‌‘কষ্ট সহ্য করতে’ না পেরে স্বামীর বিশেষ অঙ্গ ও গলাকেটে হত্যা
‌‘কষ্ট সহ্য করতে’ না পেরে স্বামীর বিশেষ অঙ্গ ও গলাকেটে হত্যা

‌‘কষ্ট সহ্য করতে’ না পেরে স্বামীর বিশেষ অঙ্গ ও গলাকেটে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

কষ্ট সহ্য করতে না পেরে স্বামীর বিশেষ অঙ্গ ও গলাকেটে হত্যা করেছে স্ত্রী। এমন স্বীকারোক্তি দিয়েছেন তিনি। ভোলার লালমোহনের ঘটনা এটি।

পুলিশের কাছেও এমন ওই স্ত্রী জানিয়েছেন, স্বামী তাকে কষ্ট দিতো এই ক্ষোভ থেকে তিনি হত্যা করেছেন।

এর আাগে রোববার দুপুরে ভোলার লালমোহনে নিজ বসতঘর থেকে আব্দুল মান্নান বেপারী (৪০) নামের এক কাঠ ব্যবসায়ীর বিশেষ অঙ্গ ও গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

উপজেলার ধলিগৌরনগর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের দরবেশ বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার পর দুই সন্তান নিয়ে পালিয়ে যান ওই ব্যবসায়ীর স্ত্রী নূরুন্নাহার। সন্ধ্যার দিকে ওই ইউনিয়নের নতুন মসজিদ এলাকা থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।
 
ঘটনা নিয়ে রাতে লালমোহন থানায় প্রেস ব্রিফিং করেন ভোলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবুল কালাম আজাদ।  

এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, কাঠ ব্যবসায়ী আ. মান্নান বেপারীকে রোববার সকাল ৬টার দিকে নিজ ঘরে ঘুমন্ত অবস্থায় দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেন স্ত্রী নূরুন্নাহার। পরে নিজের ৫ ও ৭ বছরের দুই সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে যান তিনি।  

হত্যার ঘটনা স্বীকার করে স্ত্রী নূরুন্নাহার পুলিশকে বলেছেন, স্বামী তাকে কষ্ট দিতো, এ কারণে তিনি স্বামীকে হত্যা করেছেন।  

এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদি হয়ে লালমোহন থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

আরও পড়ুন:


প্রেমিকের গোপনাঙ্গ কর্তন প্রেমিকার

পরকীয়ার জেরে জবাইয়ের পর কেটে ফেলা হলো গোপনাঙ্গ!

ঘুমন্ত ‘প্রেমিকের’ গোপনাঙ্গ কাটলেন নারী, পরে গ্রেপ্তার

নিজের গোপনাঙ্গ ও গলাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম

পাঁচ বিভাগে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টির আশঙ্কা

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?

রাজপথে নামার আহ্বান মোশাররফ-মান্নার

বাগেরহাটে ৩ ঘণ্টা পর প্লাইউড ফ্যাক্টরির আগুন নিয়ন্ত্রণে


news24bd.tv তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর