রোমে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন

ইতালি প্রতিনিধি:

রোমে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন

বাংলাদেশ ক্রীড়া সংস্থা ইতালির আয়োজনে এবং বাংলাদেশ দূতাবাস রোমের সার্বিক সহযোগিতায় মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২১ বর্ণাঢ্য উদ্বোধন করা হয়েছে।

রোমের একটি  মাঠে এই টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করা হয়। জাতীয় ক্রীড়া সংস্থা ইতালির সভাপতি হাজী জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদের পরিচালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. শামীম আহসান।

আরও পড়ুন:


কনক সারোয়ারের সাথে বিএনপি নেতার কথোপকথন (অডিও) ফাঁস!

বিয়ের দিন সকালেই ধর্ষণের শিকার তরুণী, রাতে ভেঙে গেল বিয়ে!

সোমবার যে আমলটি করলে মনের আশা পূরণ হবে!

ট্রফি জয়ের ঘোষণা দিয়ে বিশ্বকাপে যাব: তামিম


বিশেষ অতিথি ছিলেন ইতালি আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী মো. ইদ্রিস ফরাজী, সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল। 

এ সময় বক্তব্য রাখেন ক্রীড়া সংস্থার পরিচালক সাজ্জাদুল কবির, সিনিয়র সহ সভাপতি আবু তাহের সহ রোমের রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। 

মোট ১০টি দল অংশগ্রহণ করেন। রাষ্ট্রদূত প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, খেলাধুলা সহ প্রবাসীদের সকল ভাল কাজের সাথে দূতাবাস বীগতদিনে সম্পৃক্ত ছিল আগামীতেও থাকবে। 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

অস্ট্রিয়ায় হিন্দু কমিউনিটির মানববন্ধন ও প্রতিবাদ র‍্যালী

হাসান তামিম, অস্ট্রিয়া

অস্ট্রিয়ায় হিন্দু কমিউনিটির মানববন্ধন ও প্রতিবাদ র‍্যালী

বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলা, ধর্ষণ ও সহিংসতা বন্ধের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ র‍্যালী করেছে হিন্দু কমিউনিটি অস্ট্রিয়া। 

বুধবার সকালে ভিয়েনাস্থ জাতিসংঘ সদর দপ্তরের সামনে মানববন্ধনে যোগ দেন অস্ট্রিয়ায় বসবাসরত হিন্দু ধর্মাবলম্বীসহ সর্বস্তরের জনগন। মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা  বাংলাদেশে সাম্প্রতিক সময়ে হিন্দু বাড়িতে আক্রমণ, প্রতিমা ভাংচুর এবং নির্যাতনের তীব্র নিন্দা ও দোষীদের দ্রুত গ্রেফতারের আহবান জানানো হয়। এছাড়াও হিন্দু কমিউনিটি অস্ট্রিয়ার পক্ষ থেকে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে বাংলাদেশে হিন্দু নির্যাতন বন্ধের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। 

মানববন্ধন শেষে হিন্দু কমিউনিটি অস্ট্রিয়ার পক্ষ থেকে এক প্রতিবাদ র‍্যালীর আয়োজন করা হয়। প্রতিবাদ র‍্যালীটি ভিয়েনাস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে এসে শেষ হয়। মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা বাংলাদেশ দূতাবাসের দূতালয় প্রধান তারাজুল ইসলামের নিকট  স্মারকলিপি হস্তান্তর করেন। 

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ র‍্যালীতে অংশগ্রহণকারীরা তাদের বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলা বেড়েই চলছে। এছাড়া পূর্বেও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের হামলার কোন বিচার হয়নি। বাংলাদেশ সরকারের উচিত হিন্দু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করে বিচার সুনিশ্চিত করা। 

পরবর্তী খবর

ট্রুডোর নেতৃত্বে ৩৯ সদস্যের মন্ত্রিসভার শপথ গ্রহণ

অনলাইন ডেস্ক

ট্রুডোর নেতৃত্বে ৩৯ সদস্যের মন্ত্রিসভার শপথ গ্রহণ

২৬ অক্টোবর মঙ্গলবার অটোয়ার রিডিও হলে কানাডার গভর্নর জেনারেল মেরী সাইমনের উপস্থিতিতে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর নেতৃত্বে ৩৯ সদস্যবিশিষ্ট কানাডার নতুন মন্ত্রিসভা শপথ গ্রহণ করে। 

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো তার মন্ত্রিসভার তালিকাতে গুরুত্বপূর্ণপদে যেমন প্রতিরক্ষা, স্বাস্থ্য, পররাষ্ট্র এবং পরিবেশসহ মূল মন্ত্রিসভাগুলোতে নতুন মন্ত্রীদের নামকরণ করেছেন। 

কানাডার কেবিনেট বা মন্ত্রীদের তালিকায় আছেন- কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো, কানাডার উপ-প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড, পরিবহন মন্ত্রী ওমর আলগাবরা, জাতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী অনিতা আনন্দ, মানসিক স্বাস্থ্য এবং আসক্তি মন্ত্রী এবং স্বাস্থ্যের সহযোগী মন্ত্রী ক্যারোলিন বেনেট, কৃষি ও কৃষি-খাদ্য মন্ত্রী মারি-ক্লদ বিবেউ, কানাডার কুইন্স প্রিভি কাউন্সিলের সভাপতি এবং জরুরী প্রস্তুতির মন্ত্রী বিল ব্লেয়ার, পর্যটন মন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রী র্যা ন্ডি বোয়সনল্ট, উদ্ভাবন, বিজ্ঞান ও শিল্পমন্ত্রী ফ্রাঁসোয়া-ফিলিপ শ্যাম্পেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জিন-ইভেস ডুকলোস, ট্রেজারি বোর্ড প্রেসিডেন্ট মোনা ফোর্টিয়ার, অভিবাসন, শরণার্থী এবং নাগরিকত্ব মন্ত্রী শন ফ্রেজার,  পরিবার, শিশু ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রী কারিনা গোল্ড, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী স্টিভেন গিলবল্ট, আদিবাসী পরিষেবা এবং উত্তর অন্টারিও ফেডারেল অর্থনৈতিক উন্নয়ন সংস্থার জন্য দায়ী মন্ত্রী প্যাটি হাজদু, হাউস অফ কমন্সে সরকারের নেতা মার্ক হল্যান্ড,

আরও পড়ুন:

সব ধর্মের মানুষের জন্য মাদ্রাসা উন্মুক্ত করে দেওয়া হোক : জাফরুল্লাহ

৬ শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা সাময়িক বহিস্কার

ইংল্যান্ড ম্যাচের আগে টাইগার শিবিরে বড় দুটি দুঃসংবাদ


 

আবাসন ও বৈচিত্র্য ও অন্তর্ভুক্তি মন্ত্রী আহমেদ হুসেন, গ্রামীণ অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রী গুডি হাচিংস, নারী, লিঙ্গ সমতা ও যুব মন্ত্রী মার্সি আইন, দক্ষিণ অন্টারিও জন্য ফেডারেল অর্থনৈতিক উন্নয়ন সংস্থার জন্য দায়ী মন্ত্রী হেলেনা জ্যাকজেকের, পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেলানি জোলি, সিনিয়র মন্ত্রী কমল খেরা, কানাডার বিচারমন্ত্রী এবং অ্যাটর্নি জেনারেল; ডেভিড ল্যামেটি, আন্তঃসরকার বিষয়ক, অবকাঠামো এবং সম্প্রদায়ের মন্ত্রী ডমিনিক লেব্লাঙ্ক, জাতীয় রাজস্ব মন্ত্রী ডায়ান লেবুথিলিয়ার,  ভেটেরান্স বিষয়ক মন্ত্রী এবং জাতীয় প্রতিরক্ষার সহযোগী মন্ত্রী লরেন্স ম্যাকওলে, জননিরাপত্তা মন্ত্রী মার্কো মেন্ডিসিনো, ক্রাউন-আদিবাসী সম্পর্ক মন্ত্রী মার্ক মিলার, মৎস্য, মহাসাগর এবং কানাডিয়ান কোস্ট গার্ড মন্ত্রী জয়েস মারে,  আন্তর্জাতিক বাণিজ্য, রপ্তানি উন্নয়ন, ক্ষুদ্র ব্যবসা ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রী মেরি এনজি, শ্রমমন্ত্রী সিমাসও রেগান, সরকারী ভাষা মন্ত্রী এবং আটলান্টিক কানাডা সুযোগ সংস্থার জন্য দায়ী মন্ত্রী জিনেট পেটিটপাস টেলর, কর্মসংস্থান, কর্মশক্তি উন্নয়ন এবং প্রতিবন্ধী অন্তর্ভুক্তি মন্ত্রী কার্লা কোয়ালট্রো, কানাডিয়ান হেরিটেজ এবং কুইবেকের মন্ত্রী লেফটেন্যান্ট পাবলো রদ্রিগেজ, আন্তর্জাতিক উন্নয়ন মন্ত্রী এবং কানাডার প্যাসিফিক ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট এজেন্সির দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হারজিত সজ্জন,  ক্রীড়া মন্ত্রী এবং কুইবেক প্যাস্কেল সেন্ট-ওঞ্জ অঞ্চলের জন্য কানাডার অর্থনৈতিক উন্নয়ন সংস্থার জন্য দায়ী মন্ত্রী পাসকেল সেন্ট-অনগে, পাবলিক সার্ভিস ও প্রকিউরমেন্ট মন্ত্রী ফিলোমেনা তাসি, উত্তর বিষয়ক মন্ত্রী, কানাডিয়ান নর্দান ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট এজেন্সির দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী ড্যান ভ্যান্ডাল এবং প্রাকৃতিক সম্পদ মন্ত্রী জনাথন উইলকিনসন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

মালদ্বীপ ইন্টারন্যাশনাল পিস অ্যাওয়ার্ড পেলেন ১৩ বাংলাদেশি

অনলাইন ডেস্ক

মালদ্বীপ ইন্টারন্যাশনাল পিস অ্যাওয়ার্ড পেলেন ১৩ বাংলাদেশি

সম্প্রতি প্রবাল দ্বীপমালার দেশ মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে ন্যাশনাল আর্ট গ্যালারিতে মালদ্বীপ ইন্টারন্যাশনাল পিস অ্যাওয়ার্ড বিতরণী অনুষ্ঠানে সম্মেলন সাফল্যের সঙ্গে শেষ হয়েছে। সম্মেলনে বিভিন্ন ইভেন্টে ১৩ বাংলাদেশীকে পদক তুলে দেন মালদ্বীপের মিস্টার অফ এসটেজ কালচার অফ হ্যারিটেইজ মো. তারিক।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এস্টেট মিনিস্টার মো. আকরাম, ডিরেক্টর অব ইন্ডিয়ান আর্ট কালচারার (বাই আই সি সি আর) হাইকমিশনার ড. সায়দা তারভির নাসরিন। প্রদর্শনীতে ৯০টা পেন্টিং ছিল। এতে ৩০ দেশের শিল্পীরা  অংশগ্রহণ করেন।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশি বিভিন্ন ইভেন্টে পদক গ্রহণ করেন শাওন চৌধুরি, আরিফুল ইসলাম জিয়া, ডক্টর হামিদা খানম, রাজিয়া সুলতানা ইতি, নার্গিস, অলিউর রহমান, হাফিজুর রহমান, প্রফেসর ড. রতন চন্দ্র সাহা, আব্দুল্লাহেল বাবলু,মোহাম্মদ সাদিউ জামান, স্বপন মিয়া (শাহরিয়ার স্বপন), শামসুল আলম ও মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন।

আরও পড়ুন:


পাগলীর জন্ম নেওয়া সন্তানের পিতা এমপি বদি

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে পাকিস্তান

শোয়েব মালিককে ‘দুলাভাই’ ‘দুলাভাই’ বলে ডাকল ভারতীয় দর্শকরা (ভিডিও)

উল্লেখ্য, মালদ্বীপস ইন্টারন্যাশনাল পিস অ্যাওয়ার্ড-২১এর বিভিন্ন ইভেন্টে পদক গ্রহণ করার জন্য বাংলাদেশ থেকে প্রতিনিধি দলটি ২২ অক্টোবর মালদ্বীপে আসে। এই প্রতিনিধি দলের ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজার হিসেবে কাজ করেন রাজশাহী আর্ট কলেজের প্রভাষক নারগিস পারভীন (সোমা)।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

অস্ট্রেলিয়াতে সম্প্রীতি সমাবেশ

মাসুম বিল্লাহ

অস্ট্রেলিয়াতে সম্প্রীতি সমাবেশ

বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলার বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে একটি সর্বদলীয় ও নাগরিক প্রতিবাদ সমাবেশ ও প্রতিরোধ ৱ্যালির আয়োজন করা হয়। বাসভূমি আয়োজিত এই সমাবেশের প্রতি অস্ট্রেলিয়ার ৪৬টি বাংলাদেশি সংগঠন একাত্মতা ঘোষণা করে প্রতিবাদ সমাবেশে অংশ নেয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি ড. রতন কুণ্ডু। অনুষ্ঠাটি সার্বিকভাবে পরিচালনা ও সঞ্চালনা করেন বাসভূমি কর্ণধার আকিদুল ইসলাম।

জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হওয়ার পর ঘটনায় আক্রান্ত ও নিহতদের উদ্দেশ্যে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উপর সংগীত পরিবেশন করেন মিসেস নিলুফা ইয়াসমিন ও ফারিয়া আহমেদ। বিপ্লবী ছড়া পাঠ করেন সুহৃদ সোহান হক।

অস্ট্রেলিয়াতে সম্প্রীতি সমাবেশ

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন,
বীর মুক্তিযোদ্ধা  এনায়েতুর রহিম, ড. সিরাজুল হক, রফিক উদ্দিন, ড. রফিক ইসলাম, ড. খায়রুল চৌধুরী, ড. নিজাম উদ্দিন আহমেদ, মিলি ইসলাম, মোঃ আব্দুল মতিন, নাঈম আব্দুল্লাহ, জাহাঙ্গীর আলাম, ফজলুল হক শফিক, আসলাম মোল্লা, আবুল হোসেন আব্দুল খান রতন, মেহেদী হাসান কচি, নির্মল পাল, আকাশ দে, দেলোয়ার হোসেন, শুভা শেঠি, মাসুদ চৌধুরী, মোবারক হোসেন, বিনয় সাহা, মিতা দে, একে এম এমদাদুল হক, ওসমান গনি, বিলকিস জাহান, মুস্তাফিজ তালুকদার মঞ্জু,  গোলাম ফারুক, উদয় শঙ্কর বড়ুয়া, পূরবী পারমিতা বোস, আব্দুস সালাম, মিতা দে, জাকারিয়া মামুন স্বপন, দিদার হোসেন, রণজিৎ দাশ, স্বপ্নিল দে প্রমুখ।

সম্প্রীতি সমাবেশের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেছে তাদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে-অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ  জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ, অস্ট্রেলিয়া, মহিলা আওয়ামীলীগ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ, সিডনি, বিজয়কণ্ঠ,  স্বদেশ বার্তা, বাংলা বার্তা, স্বাধীন কণ্ঠ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ অস্ট্রেলিয়া, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, সিডনি, ফাগুন হাওয়া, বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়া ফ্যাশন এসোসিয়েশন, বিডি হাব, সিডনি, আমাদের কথা, টেলিঅজ ফাউন্ডেশন, ইয়েস টিভি, নৃত্যাঞ্জলী ড্যান্স একাডেমী, অস্ট্রেলিয়া টাইমস, সিডনি প্রতিদিন, ভবের হাট, নটরাজ ড্যান্স একাডেমী, বাংলাদেশ এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটি এলুমনি, উইম্যান কাউন্সিল, কেয়ার ফর হিউমিনিটি, বাংলাদেশ খ্রিস্টিয়ান ফেলোশীপ, বুদ্ধিস্ট সোসাইটি, বি এস পি সি, রেডিও কেনবেরা, , মেলবোর্ন আওয়ামীলীগ, দিনলিপি, বাংলা স্কুল, বারডিয়া, প্রভাত, শ্রীকৃষ্ণ কীর্তন কমিটি, মাল্টিকালচারাল ইউথ এসোসিয়েশন, দেলোয়ার টিভি, ট্রুথ টিভি, বগুড়া সমিতি, অস্ট্রেলিয়া, জাতীয় সংবাদ সংগ্রহ সংস্থা, সিডনি শাখা, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন, সন্দ্বীপ এসোসিয়েশন অব, আগমনী, শঙ্খনাদ, ক্যাম্পবেলটাউন আই এম এল ডি মন্যুমেন্ট কমিটি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলুমনি।

বাংলাদেশ সরকারের কাছে হিন্দুদের সুরক্ষার জন্য বাসভূমি সমাবেশে থেকে ৬ দফা দাবী পেশ করা হয়।

আরও পড়ুন:

নিজের মেয়েকে হত্যা করতে গুগল সার্চ!

মা কালী সেজে জনগণকে তাক লাগালেন রিখিয়া

আরিয়ানের জামিন শুনানি আজ, টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়ার প্রস্তাব

১.হামলার একটি সম্পূর্ণ, নিরপেক্ষ এবং স্বাধীন তদন্ত শুরু এবং এই তদন্তের ফলাফল প্রকাশ।
২.হিন্দুদের বিরুদ্ধে নৃশংসতা ও সহিংসতাকারী অপরাধীদের বিচারের জন্য একটি বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন।
৩.সমাজে অবস্থান বা রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতা নির্বিশেষে হামলার সকল অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনা।
৪.সমস্ত ক্ষতিগ্রস্থদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ প্রদান এবং সমস্ত ক্ষতিগ্রস্ত ধর্মীয় স্থান, বাড়ি এবং ব্যবসার পুনর্নির্মাণ।
৫.হিন্দুদের সুরক্ষার জন্য বিশেষ আইন প্রণয়ন।
৬। বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের জন্য একটি পৃথক মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠা।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

টরোন্টোতে বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর আক্রমণ ও নির্যাতনের প্রতিবাদ

লায়লা নুসরাত, কানাডা

টরোন্টোতে বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর আক্রমণ ও নির্যাতনের প্রতিবাদ

আজ ২৪ অক্টোবর  বিকেলে প্রগ্রেসিভ ডেমোক্রেটিক ইনিশিয়েটিভ (PDI), কানাডার উদ্যোগে টরোন্টোতে, বাংলাদেশী হিন্দুদের উপর সাম্প্রতিক সহিংসতার নিন্দা জানাতে একটি মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে।

উদীচী কানাডা, টরন্টো ফিল্ম ফোরাম, রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী সংস্থা, পাঠশালা, জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন সহ অন্যান্য সংগঠন এই প্রতিবাদ সমাবেশে অংশগ্রহণ করে ।

বাংলাদেশের সরকার হিন্দু সম্প্রদায়কে নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় পিডিআই যুগ্ম আহ্বায়ক আজিজুল মালিক, বিদ্যুৎ রঞ্জন দে উভয়েই সরকারের তীব্র নিন্দা করেন। তারা অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার করে সারাদেশে শান্তি প্রতিষ্ঠার দাবি জানান।

নাসির উদ দুজা, প্রাক্তন ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি এবং পিডিআই কানাডার সংগঠক, ১৯৭২ সালের মূল সংবিধানে ফিরে যাওয়ার জোর দাবি জানান এবং এর প্রয়োজনীয়তার উপর আলোকপাত করেন। তিনি হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ন্যায্য ক্ষতিপূরণ এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অবিলম্বে পদত্যাগ দাবি করেন। তিনি সকল সচেতন বাংলাদেশীকে সকল দমন-পীড়ন ও অসাম্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান। 

আরও পড়ুন:

১০ দেশের রাষ্ট্রদূতকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করলো তুরস্ক

হাসপাতালে খালেদা জিয়াকে দেখতে কোকোর স্ত্রী

পুকুরে না, সেই গদা পাওয়া গেল বাড়ির ভেতরে!

ভারতের বিপক্ষে 'রণকৌশল' ফাঁস করলেন শাহিন আফ্রিদি


সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সুভাষ দাস, শাজাহান কামাল, আহমেদ হোসেন, ফারহানা আজিম শিউলী, শিবু চৌধুরী, দেবব্রত দে তমাল, শাহীন হাসান, টরন্টো স্কুল ছাত্রী সুকন্যা চৌধুরী প্রমুখ । 

পিডিআই কানাডার সমন্বয়ক মাহবুব আলম সমাবেশে অংশগ্রহণকারীদের নবনির্মিত "শহীদ মিনারের" দিকে শান্তিপূর্ণ সমাবেশের জন্য অনুরোধ করেন এবং সেখানে উদীচী শিল্পীদের সংগীত পরিবেশনার মধ্যদিয়ে প্রতিবাদ সভা সমাপ্ত হয়।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর