে প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে গুলশান থানায় মামলা দায়ের করেন আরিফ বাকের নামের এক গ্রাহক।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

বিভেদ ভুলে ফের বড় পর্দায় জায়েদ খান-মৌসুমী-ওমরসানী

ফাতেমা কাউসার

বিভেদ ভুলে ফের বড় পর্দায় জায়েদ খান-মৌসুমী-ওমরসানী

বিভেদ ভুলে আবারো একসাথে অভিনয় করলেন মৌসুমী, ওমরসানী ও জায়েদ খান। সিনেমার নাম “সোনার চর”। আর এই সিনেমা দিয়ে দীর্ঘদিন পর ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেন জায়েদ খান। গাজীপুরের পর বিএফডিসিতে চলছে সিনেমাটির দৃশ্যধারণের কাজ। 

বিএফডিসির কড়ইতলায় চলছে সোনার চর সিনেমার দৃশ্যধারণের কাজ। যেখানে সিনেমার প্রয়োজনেই রাখা হয়েছে সাপ, সাপুড়ে। দেখে যে কারো মনে হতে পারে কোনো বেদেপল্লীতে বসেছে নাচের আসর।

সাপের কাহিনী নিয়ে একসময় বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় ব্যবসাসফল সিনেমা নির্মিত হয়েছে। তবে সাম্প্রতিক সময়ে সাপ কেন্দ্রিক কোনো চলচ্চিত্র নেই বললেই চলে। নির্মাতা জাহিদ হাসান জানালেন এখনো দর্শক চাহিদা রয়েছে সর্পকাহিনীর সিনেমার।

এদিকে জায়েদ খানকে এই সিনেমায় দেখা যাবে একেবারেই ভিন্নরুপে। জানালেন এমন গল্পের সিনেমায় অভিনয়ের অভিজ্ঞতাও প্রথম তার।

সোনার চর সিনেমায় আরো অভিনয় করেছেন মৌসুমী ওমরসানী।  জায়েদ খানের বিপরীতে দেখা যাবে নবাগত জান্নাতুল ফেরদৌস স্নিগ্ধাকে।


আরও পড়ুন: 

ইংল্যান্ড ম্যাচের আগে টাইগার শিবিরে বড় দুটি দুঃসংবাদ

১০ মিনিটের সংঘর্ষে রণক্ষেত্র নয়াপল্টন

এনআইডি নিয়ে সরকারের নতুন পরিকল্পনার কথা জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


গত মাসে গাজীপুরের হোতাপাড়ায় সিনেমাটির শুটিং শুরু হয়েছিল। বিএফডিসিতে গানের দৃশ্যধারণ শেষে আগামী মাসে ভোলায় শুরু হবে সোনার চরের শেষ অংশের দৃশ্যধারণের কাজ।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

মা কালী সেজে জনগণকে তাক লাগালেন রিখিয়া

অনলাইন ডেস্ক

মা কালী সেজে জনগণকে তাক লাগালেন রিখিয়া

শিল্পীর এত সুনিপূন কারুকাজ দেখে হাজার বার তাকালেও চোখে ধরা পড়ছে না কোনও পার্থক্য। বার বার চোখ চলে যায় দেবামূর্তির দিকে। পেশায় রূপটান শিল্পী সোদপুরের মুক্তি রায়ের হাতেই সম্ভব হয়েছে এমন কাজ। সুক্ষ্ম হাতে মূর্তির আদল ফুটিয়ে তুলেছেন এক নারীর শরীরে।

আর মুক্তির একেক ধাপে সমান ধৈর্যে দেবীমূর্তি হিসেবে নিজেকে একটু একটু করে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছেন মডেল রিখিয়া চক্রবর্তী। দমদমের কন্যা নিজেকে গড়ে তুলতে সময় দিয়েছেন ঘণ্টার পর ঘণ্টা। আর নির্মাণ শেষে প্রণাম করেছে অনেকে। ভেবেছেন সত্যিকারের দেবীমূর্তি। কিন্তু নৈহাটির এই ‘বড় মা’ আসলে একটি ফটোশ্যুটের ফল।

মা কালী রূপে ভারতের দমদমের রিখিয়া

আনন্দবাজার সূত্রে জানা যায়, উত্তর ২৪ পরগনার নৈহাটির অরবিন্দ রোডে আয়োজন করা হয় জনপ্রিয় ‘বড় মা’ কালীর পুজো। গত ১০০ বছর ধরে এই পুজ হয়ে আসছে। প্রথমদিকে এটি বাড়ির পুজো হলেও পরবর্তীতে এটি সর্বজনীনে রূপ নেয়। এই পুজার ২২ ফুট দীর্ঘ প্রতিমার জনপ্রিয়তা দেশে-বিদেশে। সেই প্রতিমার আদলেই রিখিয়াকে সাজিয়েছেন মুক্তি রায়। তিনি জানান, বছর দশেক আগে প্রথম বার নৈহাটির বড় মায়ের পুজোয় যাই। ওই বিশাল মূর্তি আর তার ভাব দেখে আমার চোখে পানি চলে আসে। সেই মায়ের রূপই ফুটিয়ে তুলতে চেয়েছিলাম। প্রথমে ভয় এবয় দ্বিধা থাকলেও শেষ পর্যন্ত করে ফেললাম।

আরিয়ানের জামিন শুনানি আজ, টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়ার প্রস্তাব

যার শরীরে প্রতিমার আদল আঁকলেন শিল্পী, সেই রিখিয়ার বলেন, তাঁরা এক অসাধ্য সাধন করে ফেলেছেন। আবেগে ভাসছেন।বলেন আমরা জানতাম এই ছবি ভাইরাল হবে। কিন্তু এতটা হবে, বুঝতে পারিনি। প্রায় ৪-৫ ঘণ্টা সে দিন চোখ বুজে ছিলাম। চোখের উপর আঁকা শুরুর সময় থেকে ছবি তোলার সময় পর্যন্ত। তবে কেনো ক্লান্তি ছিল না। বড় মা মানে একটা আবেগের জায়গা। সেটা কোনও ভাবে আহত হলে আমাদের সমালোচনা করা হত, তাই সতর্ক ছিলাম। আজ সেটার ফল পাচ্ছি।

রিখিয়া মেকা-আপের সময় শুধু দাঁড়িয়ে থেকেছেন তাই নয়, চোখ বন্ধ করে ছবি তুলেছেন টানা ৪-৫ ঘণ্টা। সেই ছবিই এখন ভাইরাল। তবে মুক্তি ও রিখিয়ার দাবি, মানুষের এমন সাড়া তারা কেউ আশা করেনি। তাঁদের মনে হয়েছিল, কালীপুজোর কয়েক দিন আগে এই ছবি মুক্তি পেলে মানুষ হয়তো সাধুবাদ দেবেন, কিন্তু তা পরিণত হলো উচ্ছ্বাসে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

আসছে মিশন এক্সট্রিম

ফাতেমা কাউসার

আসছে মিশন এক্সট্রিম

অপেক্ষার পালা শেষ। আগামী ৩ ডিসেম্বর প্রেক্ষাগৃহে আসছে পুলিশি অ্যাকশন থ্রিলার সিনেমা “মিশন এক্সট্রিম”। গত ২৪ অক্টোবর রাজধানীর তেজগাও এ জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রকাশিত হলো সিনেমাটির ট্রেলার। এদিন প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের অতিরিক্ত আইজিপি মনিরুল ইসলাম।

গত দুই বছর দুই ঈদে মিশন এক্সট্রিম মুক্তির ঘোষণা দেয়া হলেও করোনার কারণে তা আলোর মুখ দেখেনি। তবে বর্তমান প্রেক্ষাপট কিছুটা পরিবর্তন হওয়ায় আগামী ৩ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে বহুল প্রতিক্ষীত সিনেমা “মিশন এক্সট্রিম”।

চলছে সিনেমাটির প্রচারণার কাজ। তারই অংশ হিসেবে রাজধানীতে এক জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে অ্যাকশন ও রহস্যঘেরা আবহে শ্বাসরুদ্ধকর ট্রেলার নিয়ে হাজির হয়েছেন আরিফিন শুভ, জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী, তাসকিন রহমান ও সাদিয়া নাবিলারা।

পুলিশি অ্যাকশন থ্রিলার সিনেমাটি সানী সানোয়ারের সঙ্গে যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন ফয়সাল আহমদ। এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন ‘মাসলম্যান’ খ্যাত অভিনেতা আরেফিন শুভ। রয়েছেন জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশিও।

আরও পড়ুন


যে কারণে শাহরুখের 'মান্নাতে' নিষিদ্ধ হল মিষ্টি

পুত্র আরিয়ান ছাড়া এবারের জন্মদিন কীভাবে কাটবে শাহরুখের ?

পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট তথা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ‘সিটিটিসি’র কিছু শ্বাসরুদ্ধকর অভিযান থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে এই সিনেমা নির্মিত। 
কপ ক্রিয়েশনের ব্যানারে নির্মিত সিনেমাটির প্রথম পর্ব  ৩ ডিসেম্বর একযোগে দেশ ও দেশের বাইরে মুক্তি পাবে।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

আরিয়ানের জামিন শুনানি আজ, টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়ার প্রস্তাব

অনলাইন ডেস্ক

আরিয়ানের জামিন শুনানি আজ, টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়ার প্রস্তাব

প্রমোদতরীতে মাদককাণ্ডে গ্রেফতার শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানের আজ মঙ্গলবার জামিন আবেদনের শুনানি মুম্বাই হাই কোর্টে। এ নিয়ে তৃতীয় বারের মত জামিনের আবেদন আরিয়ানের।

এর আগে দু’বার শাহরুখ-পুত্রের জামিনের আবেদন খারিজ করে দিয়েছিল আদালত। যুক্তি হিসেবে বলা হয়েছিল, জামিনে ছাড়া পেলে আরিয়ান তার বিরুদ্ধে যাবতীয় তথ্য ও প্রমাণ লোপাটের চেষ্টা করতে পারেন। যেহেতু তিনি এক জন তারকা পুত্র, তাই এ বিষয়ে নিজের প্রভাব প্রতিপত্তিও প্রমাণ লোপাটে কাজে লাগাতে পারেন। এমনটাই তদন্তকারী সংস্থা এনসিবি দাবি করেছিল। তবে এখন যখন ঘটনার তদন্তকারী খোদ এনসিবির কর্তার বিরুদ্ধেই তদন্তে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে, ফলে২৩ বছরের আরিয়ানের মুক্তি নিয়ে আশার আলো দেখছেন অনেকেই। ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে এ খবর উঠে আসে।  

প্রিতিবেদনে বলা হয়েছে, কেন্দ্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রক ব্যুরো এনসিবি কর্তা সমীরের বিরুদ্ধে আট কোটি টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ ওঠে। মাদক মামলার এক সাক্ষী প্রভাকর সইল একটি হলফনামায় জানিয়েছিলেন, শাহরুখ-পুত্রকে গ্রেফতার করার পর তাকে টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন সমীর। প্রভাকরের দাবি, এক সাক্ষীর মাধ্যমে এই মামলায় ২৫ কোটি টাকা দাবি করা হয়। যার মধ্যে ৮ কোটি টাকা সমীর নিজে নেবেন বলে জানিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন


যে কারণে শাহরুখের 'মান্নাতে' নিষিদ্ধ হল মিষ্টি

পুত্র আরিয়ান ছাড়া এবারের জন্মদিন কীভাবে কাটবে শাহরুখের ?


এনসিবির অন্দরে এই দুর্নীতির অভিযোগ আরিয়ানের জামিনের আবেদন নিয়ে আশার আলো দেখছে শাহারুখ- গৌরী।

এদিকে, জানা গেছে, ছেলের জন্য নবরাত্রিতে উপোস করেছিলেন গৌরী। মানত করেছেন, আরিয়ান না ফেরা পর্যন্ত কোনও মিষ্টি তৈরি হবে না ‘মান্নাত’-এ। মান্নাত এর কর্মীদের এমনই নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।   

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

মাদক মামলায় অনন্যাকে গ্রেফতারের পরিকল্পনা জোরালো হচ্ছে

অনলাইন ডেস্ক

মাদক মামলায় অনন্যাকে গ্রেফতারের পরিকল্পনা জোরালো হচ্ছে

আবার বলিউড অভিনেত্রী অনন্যা পাণ্ডেকে ডেকে পাঠাল জাতীয় মাদক নিয়ন্ত্রক ব্যুরো (এনসিবি)। মাদক মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে ডাকা হয়েছে বলে আনন্দবাজার সূত্রে জানা যায়। মুম্বাইয়ের প্রমোদতরী থেকে মাদক উদ্ধার হওয়ার ঘটনায় এই নিয়ে অভিনেত্রীকে তৃতীয়বার ডাকা হল। সেই সঙ্গে জোরাল হচ্ছে তাঁকে গ্রেফতারের পরিকল্পনা।

শাহরুখপূত্র আরিয়ান খানের সঙ্গে অভিনেত্রীর একটি হোয়াটসঅ্যাপ কথোপকথনের সূত্র ধরেে গত বৃহস্পতিবার প্রথম এনসিবি ডেকে পাঠায় অনন্যাকে। তার আগে অবশ্য অনন্যার বাড়িতে অভিযান চালান তদন্তকারীরা। সেখান থেকে একটি ল্যাপটপ এবং দু’টি মোবাইল ফোনও আটক করা হয়। পরে সেদিন অনন্যাকে এনসিবি-র দফতরে টানা ২ ঘণ্টা জেরা করা হয়। পরের দিন শুক্রবারেও তাকে ৪ ঘণ্টা জেরা করেন মাদক মামলার তদন্তকারীরা। অনন্যা যে আরিয়ানকে গাঁজার জোগান দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা-ও প্রকাশ্যে আসে এনসিবি পাওয়া হোয়াটসঅ্যাপ বার্তায়।

আমাকে গ্রেফতার করা হতে পারে : সমীর

অনন্যা  বিষয়টি ঠাট্টা বলে এড়িয়ে গিয়ে বলেছেন গাঁজা যে মাদক, তা তাঁর জানা ছিল না। তবে অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠ  সূত্রে জানা যায় মাদক মামলায় যে তাঁকে আবারও ডাকা হবে, তা আগেই বুঝতে ড়ারেন অনন্যা।তাই নিজের সমস্ত শ্যুটিংয়ের কাজও  কয়েক দিন পিছিয়ে দেস। অভিনেত্রীর আশঙ্কা সত্যি প্রমাণিত করে সোমবার আবারও মুম্বাইয়ে এনসিবি-র দফতরে অনন্যাকে ডেকে পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর