জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ পরিষদ অধিবেশনের (ইউএনজিএ) উচ্চ পর্যায়ের আলোচনায় যোগ দিয়েছেন। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় সকালে (বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা) সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দেন তিনি। আজ থেকে অধিবেশনে উচ্চ পর্যায়ের আলোচনা শুরু হয়েছে। ৭৬তম এ অধিবেশন চলবে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ২৪ সেপ্টেম্বর বক্তব্য রাখবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিগত বছরের মতো এবারও প্রধানমন্ত্রী বাংলায় ভাষণ দেবেন। এর আগে ১৯৭৪ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতিসংঘে বাংলায় তার ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) প্রধানমন্ত্রী ডারবান ডিক্লারেশন অ্যান্ড প্রোগ্রাম অব অ্যাকশন গ্রহণের ২০তম বার্ষিকী উপলক্ষে সাধারণ পরিষদের একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে যোগ দেবেন।

এছাড়া, তিনি ‘হোয়াইট হাউস বৈশ্বিক কোভিড-১৯ শীর্ষ সম্মেলন: মহামারির সমাপ্তি এবং আরও ভালো অবস্থা গড়ে তোলা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন এবং বক্তব্য রাখবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

সেদিন বিকেলে শেখ হাসিনা ‘রোহিঙ্গা সংকট: একটি টেকসই সমাধানের জন্য করণীয়’ শীর্ষক একটি উচ্চ পর্যায়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন এবং সেখানে পূর্বে-রেকর্ড করা বক্তব্য দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

২৩ সেপ্টেম্বর, প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘের সুইডিশ মিশন আয়োজিত ‘জাতিসংঘের সাধারণ কর্মসূচি: সমতা ও অন্তর্ভুক্তি অর্জনের পদক্ষেপ’ শীর্ষক নেতাদের নেটওয়ার্কের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।


তিনি জাতিসংঘ সদর-দফতরে জাতিসংঘ মহাসচিব কর্তৃক আহ্বান করা ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে দশক কর্মসূচির অংশ হিসেবে খাদ্য-ব্যবস্থা শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন।

নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনের সাইড-লাইনে শেখ হাসিনা বেশ কয়েকজন বিশ্বনেতার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবেন।

তাদের মধ্যে রয়েছেন ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেট ফ্রেডেরিকসেন, বার্বাডোসের প্রধানমন্ত্রী মিয়া আমোর মোটলি কিউসি, নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট, নেদারল্যান্ডের রানী ম্যাক্সিমা, মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মোহাম্মদ সোলিহ এবং ভিয়েতনামের প্রেসিডেন্ট এনগুয়েন জুয়ান ফাইক।

এছাড়া, তিনি জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস এবং ইইউ কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মিশেলের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা করবেন।

জাতিসংঘ অধিবেশন এবং নিউইয়র্কে অন্যান্য অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের পর প্রধানমন্ত্রীর ২৫-৩০ সেপ্টেম্বর ওয়াশিংটন ডিসি সফরের কথা রয়েছে।

আরও পড়ুন:


টাকার অভাবে বাঁচানো গেল না শরীরের বাইরে হৃৎপিণ্ড নিয়ে জন্মানো শিশুটিকে

কিশোরীকে স্বামীর ঘরে ঢুকিয়ে দরজা বন্ধ করে বাইরে পাহারা দেয় স্ত্রী

গাড়িচাপা দেওয়া ইসরাইলি ২ পুলিশের অবস্থা আশঙ্কাজনক

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?


 

যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে শেখ হাসিনা ৩০ সেপ্টেম্বর ওয়াশিংটন থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবেন এবং হেলসিঙ্কিতে যাত্রা বিরতির পর ১ অক্টোবর দেশে ফিরবেন।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশন শুরু হয়েছে গত ১৪ সেপ্টেম্বর। ওই দিন মালদ্বীপের আবদুল্লা শহীদ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনের সভাপতি হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন এবং অধিবেশন উদ্বোধন করেন।

করোনা মহামারির কারণে সাধারণ পরিষদ অধিবেশন হলে অনুমোদিত প্রতিনিধিদলের আকার সীমিত করা হয়েছে। জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে সদর দফতরে ভ্রমণের বদলে আগে ধারণ করা বিবৃতি প্রদানে উৎসাহিত করা হয়েছে।

এবারের অধিবেশনে ১০০টিরও বেশি রাষ্ট্র ও সরকার প্রধান ব্যক্তিগতভাবে উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ সংস্থাটির প্রধান নীতি নির্ধারণী কাঠামো।

১৭ সেপ্টেম্বর হেলসিঙ্কির উদ্দেশ্যে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে যান প্রধানমন্ত্রী। এরপর জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দিতে ১৯ সেপ্টেম্বর হেলসিঙ্কি থেকে নিউইয়র্কে যান তিনি।

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইতালি সফরের দেড় বছর পর এটি প্রধানমন্ত্রীর প্রথম বিদেশ সফর।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

পূজামণ্ডপের ঘটনাটি দুঃখজনক: বদিউল আলম মজুমদার

অনলাইন ডেস্ক

পূজামণ্ডপের ঘটনাটি দুঃখজনক: বদিউল আলম মজুমদার

সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার বলেছেন, গত ১৩ অক্টোবর কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে যে ঘটনা ঘটেছে তা অত্যন্ত দুঃখজনক।

এ সময় তিনি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, দোষীদের খুঁজে বের করে সঠিক বিচার করতে হবে। সেই সাথে সাধারণ কোন নাগরিক যেন হয়রানির শিকার না হতে হয় সেদিকেও প্রশাসনের নজর দিতে হবে। 

আরও পড়ুন: খালেদা জিয়ার পরবর্তী চিকিৎসা কী জানা যাবে ২১ দিন পর 

দুপুরে কুমিল্লা টাউনহলের মুক্তিযোদ্ধা কর্নারে সুজনের আয়োজনে “রাষ্ট্র ও সমাজে সুশাসন প্রতিষ্ঠায়, শুদ্ধাচার চর্চার বিকল্প নেই” জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল বাস্তবায়নে করণীয় শীর্ষক এক  নাগরিক সংলাপে বদিউল আলম এ সব কথা বলেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

ডেঙ্গুতে ২৪ ঘণ্টায় ১৯০ জন হাসপাতালে

অনলাইন ডেস্ক


ডেঙ্গুতে ২৪ ঘণ্টায় ১৯০ জন হাসপাতালে

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গেলো ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৯০ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তবে কারও মৃত্যু হয়নি। আক্রান্তদের অধিকাংশই রাজধানীর বাসিন্দা।

আজ বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এ তথ্য জানিয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়,  নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ১৫৪ জন রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে এবং ৩৬ জন ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এ নিয়ে বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৬১ জনে। ঢাকার ৪৬টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৭০৩ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৫৮ জন।

আরও পড়ুন: লিটন ও লাহিরুকে যে শাস্তি দিলো আইসিসি

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে আজ (২৫ অক্টোবর) পর্যন্ত হাসপাতালে সর্বমোট রোগী ভর্তি হয়েছেন ২২ হাজার ৬৮৮ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ২১ হাজার ৭৪০ জন রোগী। ডেঙ্গুতে এ সময়ে ৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

জলবাযু পরিবর্তনের ভয়াবহ বিরূপ প্রভাবে বাংলাদেশ

ডেস্ক রিপোর্ট

জলবাযু পরিবর্তনের ভয়াবহ বিরূপ প্রভাবে বাংলাদেশ

গত দুই দশকে জলবাযু পরিবর্তনে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ১০ টি দেশের তালিকা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। যেখানে ভয়াবহ বিপর্যয়ে পড়া দেশগুলোর তালিকায় বাংলাদেশসহ বেশিভাগই এশিয়ার। এরিমাঝে চলতি মাসের শেষে শুরু হতে যাওয়া জাতিসংঘের জলবায়ুবিষয়ক শীর্ষ সম্মেলন সফলতার দিকে তাকিয়ে রয়েছেন সবাই। এর আগেই জাতিসংঘ সতর্ক করে বলেছে,  সম্মেলন ব্যর্থতার ফল হবে আরো ভয়াবহ।

খুব অল্প সময়ের ব্যাবধানে বদলে যাচ্ছে সবুজ পৃথিবী। দেশে দেশে  রেকর্ড তাপমাত্রা, দাবদাহে পুড়ে যাচ্ছে বনাঞ্চল৷ দেখা দিচ্ছে অতিবৃষ্টি, বন্যা জলোচ্ছাস৷ আগামী ১৫ বছরেই পৃথিবীর তাপমাত্রা বাড়বে ১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যার ফলে একের পর এক বিপর্যয়ে পড়বে গোটা বিশ্ব। তবে এরিমধ্যে এর প্রভাব অনেকটায় দৃশ্যমান। গবেষকদের আশঙ্কা এই পরিবর্তনের ফলে ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলো বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে।

এ মাসে প্রবাসী আয় ১০০ কোটি ডলার ছাড়ালো

জলবাযুর পরিবর্তনে গেল ২০ বছরে যে ১০ টি দেশ সবচেয়ে বিপর্যয়ে পড়েছে তার তালিকায় রয়েছে বাংলাদেশ। গত ২০ বছরে বাংলাদেশে ১৮৫টিরে বেশি জলবায়ু পরিবর্তনজনিত বড় দুর্যোগ আঘাত হেনেছে। এতে ১১ হাজারের বেশি  মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। আর অর্থনৈতিক ক্ষতি হয়েছে ৩৭২ কোটি ডলার। ক্ষতিগ্রস্ত তালিকাতে রয়েছে মিয়ানমার, থাইল্যান্ড, নেপাল, পাকিস্তানের নাম। জলবাযু পরিবর্তনের এই প্রভাবে দেখা দিচ্ছে খাদ্য সংকট। ইথিওপিয়া, মাদাগাস্কার, দক্ষিণ সুদান, কেনিয়াসহ   অনেক দেশের  মানুষ দুর্ভিক্ষের মুখে। 

প্রতিবছরের মতো এবারেও ঘটা করে শুরু হতে যাচ্ছে জলবায়ুবিষয়ক শীর্ষ সম্মেলন। জাতিসংঘ জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার কমানোর যে লক্ষ্য দিয়েছে, তা থেকে সরে আসতে তদবির চালাচ্ছে এই আযোজকদের বড় অংশ। তাদের কর্মকান্ড যেন এই সম্মেলনকে আরো প্রশ্নবিদ্ধ করে তুলেছে। সম্মেলনকে ঘিরে বিক্ষোভ কেরছে পরিবেশবিদরা।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

খালেদা জিয়ার পরবর্তী চিকিৎসা কী জানা যাবে ২১ দিন পর

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়ার পরবর্তী চিকিৎসা কী জানা যাবে ২১ দিন পর

বায়োপসির জন্য আজ সোমবার সকালে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ছোট অস্ত্রোপচার করা হয় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানা যাবে আসলে তাঁর কী হয়েছে। এজন্য ১৫ থেকে ২১ দিন অপেক্ষা করতে হবে বলে জানিয়েছে চিকিৎসক।

আরও পড়ুন: খালেদা জিয়ার চামড়ার নিচে ফোসকার মতো হয়েছে

এ তথ্য জানান খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন।

এ সময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর উপস্থিত ছিলেন। 

বিকেলে গুলশানের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, ‘খালেদা জিয়ার মেডিকেল বোর্ড বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর দেখলেন ওনার একটি ছোট বায়োপসি করা প্রয়োজন। কারণ, ছোট একটা লাম্ব আছে এক জায়গায়। সে জন্য আজকে ছোট অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে বায়োপসি করা হয়েছে।’

জাহিদ হোসেন জানান, বায়োপসির প্রতিবেদন পেতে সময় লাগবে। কারণ, এর জেনেটিক স্টাডি করার প্রয়োজন। এ জন্য ১৫ থেকে ২১ দিন সময় লাগতে পারে। খালেদা জিয়ার পরবর্তী চিকিৎসা কী হবে, বায়োপসি প্রতিবেদনের ওপর নির্ভর করছে।

news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর

‘কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’ পাক হাইকমিশনারকে বললেন প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

‘কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’ পাক হাইকমিশনারকে বললেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন বাংলাদেশে নবনিযুক্ত পাকিস্তানের হাইকমিশনার ইমরান আহমেদ সিদ্দিকী। সোমবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এ সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোকে ক্ষুধা ও নিরক্ষরতার অভিশাপ থেকে মুক্ত করতে এবং এ অঞ্চলের জনগণের কল্যাণে কাজ করা উচিত।

তিনি আরও বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক প্রণীত বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতি হলো ‘সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’।

বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করে এসব কথা জানান।

তিনি আরও জানান, বৈঠকে হাইকমিশনার ইমরান আহমেদ সিদ্দিকী বলেন, পাকিস্তান বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে আগ্রহী।

হাইকমিশনার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বার্তার একটি মূল কপি শেখ হাসিনার কাছে হস্তান্তর করেন।

তিনি একটি ফটো অ্যালবাম, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১৯৭৪ সালে ওআইসি (অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন) শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নিতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পাকিস্তান সফরের ছবির পেইন্টিং এবং ভিডিও ফুটেজও উপহার দেন।

আরও পড়ুন: খালেদা জিয়াকে কেবিনে স্থানান্তর

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক স্মৃতি স্মারক হস্তান্তর করার জন্য প্রধানমন্ত্রী হাইকমিশনারকে ধন্যবাদ জানান।

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে পাকিস্তান কর্তৃক বাংলায় একটি ক্যালিগ্রাফি বই প্রকাশের প্রশংসা করেন।

সৌজন্য সাক্ষাতে অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন এবং প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর