তারেক রহমানকে কে নির্বাসিত করেছে?

অনলাইন ডেস্ক

তারেক রহমানকে কে নির্বাসিত করেছে?

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তারা (বিএনপি) চায় দেশকে অস্থিতিশীল করে তুলতে এবং আন্দোলনের নামে জনগণের সম্পদ বিনষ্ট করতে। বিএনপির নেতৃত্বে প্রতিক্রিয়াশীল একটি মহল দেশের অগ্রযাত্রার গতিকে থামিয়ে দিতে চায় বলেও মন্তব্য করেন সেতুমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে তার বাসভবনে ব্রিফিংকালে এ মন্তব্য করেন।

 করোনার স্থবিরতা কাটিয়ে জন-জীবনে গতি ফিরতে শুরু করেছে, মানুষ ফিরে পেতে শুরু করেছে চিরচেনা কোলাহল আর চাঞ্চল্য এমনটা জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের।

বলেন, এ সময়ে আমাদের সবার রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা এবং উন্নয়ন বান্ধব পরিবেশ নিশ্চিত করা জরুরি।

সরকার নাকি মানুষের আশা আকাঙ্ক্ষাকে পুরোপুরি নষ্ট করে দিচ্ছে বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আসলে বিএনপিই মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষার কোনো মূল্য দেয়নি।

আর্থ-সামাজিক প্রতিটি সূচকে বাংলাদেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে অদম্য গতিতে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, মানুষের মনে আশা জাগিয়েছে লাখ লাখ তরুণ প্রাণে স্বপ্ন জাগিয়েছে শেখ হাসিনা সরকার।

আরও পড়ুন: 


চাকরিচ্যুত সংবাদিকদের কাজে ফিরিয়ে নিতে আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর

কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এল মৃত ডলফিন

জাফরুল্লাহ এরশাদের দোসর: রিজভী

গুলশান লেকে নৌকাডুবি, যাত্রীরা সাঁতরে উঠে গেল পাড়ে


সরকার বেগম জিয়াকে বেআইনিভাবে সাজা দিয়ে বন্দী করে রাখেনি, বরং বেগম জিয়ার সাজা স্থগিত করে তাকে বাসায় থেকে চিকিৎসা গ্রহণের সুযোগ করে দিয়েছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আসলে বিএনপির কৃতজ্ঞতাবোধ নেই, থাকলে তারা শেখ হাসিনার উদার্যের কাছে কৃতজ্ঞ থাকত।

তারেক রহমানকে কে নির্বাসিত করে রেখেছে?  বিএনপি নেতারা বলেছেন সরকার নাকি তারেক রহমানকে নির্বাসনে রেখেছে। বিএনপি নেতাদের এই বক্তব্য অসংখ্য মিথ্যাচারের একটি বলে মনে করেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জানতে চান, কে মুচলেকা দিয়ে চিকিৎসার নামে দেশ থেকে পালিয়েছে। তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে রাজনীতি না করার শর্তে তিনি নিজেই দেশ থেকে পালিয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, সাহস থাকলে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনুন। রাজনীতি করতে হলে দেশের মাটিতেই করতে হবে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশের রাজনীতি টেমস নদীর ওপার থেকে ডাক দিলেই হবে না, তাতে দেশের জনগণ সাড়া দিবে না।
news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

হিন্দু ভাই-বোনদের ভয় নেই, আমরা সংখ্যালঘুবান্ধব সরকার: ওবায়দুল কাদের

তৌফিক মাহমুদ মুন্না

হিন্দু ভাই-বোনদের ভয় নেই, আমরা সংখ্যালঘুবান্ধব সরকার: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, হিন্দু ভাই-বোনদের বলব, আপনাদের ভয় নাই। শেখ হাসিনা আপনাদের সঙ্গে আছেন, আওয়ামী লীগ আছে। আমরা সংখ্যালঘুবান্ধব সরকার।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত এক সমাবেশে এ কথা বলেন তিনি। সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ‘সম্প্রীতি সমাবেশ’-এর আয়োজন করে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন সামনে রেখে আন্দোলনে ব্যর্থ বিএনপি আজকে সাম্প্রদায়িক শক্তিকে উসকে দিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায়। আমরা জানি, কাদের উসকানিতে এই অপশক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে।

তিনি আরও বলেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মাঠে থাকবে। যতদিন না সাম্প্রদায়িক শক্তির বিষদাঁত ভেঙে দিতে পারব, ততদিন আওয়ামী লীগ রাজপথে থাকবে। আওয়ামী লীগ এই অপশক্তিকে মোকাবিলা করবে।

আরও পড়ুন


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একই ইউপিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী স্বামী-স্ত্রী

দৃষ্টিহীনদের বিনামূল্যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন ঢাবির দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শাহীন আলম

গাজীপুর সাফারি পার্কে জেব্রা পরিবারে নতুন অতিথি

মনোনয়ন ফরমের আগেই ১০ হাজারে কিনতে হচ্ছে উপজেলা আ.লীগের দলীয় ফরম


আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, যারা এই সাম্প্রদায়িকতার বিষবাক্য ছড়াচ্ছে তাদের ভুলে যাওয়া উচিত নয়। এই দেশে যত মুসলমান, তার চেয়ে বেশি মুসলমান প্রতিবেশী দেশ ভারতে আছে। এখানে মাইনরিটিকে যদি আমরা ঝুঁকির মুখে ঠেলে দিই, ভারতে আমাদের চেয়ে বেশি সংখ্যক মুসলমান; তাদের জীবনের কথা, জানমালের কথা আমাদের ভাবতে হবে।

সভা শেষে বঙ্গবন্ধু এভিনিউ থেকে শোভাযাত্রা করে আওয়ামী লীগ।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে চলছে আওয়ামী লীগের সম্প্রীতি সমাবেশ

অনলাইন ডেস্ক

বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে চলছে আওয়ামী লীগের সম্প্রীতি সমাবেশ

সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের সম্প্রীতি সমাবেশ চলছে।

আজ সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ‘সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা’ কর্মসূচিটি শুরু হয়।

আরও পড়ুন:


গাজীপুর সাফারি পার্কে জেব্রা পরিবারে নতুন অতিথি

‘সংখ্যালঘু’ শব্দটি থাকা উচিত না

মনোনয়ন ফরমের আগেই ১০ হাজারে কিনতে হচ্ছে উপজেলা আ.লীগের দলীয় ফরম

ট্রলারে করে ঝুঁকি নিয়েই ফিরছে সেন্টমার্টিনে আটকা পর্যটকরা


আওয়ামী লীগের পাশাপাশি এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোও ঢাকার পাশাপাশি সারা দেশে এই কর্মসূচি পালন করছে।

কর্মসূচিতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা উপস্থিত রয়েছেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে আওয়ামী লীগের দলীয় ফরম বিক্রি

মনোনয়ন ফরমের আগেই ১০ হাজারে কিনতে হচ্ছে উপজেলা আ.লীগের দলীয় ফরম

আব্দুল লতিফ লিটু, ঠাকুরগাঁও

মনোনয়ন ফরমের আগেই ১০ হাজারে কিনতে হচ্ছে উপজেলা আ.লীগের দলীয় ফরম

ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র তোলার আগেই কিনতে হয়েছে উপজেলা আওয়ামী লীগের ফরম। আর প্রতিটি ফরম ১০ হাজার টাকা করে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত বাবুর বিরুদ্ধে।

এছাড়াও প্রতিটি ইউনিয়ন থেকে ৩ জনের নামের তালিকা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। যাদের নাম পাঠানো হয়েছে তারা হাইব্রিড আওয়ামী লীগার বা আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী। বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত ও মাদকের সাথে জড়িত আছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। যাদের জনপ্রিয়তা রয়েছে তাদের নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়নি বলেও অভিযোগ করেছেন অনেক প্রার্থী।

মঙ্গলবার খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনের তফসিলে রয়েছে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন। গত ১৪ অক্টোবর নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে শুরু হয় ফরম বিক্রি। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় চেয়ারম্যান প্রার্থীতার জন্য মোট ৪৮ জন দলীয় ফরম কিনেছেন ১০ হাজার টাকা করে। এর মধ্যে ফরম জমা দিয়েছেন ৪৭ জন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক চেয়ারম্যান প্রার্থী বলেন, এ ধরনের সিস্টেম কোথাও নেই। কিন্তু বালিয়াডাঙ্গীতে এভাবে ফরম বিক্রি করা হচ্ছে। ১০ হাজার টাকার নিচে কাউকে ফরম দেওয়া হচ্ছে না। ফরম না নিলে প্রার্থীর তালিকা কেন্দ্রে পাঠানো হবে না। ফলে বাধ্য হয়ে ফরম কিনেছেন চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। কিন্তু এখন প্রতি ইউনিয়ন থেকে তিনজনের নাম পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রে। যাদের নাম পাঠানো হয় নাই তাদের টাকা আর ফেরৎ দেওয়া হবে না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বলেন, ৫নং দুওসুও ইউপির চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ১০ হাজার টাকায় ফরম কিনেছি। সেই টাকা নাকি অফেরৎযোগ্য। আমার নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয় নাই।

ওই ইউপির আরেক চেয়ারম্যান প্রার্থী মজিবর রহমান বলেন, ১০ হাজার টাকায় দলীয় ফরম কিনেছি। কেন্দ্রে প্রার্থীদের তালিকা পাঠানোর জন্য এই ফরম বিক্রি করছে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত বাবু।

আরও পড়ুন


ট্রলারে করে ঝুঁকি নিয়েই ফিরছে সেন্টমার্টিনে আটকা পর্যটকরা

মহেশখালীতে সাবেক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা

পূজামণ্ডপ কেন্দ্রিক ‘অপ্রীতিকর ঘটনায়’ ৭১ মামলায় আটক ৪৫০

শুধু তামিম নয়, বিশ্বকাপ খেলতে চায়নি আরও একজন: পাপন


চারোল ইউপির চেয়ারম্যান প্রার্থী মোশারফ হোসেন বলেন, উপজেলা থেকে কেন্দ্রে তালিকা পাঠানোর জন্য প্রার্থীদের কাছে ফরম বিক্রি করা হচ্ছে। খরচের জন্য কিছু টাকা নিচ্ছে। তবে এটার কোনো নিয়ম নেই। তবুও যারা প্রার্থী তাদের কিনতেই হচ্ছে। আমি ১০ হাজার টাকায় ফরম কিনেছি। এলাকায় আমার জনপ্রিয়তা রয়েছে। নমিনেশন পেলে আমি জয়ী হব আশা করছি।

ফরম বিক্রির বিষয়টি স্বীকার করে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত বাবু বলেন, দলের ফান্ড গঠন করতে হবে। উপজেলায় আওয়ামী লীগ অফিস নির্মানের জন্য সকল প্রার্থীরা নিজ ইচ্ছায় টাকা দিয়েছে। তবে দলীয় ফরম ১০ হাজার টাকায় বিক্রির কোনো নিয়ম আছে কি-না এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন সকল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের সাথে আলোচনা করেই ফরমের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। এই টাকা সকলে নিজ ইচ্ছায় দিয়েছে কারো কাছে জোর করে নেওয়া হয় নাই।

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুহাম্মদ সাদেক কুরাইশী বলেন, টাকা দেওয়া ও নেওয়ার কোন নিয়ম নেই। তবে টাকা নেওয়া হলে, যে নিবে তাকে সেই দায়ভার গ্রহণ করতে হবে। আর কোন অনুপ্রবেশকারী জামাত শিবিরের কেও নমিনেশন পেলে তার নমিনেশন বাতিলের জন্য আমরা জেলা থেকে আবেদন করবো।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

তথ্য প্রতিমন্ত্রী শপথ ভঙ্গ করেছে, তার পদত্যাগ করা উচিত: জিএম কাদের

অনলাইন ডেস্ক

তথ্য প্রতিমন্ত্রী শপথ ভঙ্গ করেছে, তার পদত্যাগ করা উচিত: জিএম কাদের

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান রাষ্ট্রধর্ম মানি না বলে সংবিধান সংরক্ষণের শপথ ভঙ্গ করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের। তথ্য প্রতিমন্ত্রীর উচিত পদত্যাগ করা।

জাতীয় পার্টির বনানী কার্যালয়ে টাঙ্গাইল জেলা জাতীয় পার্টির নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সোমবার এসব কথা বলেন তিনি।

জি এম কাদের আরও বলেন, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে আওয়ামী লীগের উচিত তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে বহিষ্কার করা। ইচ্ছে করলেই ব্যবস্থা নিতে পারেন প্রধানমন্ত্রী। পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ দেশের ৯২ ভাগ মুসলমানের মনের আশা পূরণ করতেই রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ঘোষণা করেন। এর বিরুদ্ধে কোনো ষড়যন্ত্র দেশের মানুষ মেনে নেবে না।

আরও পড়ুন


বিসিবি সভাপতির কাঠগড়ায় তিন 'সিনিয়র' খেলোয়াড়

দলে পরিবর্তন, এক নজরে ওমানের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

আমি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, আমাকে সম্মান দিয়ে কথা বলুন : ডা. মুরাদ

শেখ রাসেলকে আঁকলো ছোট্ট সোনামনিরা


এ সময় বক্তব্য রাখেন পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু, প্রেসিডিয়াম সদস্য রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, লিয়াকত হোসেন খোকা, যুগ্ম মহাসচিব বেলাল হোসেন, কেন্দ্রীয় নেতা নুরুচ্ছফা সরকার, মোজাম্মেল হক, ছাত্র সমাজ সাধারণ সম্পাদক আল মামুন।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ধর্মবালম্বীদের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সম্প্রীতি বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

ধর্মবালম্বীদের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সম্প্রীতি বাংলাদেশ

সম্প্রীতি বাংলাদেশ দেশের বিভিন্ন স্থানে সনাতন ধর্মবালম্বীদের উপাসনালয়, বাড়িঘর ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। 

এক বিবৃতিতে সংগঠনের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় ও সদস্যসচিব মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল জানান, কুমিল্লায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পূজা এবং উৎসবের সময় এবং এর জের ধরে পরবর্তীতে দেশের বিভিন্ন স্থানে যে ঘটনা ঘটেছে, তা হাজার বছরের বাঙালি সংস্কৃতির সম্পূর্ণ বিপরীত। একটি চিহ্নিত গোষ্ঠী সম্প্রীতি ও বাঙালি সংস্কৃতির বহুত্ববাদকে চ্যালেঞ্জ করতে চাইছে।

সম্প্রীতি বাংলাদেশ এসব ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

সম্প্রীতি বাংলাদেশ মনে করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং জাতির পিতার অসাম্প্রদায়িক দর্শন বিনষ্ট করার এ এক পুরনো ষড়যন্ত্র। এ যেন নতুন বোতলে পুরনো নেশাদ্রব্য। দেশের পবিত্র সংবিধানে লিপিবদ্ধ অসাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির আঘাত সম্মিলিতভাবে রুখে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে সম্প্রীতি বাংলাদেশের নেতৃবৃন্দ। 

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


সম্প্রীতি বাংলাদেশ বিশ্বাস করে ষড়যন্ত্রকারী দুর্বৃত্তের সংখ্যা বেশি নয় এবং শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষের ঐক্যবদ্ধ শক্তিই পারে এ অপকর্ম রুখে দিতে। এ দেশের অতীত অভিজ্ঞতা সেটাই প্রমাণ করেছে।

ভুলে গেলে চলবে না যে জাতির পিতার আহ্বানে মহান একাত্তরে দেশের মুসুলমান-হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টানসহ সকল ধর্মের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে শত্রুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেছিলে। সকল ধর্মবিশ্বাসী বাঙালির মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে অর্জিত অসাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে চিরতরে রুখে দেওয়ার জন্য সরকারের পাশাপাশি সকল মানুষ বিশেষ করে যুবসমাজকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানায় সম্প্রীতি বাংলাদেশ।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর